স্পেন প্রবাসীদের জন্য ১০ লাখ টাকার মানবিক সহায়তা বাংলাদেশের

Send
সাদ্দিফ অভি
প্রকাশিত : ০১:৫৪, মার্চ ২৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:৫৫, মার্চ ২৭, ২০২০

ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড



বিশ্বব্যাপী মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসের কারণে স্পেন লকডাউন। এখন পর্যন্ত স্পেনে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫৬ হাজার ১৮৮ এবং মৃত্যুর সংখ্যা ৪ হাজার ৮৯। দেশটিতে প্রায় ৩০ হাজার বাংলাদেশি বসবাস করেন। লকডাউনের কারণে তাদের জীবন এবং আয় দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে। তাই দূতাবাসের মানবিক সাহায্যের আবেদনের প্রেক্ষিতে স্পেন প্রবাসীদের জন্য ১০ লাখ টাকার অনুদান পাঠিয়েছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অধীন ওয়েজ আর্নার্স ওয়েলফেয়ার বোর্ড। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানান গেছে।
স্পেনের বাংলাদেশ দূতাবাস সূত্রে জানা যায়, এই পর্যন্ত স্পেনে ৩২ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত। তাদের মধ্যে দুজন সুস্থ হয়েছেন। দূতাবাস জানায়, স্পেনে প্রায় ৩০ হাজার প্রবাসী বাংলাদেশি রয়েছেন। তাদের বেশিরভাগই পর্যটননির্ভর ছোট ব্যবসা, দিনমজুরি ইত্যাদি করে জীবিকা নির্বাহ করে। সাম্প্রতিক লকডাউনের ফলে এদের অধিকাংশই আয় রোজগার বঞ্চিত হয়ে সপরিবারে দুর্বিষহ অবস্থায় দিনযাপন করছে। স্থানীয় বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন এবং সামাজিক-রাজনৈতিক সংস্থা প্রায় ২ হাজার অসহায় ব্যক্তিকে শনাক্ত করে চাল, ডাল, তেল সহ অতি প্রয়োজনীয় খাবার সরবরাহের কার্যক্রম শুরু করেছে।
গত ২৩ মার্চ দূতাবাসের প্রথম সচিব মুহাম্মদ মুতাসিমুল ইসলাম মানবিক সহায়তার আবেদন করে একটি চিঠি পাঠান ওয়েজ আর্নার্স ওয়েলফেয়ার বোর্ডের মহাপরিচালক বরাবর। চিঠিতে তিনি লেখেন, কোভিড-১৯ সংক্রান্ত পরিস্থিতির কারণে থেকে যাওয়া বাজেটের খাতে জরুরি ভিত্তিতে আরও ১০ লাখ টাকা বরাদ্দ করা হলে প্রাথমিকভাবে প্রবাসী কর্মীদের আর্থিক সাহায্য প্রদান করা সহজ হবে।
দূতাবাসের আবেদনে ১০ লাখ টাকা বরাদ্দ দিয়েছে ওয়েজ আর্নার্স ওয়েলফেয়ার বোর্ড। এই প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বোর্ডের অর্থ ও প্রশাসন বিভাগের পরিচালক এবং যুগ্মসচিব শোয়াইব আহমাদ খান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, আমাদের বোর্ড সভায় একটি সিদ্ধান্ত ছিল যে গুরুতর আবেদন আসলে কোনও মিশন থেকে আমরা যেন সেটা নিশ্চিত করি। ইতালি , স্পেনে অনেক প্রবাসী আছেন যারা অনেক কষ্টেই জীবনযাপন করছেন। আমরা আবেদনের প্রেক্ষিতে বরাদ্দ দিয়েছি। অন্য কোনও মিশন থেকেও যদি চাওয়া হয় আমরা সাহায্য দেবো।

/এমআর/

লাইভ

টপ