X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

ঘোষণা দিয়ে রানে ফিরলেন মুশফিক, জিতলো খুলনাও

আপডেট : ২৮ জানুয়ারি ২০২২, ২০:০১

বিপিএলের শুরু থেকেই নিজের ছায়া হয়ে ছিলেন মুশফিকুর রহিম। দুই ম্যাচে ১৭ রান করেছেন। স্বাগতিক চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে তিনি ঘোষণা দিয়েছিলেন, আজ থেকেই রানে ফিরবেন! জয়ের ধারায় ফেরাবেন দলকেও। শুক্রবার নিজের দেওয়া কথাগুলো রেখেছেন খুলনা টাইগার্স অধিনায়ক। জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ৪৪ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলার পথে দলকে জেতাতেও ভূমিকা রেখেছেন। এমনকি জয়সূচক রানটিও এসেছে মুশফিকের ব্যাট থেকে। 

থিসারা পেরেরার দুর্দান্ত বোলিংয়ে ১৪৩ রানের বেশি করতে পারেনি স্বাগতিক চট্টগ্রাম। জবাবে ৭ বল হাতে রেখে ৪ উইকেট হারিয়েই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় খুলনা টাইগার্স। অথচ টানা দুই জয় নিয়ে স্বাগতিক দল চট্টগ্রামে এসেছিল। কিন্তু নিজেদের মাঠে প্রথম ম্যাচ খেলতে এসে স্বাগতিক দর্শকদের হতাশা উপহার দিয়েছে মেহেদী মিরাজের চট্টগ্রাম। শুক্রবার তৃতীয় ম্যাচে দ্বিতীয় জয়ে খুলনা পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে। অন্যদিকে ৪ ম্যাচে ২ জয়ে চট্টগ্রাম অবস্থান করছে পয়েন্ট টেবিলের তিন নম্বরে। 

৬ উইকেটের জয় পেলেও খুলনার শুরুটা ভালো ছিল না। করোনার কারণে প্রথম দুই ম্যাচ খেলতে না পারেননি সৌম্য সরকার। চট্টগ্রামে এসেই মাঠে নামার সুযোগ পেয়েছেন। কিন্তু নিজের প্রথম ম্যাচে হতাশা উপহার দিয়েছেন বাঁহাতি এই ব্যাটার। আউট হয়েছেন মাত্র ১ রানে। তারপর আন্দ্রে ফ্লেচার ও রনি তালুকদার মিলে দ্বিতীয় উইকেটে যোগ করেন ৫০ রান। ১৮ বলে ১৭ রান করে রনি আউট হলে ফ্লেচারের সঙ্গে জুটি বাঁধেন মুশফিক। দুজন মিলে ৪৬ রান যোগ করে জয়টা কাছে নিয়ে আসেন আরও। দারুণ এই জুটি ভাঙে ফ্লেচারের বিদায়ে। ৪৭ বলে ৬ চার ও ২ ছক্কায় ৫৮ রান করেছেন ক্যারিবীয় ক্রিকেটার। তার আউটের সময় হাফসেঞ্চুরির কাছে ছিলেন মুশফিক। কিন্তু সেকুগে প্রসন্নর ঝড়ো ১৫ বলে ২৩ রানের ইনিংসে মুশফিককে অপরাজিত থাকতে হয় ৪৪ রানে। তবে দলের জয় সূচক রানটি আসে মুশফিকের ব্যাট থেকে। ৩০ বলে ৪ চার ও ১ ছক্কায় তিনি নিজের ইনিংসটি সাজিয়েছেন। 

চট্টগ্রামের বোলারদের মধ্যে মেহেদী হাসান মিরাজ ২৪ রানে সর্বোচ্চ দুটি উইকেট নিয়েছেন। এছাড়া একটি করে উইকেট নিয়েছেন শরিফুল ইসলাম ও নাসুম আহমেদ। 

টস হেরে আগে ব্যাটিং করতে নামা চট্টগ্রামের কেবল তিন জন ব্যাটসম্যান রান করতে পেরেছেন। বাকিরা কেউই উইকেটে থিতু হতে পারেননি। দলীয় ৩ রানে ওপেনার কেনার লুইসকে হারায় চট্টগ্রাম। তবে শুরুর চাপ দলকে বুঝতে দেননি উইল জ্যাকস ও আফিফ হোসেন ধ্রুব। দ্বিতীয় উইকেটে ৫৭ রানের জুটি গড়েন তারা। 

এই জুটি ভেঙে যায় জ্যাকসের বিদায়ে। ফেরার আগে ২৩ বলে ৪টি চারে ২৮ রান করেন ইংলিশ এই ব্যাটসম্যান। এরপর অন্য পাশে নিয়মিত ধারায় উইকেট পড়তে থাকলে প্রান্ত আগলে খেলেছেন আফিফ। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান ৩৭ বলে ৩টি চার ও ২টি ছক্কায় ৪৪ রান করেছেন। এছাড়া নাঈম ইসলাম ১৯ বলে ২টি চার ও একটি ছক্কায় অপরাজিত থেকেছেন ২৫ রানে।  

খুলনার লঙ্কান অলরাউন্ডার থিসারা পেরেরা ৪ ওভারে ১৮ রান খরচায় নেন ৩টি উইকেট। এছাড়া কামরুল ইসলাম রাব্বি, নাবিল সামাদ, শেখ মেহেদী হাসান, সেকুগে প্রসন্ন ও ফরহাদ রেজা একটি করে উইকেট নিয়েছেন।

/এফআইআর/এমওএফ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
শ্রীলঙ্কার লিড
শ্রীলঙ্কার লিড
টিভিতে আজ
টিভিতে আজ
কলেজছাত্রকে ছুরিকাঘাতে হত্যা
কলেজছাত্রকে ছুরিকাঘাতে হত্যা
মারিউপোলে আরও ইউক্রেনীয় সেনা আত্মসমর্পণ করছে: রাশিয়া
মারিউপোলে আরও ইউক্রেনীয় সেনা আত্মসমর্পণ করছে: রাশিয়া
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
বাংলাদেশে অভিজ্ঞতার কোনও দাম নেই: মুশফিক
বাংলাদেশে অভিজ্ঞতার কোনও দাম নেই: মুশফিক
অবসর প্রসঙ্গে যা বললেন মুশফিক
অবসর প্রসঙ্গে যা বললেন মুশফিক
মুশফিকের সুইপ ও তার হাসি
মুশফিকের সুইপ ও তার হাসি
চতুর্থ দিনের বিকাল আশা দেখাচ্ছে বাংলাদেশকে
চতুর্থ দিনের বিকাল আশা দেখাচ্ছে বাংলাদেশকে
প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে মুশফিকের ৫ হাজার রান
প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে মুশফিকের ৫ হাজার রান