X
বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ৯ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

মহানবী (সা.)-কে অবমাননার প্রতিবাদে ঢাবিতে বিক্ষোভ

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২০, ২০:০৯

শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ (ছবি: সাজ্জাদ হোসেন) ফ্রান্সে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে কটাক্ষ করে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনীর প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছেন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। রবিবার (২৫ অক্টোবর) বিকাল ৪টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) রাজু ভাস্কর্যে এ কর্মসূচি পালিত হয়৷

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থী মুহাম্মদ মোফাজ্জল সাদাত, সালেহ উদ্দিন সিফাত, জাহিদ হাসান, তাওহীদ তানজিম প্রমুখ।

এ কর্মসূচির আয়োজকদের প্রধান মুহাম্মদ মোফাজ্জল সাদাত বলেন, ‘ফান্সে সরকারের প্রত্যক্ষ মদতে ইসলামকে অবমাননা করে রাসুল (সা.)-কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করা হয়েছে। এর প্রতিবাদে আজ আমরা এখানে সমবেত হয়েছি। শুধু ফ্রান্সে নয়, বিশ্বের অনেকগুলো দেশে এ ধরনের কর্মকাণ্ড বেড়ে গেছে। আমরা সেই সব ঘটনার নিন্দা জানাই। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তিথি সরকার প্রকাশ্যে রাসুল (সা.) এবং ইসলাম ধর্মকে অবমাননা করেছে। আমরা তার শাস্তি দাবি করছি। সেই সঙ্গে ইসলামকে নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক জিয়া রহমান ব্যঙ্গাত্মকভাবে কথা বলেছেন। আমরা এসবের নিন্দা জানাচ্ছি এবং এ বিষয়ে প্রশাসনের দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করছি। ফ্রান্স সরকার তাদের নিজেদের সেক্যুলার হিসেবে দাবি করে। একটি সেক্যুলার রাষ্ট্র সরাসরি কোনও ধর্মকে আঘাত করে কিছু করতে পারে না। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং সারাবিশ্বের মুসলমান দেশকে প্রতিবাদ জানানোর আহ্বান জানাচ্ছি।’

সালেহ উদ্দিন সিফাত বলেন, ‘ফান্সের শার্লি এবদো নামে একটি ম্যাগাজিন নবী করিম (সা.)-কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করেছে। বাক স্বাধীনতা এমনভাবে উপভোগ করতে হবে যাতে তা অন্য কোনও ধর্ম বা কারও ধর্মীয় বিশ্বাসকে আঘাত না করে। মুহাম্মদ (সা.)-কে মুসলমান জাতি তাদের নয়নের মনি কোটায় স্থান দিয়েছে। তাকে অমর্যাদা করে ফ্রান্সে যা করা হয়েছে আমরা তার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।’

সমাবেশ থেকে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর নিন্দা প্রস্তাব এবং ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে তলব করার দাবি জানিয়ে বক্তারা বলেন, ‘ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় যে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনী হয়েছে তা অত্যন্ত ন্যক্কারজনক। মুসলিম প্রধান দেশ হিসেবে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে অবশ্যই ফ্রান্স সরকারের এ কর্মকাণ্ডে নিন্দা জানাতে হবে এবং ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে এর প্রতিবাদ জানাতে হবে। অন্যথায়, আমাদের আন্দোলন দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়বে।’

তথ্যমতে, গত ১৬ অক্টোবর ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে এক স্কুলশিক্ষককে গলা কেটে হত্যা করা হয়। এ সম্পর্কে পুলিশ জানায়, হামলাকারীর বয়স ১৮ বছর। তিনি চেচেন জাতিগোষ্ঠীর এবং জন্ম রাশিয়ার মস্কোতে। নিহত শিক্ষক রাষ্ট্রবিজ্ঞান পড়াতেন। ‘মতপ্রকাশের স্বাধীনতা’ ক্লাসে তিনি শিক্ষার্থীদের মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর কার্টুন দেখিয়েছিলেন। তার পর তাকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনার পর ফ্রান্সের পুলিশ দেশটির অন্তত ৫০টি মসজিদ এবং মুসলিম অধ্যুষিত এলাকায় ভয়াবহ অভিযান চালায়। সাড়ে পাঁচ বছর আগে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে বিতর্কিত কার্টুন ছাপানোর পর ফ্রান্সের ব্যঙ্গাত্মক ম্যাগাজিন শার্লি এবদোতে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। আবারও সেটি ছাপিয়েছে ম্যাগাজিনটি। এ নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠলেও এর পক্ষে শক্ত অবস্থান নিয়েছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরোঁ।

 

/এসআইআর/এমএএ/

সম্পর্কিত

বিভাগের তিন হাসপাতালে ১৩ মৃত্যু, ৮ জনই খুলনার

বিভাগের তিন হাসপাতালে ১৩ মৃত্যু, ৮ জনই খুলনার

‘কবে একটা সেতু হবে, ঘুষ ছাড়া ভাতা পাবো?’

গ্রামবাসীর প্রশ্ন প্রশাসনের উত্তর‘কবে একটা সেতু হবে, ঘুষ ছাড়া ভাতা পাবো?’

চট্টগ্রামে একদিনের ব্যবধানে বেড়েছে মৃত্যু ও শনাক্ত

চট্টগ্রামে একদিনের ব্যবধানে বেড়েছে মৃত্যু ও শনাক্ত

নোয়াখালীতে শনাক্ত আরও ১১৫, ঢাকাগামী গণপরিবহন চলাচল বন্ধ

নোয়াখালীতে শনাক্ত আরও ১১৫, ঢাকাগামী গণপরিবহন চলাচল বন্ধ

অবশেষে বৈঠকের ব্যাপারে মুখ খুললেন ভুট্টো

অবশেষে বৈঠকের ব্যাপারে মুখ খুললেন ভুট্টো

শেয়ার না কিনলেও মুনাফা পাওয়া যাবে

শেয়ার না কিনলেও মুনাফা পাওয়া যাবে

করোনার টিকাকে বিশ্বব্যাপী জনগণের পণ্য হিসেবে ঘোষণা করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

করোনার টিকাকে বিশ্বব্যাপী জনগণের পণ্য হিসেবে ঘোষণা করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

মানবপাচারের মামলায় তুহিন সিদ্দিকী অমির ৮ সহযোগী রিমান্ডে

মানবপাচারের মামলায় তুহিন সিদ্দিকী অমির ৮ সহযোগী রিমান্ডে

যেভাবে ভারতে পাচারের শিকার হলেন তরুণী

যেভাবে ভারতে পাচারের শিকার হলেন তরুণী

লকডাউনে বন্ধ থাকবে যেসব ট্রেন

লকডাউনে বন্ধ থাকবে যেসব ট্রেন

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর এসকে সুরসহ ৫ জনকে দিনভর জিজ্ঞাসা

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর এসকে সুরসহ ৫ জনকে দিনভর জিজ্ঞাসা

পানিতে ডুবে শিশুমৃত্যু ঠেকাতে সমন্বিত উদ্যোগের আহ্বান সরকারের

পানিতে ডুবে শিশুমৃত্যু ঠেকাতে সমন্বিত উদ্যোগের আহ্বান সরকারের

সর্বশেষ

নও মুসলিম ফারুক হত্যা বিচার চাইলো ইমাম সমাজ

নও মুসলিম ফারুক হত্যা বিচার চাইলো ইমাম সমাজ

বিভাগের তিন হাসপাতালে ১৩ মৃত্যু, ৮ জনই খুলনার

বিভাগের তিন হাসপাতালে ১৩ মৃত্যু, ৮ জনই খুলনার

প্রগতির পথিক

সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীপ্রগতির পথিক

ঝিনাইদহ জেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ে চাকরি

ঝিনাইদহ জেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ে চাকরি

বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে সিরিজের সূচি দেখে নিন

বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে সিরিজের সূচি দেখে নিন

‘কবে একটা সেতু হবে, ঘুষ ছাড়া ভাতা পাবো?’

গ্রামবাসীর প্রশ্ন প্রশাসনের উত্তর‘কবে একটা সেতু হবে, ঘুষ ছাড়া ভাতা পাবো?’

পাকিস্তানে হস্তক্ষেপ করলে কিসিঞ্জারের সফরের জন্য গুরুতর অপরাধ হয়ে যেত

ফেসবুক লাইভে নম চমস্কিপাকিস্তানে হস্তক্ষেপ করলে কিসিঞ্জারের সফরের জন্য গুরুতর অপরাধ হয়ে যেত

খালের সুফল পেতে আর কত অপেক্ষা?

খালের সুফল পেতে আর কত অপেক্ষা?

প্রেমিকার নামে ‘ফেক অ্যাকাউন্ট’ খুলে কারাগারে যুবক 

প্রেমিকার নামে ‘ফেক অ্যাকাউন্ট’ খুলে কারাগারে যুবক 

গাবতলী টার্মিনালে বাস কাউন্টার বন্ধ

গাবতলী টার্মিনালে বাস কাউন্টার বন্ধ

জাভি-ইনিয়েস্তাদের দেশে প্রথমবার হতে যাচ্ছে ওয়ানডে ক্রিকেট

জাভি-ইনিয়েস্তাদের দেশে প্রথমবার হতে যাচ্ছে ওয়ানডে ক্রিকেট

ঠিকাদার কাটতে চান শতবর্ষী গাছ, রক্ষার দাবি এলাকাবাসীর

ঠিকাদার কাটতে চান শতবর্ষী গাছ, রক্ষার দাবি এলাকাবাসীর

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মানবপাচারের মামলায় তুহিন সিদ্দিকী অমির ৮ সহযোগী রিমান্ডে

মানবপাচারের মামলায় তুহিন সিদ্দিকী অমির ৮ সহযোগী রিমান্ডে

যেভাবে ভারতে পাচারের শিকার হলেন তরুণী

যেভাবে ভারতে পাচারের শিকার হলেন তরুণী

লকডাউনে বন্ধ থাকবে যেসব ট্রেন

লকডাউনে বন্ধ থাকবে যেসব ট্রেন

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর এসকে সুরসহ ৫ জনকে দিনভর জিজ্ঞাসা

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর এসকে সুরসহ ৫ জনকে দিনভর জিজ্ঞাসা

পানিতে ডুবে শিশুমৃত্যু ঠেকাতে সমন্বিত উদ্যোগের আহ্বান সরকারের

পানিতে ডুবে শিশুমৃত্যু ঠেকাতে সমন্বিত উদ্যোগের আহ্বান সরকারের

অনুসন্ধানী সাংবাদিকতায় অভ্যন্তরীণ ও বহিরাগত চাপ বেড়েছে: টিআইবি

অনুসন্ধানী সাংবাদিকতায় অভ্যন্তরীণ ও বহিরাগত চাপ বেড়েছে: টিআইবি

দূরপাল্লার গণপরিবহনে কড়াকড়িতে যানজট, ভোগান্তি

দূরপাল্লার গণপরিবহনে কড়াকড়িতে যানজট, ভোগান্তি

পৌর আদালত শক্তিশালী করতে আইন সংস্কারের দাবি মেয়রদের

পৌর আদালত শক্তিশালী করতে আইন সংস্কারের দাবি মেয়রদের

জলজটের ভোগান্তি থেকে নগরবাসীকে মুক্ত রাখা গেছে: আতিকুল ইসলাম

জলজটের ভোগান্তি থেকে নগরবাসীকে মুক্ত রাখা গেছে: আতিকুল ইসলাম

বাসাবোতে ড্রেনে পড়ে যুবক নিখোঁজ, উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিস

বাসাবোতে ড্রেনে পড়ে যুবক নিখোঁজ, উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিস

© 2021 Bangla Tribune