সারোয়ারের পরিবারকে শায়েস্তা করতেই বাসায় হামলা

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৫:০৫, জানুয়ারি ২৩, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:৩১, জানুয়ারি ২৩, ২০২০



মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্টি ডা. সারওয়ার আলীর পরিবারকে শায়েস্তা করতেই বাসায় ডাকাতির চেষ্টা ও হামলা হয়েছিল। মূল পরিকল্পনাকারী সাবেক গাড়িচালক শেখ নাজমুল ইসলামসহ চারজনকে গ্রেফতারের পর এই তথ্য জানা গেছে। নাজমুলের দাবি,সারোয়ার আলীর স্ত্রী বাজে ব্যবহারের কারণে সে চাকরি ছেড়ে দেয়। সেই পরিবারকে শায়েস্তা করতে গত ৫ জানুয়ারি রাতে উত্তরা ৭ নং সেক্টরে সারোয়ার আলী ও তার মেয়ের বাসায় হামলার ঘটনা ঘটে।

বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) সদর দফতরে এক সংবাদ সম্মেলনে সংস্থাটির প্রধান ডিআইজি বনজ কুমার মজুমদার এই তথ্য জানান।

এ ঘটনা মোট পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা হলো শেখ নাজমুল ইসলাম (৩০), শেখ রনি (২৫), মনির হোসেন (২০), ফয়সাল কবির (২৬) ও ফরহাদ (১৮)। এদের মধ্যে ফরহাদকে ১২ জানুয়ারি গ্রেফতার করা হয়। বাকিদের ২২ জানুয়ারি ঢাকাসহ দেশের বিভিন্নস্থান থেকে অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করা হয়েছে। আসামি আল আমিন মল্লিক ও নূর মোহাম্মদ পলাতক রয়েছে। তাদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

পিবিআই প্রধান বনজ কুমার মজুমদার সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘নাজমুল হিন্দি সিনেমার ভক্ত। তিনি ভাবতেন, গরিব হওয়া তার অপরাধ। গরিব হওয়ার কারণে ম্যাডাম কর্তৃক সঠিক ব্যবহার পাচ্ছেন না। এই কারণে চাকরিটি ছেড়ে দেন। এবং মনে মনে পরিকল্পনা করেন, এর একটি প্রতিবাদ হওয়া দরকার। এই প্রতিবাদের অংশ হিসেবে নিজেসহ সাতজনের একটি দল গঠন করে নাজমুল। তাদেরকে নিয়েই সারোয়ার আলীর বাসায় এই হামলা চালানো হয়।’

আরও পড়ুন: 

মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্টি হত্যাচেষ্টা: মূল আসামি নাজমুলসহ গ্রেফতার ৪


 

 

/আরজে/এনএস/

লাইভ

টপ