নাজমুল হুদার মামলায় এস কে সিনহাকে অব্যাহতির সুপারিশ দুদকের

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৭:৫৩, জানুয়ারি ১৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:২২, জানুয়ারি ১৪, ২০২০

সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার (এস কে সিনহা) ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার দায়ের করা মামলায় সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহাকে (এসকে সিনহা) অব্যাহতি দেওয়ার সুপারিশ করে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সত্যব্রত সিকদারের আদালতে প্রতিবেদনটি উপস্থাপন করা হয়। এরপর বিচারক ‘দেখিলাম’ মর্মে স্বাক্ষর করেন এবং পরবর্তী কার্যক্রমের জন্য মামলাটি ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। আদালতে দুদকের সাধারণ নিবন্ধন শাখার (জিআর) কর্মকর্তা জুলফিকার আলী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
এর আগে গত ৪ ডিসেম্বর নাজমুল হুদার করা মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা দুদক পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন অভিযোগের বিষয়ে সত্যতা পাননি বলে একটি প্রতিবেদন দাখিল করেন। প্রতিবেদনে তিনি উল্লেখ করেন, সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাটি ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে করেছেন। তাই এস কে সিনহাকে এ মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়ার সুপারিশ করেন এ তদন্ত কর্মকর্তা।
উল্লেখ্য, এসকে সিনহার বিরুদ্ধে ৩ কোটি ২৫ লাখ টাকা ঘুষ দাবির অভিযোগে গত ২০১৮ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর শাহবাগ থানায় মামলা করেন বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট অ্যালায়েন্সের (বিএনএ) সভাপতি ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা। মামলার এজাহারে বলা হয়, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে তার (নাজমুল হুদা) বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া একটি মামলা উচ্চ আদালতে ডিসমিস করার পরও প্ররোচিত হয়ে মামলাটির রায় পরিবর্তন করা হয়। মামলাটি ডিসমিস করতে দুই কোটি এবং অন্য একটি ব্যাংক গ্যারান্টির আড়াই কোটি টাকার অর্ধেক ১ কোটি ২৫ লাখ টাকা উৎকোচ চান এসকে সিনহা। ২০১৭ সালের ২০ জুলাই এই উৎকোচ চাওয়ার পর তিনি কিংকর্তব্যবিমূঢ় হন এবং আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মনস্থির করেন। কিন্তু এসকে সিনহা ওই সময় প্রধান বিচারপতি হওয়ার কারণে মামলা দায়ের থেকে পিছপা হন। আদালতের নির্দেশে বর্তমানে মামলাটি তদন্ত করছেন দুদকের পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন।

আরও পড়ুন: সিনহার বিরুদ্ধে এজাহারে যা বলেছেন নাজমুল হুদা

 

/টিএইচ/ওআর/

লাইভ

টপ