নারীকে নিজের অন্তর্নিহিত শক্তির বহিঃপ্রকাশ ঘটাতে হবে: শিক্ষামন্ত্রী

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২২:০৩, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৫১, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২০

গার্লস গাইডের অনুষ্ঠানে পুরস্ক্ষাকার বিতরণ করছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি



শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি বলেছেন, একজন মেয়ে শিশু অনেক প্রতিবন্ধকতার মধ্য দিয়ে বেড়ে উঠে। এসব প্রতিবন্ধকতার দেয়াল ভেঙে নারীকে তার আত্মশক্তিতে বলিয়ান হতে হবে। একজন নারী ও পুরুষের মধ্যে শারীরিক, মানসিক ও দৃষ্টিভঙ্গিতে অনেক ভিন্নতা আছে। এ ভিন্নতাকে শক্তি হিসেবে কাজে লাগিয়ে জাতীয় উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করতে হবে। নারীকে তার চারপাশের দেয়াল ভেঙে নিজের অন্তর্নিহিত শক্তির বহিঃপ্রকাশ ঘটাতে হবে।
আজ শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকালে রাজধানীর বেইলি রোডে গার্লস গাইড বাংলাদেশ আয়োজিত বিশ্ব চিন্তা দিবস ও প্রতিজ্ঞা গ্রহণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
গার্লস গাইডের জাতীয় কমিশনার ও সরকারের অতিরিক্ত সচিব কাজী জেবুন্নেসার সভাপতিত্বে এই সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা বিভাগের সচিব মুনশী শাহাবুদ্দীন আহমেদ।
মন্ত্রী বলেন, যখন অনেক মানুষ একসঙ্গে কাজ করে তখন কোনও শক্তিই তাদের রুখতে পারে না। কারণ সব ভিন্নতা বা বৈচিত্র্যর মধ্যে এক ধরনের শক্তি রয়েছে। আমরা নারী ও পুরুষের মধ্যে ন্যায় সঙ্গত সমতা চাই।
মুনশী শাহাবুদ্দীন আহমেদ বলেন, ট্রেন চলতে হলে যেমন দুইটি লাইন সমান্তরাল ভাবে চলা জরুরি তেমনি জাতীয় উন্নয়নে নারী-পুরুষের সমান্তরালভাবে চলা খুবই জরুরি।
অতিরিক্ত সচিব ও গার্লস গাইডের জাতীয় কমিশনার কাজী জেবুন্নেসা বলেন, সংখ্যাগত নয় মানসম্মত গাইড আমরা চাই। তিনি বলেন, গার্লস গাইড নারীর ক্ষমতায়ন, নারীর উন্নয়ন, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করা, বাল্যবিয়ে প্রতিরোধসহ সমাজ সচেতনতামূলক অনেক কাজ করে। তাছাড়া তাদের দেশীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।
অনুষ্ঠানে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স ও পাস কোর্সে রেঞ্জার বিষয়টি চালু করার ব্যবস্থা নিতে সরকারের প্রতি তিনি আহ্বান জানান।

 

/এসএনএস/টিএন/

লাইভ

টপ