‘এক মাসেই ৩৪০ জন নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার’

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৯:৪৪, অক্টোবর ০১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৪৪, অক্টোবর ০১, ২০২০

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদগত সেপ্টেম্বরে ৩৪০ জন নারী ও কন্যাশিশু ধর্ষণ ও নির্যাতনের শিকার হয়েছে জানিয়ে দেশে নারী ও শিশু নির্যাতন বৃদ্ধিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বাংলদেশ মহিলা পরিষদ। বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এই উদ্বেগের কথা জানায় সংগঠনটি।

নির্যাতনের পরিসংখ্যানে সংগঠনটি জানায়, গত সেপ্টেম্বরে ৩৪০ জন নারী ও কন্যাশিশু ধর্ষণ ও নির্যাতনের শিকার হয়েছে। এর মধ্যে ২০ জন সংঘবদ্ধ ধর্ষণসহ ১২৯ জন ধর্ষণের শিকার হয়েছে। তিন জন শিশুসহ ১০৯ জন ধর্ষণের শিকার হয়েছে এবং ১০ জন শিশুসহ ২০ জন সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এছাড়া ৬ জন শিশুসহ ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে ৯ জনকে। শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছে ৪ জন। এর মধ্যে শিশু ২ জন। ৪ জন শিশুসহ যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছে ৭ জন।

এছাড়াও দুই শিশুসহ ৬ জন এসিড দগ্ধ হয়েছে, অগ্নিদগ্ধের শিকার হয়েছে ৫ জন এবং অগ্নিদগ্ধের কারণে ২ নারীর মৃত্যু হয়েছে। উত্ত্যক্তকরণের শিকার হয়েছে ২ জন।

অপহরণের ঘটনা ঘটেছে মোট ২০ জনের ক্ষেত্রে। এর মধ্যে শিশু ১৬ জন। এছাড়া অপহরণের চেষ্টা করা হয় একজনকে। পাচার করা হয়েছে ৩ জন নারীকে। বিভিন্ন কারণে ৭ জন শিশুসহ ৩৬ জনকে হত্যা করা হয়েছে।

সংগঠনটি আরও জানায়, ২ জন শিশুসহ ৩ জনকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। যৌতুকের কারণে নির্যাতন করা হয়েছে ১৪ জনকে। এর মধ্যে যৌতুকের কারণে হত্যা করা হয়েছে ৫ জনকে। শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছে ৭ জন শিশুসহ ২৭ জন। বিভিন্ন নির্যাতনের কারণে ১৪ জন শিশুসহ আত্মহত্যা করেছে ২০ জন এবং ৬ জন শিশুসহ ২৮ জনের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। বাল্যবিবাহ সংক্রান্ত ঘটনা ঘটেছে ১৯টি। সাইবার ক্রাইম অপরাধের শিকার হন ৪ জন নারী।

 

/এআরআর/আইএ/

লাইভ

টপ
X