X
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪
৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

কিংসের ট্রেবল জয় নাকি মোহামেডানের শ্রেষ্ঠত্ব

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
২১ মে ২০২৪, ২১:৫৩আপডেট : ২১ মে ২০২৪, ২১:৫৩

অনেক দিন পর ঘরোয়া ফুটবলে ফেডারেশন কাপে শিরোপা জিতেছিল অন্যতম ঐতিহ্যবাহী মোহামেডানে স্পোর্টিং ক্লাব। গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন হয়ে নতুন করে আলোচনায় চলে আসে তারা। এবারও একই টুর্নামেন্টের ফাইনালে খেলার অপেক্ষায় সাদা-কালোরা। আগামীকাল ময়মনসিংহ রফিক উদ্দিন ভূঁইয়া স্টেডিয়ামে বিকাল ৩টায় শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখার মিশন। তবে তাদের বাধা ট্রেবল জয়ের মিশনে থাকা বিগ জায়ান্ট বসুন্ধরা কিংস। আলফাজ আহমেদের দলের শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখা নাকি কিংসের প্রথমবারের মতো ট্রেবল জয়ের উৎসব দেখবে সমর্থকরা, সেই উত্তর মিলবে কাল। টি স্পোর্টস সরাসরি ধুন্ধুমার ফাইনাল ম্যাচটি দেখাবে।

এমনিতে মৌসুমে স্বাধীনতা কাপ ও প্রিমিয়ার লিগে শিরোপা নিষ্পত্তি হয়েছে আগেই। শেষ দিকে এসে এখন ফেডারেশন কাপ ফাইনাল নিয়ে উত্তেজনা। দুই দলই অনুশীলনে ঘাম ঝরিয়েছে। চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। জায়ান্ট কিংসের বিপক্ষে লড়াইয়ে নামতে প্রস্তুত মোহামেডান।

কিংস কোচ অস্কার ব্রুজন যেমন শেষটা ভালো করতে চাইছেন। ফাইনালের আগে বাংলা ট্রিবিউনকে বলেছেন, ‘নিজেদের সেরা প্রমাণের আরেকটি সুযোগ আগামীকালের  ম্যাচ। আমরা নিজেদের নিয়ে শতভাগ বিশ্বাসী। একে অপরের প্রতি বিশ্বাসী। আরও বিশ্বাস আছে প্রযুক্তিগত এবং কৌশলগত স্বয়ংক্রিয়তায়, যা আমাদের এই ফাইনালে সর্বস্ব দিয়ে চেষ্টা করতে সহায়তা করবে।’

রবিনিয়ো-মিগেলদের মাঠে সর্বোচ্চ দিয়ে খেলার নির্দেশ। ব্রুজন তেমনটি শোনালেন, ‘আমরা আমাদের খেলোয়াড়দের হৃদয় দিয়ে, শতভাগ মনযোগ দিয়ে ও সংকল্প নিয়ে খেলতে বলেছি। ক্লাবের সত্যিকারের লক্ষ্য অর্জনে খেলোয়াড়রাই প্রধান চরিত্র হিসেবে কাজ করে।’

তবে মোহামেডান অপেক্ষাকৃত কম শক্তিধর দল হলেও লড়াকু ফুটবল তাদের চোখে পড়েছে। বিশেষ করে দিয়াবাতে-মোজাফফরভের খেলা তো আশা জাগানিয়া। স্থানীয় মেহেদী-শাহরিয়ার ইমনরা কম যান না।

তাই কঠিন ম্যাচ বলে ব্রুজন আগে থেকে সতর্ক, ‘প্রতিপক্ষ (মোহামেডান) নিজেদের কৌশলের সঙ্গে পুরো মৌসুম সামঞ্জস্যপূর্ণ পারফরম্যান্স করেছে। তাদের আছে একটা নিরেট রক্ষণভাগ। সংঘবদ্ধ হয়ে মাঝমাঠের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার চেষ্টা করে এবং দুই প্রান্ত ব্যবহার করে আক্রমণে উঠতে চায়। তাছাড়া শারীরিক ফুটবলের প্রতি তাদের ঝোক আছে। সেট-পিছ থেকে সফলতার হার তাদের বেশ সন্তোষজনক। সব মিলিয়ে আরেকটা কঠিন ম্যাচ হতে যাচ্ছে। তবে আমি আলাদা করে প্রতিপক্ষের কোনও খেলোয়াড়ের কথা বলবো না। পুরো দল হিসেবেই মোহামেডান শক্তিশালী।’

যেই দলে এক ডজনের বেশি জাতীয় দলের খেলোয়াড়। উঁচুমানের বিদেশি। সুবিধাদিও অন্যদের চেয়ে ভালো। সেই দলটি কিনা মোহামেডানকে এক বিন্দু ছাড় দিতে চাইছে না। আর দেবেই বা কীভাবে। গত ফেডারেশন কাপে তো সেমিফাইনালে মোহামেডানের কাছেই হেরেছিল ব্রুজনের দল। এছাড়া লিগে হারের রেকর্ড আছে।

তবে মোহামেডান কোচ আলফাজ আহমেদ শিরোপা যে কোনও মূল্যে পেতে চাইছেন, ‘মোহামেডান চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্যই মাঠে নামবে। এখানে আর অন্য কিছু বলার নেই। চ্যাম্পিয়ন হতে হবে। আশা করি ইনশাআল্লাহ আমরা চ্যাম্পিয়নের জন্য লড়বো। দুই দলের মধ্যে অবশ্যই বসুন্ধরা ফেভারিট। তবে তাদের সঙ্গে লড়াই করার সামর্থ্য আমাদেরও আছে। এ জন্য ম্যাচটা যে কেউ জিততে পারে। আমি বলবো ফিফটি-ফিফটি চান্স।’

কিংসের বিদেশি খেলোয়াড়দের নিয়ে রয়েছে কোচের আলাদা পরিকল্পনা। আছে রাকিব-মোরসালিনদের নিয়েও। যদিও তা বলতে চাইলেন না আলফাজ, ‘কৌশল তো অবশ্যই থাকবে। অবশ্যই ওদের আকটাতে পারলেই ম্যাচটা জিতবো। দোরিয়েলতন ওদের প্রধান স্কোরার, মিগেল, রবসন, রাকিব আছে। সবাইকে আটকাতে হবে।’

/টিএ/এফএইচএম/
সম্পর্কিত
লড়াই করে অস্ট্রেলিয়ার কাছে বাংলাদেশের হার
ভারতের বিপক্ষে গোল করা সেই ডিফেন্ডার এবার আবাহনীতে
শেষ ম্যাচে মোরসালিনের দারুণ গোল
সর্বশেষ খবর
রাতে উত্তরের মহাসড়কে যানবাহনের চাপ আরও বেড়েছে
রাতে উত্তরের মহাসড়কে যানবাহনের চাপ আরও বেড়েছে
ঈদে চামড়া ব্যবসায়ীদের নজরদারিতে রাখবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী
ঈদে চামড়া ব্যবসায়ীদের নজরদারিতে রাখবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী
ফুটপাতে নিম্ন আয়ের মানুষের ঈদের আমেজ
ফুটপাতে নিম্ন আয়ের মানুষের ঈদের আমেজ
‘আনসার আল ইসলামের’ শাহাদাত গ্রুপের দুই সদস্য গ্রেফতার
‘আনসার আল ইসলামের’ শাহাদাত গ্রুপের দুই সদস্য গ্রেফতার
সর্বাধিক পঠিত
ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণিতে মূল্যায়ন হবে যেভাবে
ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণিতে মূল্যায়ন হবে যেভাবে
শ্রমিকদের অবরোধে বন্ধ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক
শ্রমিকদের অবরোধে বন্ধ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক
শেবাগের সমালোচনার জবাবে যা বললেন সাকিব
শেবাগের সমালোচনার জবাবে যা বললেন সাকিব
১৯ বল ব্যাট করে ওমানকে হারালো ইংল্যান্ড
১৯ বল ব্যাট করে ওমানকে হারালো ইংল্যান্ড
সেন্টমার্টিনে খাদ্যসংকট, কক্সবাজার থেকে গেলো পণ্যবোঝাই জাহাজ
সেন্টমার্টিনে খাদ্যসংকট, কক্সবাজার থেকে গেলো পণ্যবোঝাই জাহাজ