X
মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

ডাক টাকার উদ্বোধন করলেন জয়

আপডেট : ১১ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৩:৩৭

পোস্ট অফিসের মাধ্যমে দেশের মানুষকে ব্যাংকিং সুবিধার (আন ব্যাংকড) আওতায় আনতে ডাক টাকা চালু করেছে ডাক বিভাগ। মোবাইলের মাধ্যমে এ টাকা (ডিজিটাল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস) ব্যবহার করা যাবে।

আজ সোমবার দুপুরে সচিবালয়ে ডাকা ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এ টাকার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে ও তার তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

এসময় সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন, ‘ডাক বিভাগের এ সেবা উদ্বোধন করতে পেরে আমি আনন্দিত। আমি আরও আনন্দিত যে, সর্বনিম্ন দুই টাকা রেখে এ অ্যাকউন্ট পরিচালনা করা যাবে। অর্থাৎ অ্যাকাউন্টে কমপক্ষে দুই টাকা ব্যালেন্স রাখতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংক এ প্রক্রিয়া শুরু করেছিল ৫ টাকা দিয়ে।’

তিনি আরও বলেন, ‘গ্রামে বা ইউনিয়ন পর্যায়ে সাধারণত ব্যাংকের শাখা থাকে না। ব্যাংক করতে অনেক টাকা লাগে, সময় লাগে। এ কারণে আমরা চেয়েছি ডাকঘরের মাধ্যমে এই সেবা গ্রামের মানুষের কাছে পৌঁছাতে। যাতে তারা গ্রামে বসে টাকা লেনদেন, ভাতা পাওয়া ও খরচ করতে পারেন।’

অনুষ্ঠানে ডাকা ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেন, ‘২০২১ সালের মধ্যে ডাক বিভাগ সম্পূর্ণ ডিজিটাল হবে।’
তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য ২০১৮ সালের মধ্যে তিন কোটি আনব্যাংকড মানুষকে এই সেবার আওতায় আনা।’
অনুষ্ঠানে টাঙ্গাইলের বাসিন্দা মর্জিনা বেগমের মোবাইল নম্বর দিয়ে হিসাব খুলে এই সেবার উদ্বোধন করা হয়। মর্জিনা বেগমের কোনও ব্যাংক হিসাব নেই।

প্রসঙ্গত, ডাক টাকায় কারিগরি সহযোগিতা দিচ্ছে ডিমানি ও আইটিসিএল।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন,বিটিআরসির চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ, ডাকা ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সচিব শ্যামসুন্দর শিকদার প্রমুখ।

আরও পড়ুন:
নির্বাচনের খবর নেই, ডাকসু ভবন ১৮ তলা




/এইচএএইচ/এসএনএইচ/এসটি/

সম্পর্কিত

ভুল নিয়ে গুগলের জন্ম 

ভুল নিয়ে গুগলের জন্ম 

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার স্বল্পমেয়াদী উদ্ভাবনীর ট্রেন্ড চারটি: গার্টনার

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার স্বল্পমেয়াদী উদ্ভাবনীর ট্রেন্ড চারটি: গার্টনার

ওএসএস সার্ভিসে যুক্ত হচ্ছে আরও তিন সেবা

ওএসএস সার্ভিসে যুক্ত হচ্ছে আরও তিন সেবা

২০২২ সালে চালু হচ্ছে স্কুল অব ফিউচার

২০২২ সালে চালু হচ্ছে স্কুল অব ফিউচার

ভুল নিয়ে গুগলের জন্ম 

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:৫৩

আজ গুগলের জন্মদিন। বছর হিসেবে ২৩তম জন্মদিন পালন করছে গুগল। তবে ইতিহাস ঘাঁটলে দেখা যায় আজ থেকে ২৩ বছর আগে অর্থাৎ ১৯৯৮ সালের ৪ সেপ্টেম্বর জন্ম হয়েছিল গুগলের। যদিও ২০১৩ সাল থেকে ২৭ সেপ্টেম্বর পালন করা হয় গুগলের জন্মদিন। আবার একদম গোঁড়া থেকে শুরু করলে দেখা যায় গুগল তার যাত্রা শুরু করে ১৯৯৬ সাল থেকে।

১৯৯৬ সালে গুগলের দুই জনক সের্গেই ব্রিন এবং ল্যারি পেজ তখন স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের পিএইচডি’র ছাত্র। তারা তাদের একটি গবেষণার প্রকল্প হিসেবে এই সার্চ ইঞ্জিনটির যাত্রা শুরু করেন। গবেষণায় তাদের তত্ত্ব ছিল তখনকার কৌশলগুলোর চেয়ে নতুন কৌশলে কোনও একটা সার্চ ইঞ্জিন বানানো যেখানে ওয়েবসাইটগুলোর মধ্যকার পারস্পরিক সম্পর্ক বিশ্লেষণ করে ফলাফল দেখাবে। তারা একে পেজর‍্যাঙ্ক হিসেবে আখ্যায়িত করেন। শুরুতে এর নাম ছিল ব্যাকরাব। কারণ এই ব্যবস্থায় সাইটের ব্যাকলিংকগুলো যাচাই করা হতো ওই সাইটটি কত গুরুত্বপূর্ণ তা নির্ধারণ করার জন্য।

পরে তার নাম পরিবর্তন করে গুগল রাখা হয়। এই নামটি আসলে ভুল বানানে লেখা। এই নামটি দিয়ে বোঝানো হত একটি সংখ্যার পেছনে একশত শূন্য। মূলত সার্চ ইঞ্জিনের বিশাল পরিমাণ তথ্য প্রদানের ব্যপারটিকে তারা গুরুত্ব দিতে চেয়েছিলেন বলে এই নামটি দেওয়া।

গুগলের ডোমেইন নাম নিবন্ধন করা হয় ১৯৯৭ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর। আর কর্পোরেশন হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে ৪ সেপ্টেম্বর ১৯৯৮ সালে। এরপর আরও কয়েকটি তারিখে গুগলের জন্মদিন পালন করা হলেও সর্বশেষ ২০১৩ সাল থেকে ২৭ সেপ্টেম্বর পালন করা হয় গুগলের জন্মদিন। সে বছর ছিল গুগলের ১৫তম জন্মদিন।

তবে কেন তারা এই দিনটিকে তাদের জন্মদিন হিসেবে বেছে নিয়েছে তা পরিষ্কার নয়। তবে ধারণা করা হয় সে সময়ে গুগলের প্রতিযোগী ইয়াহু সার্চ ইঞ্জিনের সঙ্গে ২০০৫ সালের একটি বিরোধকে কেন্দ্র করে এমনটি হতে পারে।

গুগলের হোমপেজে গুগল ডুডলেরও যাত্রা শুরু হয় ১৯৯৮ সাল থেকে। ‘বার্নিং ম্যান ফেস্টিভাল’কে কেন্দ্র করে এই গুগল ডুডলের যাত্রা শুরু। এরপর থেকে বিভিন্ন উৎসবেই গুগল ডুডল বিভিন্ন আঙ্গিকে সেসব উৎসব পালন করে থাকে। এবারের গুগলের জন্মদিনও পালন করছে ডুডল। গুগলের হোমপেজে গেলে দেখা যাবে, গুগলের এল-কে করা হয়েছে একটি মোমবাতি। এর নিচে ২৩ লেখা। সংখ্যাটি লেখা হয়েছে একটি দুইতলা কেকের ওপর। কয়েক সেকেন্ড পরে কেকটি গুফি কার্টুনের মতো হয়ে এক পাশ থেকে একটি হাত বের হয়ে কেকের উপরের অংশটি হ্যাটের মতো উপরে তুলে জানাবে ‘হ্যালো’।

/এইচএএইচ/এমআর/

সম্পর্কিত

ব্যক্তিগত ছবি-ভিডিও’র নিরাপত্তায় গুগল ফটোজে নতুন ফিচার

ব্যক্তিগত ছবি-ভিডিও’র নিরাপত্তায় গুগল ফটোজে নতুন ফিচার

গুগলও আনছে ফোল্ডেবল স্মার্টফোন

গুগলও আনছে ফোল্ডেবল স্মার্টফোন

গুগল সার্চের ডার্ক মোড সুবিধা ডেস্কটপে চালু করবেন যেভাবে

গুগল সার্চের ডার্ক মোড সুবিধা ডেস্কটপে চালু করবেন যেভাবে

যে কারণে ৮০ কর্মীকে বরখাস্ত করেছে গুগল

যে কারণে ৮০ কর্মীকে বরখাস্ত করেছে গুগল

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার স্বল্পমেয়াদী উদ্ভাবনীর ট্রেন্ড চারটি: গার্টনার

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:২৩

স্বল্পমেয়াদে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বিষয়ক উদ্ভাবনীর চারটি ট্রেন্ড বা ধারা চিহ্নিত করেছে মার্কিন গবেষণাধর্মী প্রতিষ্ঠান গার্টনার। চারটি ধারার মধ্যে আছে- রেসপনসিবল এআই, স্মল অ্যান্ড ওয়াইড ডাটা, অপারেশনালাইজেশন অব এআই প্ল্যাটফর্মস এবং ইফিশিয়েন্ট ইউজ অব ডাটা, মডেল অ্যান্ড কম্পিউটার রিসোর্সেস। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাবিষয়ক সব উদ্যোগ এই চারটি ধারাকে কেন্দ্র করেই গৃহীত হবে বলে মনে করে গার্টনার।

মার্কিন প্রতিষ্ঠানটির সিনিয়র প্রিন্সিপাল রিসার্চ অ্যানালিস্ট শুভাঙ্গী ভাসিস্তা বলেন, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বিষয়ক উদ্ভাবন খুব দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলেছে। মানুষ ২ থেকে ৫ বছরের মধ্যে উদ্ভাবনগুলোকে গ্রহণ করছে। আগামী বছরগুলোতে এজ এআই, কম্পিউটার ভিশন, ডিসিশন ইন্টেলিজেন্স এবং মেশিন লার্নিং বাজারে এক বিরাট পরিবর্তন নিয়ে আসবে।

গার্টনারের মতে, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বাজার এখন বিবর্তনের পর্যায়ে রয়েছে। ব্যবহারকারীরা এখন এমন প্রযুক্তি চাচ্ছেন যেগুলো বর্তমানে প্রচলিত কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ক্ষমতার চেয়ে আরও বেশি শক্তিশালী হবে।

রেসপনসিবল এআই কী

বিশ্বস্ততা, স্বচ্ছতা, নিরপেক্ষতা, মূল্যায়ন ক্ষমতা ইত্যাদি সবকিছু মিলিয়ে স্টেকহোল্ডার বা অংশীদারদের কাছে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার গুরুত্ব ক্রমেই বাড়ছে বলে উল্লেখ করেছেন গার্টনারের গবেষণা বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট সেটলানা সিকিউলার। রেসপনসিবল এআই নিরপেক্ষতা নিশ্চিতে সহায়তা করে। এমনকি ডাটার মধ্যে পক্ষপাতিত্ব থাকার পরও এটি নিরপেক্ষতার নিশ্চয়তা দেয়। পাশাপাশি বিশ্বাস অর্জন এবং স্বচ্ছতা নিশ্চিতেও কাজ করে রেসপনসিবল এআই।

স্মল অ্যান্ড ওয়াইড ডাটা কী

যেকোনও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বিষয়ক উদ্যোগের সফলতা নির্ভর করে এর ডাটা গঠনের ওপর। স্মল অ্যান্ড ওয়াইড ডাটা ব্যাপক বিশ্লেষণে সহায়তা করে, বিগ ডাটার ওপর যেকোনও প্রতিষ্ঠানের নির্ভরতা কমায় এবং পরিস্থিতি অনুযায়ী আরও উন্নত ও সম্পূর্ণ সতর্কতা সরবরাহ করে। গার্টনারের মতে, ২০২৫ সালের মধ্যে ৭০ শতাংশ প্রতিষ্ঠান বিগ ডাটা থেকে স্মল ও ওয়াইড ডাটায় গুরুত্ব দিতে বাধ্য হবে।

অপারেশনালাইজেশন অব এআই প্ল্যাটফর্মস

অপারেশনালাইজেশন অব এআই প্ল্যাটফর্মস বলতে বোঝায় কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাভিত্তিক যেকোনও ধারণাকে বাস্তবে প্রয়োগ করা। গার্টনার বলছে, পাইলট প্রজেক্ট থেকে পুরোদমে চালু হতে পারে কেবল অর্ধেক কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বিষয়ক ধারণা। এক্ষেত্রে তাদের গড়ে ৯ মাসের মতো সময় লাগে।

ইফিশিয়েন্ট ইউজ অব রিসোর্সেস

ডাটার পরিমাণ ও জটিলতার ওপর ভিত্তি করে যাবতীয় কাজ সম্পাদিত হয়। এক্ষেত্রে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বিষয়ক উদ্ভাবনের এমন সব রিসোর্সের প্রয়োজন হয় যা দিয়ে দক্ষতার সঙ্গে কাজটি করা যাবে। ব্যবসায়িক অনেক সমস্যা আরও দক্ষতার সঙ্গে সমাধান করায় বাজারে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার গ্রহণযোগ্যতা বাড়ছে।

/এইচএএইচ/এমএস/

সম্পর্কিত

ভুল নিয়ে গুগলের জন্ম 

ভুল নিয়ে গুগলের জন্ম 

ওএসএস সার্ভিসে যুক্ত হচ্ছে আরও তিন সেবা

ওএসএস সার্ভিসে যুক্ত হচ্ছে আরও তিন সেবা

২০২২ সালে চালু হচ্ছে স্কুল অব ফিউচার

২০২২ সালে চালু হচ্ছে স্কুল অব ফিউচার

এক হাজার গ্রামকে স্মার্টফার্মিংয়ের আওতায় আনা হচ্ছে

এক হাজার গ্রামকে স্মার্টফার্মিংয়ের আওতায় আনা হচ্ছে

ওএসএস সার্ভিসে যুক্ত হচ্ছে আরও তিন সেবা

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:১৪

বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ ওয়ান স্টপ সার্ভিস (ওএসএস) পোর্টালে নতুন সেবা যুক্ত করার লক্ষ্যে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদফতরের সঙ্গে সমঝোতা করেছে।

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের কার্যালয়ে এক অনাড়ম্বর সভার মাধ্যমে এই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।

বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের পক্ষে ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. বিকর্ণ কুমার ঘোষ এবং কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদফতরের পক্ষে মহাপরিদর্শক মো. নাসির উদ্দিন আহমেদ সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম।

এই সমঝোতার মাধ্যমে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীদের দ্রুত সেবা প্রদান নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষর ওয়ান স্টপ সার্ভিস পোর্টালের সঙ্গে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদফতরের তিনটি সেবার ইন্টিগ্রেশন করা হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এন এম জিয়াউল আলম সংশ্লিষ্টদের আহ্বান জানান যেন সব সেবা অতি দ্রুত ওয়ান স্টপ সার্ভিস পোর্টালে যুক্ত করা যায়।

ডা. বিকর্ণ কুমার ঘোষ বলেন, বিনিয়োগকারীদের বর্তমানে, ১৪৮টি সেবা প্রদান করা হচ্ছে যার মধ্যে ৪০টি সেবা অনলাইন (https://ossbhtpa.gov.bd/) পোর্টালের মাধ্যমে দেওয়া হচ্ছে।

/এইএচএইচ/এমএস/

সম্পর্কিত

ভুল নিয়ে গুগলের জন্ম 

ভুল নিয়ে গুগলের জন্ম 

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার স্বল্পমেয়াদী উদ্ভাবনীর ট্রেন্ড চারটি: গার্টনার

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার স্বল্পমেয়াদী উদ্ভাবনীর ট্রেন্ড চারটি: গার্টনার

২০২২ সালে চালু হচ্ছে স্কুল অব ফিউচার

২০২২ সালে চালু হচ্ছে স্কুল অব ফিউচার

এক হাজার গ্রামকে স্মার্টফার্মিংয়ের আওতায় আনা হচ্ছে

এক হাজার গ্রামকে স্মার্টফার্মিংয়ের আওতায় আনা হচ্ছে

২০২২ সালে চালু হচ্ছে স্কুল অব ফিউচার

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৪৩

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, রোবট এখন কোনও বিলাসী বিষয় নয়, রোবট আমাদের নিত্য প্রয়োজনীয় হয়ে উঠেছে। আমাদের আগামী দিনের লক্ষ্য হচ্ছে ডিজিটাল ইকোনমি ও নলেজ বেইজড সোসাইটি গড়ে তোলার মাধ্যমে একটি স্মার্ট নেশন বিনির্মাণ করা।
বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াডের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। প্রতিমন্ত্রী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত ছিলেন।

তিনি জানান, রোবটিকস সম্পর্কে হাতে কলমে শিক্ষা দিতে দেশে ৩০০টি স্কুল অব ফিউচার প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে। যা ২০২২ সাল থেকে চালু করা হবে।

পলক বলেন, মানুষের জীবনের ঝুঁকি থাকে এমন কাজগুলোতে রোবটের আরও বেশি ব্যবহার করার জন্য অর্থায়নসহ তরুণ শিক্ষার্থী এবং গবেষকদের উৎসাহিত করতে হবে। আগামী বছর দেশে একটি রোবটিকস ফেস্টিভাল করা হবে।

অনলাইন অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক ড. মো. আব্দুল মান্নানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. হাফিজ মুহম্মদ হাসান বাবু, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল প্রমুখ।

/এইচএএইচ/এমআর/

সম্পর্কিত

এক হাজার গ্রামকে স্মার্টফার্মিংয়ের আওতায় আনা হচ্ছে

এক হাজার গ্রামকে স্মার্টফার্মিংয়ের আওতায় আনা হচ্ছে

বাংলাদেশি ৫ ‍স্টার্টআপকে নিয়ে ডেমো ডে উদযাপন করলো দক্ষিণ কোরিয়া

বাংলাদেশি ৫ ‍স্টার্টআপকে নিয়ে ডেমো ডে উদযাপন করলো দক্ষিণ কোরিয়া

আইসিটি বিভাগের কাজের অগ্রগতি ৯৯ শতাংশ

আইসিটি বিভাগের কাজের অগ্রগতি ৯৯ শতাংশ

সরকার স্টার্টআপ সংস্কৃতি গড়ে তুলতে নতুন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে: পলক

সরকার স্টার্টআপ সংস্কৃতি গড়ে তুলতে নতুন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে: পলক

এক হাজার গ্রামকে স্মার্টফার্মিংয়ের আওতায় আনা হচ্ছে

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:১১

তথ্য ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, পর্যায়ক্রমে ২০৪১ সালের মধ্যে এক হাজার গ্রামকে স্মার্টফার্মিংয়ের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

রবিবার ( ২৬ সেপ্টম্বর) বাংলাদেশ কৃষি অর্থনীতিবিদ সমিতির উদ্যোগে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে আয়োজিত ‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লব ও বাংলাদেশের কৃষি যান্ত্রিকীকরণ’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা ২০ হাজার কৃষককে টার্গেট করে সাড়ে ৩ হাজার উদ্যোক্তা তৈরি এবং ১০টি ডিজিটাল গ্রাম গড়ে তোলার জন্য একটি প্রকল্প নিয়েছি। আমাদের ডেডলাইন হচ্ছে— ২০১৮ সালে যে ১৫টি ডিভাইস পাইলট করেছিলাম, সেখান থেকে ২০২৫ সালের মধ্যে ২০ হাজার কৃষক, ২০ হাজার ডিভাইস, সাড়ে ৩ হাজার উদ্যোক্তা এবং ১০টি গ্রামকে ডিজিটালাইজ করতে চাই। এভাবে ফেজ ওয়ান, টু, থ্রি করে ২০৪১ সালের মধ্যে ২০ লাখ কৃষক, ২০ লাখ ডিভাইস এবং সাড়ে ৩ লাখ উদ্যোক্তাকেও স্মার্টফার্মিংয়ের আওতায় আনা হবে।’

স্মার্টফার্মিংয়ের এই লক্ষ্যে পৌঁছাতে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে বলেও জানান জুনাইদ আহমেদ পলক।

তিনি বলেন, ‘এই ইকোসিস্টেমের জন্য আমাদের ডিজিটাল ভিলেজ সেন্টার, ন্যাশনাল ডেটা সেন্টার, ডিজিটাল ভিলেজেস, এমএফএস, , ইন্টার-অপারেবল ডিজিটাল ট্রান্সজেকশন প্লাটফর্মসহ অন্যান্য কম্পনেন্টগুলোকে একত্রিত করে কাজ করবো।’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এমএন জিয়াউল আলম, কৃষি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মেসবাহুল ইসলাম।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্ম পাওয়ার অ্যান্ড মেশিনারি বিভাগের অধ্যাপক মো. মঞ্জুরুল আলম ।

আলোচক হিসেব উপস্থিত ছিলেন এসিআই অ্যাগ্রো লিংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী এফএইচ আনসারী। সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ কৃষি অর্থনীতিবিদ সমিতির সভাপতি সাজ্জাদুল হাসান।

 

/এইচএএইচ/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

২০২২ সালে চালু হচ্ছে স্কুল অব ফিউচার

২০২২ সালে চালু হচ্ছে স্কুল অব ফিউচার

বাংলাদেশি ৫ ‍স্টার্টআপকে নিয়ে ডেমো ডে উদযাপন করলো দক্ষিণ কোরিয়া

বাংলাদেশি ৫ ‍স্টার্টআপকে নিয়ে ডেমো ডে উদযাপন করলো দক্ষিণ কোরিয়া

আইসিটি বিভাগের কাজের অগ্রগতি ৯৯ শতাংশ

আইসিটি বিভাগের কাজের অগ্রগতি ৯৯ শতাংশ

সরকার স্টার্টআপ সংস্কৃতি গড়ে তুলতে নতুন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে: পলক

সরকার স্টার্টআপ সংস্কৃতি গড়ে তুলতে নতুন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে: পলক

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ভুল নিয়ে গুগলের জন্ম 

ভুল নিয়ে গুগলের জন্ম 

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার স্বল্পমেয়াদী উদ্ভাবনীর ট্রেন্ড চারটি: গার্টনার

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার স্বল্পমেয়াদী উদ্ভাবনীর ট্রেন্ড চারটি: গার্টনার

ওএসএস সার্ভিসে যুক্ত হচ্ছে আরও তিন সেবা

ওএসএস সার্ভিসে যুক্ত হচ্ছে আরও তিন সেবা

২০২২ সালে চালু হচ্ছে স্কুল অব ফিউচার

২০২২ সালে চালু হচ্ছে স্কুল অব ফিউচার

এক হাজার গ্রামকে স্মার্টফার্মিংয়ের আওতায় আনা হচ্ছে

এক হাজার গ্রামকে স্মার্টফার্মিংয়ের আওতায় আনা হচ্ছে

ওয়ালটন নিয়ে এলো সাউন্ডবার

ওয়ালটন নিয়ে এলো সাউন্ডবার

চার্জিং পোর্টই থাকছে না আইফোনে

চার্জিং পোর্টই থাকছে না আইফোনে

দুই লাখ ৬০ হাজার ডলার বিনিয়োগ পেলো মার্চেন্টবে

দুই লাখ ৬০ হাজার ডলার বিনিয়োগ পেলো মার্চেন্টবে

১৬ ডিসেম্বর ফাইভ-জি চালু করতে পারে টেলিটক

১৬ ডিসেম্বর ফাইভ-জি চালু করতে পারে টেলিটক

চ্যাটবটে আরও উন্নত ফিচার যুক্ত করলো রিভ চ্যাট

চ্যাটবটে আরও উন্নত ফিচার যুক্ত করলো রিভ চ্যাট

সর্বশেষ

এইচএসসি পাসেই চাকরি, বেতন ২২ হাজার ৫০০ টাকা

এইচএসসি পাসেই চাকরি, বেতন ২২ হাজার ৫০০ টাকা

সেই চালককে মোটরসাইকেল উপহার দিতে চায় শামসুল হক ফাউন্ডেশন

সেই চালককে মোটরসাইকেল উপহার দিতে চায় শামসুল হক ফাউন্ডেশন

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ: জয়

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ: জয়

কন্যা দিবস আর কন্যাশিশু দিবসের বিভ্রান্তি

কন্যা দিবস আর কন্যাশিশু দিবসের বিভ্রান্তি

ভবন থেকে ইট পড়ে পথচারীর মৃত্যু

ভবন থেকে ইট পড়ে পথচারীর মৃত্যু

© 2021 Bangla Tribune