X
সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ৭ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

শনিবার জমিয়তের কাউন্সিল: আসছে বড় পরিবর্তন!

আপডেট : ০৬ ডিসেম্বর ২০১৫, ১৯:৪৩

জমিয়তের কাউন্সিল বড় ধরনের পরিবর্তন আসছে ২০ দলীয় জোটের শরিক দল জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের। শনিবার (৭ নভেম্বর) রাজধানীর আজিমপুর এলাকায় একটি কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত হচ্ছে দলটির কাউন্সিল। আর এই ত্রিবার্ষিক কাউন্সিলে দলটির সভাপতি ও মহাসচিব পদসহ বেশ কিছু পদে পরিবর্তন আসতে পারে। এরই মধ্যে দলের সভাপতি, সিনিয়র সহ-সভাপতি ও মহাসচিব পদ নিয়ে লবিং শুরু হয়েছে।  দলের একাধিক বিশ্বস্ত সূত্রে এমন তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, কাউন্সিলের মধ্য দিয়ে ২৪ বছর ধরে থাকা মাওলানা মুফতি ওয়াক্কাছের মহাসচিব পদে পরিবর্তন হবে। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সরকারের সময়ের এই ধর্মমন্ত্রী ১৯৯১ সালে জমিয়তের মহাসচিব হিসেবে নির্বাচিত হন। পাশাপাশি বর্তমান নির্বাহী সভাপতি আরজাবাদ মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মোস্তফা আজাদও পদান্তরিত হতে পারেন।

জানতে চাইলে মাওলানা মুফতি ওয়াক্কাছ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি। আজ নির্বাহী পরিষদের বৈঠক হবে। এরপরেই সিদ্ধান্ত আসবে। পরে শনিবার কাউন্সিলের মাধ্যমে জানানো হবে।

মহাসচিব পদ থেকে সরে পড়তে কোনও চাপ আছে কি না, এমন প্রশ্নের উত্তরে মুফতি ওয়াক্কাছ বলেন, না, এমন চাপ নেই। দল যা সিদ্ধান্ত নেবে, আমি তাই মেনে নেব।

জমিয়তের একাধিক শীর্ষ দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, এক বছরের বেশি সময় ধরে জমিয়তের মহাসচিব পদ নিয়ে জটিলতা চলছে। এ নিয়ে তিনটি গ্রুপে লবিংও চলছিল। একটি গ্রুপের চেষ্টা ছিল, বর্তমান সহ-সভাপতি ও প্রভাবশালী নেতা, হেফাজতের ঢাকা মহানগর আমির মাওলানা নূর হোসাইন কাসেমীর জামাই মাওলানা বাহাউদ্দীন জাকারিয়াকে মহাসচিব করার। মাওলানা বাহাউদ্দীন আরজাবাদ মাদ্রাসার সাবেক প্রিন্সিপাল মাওলানা শামসুদ্দিন কাসেমীর ছেলে। বয়স বিবেচনায় এই গ্রুপের লবিং শেষ পর্যন্ত মাঠে টেকেনি। পরবর্তী সময়ে মাওলানা নূর হোসাইন কাসেমী নিজেই মহাসচিব হতে নিজের পছন্দ অনুসারীদের জানিয়ে দেন।

অন্য একটি গ্রুপ হচ্ছে জমিয়তের কেন্দ্রীয় নেতা ও সাবেক সংসদ সদস্য শাহীনূর পাশা চৌধুরীর পক্ষে। সিলেট জমিয়তের একটি বড় অংশ তাকে মহাসচিব হিসেবে দেখতে আগ্রহী। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে শাহীনূর পাশা চৌধুরী বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, মহাসচিব বিষয়ে সিদ্ধান্ত কাউন্সিলেই হবে। আপনার মহাসচিব হওয়ার ইচ্ছা আছে কি না, এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, এখন নির্বাহী পরিষদের  বৈঠক চলছে। পরে কথা বলি।

তৃতীয় গ্রুপটি এখনও মাওলানা ওয়াক্কাছকেই মহাসচিব হিসেবে দেখতে মরিয়া। জমিয়তের কয়েকজন নেতা জানান, মাওলানা ওয়াক্কাছ রাজনৈতিক-প্রাজ্ঞ মানুষ। তিনি নিজে মন্ত্রী ছিলেন। কয়েকবার জেল খেটেছেন। এখন দেশ ও জাতির ক্রান্তিকালে তাকে সরিয়ে দিলে পরীক্ষিত নতুন নেতা পাওয়া কঠিন।

সূত্র জানায়, শুক্রবার সন্ধার পর রাজধানীর বারিধারা মাদ্রাসায় মজলিসে আমেলার (নির্বাহী পরিষদ) বৈঠক শুরু হবে। ওই বৈঠকেই মহাসচিব পদটি চূড়ান্ত করা হবে। পাশাপাশি নির্বাহী সভাপতি হিসেবেও নতুন কাউকে দেখা যেতে পারে। এ নিয়েও আলোচনা হতে পারে।

শুক্রবার বিকালে বারিধারা মাদ্রাসা থেকে মোবাইলে একজন কেন্দ্রীয় নেতা জানান, মূলত সংকট দুটি পদ নিয়ে। একটি মহাসচিব ও দ্বিতীয়টি নির্বাহী সভাপতি। হতে পারে মহাসচিব হিসেবে মাওলানা নূর হোসাইন কাসেমী ও নির্বাহী সভাপতি হিসেবে মুফতি ওয়াক্কাছই চূড়ান্ত হতে পারেন। তবে মহাসচিব পদ নিয়ে একমত হলেও বর্তমান নির্বাহী সভাপতি মোস্তাফা আজাদকে সরিয়ে নূর হোসাইন কাসেমীকে এ পদে রাখা হতে পারে।সেক্ষেত্রে মোস্তফা আজাদকে সহ-সভাপতি করা হতে পারে।

সূত্র মতে, জমিয়তে ইসলামের সভাপতি পদে কোনও পরিবর্তন আসছে না। বর্তমান সভাপতি আল্লামা হোসাইন আহমদ মাদানীর খলিফা শায়খ আবদুল মোমিন এ দায়িত্বে আছেন। সিনিয়র আলেম ও মাদানীর খলিফা হওয়ায় সম্মাজনকভাবে তাকে এ পদে রাখা হয়েছে। যদিও প্রশাসনিক দায়িত্ব সবটুকু মহাসচিব ও নির্বাহী সভাপতিই পালন করে থাকেন।

/এমএনএইচ/

সর্বশেষ

ইরান নিয়ে ইসরায়েলের হুঁশিয়ারি

ইরান নিয়ে ইসরায়েলের হুঁশিয়ারি

লন্ডনে গাড়ি দুর্ঘটনায় আমিরাতের অ্যাক্টিভিস্টের মৃত্যু

লন্ডনে গাড়ি দুর্ঘটনায় আমিরাতের অ্যাক্টিভিস্টের মৃত্যু

৫ লাখ ছাড়ালো ব্রাজিলে করোনায় মৃতের সংখ্যা

৫ লাখ ছাড়ালো ব্রাজিলে করোনায় মৃতের সংখ্যা

রোহিঙ্গা ইস্যুতে পশ্চিমা বিশ্বকে শক্ত বার্তা দিয়েছে বাংলাদেশ

রোহিঙ্গা ইস্যুতে পশ্চিমা বিশ্বকে শক্ত বার্তা দিয়েছে বাংলাদেশ

জাতিসংঘে নিজের বিপক্ষেই ভোট দিয়েছে মিয়ানমার

জাতিসংঘে নিজের বিপক্ষেই ভোট দিয়েছে মিয়ানমার

যুক্তরাষ্ট্রে ঘূর্ণিঝড়ে গাড়ির সংঘর্ষ, শিশুসহ নিহত ১০

যুক্তরাষ্ট্রে ঘূর্ণিঝড়ে গাড়ির সংঘর্ষ, শিশুসহ নিহত ১০

ফেসবুকে দুই মন্ত্রীর 'দ্বন্দ্ব' বিষয়ক স্ট্যাটাস

ফেসবুকে দুই মন্ত্রীর 'দ্বন্দ্ব' বিষয়ক স্ট্যাটাস

সিডনিতে ‘ধূমকেতু’ ব্যান্ডের সফল কনসার্ট

সিডনিতে ‘ধূমকেতু’ ব্যান্ডের সফল কনসার্ট

মায়ের কপালে চুমু খেয়ে কলেজছাত্রের আত্মহত্যা

মায়ের কপালে চুমু খেয়ে কলেজছাত্রের আত্মহত্যা

ওয়েলসকে হারিয়ে ইতালি গ্রুপ সেরা

ওয়েলসকে হারিয়ে ইতালি গ্রুপ সেরা

কনওয়ের হাফসেঞ্চুরিতে শক্ত অবস্থানে কিউইরা

কনওয়ের হাফসেঞ্চুরিতে শক্ত অবস্থানে কিউইরা

‘রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার রক্ষায় আন্তর্জাতিক মহল অগ্রগামী নয়’

‘রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার রক্ষায় আন্তর্জাতিক মহল অগ্রগামী নয়’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

পরিকল্পিতভাবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবি

পরিকল্পিতভাবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবি

‘মাদক নির্মূলে কয়েকশ’ বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হলেও কাজের কাজ হয়নি’

‘মাদক নির্মূলে কয়েকশ’ বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হলেও কাজের কাজ হয়নি’

আগামী নির্বাচনের জন্য দলকে প্রস্তুত করতে হবে: ওবায়দুল কাদের

আগামী নির্বাচনের জন্য দলকে প্রস্তুত করতে হবে: ওবায়দুল কাদের

সিলেটের শফি চৌধুরীকে বহিষ্কার করেছে বিএনপি

সিলেটের শফি চৌধুরীকে বহিষ্কার করেছে বিএনপি

সম্পূর্ণ সুস্থ হননি খালেদা জিয়া, উন্নত চিকিৎসার পরামর্শ

সম্পূর্ণ সুস্থ হননি খালেদা জিয়া, উন্নত চিকিৎসার পরামর্শ

ফিরোজায় ফিরেছেন খালেদা জিয়া

ফিরোজায় ফিরেছেন খালেদা জিয়া

আপনারা বিএনপিতে লীন হয়ে যাবেন না: মির্জা ফখরুল

আপনারা বিএনপিতে লীন হয়ে যাবেন না: মির্জা ফখরুল

ধ্বংসের আগেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে হবে: বাংলাদেশ ন্যাপ

ধ্বংসের আগেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে হবে: বাংলাদেশ ন্যাপ

‘সংসদে পরীমনি নিয়ে আলোচনা হয়, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিয়ে হয় না’

‘সংসদে পরীমনি নিয়ে আলোচনা হয়, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিয়ে হয় না’

সন্ধ্যায় বাসায় ফিরছেন খালেদা জিয়া

সন্ধ্যায় বাসায় ফিরছেন খালেদা জিয়া

© 2021 Bangla Tribune