সেকশনস

‘পরশুরাম’ ডাকোটার ‘রুদ্র ফর্মেশনে’ মুক্তিযুদ্ধকে সম্মান জানাবে ভারত 

আপডেট : ২৫ জানুয়ারি ২০২১, ২৩:০০

একাত্তরে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে ‘ডাকোটা’ এয়ারক্র্যাফট যে অবিস্মরণীয় ভূমিকা পালন করেছে, তাকে স্বীকৃতি দিতে ভারতে এবারের প্রজাতন্ত্র দিবসে অভিনব রীতিতে মুক্তিযুদ্ধকে সম্মান জানানো হচ্ছে। ২৬ জানুয়ারি দিল্লির রাজপথের কুচকাওয়াজে যখন বাংলাদেশের কন্টিনজেন্ট মার্চ করে যাবে, তখন আকাশে ‘ফ্লাইপাস্ট’ করবে একটি ভিন্টেজ ডাকোটা বিমান।

মূলত সামরিক বাহিনীতে পরিবহন বিমান হিসেবে কমিশনড হলেও এই ডাকোটা বিমান গৌরবময় মুক্তিযুদ্ধে এক অসামান্য অবদান রেখেছে। একাত্তরের ১১ ডিসেম্বরে টাঙ্গাইলে যে বিখ্যাত ‘এয়ারড্রপ’ হয়েছিল, তাতে ব্যবহার করা হয়েছিল এই ডাকোটাই।

তাজউদ্দিন আহমেদ, সৈয়দ নজরুল ইসলামসহ প্রবাসে বাংলাদেশের অস্থায়ী সরকারের নেতাদের যাতায়াতের জন্যও তখন ব্যবহার করা হতো ডাকোটা। 

বস্তুত, বাংলাদেশের নিজস্ব বিমান বাহিনীর যাত্রাও শুরু হয়েছিল একটি ডাকোটা দিয়ে, যেটি উপহার দিয়েছিলেন যোধপুরের তৎকালীন মহারাজা।    

ভারতের বিমান বাহিনী সূত্রে জানানো হয়েছে, এ বছর মুক্তিযুদ্ধের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষেই ডাকোটাকে সম্মান জানানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। আর সে জন্যই বেছে নেওয়া হয়েছে ‘রুদ্র ফর্মেশন’ নামে বিশেষ ধরনের এক ফ্লাইপাস্ট।

বিমানবাহিনীর মুখপাত্র উইং কমান্ডার ইন্দ্রনীল নন্দী বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘একাত্তরের ৫০ বছরপূর্তি উপলক্ষে সমগ্র ভারত এবার স্বর্ণিম বিজয় জয়ন্তী উদযাপন করছে। আর সেজন্যই সিদ্ধান্ত হয়েছে— প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারেডে যখন বাংলাদেশের বাহিনী মার্চ করে যাবে, তখন মঞ্চের ওপর দিয়ে উড়ে যাবে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবিজড়িত ডাকোটা বিমান।’

‘শুধু একটি ডাকোটা-ই নয়, তার দু’পাশে উড়বে দুটি এমআই-১৭ বিমান, যেটাকে আমরা বিমান বাহিনীর পরিভাষায় বলি রুদ্র ফর্মেশন। এই ধরনের ফর্মেশনে ডাকোটা কোনও দিন এর আগে কোনও ফ্লাইপাস্ট করেনি’, জানাচ্ছেন তিনি। 

পরশুরামের সঙ্গে এমপি রাজীব চন্দ্রশেখর

ডাকোটা এক সময় ছিল ভারতীয় বিমান বাহিনীর অবিচ্ছেদ্য অংশ। ডাকোটার বয়স আসলে ভারতীয় গণতন্ত্রের চেয়েও বেশি। কারণ, প্রথমবারের মতো ডাকোটা বিমান বাহিনীতে অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল ১৯৪৬ সালে ব্রিটিশ আমলেই,বাহিনীর ১২ নম্বর স্কোয়াড্রনে, প্রধানত ট্রান্সপোর্ট এয়ারক্র্যাফট বা পরিবহন বিমান হিসেবে।

তবে ১৯৪৭ সালে স্বাধীনতার ঠিক পরপরই কাশ্মিরে যখন উপজাতীয় হানাদাররা আক্রমণ করে, তখন শ্রীনগর ও পুঞ্চ রক্ষায় এই ডাকোটা অসাধারণ ভূমিকা পালন করেছিল। এরপর বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধেও ডাকোটার অবদান স্বর্ণাক্ষরে লেখা আছে।

একাত্তরের পরই ধীরে ধীরে পুরনো ডাকোটাগুলোর ডিকমিশনিং শুরু হয়, অর্থাৎ বিমানবাহিনীর সার্ভিস থেকে সেগুলো বসিয়ে দেওয়া হয়ে থাকে। ডাকোটার জায়গা নিতে থাকে অ্যাভ্রো এইচএস-৭৪৮, আর শেষ ডাকোটাও বসে যায় ১৯৮৮ নাগাদ।

তবে ভারতীয় বিমান বাহিনীতে ডাকোটার ‘পুনর্জন্ম’ হয় বছরতিনেক আগে, যখন কর্নাটকের এমপি ও শিল্পপতি রাজীব চন্দ্রশেখর নিজের পয়সায় একটি ডাকোটা মেরামত করিয়ে বাহিনীকে উপহার দেন।

রাজীব চন্দ্রশেখরের বাবা এয়ার কমোডোর (অবসরপ্রাপ্ত) এম কে চন্দ্রশেখর সেনা পাইলট হিসেবে ডাকোটা চালাতেন, এটি ছিল তার খুব প্রিয় এয়ারক্র্যাফট। বাবার ভালোবাসাকে সম্মান জানাতে শিল্পপতি ছেলে একটি ভাঙাচোরা ডাকোটা বাতিল ‘স্ক্র্যাপ’ হিসেবে কিনে নেন বছরকয়েক আগে। তারপর প্রায় ৫৮ কোটি রুপি (ছয় লাখ পাউন্ড) খরচ করে ব্রিটেনের ‘রিফ্লাইট এয়ারক্র্যাফটস’ থেকে সেটিকে রিফারবিশ করিয়ে আনেন। 

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে অংশ নেওয়া সেই সাত দশকেরও বেশি পুরনো ডাকোটা এরপর ব্রিটেন থেকে ভারতে উড়ে আসে। দিল্লির কাছে হিন্ডন এয়ারবেসে ভারতীয় বিমান বাহিনীর অন্য ভিন্টেজ বিমানগুলোর সঙ্গে বহরে সেটিকে যুক্ত করা হয়।

এই ডাকোটা ডিসি-থ্রিরই নামকরণ করা হয়েছে ‘পরশুরাম’। টেইল নম্বরপ্লেটে লেখা আছে ভিপি-৯০৫। 

দিল্লিতে প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারেডে অংশ নিতে বাংলাদেশ বাহিনীর মহড়া

মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) সকালে এই পরশুরামই রুদ্র ফর্মেশনের মধ্যমণি হয়ে দিল্লির আকাশে ঝলমল করবে।

এর মাধ্যমেই সুবর্ণজয়ন্তীতে মুক্তিযুদ্ধকে শ্রদ্ধা জানাবে ভারত, আর নিচে রাজপথে তখন কুচকাওয়াজ করে যাবেন বাংলাদেশের সশস্ত্র বাহিনীর ১২২ জন সদস্য।

দিল্লিতে ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারেডে অংশ নিতে বাংলাদেশের এই প্রতিনিধিরা ১০-১২ দিন আগেই ভারতে এসে পৌঁছেছেন।রবিবারও তারা মহড়ায় অংশ নিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ভারতে প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজে কোনও বিদেশি রাষ্ট্রের বাহিনীকে অংশ নিতে আমন্ত্রণ জানানোর ঘটনা এই নিয়ে মাত্র তৃতীয়বার ঘটলো।

/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

করোনা জালিয়াতির মামলায় ডা. সাবরিনার জামিন নামঞ্জুর

করোনা জালিয়াতির মামলায় ডা. সাবরিনার জামিন নামঞ্জুর

করোনা ঠেকাতে যা করলো বাংলাদেশ

করোনা ঠেকাতে যা করলো বাংলাদেশ

জিয়াউর রহমান মুক্তিযুদ্ধের নির্দেশক-পরিচালক কিছুই ছিলেন না: কৃষিমন্ত্রী

জিয়াউর রহমান মুক্তিযুদ্ধের নির্দেশক-পরিচালক কিছুই ছিলেন না: কৃষিমন্ত্রী

নারী দিবসে নাগরিকত্ব পেলেন ব্রিটিশ নাগরিক লুসি

নারী দিবসে নাগরিকত্ব পেলেন ব্রিটিশ নাগরিক লুসি

আমাদের সব কার্যক্রমই ঢাকাবাসীর সেবায়: তাপস

আমাদের সব কার্যক্রমই ঢাকাবাসীর সেবায়: তাপস

এশিয়ার কয়েকটি দেশে টিকাদান বিলম্বিত হচ্ছে কেন?

এশিয়ার কয়েকটি দেশে টিকাদান বিলম্বিত হচ্ছে কেন?

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি মজনুসহ ৮ জন রিমান্ডে

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি মজনুসহ ৮ জন রিমান্ডে

নারীর বৈষম্যহীন সমাজ গড়তে ৮ দফা দাবি

নারীর বৈষম্যহীন সমাজ গড়তে ৮ দফা দাবি

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি মজনুসহ ৮ জন রিমান্ডে

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি মজনুসহ ৮ জন রিমান্ডে

ঢাকায় পরিকল্পনা করে জেলায় জেলায় সংঘবদ্ধ চুরি

ঢাকায় পরিকল্পনা করে জেলায় জেলায় সংঘবদ্ধ চুরি

সর্বশেষ

বিয়ের কথা বলে নারী শ্রমিককে ধর্ষণ, যুবক গ্রেফতার

বিয়ের কথা বলে নারী শ্রমিককে ধর্ষণ, যুবক গ্রেফতার

করোনা জালিয়াতির মামলায় ডা. সাবরিনার জামিন নামঞ্জুর

করোনা জালিয়াতির মামলায় ডা. সাবরিনার জামিন নামঞ্জুর

তালাকের টাকা না দেওয়ায় স্ত্রীকে ৭ টুকরা করে জুয়েল

তালাকের টাকা না দেওয়ায় স্ত্রীকে ৭ টুকরা করে জুয়েল

দায়িত্ব দেওয়া হলে নারীর মধ্যে নেতৃত্বের গুণাবলীও প্রকাশ পায়: কেসিসি মেয়র

দায়িত্ব দেওয়া হলে নারীর মধ্যে নেতৃত্বের গুণাবলীও প্রকাশ পায়: কেসিসি মেয়র

পোস্টম্যানের মরদেহ পড়ে ছিল সেচ ক্যানেলে

পোস্টম্যানের মরদেহ পড়ে ছিল সেচ ক্যানেলে

করোনা ঠেকাতে যা করলো বাংলাদেশ

করোনা ঠেকাতে যা করলো বাংলাদেশ

জিয়াউর রহমান মুক্তিযুদ্ধের নির্দেশক-পরিচালক কিছুই ছিলেন না: কৃষিমন্ত্রী

জিয়াউর রহমান মুক্তিযুদ্ধের নির্দেশক-পরিচালক কিছুই ছিলেন না: কৃষিমন্ত্রী

নারী দিবসে জাহানারা-সালমাদের দাপট

নারী দিবসে জাহানারা-সালমাদের দাপট

বাল্যবিয়ের শঙ্কায় এক কোটি শিশু

বাল্যবিয়ের শঙ্কায় এক কোটি শিশু

কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ, ধর্ষকের যাবজ্জীবন

কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ, ধর্ষকের যাবজ্জীবন

আইটি ফ্রিল্যান্সিংয়ে সফল পিংকি

আইটি ফ্রিল্যান্সিংয়ে সফল পিংকি

নারী দিবসে নাগরিকত্ব পেলেন ব্রিটিশ নাগরিক লুসি

নারী দিবসে নাগরিকত্ব পেলেন ব্রিটিশ নাগরিক লুসি

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

করোনা জালিয়াতির মামলায় ডা. সাবরিনার জামিন নামঞ্জুর

করোনা জালিয়াতির মামলায় ডা. সাবরিনার জামিন নামঞ্জুর

আমাদের সব কার্যক্রমই ঢাকাবাসীর সেবায়: তাপস

আমাদের সব কার্যক্রমই ঢাকাবাসীর সেবায়: তাপস

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি মজনুসহ ৮ জন রিমান্ডে

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি মজনুসহ ৮ জন রিমান্ডে

নারীর বৈষম্যহীন সমাজ গড়তে ৮ দফা দাবি

নারীর বৈষম্যহীন সমাজ গড়তে ৮ দফা দাবি

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি মজনুসহ ৮ জন রিমান্ডে

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি মজনুসহ ৮ জন রিমান্ডে

ঢাকায় পরিকল্পনা করে জেলায় জেলায় সংঘবদ্ধ চুরি

ঢাকায় পরিকল্পনা করে জেলায় জেলায় সংঘবদ্ধ চুরি

পেশেন্ট কেয়ার টেকনোলজিস্টদের নার্সের নিবন্ধন না দেওয়ার দাবি

পেশেন্ট কেয়ার টেকনোলজিস্টদের নার্সের নিবন্ধন না দেওয়ার দাবি


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.