X
বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪
৯ শ্রাবণ ১৪৩১

বিএনপির সঙ্গে বেহেশতেও যেতে চাই না: কাদের সিদ্দিকী

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট  
০৩ মার্চ ২০২৪, ২০:২২আপডেট : ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০:২২

কৃষক-শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী ব‌লেছেন, ‘আল্লাহ রাব্বুল আল আমিন আমাকে য‌দি জামায়া‌তের সঙ্গে বেহেশতেও নিতে চান আমি তাও যাবো না। আমাদের ভাতিজা জিয়াউর রহমানের পুত্র তারেক রহমান ইংল্যান্ডে বসে য‌দি বিএনপির নেতা হয়, নেতৃত্ব দেয় তাহলে আমি সেই বিএনপির সঙ্গেও বেহেশতে যেতে চাই না।’

রবিবার (৩ মার্চ) জাতীয় প্রেস ক্লাবের অডিটোরিয়ামে ‘২ মার্চ ঐতিহাসিক পতাকা উত্তোলন দিবস’ উপলক্ষে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) আয়োজিত আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

কাদের সিদ্দিকী ব‌লেন, ‘যতক্ষণ পর্যন্ত তারেক রহমান দেশে না আসেন ততক্ষণ পর্যন্ত দেশের জনগণের নেতৃত্ব তি‌নি দিতে পারেন না। এতে যদি আমার ফাঁসিও হয় আমি সেখানেও এ মন্তব্য করবো। তারপরও কোনোভা‌বেই বিদেশে থাকা অবস্থায় তারেক রহমানের নেতৃত্ব আমি মেনে নেবো না।’

এ সময় আ স ম আব্দুর রবের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আপনি যদি দেশের জনগণের মুক্তির জন্য তাদের নেতৃত্ব দেন আমি মৃত্যুর আগ পর্যন্ত আপনার সঙ্গে আছি।’

তি‌নি ব‌লেন, ‘আমি এবার নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছিলাম। এই নির্বাচনে আমি একজন পরাজিত সৈনিক। আমার ধারণা ছিল মানুষ ভোট দিতে যাবে। এত অনুরোধেও আমার দলের নেতাকর্মীদের অর্ধেকও এই নির্বাচনে ভোট দিতে যায়নি।’

কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘আমি শেখ হাসিনাকে গদিতে বসাতেও আসিনি, আবার গদি থেকে সরাতেও আসিনি। বর্তমানের আওয়ামী লীগ ভাষাণী বা বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগ না। এ আওয়ামী লীগ লুটপাটের আওয়ামী লীগ। সে জন্যে দেশের জনগণের কাছে ক্ষমতা আনার জন্য আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে সংগ্রাম করতে হবে।’

আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ডক্টর আব্দুল মঈন খান, জেএসসির সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, বাংলাদেশ বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক প্রমুখ।

/এএজে/আরআইজে/
সম্পর্কিত
যেভাবে ইসি’র জরিমানা এড়ালো কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ
জিনিসপত্রের দাম কমায় মানুষ একটু স্বস্তিতে আছে: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী
মা-বোনের সম্মানের জন্য আমি রক্ত দিয়েছি: কাদের সিদ্দিকী
সর্বশেষ খবর
জ্বালাও-পোড়াও ও নিহতে মিরপুরের ৩ দিন
জ্বালাও-পোড়াও ও নিহতে মিরপুরের ৩ দিন
কূটনীতিকরা স্তম্ভিত, বলেছেন বাংলাদেশের পাশে আছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
কূটনীতিকরা স্তম্ভিত, বলেছেন বাংলাদেশের পাশে আছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
সংঘাতে ডিএনসিসির ২০৫ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি
সংঘাতে ডিএনসিসির ২০৫ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি
নাটকীয় হারে আর্জেন্টিনার অলিম্পিক যাত্রা শুরু
নাটকীয় হারে আর্জেন্টিনার অলিম্পিক যাত্রা শুরু
সর্বাধিক পঠিত
ধারণা ছিল একটা আঘাত আসবে: প্রধানমন্ত্রী
ধারণা ছিল একটা আঘাত আসবে: প্রধানমন্ত্রী
কোটা নিয়ে রায় ঘোষণার আগে যা বলেছিলেন প্রধান বিচারপতি
কোটা নিয়ে রায় ঘোষণার আগে যা বলেছিলেন প্রধান বিচারপতি
চাকরিতে কোটা: প্রজ্ঞাপনে যা আছে
চাকরিতে কোটা: প্রজ্ঞাপনে যা আছে
কোটা আন্দোলন: প্রধানমন্ত্রীর বর্ণনায় ক্ষয়ক্ষতির চিত্র 
কোটা আন্দোলন: প্রধানমন্ত্রীর বর্ণনায় ক্ষয়ক্ষতির চিত্র 
কারফিউ বা সান্ধ্য আইন কী 
কারফিউ বা সান্ধ্য আইন কী