তিনটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে ৩০ লাখ টাকা জরিমানা

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৪:১৩, জানুয়ারি ২৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:৪৫, জানুয়ারি ২৬, ২০২০

আদালতবাংলাদেশ বার কাউন্সিল এবং বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) নির্দেশনা সত্ত্বেও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগে সেমিস্টার প্রতি ৫০ জনের বেশি শিক্ষার্থী ভর্তি করায় তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়কে ১০ লাখ টাকা করে মোট ৩০ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন আপিল বিভাগ। এর ফলে অতিরিক্ত শিক্ষার্থীরা আসন্ন বার কাউন্সিলের আইনজীবী অন্তর্ভুক্তির পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা। 

বিশ্ববিদ্যালয় তিনটি হলো- ইস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয়, সাউথ ইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় ও ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়। একইসঙ্গে জরিমানার অর্থ বারডেম হাসপাতালের নিয়মিত লিভার ট্রান্সপ্ল্যান্ট ইউনিটে এবং লিভার ফাউন্ডেশনে পরিশোধ করে আদালতকে অবহিত করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তিন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ হাজির হয়ে ক্ষমা প্রার্থনার পর রবিবার (২৬ জানুয়ারি) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের পক্ষে শুনানি করেন সিনিয়র অ্যাডভোকেট এ এম আমিন উদ্দিন ও মাহ মঞ্জুরুল হক। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা।

এর আগে আইনজীবী হিসেবে অন্তর্ভুক্তির জন্য বার কাউন্সিল পরীক্ষায় নিয়ম বহির্ভূতভাবে শিক্ষার্থী ভর্তি করানোর অভিযোগে দেশের প্রায় ১১টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থদের রেজিস্ট্রেশন কার্ড না দিতে সিদ্ধান্ত জানায় বার কাউন্সিল। পরে বার কাউন্সিলের সে সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে ভুক্তভোগী প্রায় ২ হাজার শিক্ষার্থী রিট করেন। সেসব রিটের শুনানি নিয়ে শিক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন কার্ড দেওয়ার সুযোগ দেওয়ার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।
এরপর হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার আদালতে বার কাউন্সিল থেকে আবেদন করা হয়। ওই আবেদন মঞ্জুর করে চেম্বার আদালত হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেন এবং আবেদনগুলোর ওপর শুনানির জন্য আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির দিন নির্ধারণ করে দেন। যার ধারাবাহিকতায় মামলাগুলো আপিল বিভাগে শুনানির জন্য আসে।


 

 

/বিআই/এসটি/

লাইভ

টপ