মসজিদ ও নামাজ নিয়ে তরিকতের ৫ ফতোয়া

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০৩:২৮, এপ্রিল ০৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০৩:৪১, এপ্রিল ০৭, ২০২০

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে মসজিদে ইবাদত করা নিয়ে পাঁচটি ফতোয়া দিয়েছে বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন। দলটির যুগ্ম আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মুফতি ড. খাজা বাকীবিল্লাহ মিশকাত চৌধুরী এ ফতোয়া দেন। এটি অনুমোদন করেছেন দলের মহাসচিব ড. সৈয়দ রেজাউল হক চাঁদপুরী।

সোমবার (৬ এপ্রিল) রাতে এ ফতোয়ার কথা বাংলা ট্রিবিউনকে জানান বাকীবিল্লাহ মিশকাত চৌধুরী। তার পাঁচটি ফতোয়ার প্রথমটি হলো, বর্তমান পরিস্থিতিতে মসজিদে যাওয়া থেকে সর্বসাধারণের বিরত থাকতে হবে। দ্বিতীয়টি হলো, নিজ গৃহে ফরজ ও নফল নামাজ, দরূদ ও সালাম, তাওবা ও দোয়া তথা বেশি বেশি নেক আমল করতে হবে। তৃতীয় ফতোয়া হলো, সকল প্রকার গণজমায়েত থেকে বিরত থাকার পাশাপাশি নিজ গৃহেও যথাযথ দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। চতুর্থটি হলো, মসজিদে শুধুমাত্র ইমাম এবং মুয়াজ্জিন এই দুই জনের উপস্থিতিতে আজান ও জামাত করা যেতে পারে। আর পঞ্চম ফতোয়াটি হলো, জুম্মার জামাত করলে ৩ জন মুসল্লি শর্ত, তাই ইমামসহ ৪ জনের বেশি অংশগ্রহণ করা যাবে না।

ফতোয়ার বিষয়ে বাকিবিল্লাহ বলেন, তিন জন মুসল্লির উপস্থিতিতে জুম্মা আদায় হয়ে যায়। এই বিষয়ে উলামায়ে কিরামগণ চাইলে উল্লেখিত কিতাবগুলো দেখতে পারেন। গ্রহণযোগ্য ফতোয়ার কিতাব ১) মাবসুত-২খন্ড, ৩১৪পৃঃ। ২) কুদুরী-১খন্ড, ৯০পৃঃ। ৩) হিদায়া-১খন্ড, ৮২পৃঃ। ৪) আল ইখতিয়ার-১খন্ড, ৮৩পৃঃ। ৫) বাহরুর রায়েক্ব-২খন্ড, ১৬২পৃঃ।

বাকিবিল্লাহ  দাবি করেন, তার দেওয়া ফতোয়ায় ১১ জন আলেমের সমর্থন রয়েছে। এরা হলেন, ১. ড. মুহাম্মদ আব্দুল কাদির, চেয়ারম্যান আরবী বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ২. ড. আহসানুল হাদী, সহযোগী অধ্যাপক, ফার্সি বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ৩. মুফতী শাহ সাঈয়্যেদ মুতাসিম বিল্লাহ রব্বানী, পীর সাহেব বদরপুর, ৪. মুফতী শাইখ সাঈয়্যেদ নাছির বিল্লাহ রব্বানী, দা’ওয়াতুল ইসলাম ফাতাওয়া বোর্ড, ৫. মুফতি শাইখ মুখতার রেজা মাসুমী, পীর সাহেব শরিয়তপুর, ৬. মুফতি শাইখ সৈয়দ জাকারিয়া উদ্দীন জিলানী, পীর সাহেব মুন্সীগঞ্জ, ৭. মুফতি শাইখ সাজ্জাদ হোসাইন রনি, পীর সাহেব ফরিদপুর, ৮. মুফতি  শাইখ সৈয়দ মিরাজুল ইসলাম, পীর সাহেব, খুলনা, ৯. মুফতি শাইখ মোশতাক আহমাদ, কুমিল্লা, ১০. মুফতি শাইখ দেলওয়ার হোসাইন নঈমী, ঢাকা, ১১. মুফতি শাইখ সৈয়দ মুঈনুদ্দীন নূরী, বি. বাড়ীয়া।

উল্লেখ্য, মুসল্লিদের ঘরে নামাজ পড়ার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। সোমবার (৬ এপ্রিল) ধর্ম মন্ত্রণালয়ের উপসচিব সাখাওয়াৎ হোসেন স্বাক্ষরিত এক জরুরি বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, শুধু মসজিদের ইমাম, মুয়াজ্জিন, খাদেমরা মসজিদে নামাজ আদায় করবেন। একইসঙ্গে সব মন্দির, গির্জা, প্যাগোডাসহ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে সাধারণের প্রার্থনা না করার নির্দেশ দিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। সব ধর্মের মূলনীতির আলোকে এবং জাতীয় নিরাপত্তা রক্ষার স্বার্থে এ নির্দেশনা জারির কথা জানিয়ে  বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এ নির্দেশনা অমান্য করলে দায়ীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও পড়ুন: মুসল্লিদের ঘরে নামাজ পড়ার নির্দেশ

 

/এসটিএস/জেজে/

লাইভ

টপ