X
রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪
৮ বৈশাখ ১৪৩১

বইমেলায় ফুল বেচে হাসি ফুটছে পথশিশুদের মুখে

আবিদ হাসান
০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০০:০০আপডেট : ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০০:০০

বইমেলায় পাঠকদের বড় অংশই নারী। মেলায় ঢুকে চোখের সামনে পড়তেই ফুল কিনছেন তারা। কেউ নিজের জন্য কিনছেন, কেউ কিনে দিচ্ছেন পুরুষ সঙ্গীকে। আবার ফুলের টায়রা মাথায় দিয়ে দলবেঁধে ঘোরাঘুরিতে মাতোয়ারা থাকেন কিশোরী-তরুণীরা। ক্রেতাদের কাছে ফুল বিক্রি করে উচ্ছ্বসিত পথশিশুরা। এতে তাদের আয়ও হচ্ছে ভালো।

জানা গেছে, মেলায় ফুল বিক্রি করে আড়াই থেকে তিন হাজার টাকা আয় করছে তারা। শুধু ফুল নয়, একদল পথশিশু বেলুনও বিক্রি করছে। তাদেরও আয় হচ্ছে আশানুরূপ।

এদিকে মেলায় ঘুরে ঘুরে বই দেখতে দেখতে যেসব পাঠক হাঁপিয়ে উঠছেন, তারাই একটু বিশ্রাম নেন, এ সময় তারা কফি পান করছেন। বইমেলায় দিনে দেড় থেকে দুই হাজার কাপ কফি বিক্রি হচ্ছে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা। তবে প্রতি কাপে ১০ টাকা ভর্তুকি দিচ্ছেন বলে দাবি করেন তারা।

ফুলের টায়রা মাথায় দিয়ে স্টলে ঘুরছেন পাঠকরা

শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) অমর একুশে বইমেলায় সরেজমিনে দেখা যায়, সকাল থেকে পাঠক-দর্শনার্থীদের উপস্থিতি তেমন একটা না থাকলেও, বিকাল ৪টার পর থেকে বাড়তে শুরু করে ভিড়। তবে মেলায় শনিবার বিকালে যারা এসেছেন, তাদের আগ্রহ বইয়ের চেয়ে ফুলেই ছিল বেশি।

মেলা ঘুরে দেখা যায়, ফুলের টায়রা মাথায় দিয়ে কেউ বান্ধবীদের সঙ্গে দলবেঁধে আবার কেউ অভিভাবকদের সঙ্গে মেলার এক স্টল থেকে আরেক স্টলে ঘুরছে। তারা বই হাতে নিয়ে ছবি তুলছেন স্টলে গিয়ে। তবে বই কেনাতে তেমন আগ্রহ নেই তাদের মধ্যে।

মেলার প্রথম ছুটির দিনগুলোয় দর্শনার্থী গত বছরের চেয়ে একটু কম। তবে মেলার প্রথম দিকে বিক্রি আশাব্যঞ্জক বলে জানান প্রকাশকরা। নানাভাবে মেলার সৌন্দর্য বাড়লে দর্শনার্থীরও ঢল নামে।

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ফুল বিক্রি করছিল ভাবনা। ক্রেতার সঙ্গে দরদাম করছিল সে। ফুল বিক্রির আয় সম্পর্কে জানতে চাইলে ভাবনা জানায়, দুই হাজার টাকার ফুল বিক্রি করে স্বাভাবিকভাবে আড়াই-তিন হাজার টাকা লাভ হয়। কখনও আরও কম হয়, আবার কখনও চালান তুলতেই কষ্ট হয়। তবে বইমেলায় তার ভালোই লাভ হচ্ছে বলে জানায়।

বেশির কিশোরী-তরুণী ঘোরাঘুরিতে মাতোয়ারা থাকেন

আরেক ফুল বিক্রেতা সজীব জানায়, বিভিন্ন অনুষ্ঠান আর দিবস উপলক্ষে তাদের ফুল বিক্রির আয় নির্ভর করে। বইমেলার সময়টা বিক্রি মোটামুটি ভালোই।

মেলায় বেলুন বিক্রি করছে রুপালি। তার প্রতিটি বেলুনের দাম ২০ টাকা। তার কাছে জানতে চাইলে কিছু হতাশা নিয়ে বলে, মাইনসে দাম কয় কম। হের লাইগা দেই না। তয় ৫০০ টাকার বেলুন বিক্রি করলে ২০০ থেকে ২৫০ টাকা থাকে।

বইমেলায় কফি বিক্রির অনুমতি পেয়েছে ‘আমা কফি’। তাদের ব্যবস্থাপক মো. মিজানুর রহমান জানান, মেলায় তাদের চারটি স্টল রয়েছে। এখানে দৈনিক দেড়-দুই হাজার কাপ কফি বিক্রি হয়। প্রতি কাপ কফি ২০ টাকায় বিক্রি হলেও, এতে ৩০ টাকা খরচ হচ্ছে বলে দাবি করেন তিনি। তবে কফির মান নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন ক্রেতারা।

মেলায় নতুন বই
শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) অমর একুশে বইমেলা ২০২৪-এর তৃতীয় দিন মেলায় নতুন বই এসেছে ৭৪টি। এর মধ্যে গল্পের ৪টি, উপন্যাস ২০টি, কবিতা ২১টি, গবেষণা ১টি, ছড়া ১, জীবনী ৩টি, মুক্তিযুদ্ধ ১টি, নাটক ১টি, বিজ্ঞান ১টি, ইতিহাস ২টি, রাজনীতি ১টি, স্বাস্থ্য ১টি, রম্য ১টি, ভ্রমণ ৪টি, অনুবাদ ৫টি ও অন্যান্য ১টি।

শিশুদের মধ্যে বই দেখার প্রবণতা থাকলেও কেনার আগ্রহ কম

মূল মঞ্চের আয়োজন
এদিন বিকাল ৪টায় বইমেলার মূল মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় দ্বিশত জন্মবার্ষিক শ্রদ্ধাঞ্জলি: মাইকেল মধুসূদন দত্ত শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন রফিকউল্লাহ খান। আলোচনায় অংশ নেন খসরু পারভেজ ও হোসনে আরা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মুহম্মদ নূরুল হুদা।

আলোচনায় প্রাবন্ধিক রফিকউল্লাহ খান বলেন, বাংলা সাহিত্যে মাইকেল মধুসূদন-বিচার কেবল মননশীল সাহিত্য-সমালোচনার বিষয় নয়, সমগ্র ঊনবিংশ শতাব্দীর ব্যক্তিসত্তা, সমাজসত্তা ও সৃষ্টিশীলতার জাগরণ এবং সাহিত্যের প্রায় সব রূপের উন্মেষ ও প্রতিষ্ঠার বহুমুখী পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও সাফল্যের ইতিবৃত্ত। নাটক, আখ্যান-কাব্য, গীতিকবিতা, চতুর্দশপদী, পত্র-কাব্য, গ্রিক মহাকাব্যের গদ্যানুবাদ, ইংরেজি রচনা ও চিঠিপত্র মিলিয়ে তার সৃষ্টিশীল প্রতিভার প্রকাশরূপ বিভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে মূল্যায়িত হয়েছে। তার কিংবদন্তিতুল্য জীবন ও কর্মের সম্পূর্ণ বাস্তবসম্মত রূপ অঙ্কনের প্রয়াস আজও চলমান।

সভাপতির বক্তব্যে মহাপরিচালক মুহম্মদ নূরুল হুদা বলেন, বাংলা সাহিত্যের আদি আধুনিক কবি মাইকেল মধুসূদন দত্ত। তিনি এমন একজন সৃষ্টিশীল সত্তা, যিনি বিভিন্ন ভাষায় দক্ষতা অর্জন করেছিলেন, বিভিন্ন ভাষার মৌলিক সাহিত্য পাঠ করেছিলেন এবং নিজস্ব মৌলিকতা সৃষ্টি করেছিলেন। তার এই মৌলিকতাকেই আমরা বলি আধুনিকতা। দ্বিশততম জন্মবর্ষে তাকে নতুনভাবে মূল্যায়ন করা অবশ্যই প্রাসঙ্গিক।

নানাভাবে মেলার সৌন্দর্য বাড়লে দর্শনার্থীরও ঢল নামে

লেখক বলছি
লেখক বলছি অনুষ্ঠানে নিজেদের নতুন বই নিয়ে আলোচনা করেন কবি সাইফুল্লাহ মাহমুদ দুলাল, কথাসাহিত্যিক ও অনুবাদক সালেহা চৌধুরী, লালন গবেষক আবু ইসহাক হোসেন এবং কবি ও প্রাবন্ধিক মামুন মুস্তাফা।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে কবিতা পাঠ করেন কবি নাসির আহমেদ, তারিক সুজাত, শাহনাজ মুন্নী এবং নাহার মনিকা। আবৃত্তি পরিবেশন করেন আবৃত্তিশিল্পী মিলন কান্তি দে, শাহাদাৎ হোসেন নিপু এবং আফরোজা কণা।

এ ছাড়া ছিল ঝর্ণা আলমগীরের পরিচালনায় সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘ক্রান্তি শিল্পীগোষ্ঠী’ এবং লক্ষ্মীকান্ত হাওলাদারের পরিচালনায় সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘শেখ রাসেল ললিতকলা একাডেমি’র পরিবেশনা। সংগীত পরিবেশন করেন কণ্ঠশিল্পী সাজেদ আকবর, সালমা আকবর, লাইসা আহমেদ লিসা, অনুরাধা মণ্ডল, মুহা. আব্দুর রশীদ, সঞ্চিতা রাখি ও পাপড়ি বড়ুয়া।

রবিবারের সময়সূচি
রবিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) অমর একুশে বইমেলার চতুর্থ দিন, মেলা শুরু হবে বিকাল ৩টায়, চলবে রাত ৯টা পর্যন্ত। বিকাল ৪টায় বইমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে ‘স্মরণ: কাঙাল হরিনাথ মজুমদার’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান।

প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন তপন মজুমদার। আলোচনায় অংশ নেবেন জাফর ওয়াজেদ ও আমিনুর রহমান সুলতান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন মুনতাসীর মামুন।

/এনএআর/
সম্পর্কিত
চট্টগ্রামে জব্বারের বলী খেলা ২৫ এপ্রিল থেকে
ঢাকায় প্রাণিসম্পদ মেলা শুরু বৃহস্পতিবার
যশোরে শুরু হচ্ছে ১০ দিনব্যাপী বৈশাখী মেলা
সর্বশেষ খবর
মিয়ানমার নৌবাহিনীর গুলিতে বিদ্ধ বাংলাদেশি ২ জেলে
মিয়ানমার নৌবাহিনীর গুলিতে বিদ্ধ বাংলাদেশি ২ জেলে
সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার তৃতীয় গ্রুপের ফল প্রকাশ
সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার তৃতীয় গ্রুপের ফল প্রকাশ
জবিতে পরীক্ষা বন্ধ, ক্লাস অনলাইনে
জবিতে পরীক্ষা বন্ধ, ক্লাস অনলাইনে
ট্রেনিং নেই তবু মাস্টার ট্রেইনার
ট্রেনিং নেই তবু মাস্টার ট্রেইনার
সর্বাধিক পঠিত
সারা দেশে স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসায় ছুটি ঘোষণা
সারা দেশে স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসায় ছুটি ঘোষণা
সোনার দাম কমেছে, আজ থেকেই কার্যকর
সোনার দাম কমেছে, আজ থেকেই কার্যকর
মুখোমুখি ইরান-ইসরায়েল, পরীক্ষার মুখে মার্কিন সামরিক কৌশল
মুখোমুখি ইরান-ইসরায়েল, পরীক্ষার মুখে মার্কিন সামরিক কৌশল
ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট, হিন্দু মহাজোট ‘নেতা’ পুলিশ হেফাজতে
ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট, হিন্দু মহাজোট ‘নেতা’ পুলিশ হেফাজতে
জানা গেলো বেইলি রোডে আগুনের ‘আসল কারণ’
জানা গেলো বেইলি রোডে আগুনের ‘আসল কারণ’