সেকশনস

গণফোরামে পাল্টাপাল্টি বহিষ্কার

আপডেট : ০৩ মার্চ ২০২০, ২০:৩৯

 

গণফোরাম জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন গণফোরামে বাড়ছে অসন্তোষ। একপক্ষ আরেক পক্ষকে দল থেকে পাল্টাপাল্টি বহিষ্কার করছে। তবে উভয় পক্ষই বলছে, তাদের বহিষ্কার আদেশে দলীয় সভাপতির সম্মতি রয়েছে। কিন্তু গণমাধ্যমে পাঠানো কোনও সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে কামাল হোসেনের স্বাক্ষর ছিল না।

গতকাল সোমবার (২ মার্চ) ক্রমাগতভাবে সাংগঠনিক শৃঙ্খলাভঙ্গ ও দলীয় স্বার্থবিরোধী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে গণফোরামের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট হেলাল উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক লতিফুল বারী হামিম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক খান সিদ্দিকুর রহমান এবং প্রবাসীকল্যাণ সম্পাদক আব্দুল হাছিব চৌধুরীকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়।

দলটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোশতাক আহমেদ স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

পরে মঙ্গলবার (৩ মার্চ) ওই বহিষ্কৃত চার নেতা দলের সাধারণ সম্পাদক রেজা কিবরিয়া, সহ-সভাপতি মহসীন রশীদ, সহ-সভাপতি শফিকউল্লাহ ও যুগ্ম সাধারণ মোস্তাককে দল থেকে বহিষ্কার করেন। তাদের বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গ, উপদলীয় কোন্দল, দলীয় অর্থ তছরুপের অভিযোগ আনা হয়।

বহিষ্কার আদেশের প্রসঙ্গে জানতে চাইলে রেজা কিবরিয়া বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘কেউ চাইলে কাউকে বহিষ্কার করতে পারেন না। মোশতাক আহমেদ সভাপতি কামাল হোসেন ও আমার অনুমতি সাপেক্ষে চার জনকে বহিষ্কার করেছেন। এই বহিষ্কার আদেশ গ্রহণযোগ্য। কিন্তু আজকে যারা আমাদেরকে বহিষ্কার করেছে তাদের সঙ্গে ড. কামাল হোসেনের কোনও সম্পর্ক নেই। তাদের বহিষ্কার আদেশ গ্রহণযোগ্য নয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘আগামী ১-২ দিনের মধ্যে কামাল হোসেনসহ সবাইকে নিয়ে বৈঠক করবো। এরপর এদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। দলকে গণতান্ত্রিক ধারায় শক্তিশালী করতে যারা দলের মধ্যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে তাদের বিরুদ্ধে আরও কঠোর অবস্থানে যাবো আমরা।’

এদিকে রেজা কিবরিয়ার পক্ষ থেকে যাদের বহিষ্কার করা হয়েছে তাদের একজন সাংগঠনিক সম্পাদক লতিফুল বারী হামিম। তিনি বলেন, ‌‘মোস্তাক আহমেদ গণফোরামে অবাঞ্ছিত। তিনি কাউকে বহিষ্কার করতে পারেন না। দলীয় শৃঙ্খলা ও গঠনতন্ত্রের ৪৩ (কর্মকর্তা অপসারণ) ধারা অমান্য ও অবজ্ঞা করে রাজনৈতিক চরিত্র হননের উদ্দেশ্যে ও দলীয় ঐক্য বিনষ্ট করার হীন স্বার্থে আমাকেসহ চার কেন্দ্রীয় নেতার নামে মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্দেশ্যমূলক তথ্য উল্লেখ করে বহিষ্কার করা হয়েছে। যা সভাপতি পরিষদ, সম্পাদকমণ্ডলী, স্থায়ী কমিটি, কেন্দ্রীয় কমিটির সভায় আলোচনা হয়নি। এই বহিষ্কার গ্রহণযোগ্য নয়।’

তবে আপনারা কীভাবে দলের সাধারণ সম্পাদকসহ চার জনকে বহিষ্কার করেছেন, জানতে চাইলে লতিফুল বারী বলেন, ‘আমরা ড. কামাল হোসেনের সম্মতি নিয়েই তাদেরকে বহিষ্কার করেছি। দলের সাধারণ সম্পাদককে মৌখিক ও একাধিকবার লিখিতভাবে কেন্দ্রীয় কমিটির সভা ডাকতে আহবান করা হলেও তিনি তা না করে মাসের পর মাস বিদেশে অবস্থান করে অফিসের বাইরে উপদলীয় কোন্দল সৃষ্টি করেছেন। গণফোরাম কখনও পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতা আসার রাজনীতি করে না। কিন্তু সাধারণ সম্পাদক তা করার চেষ্টা করছেন। তিনি ষড়যন্ত্র করে আমাদেরকে বহিষ্কার করেছেন।’

এদিকে একাধিকবার চেষ্টা করেও সার্বিক বিষয়ে ড. কামাল হোসেনের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন:
গণফোরামের চার কেন্দ্রীয় নেতাকে বহিষ্কার


/এএইচআর/টিটি/

সম্পর্কিত

৭ মার্চের ভাষণ সারা বিশ্বে স্বাধীনতার প্রামাণ্য দলিল: তাপস

৭ মার্চের ভাষণ সারা বিশ্বে স্বাধীনতার প্রামাণ্য দলিল: তাপস

‘ভারতের সঙ্গে খুলছে বাণিজ্যের নতুন দুয়ার’

‘ভারতের সঙ্গে খুলছে বাণিজ্যের নতুন দুয়ার’

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অনুদানের তথ্য দেওয়ার সময় বাড়লো

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অনুদানের তথ্য দেওয়ার সময় বাড়লো

‘শিক্ষিত মানুষের শোভা পায় না, এমন কিছু লিখবেন না’

‘শিক্ষিত মানুষের শোভা পায় না, এমন কিছু লিখবেন না’

নতুন প্রজন্মের প্রকৃত ইতিহাস জানার অধিকার রয়েছে: মির্জা ফখরুল

নতুন প্রজন্মের প্রকৃত ইতিহাস জানার অধিকার রয়েছে: মির্জা ফখরুল

অতিরিক্ত পণ্য কিনে বাজারকে চাপে ফেলবেন না: বাণিজ্যমন্ত্রী

অতিরিক্ত পণ্য কিনে বাজারকে চাপে ফেলবেন না: বাণিজ্যমন্ত্রী

বঙ্গবন্ধুর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ ডাচ ভাষায় অনুবাদ

বঙ্গবন্ধুর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ ডাচ ভাষায় অনুবাদ

‘বঙ্গবন্ধুর ভাষণ জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে’

‘বঙ্গবন্ধুর ভাষণ জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে’

জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনে যাচ্ছেন ৪ নারী বিচারক

জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনে যাচ্ছেন ৪ নারী বিচারক

এক মাসে টিকা নিলেন প্রায় ৩৮ লাখ

এক মাসে টিকা নিলেন প্রায় ৩৮ লাখ

সোহরাওয়ার্দীর সাবেক পরিচালক ডা. উত্তমের লাইসেন্স বাতিলে আইনি নোটিশ

সোহরাওয়ার্দীর সাবেক পরিচালক ডা. উত্তমের লাইসেন্স বাতিলে আইনি নোটিশ

সর্বশেষ

৭ মার্চের ভাষণ সারা বিশ্বে স্বাধীনতার প্রামাণ্য দলিল: তাপস

৭ মার্চের ভাষণ সারা বিশ্বে স্বাধীনতার প্রামাণ্য দলিল: তাপস

শেষ মুহূর্তে বেনজেমার গোলে হার এড়ালো রিয়াল মাদ্রিদ

শেষ মুহূর্তে বেনজেমার গোলে হার এড়ালো রিয়াল মাদ্রিদ

সমাবেশের বক্তব্যের জন্য বিএনপি নেতা মিনুর দুঃখ প্রকাশ

সমাবেশের বক্তব্যের জন্য বিএনপি নেতা মিনুর দুঃখ প্রকাশ

উইঘুর গণহত্যার অভিযোগ  অযৌক্তিক ও মিথ্যা: চীন

উইঘুর গণহত্যার অভিযোগ  অযৌক্তিক ও মিথ্যা: চীন

বাংলাদেশের হার ছাপিয়ে আলোচনায় পিটারসন

বাংলাদেশের হার ছাপিয়ে আলোচনায় পিটারসন

কে কত বড় নেতা, সবাইকে আমি চিনি: কাদের মির্জা

কে কত বড় নেতা, সবাইকে আমি চিনি: কাদের মির্জা

‘ভারতের সঙ্গে খুলছে বাণিজ্যের নতুন দুয়ার’

‘ভারতের সঙ্গে খুলছে বাণিজ্যের নতুন দুয়ার’

ইউপি সদস্যকে গুলি করে হত্যা

ইউপি সদস্যকে গুলি করে হত্যা

৮ ইস্যুতে বাংলাদেশ-ভারত সচিব পর্যায়ের বৈঠক সোমবার

৮ ইস্যুতে বাংলাদেশ-ভারত সচিব পর্যায়ের বৈঠক সোমবার

জুয়ায় হেরে হত্যা করে পোড়ানো হয় লাশটি

জুয়ায় হেরে হত্যা করে পোড়ানো হয় লাশটি

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অনুদানের তথ্য দেওয়ার সময় বাড়লো

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অনুদানের তথ্য দেওয়ার সময় বাড়লো

এবার জোরছে ছাপ, টিএমসি সাফ, তৃণমূলের খেল খতম: মোদি

এবার জোরছে ছাপ, টিএমসি সাফ, তৃণমূলের খেল খতম: মোদি

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

নতুন প্রজন্মের প্রকৃত ইতিহাস জানার অধিকার রয়েছে: মির্জা ফখরুল

নতুন প্রজন্মের প্রকৃত ইতিহাস জানার অধিকার রয়েছে: মির্জা ফখরুল

রোজার আগেই ‘মাঠে নামবে’ গণফোরাম

রোজার আগেই ‘মাঠে নামবে’ গণফোরাম

শ্রমিক নেতা নুরুল আমিনের মুক্তিসহ ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি

শ্রমিক নেতা নুরুল আমিনের মুক্তিসহ ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনের সমাবেশ

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনের সমাবেশ

দেশ আজ দুই ভাগে বিভক্ত: সিপিবি

দেশ আজ দুই ভাগে বিভক্ত: সিপিবি

‘বিএনপি কৃত্রিম দরদ দেখাচ্ছে’

‘বিএনপি কৃত্রিম দরদ দেখাচ্ছে’

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলে ২৩ দিনের আল্টিমেটাম

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলে ২৩ দিনের আল্টিমেটাম

বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতিতে উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হচ্ছে: ওবায়দুল কাদের

বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতিতে উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হচ্ছে: ওবায়দুল কাদের


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.