X
বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
১৯ মাঘ ১৪২৯

বাণিজ্য মেলায় ছাড়ের নামে প্রতারণা, ক্রেতাদের ক্ষোভ

জাহাঙ্গীর মাহমুদ, রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ)
২৪ জানুয়ারি ২০২৩, ২২:৫১আপডেট : ২৪ জানুয়ারি ২০২৩, ২২:৫১

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার ২৭তম আসর শেষের দিকে। মঙ্গলবার ছুটির দিন না হলেও মেলায় দর্শনার্থীদের ভিড় দেখা গেছে। এদিকে ক্রেতা টানতে ব্যবসায়ীরা পণ্যের ওপর বিশেষ ছাড় দিয়ে কৌশল অবলম্বন করেছেন।

তবে ক্রেতাদের অভিযোগ, মেলায় ভালমানের নামিদামি কোম্পানিগুলো ছাড়া অনেক স্টল মালিকরা ছাড়ের নামে ক্রেতাদের সঙ্গে প্রতারণা করছেন। অনেক স্টলেই নির্ধারিত পণ্যের ওপর চড়া মূল্য বসিয়ে ছাড় দিয়ে পণ্য বিক্রি করছেন। এতে অনেক ক্রেতাই লোভে পড়ে প্রতারিত হয়ে পণ্য কিনছেন।

সরেজমিনে দেখা গেছে, ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় এবারের আসরে মোট ৩৩১টি স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। আরএফএল, বেঙ্গল, নেসলে, আকতার ফার্নিচার, নাদিয়া ফার্নিচার, হাতিল ফার্নিচারসহ স্কয়ারের মতো বড় প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি অন্যান্য অপরিচিত প্রতিষ্ঠানও অংশ নিয়েছে। নামিদামি প্রতিষ্ঠানগুলোর বিক্রির কোনও টার্গেট থাকে না। তারা মেলায় আসা দর্শনার্থীদের কাছে নিজেদের পণ্যকে পরিচিত করতে মেলায় অংশ নেয়। তবে অন্যান্য প্রতিষ্ঠানগুলো মেলায় আসে অধিক মুনাফার উদ্দেশ্যে।

বাণিজ্য মেলায় ছাড়ের নামে প্রতারণা, ক্রেতাদের ক্ষোভ

প্রথম ১০ দিন মেলা জমে না উঠলেও এরপর থেকে পুরোপুরি জমে উঠেছে। মেলা শেষের দিকে হওয়ার কারণে মেলায় দর্শনার্থী ও ক্রেতার সংখ্যা অনেক বেড়েছে। দর্শনার্থী বাড়ায় বেশি বিক্রির উদ্দেশ্যে ব্যবসায়ীরা তাদের পণে ছাড় দিচ্ছেন। তাতে ক্রেতারা পণ্য কিনছেন নিজেদের পছন্দমতো।

মেলায় সবচেয়ে বেশি ভিড় দেখা গেছে গৃহস্থালি পণ্যের স্টলগুলোয়। এখানে এক আইটেমের পণ্য কিনলে ৯টি আইটেম ফ্রি। এ ছাড়া এসব পণ্যে বিভিন্ন প্রকার লোভনীর ছাড় দিতে দেখা গেছে।

ক্রেতাদের আরও অভিযোগ, পণ্যের দাম বেশি দিয়ে তার ওপর ছাড় দিচ্ছেন ব্যবসায়ীরা। এটি তাদের একটা প্রতারণার ফাঁদ। একই দৃশ্য দেখা যায় শীতকালীন বস্ত্রের দোকানগুলোয়। এখানে পণ্যে ছাড়ের নামে চলছে প্রতারণা। মেলার ভেতরে স্টলগুলোয় ছাড় দেওয়ার পর শীতকালীন পণ্যের দাম যা দেওয়া রয়েছে, অথচ মেলার বাইরে অন্য মার্কেটগুলোয় সে পণ্যের দাম ছাড়া একই। এ ছাড়া দেশীয় কাপড়কে বিদেশি কাপড় বলে বিক্রির অভিযোগও পাওয়া গেছে।

বাণিজ্য মেলায় ছাড়ের নামে প্রতারণা, ক্রেতাদের ক্ষোভ

রূপগঞ্জের রূপসী কাজীপাড়া এলাকা থেকে মেলায় এসেছেন আবুল কালাম আজাদ। জিনিসপত্রে দাম সম্পর্কে কথা হলে তিনি বলেন, ‘মেলায় জিনিসপত্রের দাম যেন আগুন। আমি এসেছিলাম পরিবারের জন্য কিছু কেনাকাটা করতে। কিন্তু জিনিসপত্রের দাম অনেক বেশি। স্টলগুলোতে ছাড় দিয়ে পণ্যের দাম যা ধরা হয়েছে। এর চেয়ে কম দামে বাইরের দোকানেই পাওয়া যায়। যেটি অনেক হতাশাজনক। এতে অনেক ক্রেতাই প্রতারিত হচ্ছেন।’

কথা হয় আক্তার মিয়া নামে এক ক্রেতার সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘মেলা শেষের দিকে হওয়ায় মেলায় পরিবার-পরিজন নিয়ে ঘুরতে এসেছিলাম। স্ত্রী ও মায়ের জন্য শাল কিনতে একটি কাপড়ের দোকানে যাই। গিয়ে দেখি সেখানে দেশীয় শালকে কাশ্মীরি শাল বলে বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা। আর ক্রেতারাও না বুঝে সেগুলো কাশ্মীরি শাল হিসেবে বেশি দাম দিয়ে কিনে নিচ্ছেন।’

রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকা থেকে আসা নাসরীন আলীম বলেন, ‘ঘরের জন্য কিছু গৃহস্থালির কেনাকাটা করতে মেলায় এসেছিলাম। কিন্তু এসে দেখলাম মেলার অনেক প্রতিষ্ঠানই ছাড়ের নামে প্রতারণা করছে। যেটি দেখি ভালো লাগেনি। এ ছাড়া যেসব কাপড় নিউ মার্কেটে ৫০০ থেকে ৮০০ টাকায় বিক্রি করা হয়, সেসব পণ্য মেলায় ছাড় দিয়ে দেড় থেকে দুই হাজার টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে।’

বাণিজ্য মেলায় ছাড়ের নামে প্রতারণা, ক্রেতাদের ক্ষোভ

রাজধানীর মধ্য বাড্ডা এলাকার রিয়াদ মিয়া বলেন, ‘স্ত্রীকে নিয়ে মেলায় ঘুরতে এসেছি। কাপড়েরর দোকানে গিয়ে দেখি জিনিসপত্রের দাম অনেক বেশি। অনেক দোকানেই পণ্যের ওপর মূল্য ছাড়ের কাগজ লাগানো রয়েছে। ১ হাজার থেকে ১৫০০ টাকার জিনিসে ৩ থেকে ৪ হাজার টাকা লাগিয়ে ৪০ শতাংশ থেকে ৫০ শতাংশ ছাড় দিয়ে একটা মূল্য নির্ধারণ করে মূল্যের কাগজ লাগানো হচ্ছে। এটা প্রতারণা। এসব বিষয়ে ভোক্তা অধিকারের নজর দেওয়া উচিত। না হয় মেলায় আসার আগ্রহ হারাবে মানুষ।’

এ ব্যাপারে কয়েকজন ব্যবসায়ী বলেন, ‘আমরা অনেক টাকা দিয়ে স্টল নিয়েছে। তা ছাড়া দোকানের কর্মচারী, অতিরিক্ত বাড়ি ভাড়া গুনতে হয়েছে। এ কারণে মেলায় মেলায় পণ্যের দাম কিছুটা বেশি। তবে পণ্যে ছাড়ের নামে প্রতারণা বিষয়টি সম্পূর্ণ মিথ্যা। মেলা শেষের দিকে হওয়ায় আমরা নির্দিষ্ট মূল্যের চেয়ে ছাড় দিয়ে পণ্য বিক্রি করে ফেলছি।’

বাণিজ্য মেলায় ছাড়ের নামে প্রতারণা, ক্রেতাদের ক্ষোভ

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়েরর রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) সচীব ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘মেলায় আগের চেয়ে লোকসমাগম বেড়েছে। মেলায় ভোক্তা অধিকার সংক্ষণ অধিদফতর নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করছে। কোথাও কোনও অসংগতি পেলে তারা জরিমানা করছে ব্যবসায়ীদের। এ ছাড়া ভোক্তারা চাইলে অভিযোগ করতে পারবেন ভোক্তা অধিদফতরের কাছে।’

/এনএআর/
সর্বশেষ খবর
জলাভূমি রক্ষা ও পুনরুদ্ধারে সরকার দৃঢ় প্রতিজ্ঞ: শাহাব উদ্দিন
জলাভূমি রক্ষা ও পুনরুদ্ধারে সরকার দৃঢ় প্রতিজ্ঞ: শাহাব উদ্দিন
শাহজালালে সাড়ে তেরো কোটি টাকার ১৪ কেজি সোনার বার জব্দ
শাহজালালে সাড়ে তেরো কোটি টাকার ১৪ কেজি সোনার বার জব্দ
মেলায় আবু আলীর বই ‘টেমস থেকে নীলনদ’
মেলায় আবু আলীর বই ‘টেমস থেকে নীলনদ’
জয় দিয়ে সাফ মিশন শুরু করতে চাইছে বাংলাদেশ
জয় দিয়ে সাফ মিশন শুরু করতে চাইছে বাংলাদেশ
সর্বাধিক পঠিত
বগুড়া-৪ আসনের উপনির্বাচনে ৬৩ কেন্দ্রে এগিয়ে হিরো আলম
বগুড়া-৪ আসনের উপনির্বাচনে ৬৩ কেন্দ্রে এগিয়ে হিরো আলম
‘এবারের জয় ছিল স্মরণকালের, সরকারের প্রতি সমর্থন থাকবে’
‘এবারের জয় ছিল স্মরণকালের, সরকারের প্রতি সমর্থন থাকবে’
বগুড়া-৬ আসনের উপনির্বাচনে ১৩২ কেন্দ্রে এগিয়ে নৌকার প্রার্থী, হিরো আলম তৃতীয়
বগুড়া-৬ আসনের উপনির্বাচনে ১৩২ কেন্দ্রে এগিয়ে নৌকার প্রার্থী, হিরো আলম তৃতীয়
সংসদ থেকে পদত্যাগ করে আবারও এমপি হলেন সাত্তার ভূঁইয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে উপনির্বাচনসংসদ থেকে পদত্যাগ করে আবারও এমপি হলেন সাত্তার ভূঁইয়া
হিরো আলমকে হারিয়ে এমপি হলেন তানসেন
হিরো আলমকে হারিয়ে এমপি হলেন তানসেন