আ. লীগ প্রার্থী প্রতিনিয়ত আচরণবিধি লঙ্ঘন করছে: শেখ রবিউল

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০৩:১৪, মার্চ ১৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০৩:১৬, মার্চ ১৪, ২০২০

ঢাকা-১০ আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর বিরুদ্ধে প্রতিনিয়ত নির্বাচনি আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযাগ করেছেন বিএনপি-র প্রার্থী শেখ রবিউল আলম। তিনি বলেন, সরকারদলীয় প্রার্থী প্রচারণায় ব্যানার-ফেস্টুন ও মাইক ব্যবহার করছেন। বিধি অনুযায়ী যেখানে প্রতি ওয়ার্ডে একটি নির্বাচনি অফিস ব্যবহার করার কথা সেখানে তিনি একাধিক অফিস ব্যবহার করছেন। ফুটপাত দখল করে জনদুর্ভোগ তৈরি করছেন।
শুক্রবার (১৩ মার্চ) রাজধানীর ঝিগাতলার গাবতলা মসজিদের সামনে গণসংযোগ শুরুর আগে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় শেখ রবিউল আলমের সঙ্গে ছিলেন ধানমন্ডি থানা শ্রমিক দলের সভাপতি আবু কাওসার, ১৬ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপি সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন প্রমুখ।

নিজ নির্বাচনি আসনের জনগণের প্রত্যাশা ও প্রয়োজন এবং সমস্যা চিহ্নিত করা হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন শেখ রবিউল আলম। তিনি বলেন, এখন সুযোগের অপেক্ষায় আছি। নির্বাচিত হলেই কাজ শুরু করবো।

২১ মার্চের নির্বাচনে জনগণ ভোট দানের সুযোগ পেলে তাকেই নির্বাচিত করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন বিএনপি দলীয় এই প্রার্থী। তিনি বলেন, সরকার দানবীয় চরিত্র থেকে বের হয়ে সুষ্ঠু নির্বাচন দিলে জনগণ আমাকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করবে। সংসদে গিয়ে তাদের প্রত্যাশা পূরণে জোরালো ভূমিকা রাখবো।

তিনি বলেন, আমি সমস্যাগুলো চিহ্নিত করেছি। এলাকায় মাদক ছড়িয়ে গেছে। রাস্তাঘাট সরু। ফুটপাত নেই। নির্বাচিত হলে সিটি কর্পোরেশনকে এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে বলবো। কোনও কোনও ক্ষেত্রে পদক্ষেপ নিতে তাদের বাধ্য করা হবে।

সরকার ভোট নিয়ে কোনও অপচেষ্টা করলে করলে জনগণ তার মোকাবিলা করবে বলে মনে করেন শেখ রবিউল আলম। তিনি বলেন, ভোটকেন্দ্রে জনগণকে নিয়ে আসাটা চ্যালেঞ্জ। সুষ্ঠু নির্বাচন ও নির্বাচনি পরিবেশ ঠিক রাখার দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের। কিন্তু তা তৈরিতে তারা ব্যর্থ হয়েছে।

/এএইচআর/এমপি/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ