এক টাওয়ারে অনেক সেবা

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২১:৪৮, জুলাই ১৩, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৫১, জুলাই ১৩, ২০২০

বহুমুখী টাওয়ার চালু করলো ইডটকো বাংলদেশ

দেশে প্রথমবারের মতো স্মার্ট স্ট্রিট ফার্নিচার— স্মার্ট ল্যাম্পপোল বা বহুমুখী টাওয়ার চালু করলো ইডটকো বাংলদেশ। এতে অংশীদার হিসেবে রয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন। স্মার্ট সিটি গড়ে তোলার লক্ষ্যে সোমবার (১৩ জুলাই) পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশিপের আওতায় দেশে পরীমূলকভাবে এই স্মার্ট সিটি ফিচার (টাওয়ার) চালু করা হলো। ভবিষ্যতে এই পোলগুলোকে ফাইভ-জি টাওয়ার হিসেবেও ব্যবহার করা যাবে।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো.আতিকুল ইসলাম ভিডিও সম্মেলনের মাধ্যমে এর উদ্বোধন করেন। এ সময় নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসির চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক, লেখক অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল, মোবাইল অপারেটর রবি’র প্রধান নির্বাহী এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহতাব উদ্দিন আহমদ, ইডটকো বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজিং ডিরেক্টর রিকি স্টেইনসহ আরও অনেকে সংযুক্ত ছিলেন।       

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, দেশের নাগরিকদের নিরবচ্ছিন্ন নেটওয়ার্ক সংযোগ ও আধুনিক নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করতে বহুমুখী স্মার্ট ল্যাম্প পোল স্থাপনের এটিই প্রথম সম্মিলিত প্রয়াস। এই সলিউশনটি বিনামূল্যে ওয়াইফাই পরিষেবা, নিরাপত্তা নজরদারি, আধুনিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য স্মার্ট বিন, রিয়েল টাইম এয়ার কোয়ালিটি মনিটর করা ছাড়াও কমিউনিটি মেসেজ দিতে ডিজিটাল সাইনেজ হিসেবে কাজ করবে।

মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘ঢাকাকে স্মার্ট সিটি হিসেবে গড়ে তুলতে আমি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। প্রথমবারের মতো এ ধরনের স্মার্ট সিটি সলিউশন গড়ে তোলার মাধ্যমে সামাজিক এবং বেসামরিক সেবার ক্ষেত্রে নগরবাসীকে একটি নতুন এবং উন্নত প্ল্যাটফর্ম প্রদান করতে পেরে আমরা আনন্দিত। পরীক্ষামূলক এই উদ্যোগটি সফল হলে ২০২১ সালের মধ্যে ঢাকা উত্তরজুড়ে আরও প্রায় ২০০-২৫০টি জায়গায় আমরা এরকম স্মার্ট সলিউশন স্থাপন করবো।’

 

/এইচএএইচ/এপিএইচ/

লাইভ

টপ