৭ স্বর্ণপদকের উচ্ছ্বাস বাংলাদেশের

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২১:৫৫, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:২৬, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯

1এসএ গেমসের শেষ দিকে এসে সোনালী সাফল্যে মেতে উঠছে বাংলাদেশ। আগের দিন এসেছিল তিনটি সোনা। রবিবার এলো দ্বিগুণেরও বেশি, সাতটি! এর মধ্যে ছয়টি স্বর্ণপদকই আর্চারির সৌজন্যে। তীর-ধনুকের এই খেলায় ছয়টি ফাইনালে অংশ নিয়ে প্রতিটিতেই বাংলাদেশ পেয়েছে জয়। দেশকে অন্য স্বর্ণপদক উপহার দিয়েছেন নারী ক্রিকেটাররা, শ্বাসরুদ্ধকর ফাইনালে শ্রীলঙ্কাকে ২ রানে হারিয়ে। 

আর্চারির রিকার্ভ পুরুষ দলগত ইভেন্টের ফাইনালে রোমান সানা, মোহাম্মদ তামিমুল ইসলাম ও মোহাম্মদ হাকিম আহমেদ রুবেল ৫-৩ সেট পয়েন্টে হারিয়েছেন শ্রীলঙ্কান প্রতিপক্ষকে।

রিকার্ভ মহিলা দলগত ইভেন্টের ফাইনালেও বাংলাদেশ হারিয়েছে শ্রীলঙ্কাকে, ৬-০ সেট পয়েন্টে। বাংলাদেশ দলে ছিলেন ইতি খাতুন, মেহনাজ আক্তার মনিরা ও বিউটি রায়।

রিকার্ভ মিশ্র ইভেন্টেও এসেছে সাফল্য। ফাইনালে রোমান সানা ও ইতি খাতুন ৬-২ সেট পয়েন্টে ভুটানের দুই প্রতিপক্ষকে হারিয়েছেন।

কম্পাউন্ড পুরুষ দলগত বিভাগে ভুটানকেই ২২৫-২১৪ স্কোরে হারিয়ে সোনার পদক জয় করেন অসীম কুমার দাস, সোহেল রানা ও মোহাম্মদ আশিকুজ্জামান। কম্পাউন্ড মহিলা দলগত বিভাগের ফাইনালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশকে জয় এনে দিয়েছেন সুস্মিতা বণিক, শ্যামলী রায় ও সোমা বিশ্বাস। ব্যবধান ছিল ২২৬-২১৫।

অন্যদিকে কম্পাউন্ড মিশ্র দ্বৈতে জুয়েল রানা-রোকসানা আক্তার জুটি স্বাগতিক নেপালের জুটিকে ১৪৮-১৪০ ব্যবধানে হারিয়ে শিরোপা জিতে নিয়েছেন।

2কুস্তির ৫৯ কেজি ওজনশ্রেণিতে রুপা জিতেছেন আইরিন আক্তার নিপা। এছাড়া ৬২ কেজিতে শারমিন আক্তার, ৬৫ কেজিতে লাকী আক্তার, ৭২ কেজিতে রোজি আক্তার এবং ছেলেদের ৮৬ কেজি ওজনশ্রেণিতে শরৎচন্দ্র রায় পেয়েছেন ব্রোঞ্জ।

শুটিংয়ে ছেলেদের ১০ মিটার এয়ার পিস্তলের দলগত ইভেন্টে রুপা পাওয়া বাংলাদেশ  দলে ছিলেন শাকিল আহমেদ, আব্দুর রাজ্জাক ও সাব্বির আল আমিন।

মেয়েদের হ্যান্ডবলে পাকিস্তানকে ৩১-১৫ গোলে হারিয়ে ব্রোঞ্জ পেয়েছে বাংলাদেশ। ভারোত্তোলনে ছেলেদের ১০৯ কেজি ওজনশ্রেণিতেও আবদুল্লাহ আল মমিনের প্রাপ্তি ব্রোঞ্জ।

এছাড়া ফেন্সিংয়ে ছেলেদের দলগত স্যাবার ও দলগত ইপি ইভেন্টে রুপা এবং মেয়েদের দলগত ফয়েল ইভেন্টে ব্রোঞ্জ এসেছে।

সাফল্যে উজ্জ্বল দিনের শেষটা অবশ্য ভালো কাটেনি। ছেলেদের ফুটবলে নেপালের কাছে হেরে ব্রোঞ্জ নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে জেমি ডে’র শিষ্যদের।

অষ্টম দিন শেষে ১৪টি সোনা, ২৬টি রুপা ও ৬৬টি ব্রোঞ্জ নিয়ে বাংলাদেশ পঞ্চম স্থানেই আছে যথারীতি। ১২৯টি সোনা নিয়ে ভারত সবার ওপরে আর ৪৫টি সোনা নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে নেপাল।

/টিএ/এএআর/

লাইভ

টপ