জিম্বাবুয়ে দিয়েই কি মুক্তি মিলবে?

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২৩:০৩, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:০৩, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২০

জিম্বাবুয়ে টেস্টের আগে ফুরফুরে মেজাজে মুশফিক-জায়েদজিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট দিয়ে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশের দ্বিপাক্ষিক সিরিজ। জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে দুঃসময় কাটানোর স্বপ্ন মুমিনুলদের। সেই লক্ষ্য নিয়ে বাংলাদেশ একমাত্র টেস্টে নামছে আগামীকাল (শনিবার)। মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে সকাল সাড়ে ৯টায় শুরু হতে যাওয়া ম্যাচটি সরাসরি দেখা যাবে গাজী টিভিতে।

টেস্ট ক্রিকেটে সময়টা মোটেও ভালো যাচ্ছে না বাংলাদেশের। শেষ ছয় টেস্টের সবক’টিতে হেরেছে মুমিনুল-তামিমরা। এর মধ্যে ৫টিতে আবার ইনিংস ব্যবধানে হার! তাই হারের বৃত্ত থেকে বেরোতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জয় ছাড়া কিছু ভাবছে না স্বাগতিকেরা।

নতুন অভিযানে নামার আগে আফ্রিকার দেশটির বিপক্ষে পরিসংখ্যান আত্মবিশ্বাস জোগাচ্ছে বাংলাদেশকে। সাম্প্রতিক ইতিহাস বেশ সমৃদ্ধ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শেষ পাঁচ টেস্টের চারটিতেই জয় পেয়েছে স্বাগতিকেরা। যদিও ঘরের মাঠে আগের সিরিজে সিলেটে অনুষ্ঠিত প্রথম টেস্টে হারের লজ্জায় ডুবতে হয়েছিল।

পাকিস্তানে ভালো করতে না পারায় টেস্ট দল থেকে বাদ পড়েছেন মাহমুদউল্লাহ। তার বাদ পড়ার বিপরীতে ফিরেছেন মুশফিকুর রহিম। নিরাপত্তার কারণে পাকিস্তান সফরে যাননি উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান।

অন্য সব বারের মতো এবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে স্পিন-নির্ভর আক্রমণে যাচ্ছে না বাংলাদেশ। ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে দুই পেসারের সঙ্গে দুই বিশেষজ্ঞ স্পিনার নিয়েই বোলিং আক্রমণ সাজানোর পরিকল্পনা মুমিনুলদের। সেই হিসেবে আবু জায়েদের সঙ্গে এবাদত হোসেন কিংবা তাসকিন আহমেদকে দেখা যেতে পারে পেস আক্রমণে। অন্যদিকে নিয়মিত স্পিনার তাইজুল ইসলামের সঙ্গে অফ স্পিনার নাঈম হাসানের খেলার সম্ভাবনাই প্রবল।

ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে দুই পেসার খেলানোর ইঙ্গিতই মিলেছে প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর কথায়, ‘আমরা হয়তো দুই পেসার নিয়ে খেলব। আমার মনে হয় না এক পেসার কোনও সুবিধা দেবে। তিন পেসার নিয়ে খেলতে পারলে ভালো হতো। আমরা একজন পেস বোলিং অলরাউন্ডার খুঁজছি, যে ১০-১৫ ওভার বল করতে পারে। আপাতত আমরা হয়তো দুই পেসার নিয়েই নামবো।’

এদিকে ১৪ মাস পর টেস্টে ক্রিকেটে ফিরে দারুণ খেলেছে জিম্বাবুয়ে। ঘরের মাঠে শন উইলিয়ামসের নেতৃত্বে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে একটি টেস্ট ড্রও করেছিল জিম্বাবুয়ে। পারিবারিক কারণে উইলিয়ামস বাংলাদেশ সফরে আসতে পারেননি। তার জায়গায় অধিনায়কত্ব পাওয়া ক্রেগ আর্ভিন আগের সিরিজের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চান, ‘শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আমরা দারুণ একটি সিরিজ কাটিয়েছি। আশা করি ওই আত্মবিশ্বাস নিয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে ভালো করতে পারব।’

/আরআই/কেআর/

লাইভ

টপ