X
বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ২ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

সমালোচকদের পায়রা বিদ্যুৎকেন্দ্র ঘুরে আসার আহ্বান বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর

আপডেট : ৩১ অক্টোবর ২০২০, ১৯:০০

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, কয়লা চালিত বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে যারা বিভ্রান্তি ছড়ান তাদের পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র দেখে আসা উচিত। শনিবার (৩১ অক্টোবর) পায়রা তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে পাক্ষিক এনার্জি অ্যান্ড পাওয়ার ম্যাগাজিন আয়োজিত সেমিনারে প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন।
নসরুল হামিদ বলেন, এক শ্রেণির মানুষ বিদ্যুৎ কেন্দ্রটি নির্মাণের সময় বলতো এখানে কেন্দ্র নির্মাণ করলে ৩০ হাজার মানুষ মারা যাবে। ভবিষ্যতে এখানে কারও সন্তান হবে না। বিভ্রান্তিকর এসব তথ্য ছড়িয়ে উন্নয়নে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টিকারীদের এখন কেন্দ্রটিতে যাওয়া উচিত। তারা চাইলে নিরপেক্ষ পরামর্শক নিয়োগ দিয়েও পরিবেশ দূষণকারী উপাদান আমরা কী পরিমাণ ছাড়ছি দেখতে পারেন। প্রয়োজনে তাদের এই কাজে আমরাও সহায়তা দিতে পারি।
অনুষ্ঠানে পাওয়ার সেলের মহাপরিচালককে প্রতিমন্ত্রী বলেন, কোভিড পরিস্থিতি ঠিক হলে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়াদের কেন্দ্রটি পরিদর্শনের ব্যবস্থা করতে হবে। এতে নতুন প্রজন্মর ধারণা বদলে বিষয়টি প্রভাব রাখবে। মাত্র ২১ মাসে কেন্দ্রটির কাজ শেষ করায় তিনি সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান।
পায়রা তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রকল্প পরিচালক শাহ আব্দুল মওলা সেমিনারে মূল প্রবন্ধে জানান, পায়রা তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রতি ঘনমিটার বাতাসে সালফার ডাই অক্সাইড ছাড়ছে সর্বনিম্ন ৩২ দশমিক ৩৪ মিলিগ্রাম থেকে সর্বোচ্চ ১২৪ দশমিক পাঁচ মিলিগ্রাম। এখানে ইন্টারন্যাশনাল ফাইন্যান্স করপোরেশনের (আইএফসি) বেঁধে দেওয়া মাত্রা প্রতি ঘনমিটারে ২০০ মিলিগ্রাম। অন্যদিকে কেন্দ্রটি প্রতি ঘনমিটারে ৭১ দশমিক ১৭ থেকে ২৫৬ দশমিক ৬৩ মিলিগ্রাম নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইড ছাড়ছে। যেখানে আইএফসির বেঁধে দেয়া মাত্রা প্রতি ঘনমিটারে ৫১০ মিলিগ্রাম। পায়রা তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র সর্বনিম্ন প্রতি ঘনমিটারে এক দশমিক ৮২ থেকে ছয় দশমিক ৭১ মিলিগ্রাম ছাই এবং অন্যান্য উপাদান বাতাসে ছাড়ছে। আইএফসির নির্ধারিত মাত্রা ৫০ মিলিগ্রাম প্রতি ঘনমিটারে। আর পরিবেশ অধিদফতর বলছে এই মাত্রা ১৫০ মিলিগ্রাম।
সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা অধ্যাপক ম তামিম বলেন, যারাই সমালোচনা করেন তাদের নিয়ে পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রটি দেখাতে হবে। কিভাবে কাজ করতে হয় তাদের বোঝাতে হবে। এনার্জি এন্ড পাওয়ারের সম্পাদক মোল্লাহ আমজাদের সঞ্চালনায় সেমিনারে পিডিবি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী বেলায়েত হোসেন, পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসাইন, অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী অধ্যাপক ফিরোজ আলম, বুয়েটের সহযোগী অধ্যাপক ড. কাজী বায়জিদ কবীর, খনি প্রকৌশলী ড. মুশফিকুর রহিম বক্তব্য রাখেন।

/এসএনএস/এমআর/

সর্বশেষ

আকস্মিক বন্যায় ভুটানে নিহত ১০, নেপালে নিখোঁজ ৭

আকস্মিক বন্যায় ভুটানে নিহত ১০, নেপালে নিখোঁজ ৭

অনিয়মের কারণে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বন্ধ করা যাবে না

অনিয়মের কারণে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বন্ধ করা যাবে না

ভারতে এবার গ্রিন ফাঙ্গাস আতঙ্ক

ভারতে এবার গ্রিন ফাঙ্গাস আতঙ্ক

স্কুলশিক্ষার্থীকে অপহরণ করে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ

স্কুলশিক্ষার্থীকে অপহরণ করে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ

ঋণখেলাপি শনাক্ত আরও সহজ হলো

ঋণখেলাপি শনাক্ত আরও সহজ হলো

লকডাউন দিয়েও ঠেকানো যাচ্ছে না ১২ জেলার করোনার ঊর্ধ্বগতি

লকডাউন দিয়েও ঠেকানো যাচ্ছে না ১২ জেলার করোনার ঊর্ধ্বগতি

এটিএম কার্ড জালিয়াতি করে আড়াই কোটি টাকা আত্মসাৎ

পালিয়েছে ব্যাংক কর্মকর্তা, চক্রের চার সদস্য গ্রেফতার

ময়মনসিংহ মেডিক্যালের আইসিইউতে ২৪ ঘণ্টায় ৬ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালের আইসিইউতে ২৪ ঘণ্টায় ৬ জনের মৃত্যু

ইলিয়াস সানিকে ইট ছুড়ে মারলেন সাব্বির

ইলিয়াস সানিকে ইট ছুড়ে মারলেন সাব্বির

‘কোভিশিল্ড’ টিকা এক কোটি ৮১ হাজার ডোজ শেষ

‘কোভিশিল্ড’ টিকা এক কোটি ৮১ হাজার ডোজ শেষ

মাকড়সার জালে বদলে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার ভূমিচিত্র

মাকড়সার জালে বদলে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার ভূমিচিত্র

বন্ধ হচ্ছে উইন্ডোজ-১০ এর সাপোর্ট, এরপর?

বন্ধ হচ্ছে উইন্ডোজ-১০ এর সাপোর্ট, এরপর?

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

লকডাউন দিয়েও ঠেকানো যাচ্ছে না ১২ জেলার করোনার ঊর্ধ্বগতি

লকডাউন দিয়েও ঠেকানো যাচ্ছে না ১২ জেলার করোনার ঊর্ধ্বগতি

‘কোভিশিল্ড’ টিকা এক কোটি ৮১ হাজার ডোজ শেষ

‘কোভিশিল্ড’ টিকা এক কোটি ৮১ হাজার ডোজ শেষ

আগস্টে কোভ্যাক্সের অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা আসবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আগস্টে কোভ্যাক্সের অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা আসবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ফিলিস্তিনের পাশে দাঁড়াতে ওআইসিভুক্ত দেশগুলোর প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির

ফিলিস্তিনের পাশে দাঁড়াতে ওআইসিভুক্ত দেশগুলোর প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৬০, শনাক্ত প্রায় ৪ হাজার

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৬০, শনাক্ত প্রায় ৪ হাজার

‘ত্রাণ চাই না, বাঁধ চাই’, গলায় প্ল্যাকার্ড ঝুলিয়ে সংসদে এমপি শাহজাদা

‘ত্রাণ চাই না, বাঁধ চাই’, গলায় প্ল্যাকার্ড ঝুলিয়ে সংসদে এমপি শাহজাদা

বিধি-নিষেধ বাড়লো আরও এক মাস

বিধি-নিষেধ বাড়লো আরও এক মাস

গত ১০ বছরে এডিপির বাস্তবায়ন গড়ে ৮৫ শতাংশ

গত ১০ বছরে এডিপির বাস্তবায়ন গড়ে ৮৫ শতাংশ

বাজেট আলোচনার সময় অর্থমন্ত্রী সংসদে না থাকায় ক্ষোভ

বাজেট আলোচনার সময় অর্থমন্ত্রী সংসদে না থাকায় ক্ষোভ

নিবন্ধন ছাড়া ডে-কেয়ার চালালে জেল-জরিমানা

সংসদে বিল পাসনিবন্ধন ছাড়া ডে-কেয়ার চালালে জেল-জরিমানা

© 2021 Bangla Tribune