X
শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২
১৭ আষাঢ় ১৪২৯

আইজিডব্লিউকে কত ছাড়?

আপডেট : ০৫ মার্চ ২০২২, ১৮:১৪

আইজিডব্লিউ (ইন্টারন্যাশনাল গেটওয়ে) অপারেটররা আবারও সুবিধা পেলো। এবার আন্তর্জাতিক ভয়েস কল পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর পারফরমেন্স ব্যাংক গ্যারান্টি (পিবিজি) কমানো হয়েছে।  ফলে স্বাভাবিকভাবে প্রশ্ন উঠেছে, বিদেশ থেকে ভয়েস কল আসার মাধ্যম আইজিডব্লিউগুলোকে আর কত ছাড় দেওয়া হবে?

এর আগে আইজিডব্লিউ অপারেটরদের বার্ষিক লাইসেন্স ফি কমানো হয়। তারও আগে কয়েক ধাপে আন্তর্জাতিক কলরেট কমানো হয়েছে। সব মিলিয়ে এসব অপারেটর লাইসেন্স পাওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত কয়েকবার ছাড় পেয়েছে বলে জানা যায়। 

সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) কাছে আইজিডব্লিউ অপারেটরদের সাড়ে ৭ কোটি টাকা পিবিজি দিতে হতো। আইজিডব্লিউ অপারেটর্স ফোরামের (আইওএফ) বিভিন্ন সময়ের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এই অঙ্ক কমিয়ে ১ কোটি টাকা পুনর্নির্ধারণ করেছে কমিশন। 

অপরদিকে বার্ষিক লাইসেন্স ফি ৩ কোটি ৭৫ লাখ টাকা থেকে কমিয়ে ১ কোটি ২৫ লাখ টাকা করা হয়। যদিও পরবর্তী সময়ে বিটিআরসি’র সর্বশেষ কমিশন বৈঠকে সেটি বাড়িয়ে দেড় কোটি টাকা করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, আইজিডব্লিউ অপারেটরদের রেভিনিউ শেয়ারিং (রাজস্ব ভাগাভাগি) বাবদ সম্ভাব্য সব বকেয়া (বিলম্ব ফি-সহ) পরিশোধের মাধ্যমে সরকারের রাজস্ব আহরণ নিশ্চিত করা যাবে। সেই স্বার্থে প্রয়োজনীয় পরিমাণ পিবিজি জমা রাখার বিষয়ে অর্থ, হিসাব ও রাজস্ব বিভাগ বর্তমানে যেভাবে কাজ করে আসছে তারই ধারাবাহিতা অব্যাহত থাকবে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিটিআরসি’র একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা বলেন, ‘আইজিডব্লিউকে এখন পর্যন্ত অন্তত পাঁচ-ছয়বার এ ধরনের সুবিধা দেওয়া হয়েছে।’ তার দাবি, টেলিকম খাতের আর কোনও লাইসেন্সধারী প্রতিষ্ঠান এমন সুবিধা পায়নি।            

সর্বশেষ গত বছরের শেষ দিকে বিদেশ থেকে আসা কলের খরচ কমানো হয়। তখন ইনকামিং কলরেট ০.০০৬ থেকে কমিয়ে ০.০০৪ ডলার (০.৪ সেন্ট ) করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, একযুগের ব্যবধানে বিদেশ থেকে আসা কল থেকে বিটিআরসি’র রেভিনিউ শেয়ারিং কমেছে ১৩৫ কোটি টাকার বেশি।

২০০৯ সালের মে থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত ৫২ মাস আন্তর্জাতিক ইনকামিং কলরেট ছিল প্রতি মিনিট ৩ সেন্ট। তখন বিটিআরসি রেভিনিউ শেয়ারিং বাবদ ইনকামিং কল থেকে প্রতি মাসে পেতো ১৪৮ দশমিক ২৮ কোটি টাকা। 

২০১৪ সালের সেপ্টেম্বর থেকে ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ৪১ মাসে কলরেট ছিল ১ দশমিক ৫ সেন্ট। সেই সময় বিটিআরসি’র রেভিনিউ শেয়ারিংয়ের পরিমাণ ছিল প্রতি মাসে ১০২ দশমিক ৬৩ কোটি টাকা। 

২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ২৪ মাস ইনকামিং কলরেট ছিল ১ দশমিক ৭৫ সেন্ট। তখন বিটিআরসি’র রেভিনিউ শেয়ারিংয়ের পরিমাণ ছিল ৫১ দশমিক ৩৭ কোটি টাকা। 

২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে ২০২১ সালের আগস্ট পর্যন্ত ১৮ মাসে ইনকামিং কল রেট ০.৬ সেন্ট। এতে বিটিআরসি’র রাজস্ব ভাগাভাগির পরিমাণ নেমে আসে ১২ দশমিক ৭৩ কোটি টাকায়।

দেশে সব মিলিয়ে আইজিডব্লিউ লাইসেন্স পাওয়া প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৩০টি, এরমধ্যে ২০১২ সালেই ২৫টি প্রতিষ্ঠান এটি পেয়েছে। ২০১৯ সালে সর্বশেষ আরও একটি প্রতিষ্ঠানকে এই লাইসেন্স দেওয়া হয়।

জানা যায়, ২০১৫ সালে আইওএফ গঠনের পর সরকার অনুমোদিত নতুন ট্রপোলজি দুটি ধাপের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক কল পরিচালিত হচ্ছে। এর প্রথম ধাপে রয়েছে সব আইজিডব্লিউ লাইসেন্সধারী প্রতিষ্ঠান। দ্বিতীয় ধাপে আছে ৭টি আইজিডব্লিউ অপারেটর সুইচ (আইওএস), এগুলো সবই প্রথম ধাপ থেকে নির্বাচিত আইজিডব্লিউ লাইসেন্সধারী প্রতিষ্ঠান। আইওএফ ট্রপোলজির দ্বিতীয় ধাপের ৭টি আইওএসের মাধ্যমে সব আন্তর্জাতিক কল পরিচালিত হচ্ছে।

/জেএইচ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
জঙ্গিদের সুপথে ফেরানো ও সচেতনতা কার্যক্রম কতদূর?
জঙ্গিদের সুপথে ফেরানো ও সচেতনতা কার্যক্রম কতদূর?
‌‘আমাদের খোঁজ কেউ রাখে না’ 
‌‘আমাদের খোঁজ কেউ রাখে না’ 
ওডেসায় রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, নিহত ১০
ওডেসায় রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, নিহত ১০
গোমতীর পানি কমে বেরিয়ে আসছে ক্ষত
গোমতীর পানি কমে বেরিয়ে আসছে ক্ষত
এ বিভাগের সর্বশেষ
আসছে কৃষিভিত্তিক ১২টি কমিউনিটি রেডিও
আসছে কৃষিভিত্তিক ১২টি কমিউনিটি রেডিও
বাংলাদেশ ব্যান্ডউইথ সংকটে পড়বে না: মোস্তাফা জব্বার
বাংলাদেশ ব্যান্ডউইথ সংকটে পড়বে না: মোস্তাফা জব্বার
কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ৩৭ লাখ টাকা উৎসাহ ভাতা দিচ্ছে বিটিআরসি
কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ৩৭ লাখ টাকা উৎসাহ ভাতা দিচ্ছে বিটিআরসি
জাতিসংঘের ব্রডব্যান্ড কমিশনের লক্ষ্য অর্জন করলো বাংলাদেশ
এক দেশ এক রেটজাতিসংঘের ব্রডব্যান্ড কমিশনের লক্ষ্য অর্জন করলো বাংলাদেশ
৫জির জন্য ২২০ মেগাহার্টজ তরঙ্গ?
৫জির জন্য ২২০ মেগাহার্টজ তরঙ্গ?