সেকশনস

দুদকের ভুলে সাজা: ক্ষতিপূরণ চাইতে পারবেন কামরুল

আপডেট : ২৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৪:৩৮

জালিয়াতির মামলায় দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) ‘সরল বিশ্বাসে’ হওয়া ভুলের ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত নোয়াখালীর নিরাপরাধ কামরুল ইসলাম চাইলে দুদকের কাছে ক্ষতিপূরণের আবেদন করতে পারবেন বলে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে ক্ষতিপূরণ চেয়ে আবেদন করলে দুদককে তা বিবেচনা করতে বলেছেন আদালত।

এ বিষয়ে জারি করা রুল যথাযথ ঘোষণা করে বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই রায় দেন।

এছাড়াও আদালত তার রায়ে, দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) ভুল তদন্তে নোয়াখালীর নিরপরাধ কামরুল ইসলামের ১৫ বছরের সাজার রায় বাতিল করেন। একইসঙ্গে তার বিরুদ্ধে জারি করা গ্রেফতারি পরোয়ানা প্রত্যাহারের নির্দেশ দেন আদালত। এ সময় দুদকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেওয়া হয় এবং মামলাটি পুনরায় তদন্তের নির্দেশ দেন আদালত।

আদালতে কামরুল ইসলামের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মিনহাজুল হক চৌধুরী। অন্যদিকে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট খুরশিদ আলম খান।

এর আগে দুদকের ভুল তদন্তে নোয়াখালীর নিরপরাধ কামরুল ইসলাম ১৫ বছরের সাজা ও গ্রেফতারি পরোয়ানা মাথায় নিয়ে উচ্চ আদালতের শরণাপন্ন হন। এদিকে, হাইকোর্টে প্রতিবেদন দাখিল করে ভুলের কথা স্বীকার করেছে ক্ষমা চায় দুদক।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, এসএসসির মার্কসিট ও সনদপত্রে জালিয়াতি করে নোয়াখালীর মাইজদী কলেজে এইচএসসিতে ভর্তি হন পশ্চিম রাজারামপুর কামরুল ইসলাম। পরে জালিয়াতির ঘটনা নজরে আসায় কামরুল ইসলামের বিরুদ্ধে সনদ জালিয়াতির অভিযোগে ২০০৩ সালে মামলা করেন শহীদুল ইসলাম। মামলার এজাহারে আসামির ঠিকানা ‘পশ্চিম রাজারামপুর’ থেকে হয়ে যায় ‘পূর্ব রাজারামপুর’। এরপর তৎকালীন দুর্নীতি দমন ব্যুরোর তদন্ত কর্মকর্তা (দুদকের উপপরিচালক) মাহফুজ ইকবাল এ মামলার তদন্ত করেন এবং ভুল আসামির বিরুদ্ধেই নোয়াখালীর বিচারিক আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

মামলা দায়েরের প্রায় ১০ বছর পর ২০১৩ সালে দুদক ওই চার্জশিট দাখিল করে। পরে আসামিকে পলাতক দেখিয়ে নোয়াখালীর বিচারক আদালতে শুরু হয় এর বিচারকার্যক্রম। এ মামলার চূড়ান্ত শুনানি নিয়ে ২০১৪ সালে রায় দেন আদালত। জালিয়াতির অপরাধে মোট তিনটি ধারায় ভুল আসামিকে (পূর্ব রাজারামপুরের মো. কামরুল ইসলাম) পাঁচ বছর করে মোট ১৫ বছরের কারাদণ্ড এবং ৩০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেন আদালত।

এদিকে বিচারিক আদালতের রায়ের পর আসামিকে ধরতে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন নোয়াখালীর আদালত। নামের মিল এবং ঠিকানার ভুলে গ্রেফতারি পরোয়ানা পৌঁছায় পূর্ব রাজারামপুরে। এরপর দিশেহারা কামরুল দ্বারস্থ হন আইনজীবীর। আইনজীবীর পরামর্শে মামলা ও পরোয়ানা থেকে বাঁচতে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন। ওই রিটের পর ২০২০ সালের ৫ নভেম্বর হাইকোর্ট দুদকের তদন্ত কর্মকর্তার কাছে ঘটনার ব্যাখ্যা চান এবং এ বিষয়ে রুল জারি করেন।

আরও পড়ুন-

দুদকের 'সরল বিশ্বাসে' জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ

 

 

/বিআই/এফএস/

সম্পর্কিত

রাজনৈতিক দলের ৩৩ শতাংশ নারী নেতৃত্বের বাধ্য-বাধকতা নেই

রাজনৈতিক দলের ৩৩ শতাংশ নারী নেতৃত্বের বাধ্য-বাধকতা নেই

ওবায়দুল কাদের আজ দিশেহারা: কাদের মির্জা

ওবায়দুল কাদের আজ দিশেহারা: কাদের মির্জা

‘এ বিজয় মুজিব ও আ.লীগের নয়, সাড়ে ৭ কোটি মানুষের’

‘এ বিজয় মুজিব ও আ.লীগের নয়, সাড়ে ৭ কোটি মানুষের’

স্বামী কাবিননামা না দেওয়ায় স্ত্রীর ‘আত্মহত্যা’

স্বামী কাবিননামা না দেওয়ায় স্ত্রীর ‘আত্মহত্যা’

কার্টুনিস্ট কিশোরের প্রয়োজন দুটো অপারেশন

কার্টুনিস্ট কিশোরের প্রয়োজন দুটো অপারেশন

নারী-পুরুষ সমতা কত দূর?

আন্তর্জাতিক নারী দিবস আজনারী-পুরুষ সমতা কত দূর?

কে কত বড় নেতা, সবাইকে আমি চিনি: কাদের মির্জা

কে কত বড় নেতা, সবাইকে আমি চিনি: কাদের মির্জা

৮ ইস্যুতে বাংলাদেশ-ভারত সচিব পর্যায়ের বৈঠক আজ

৮ ইস্যুতে বাংলাদেশ-ভারত সচিব পর্যায়ের বৈঠক আজ

অবৈধভাবে ভারতে যাওয়ার সময় নারী-শিশুসহ আটক ৬

অবৈধভাবে ভারতে যাওয়ার সময় নারী-শিশুসহ আটক ৬

কারাগারে আটক আসামির হাসপাতালে মৃত্যু

কারাগারে আটক আসামির হাসপাতালে মৃত্যু

‘শিক্ষিত মানুষের শোভা পায় না, এমন কিছু লিখবেন না’

‘শিক্ষিত মানুষের শোভা পায় না, এমন কিছু লিখবেন না’

সংসদ সদস্য বাবলুকে দুদকে তলব

সংসদ সদস্য বাবলুকে দুদকে তলব

সর্বশেষ

রাজনৈতিক দলের ৩৩ শতাংশ নারী নেতৃত্বের বাধ্য-বাধকতা নেই

রাজনৈতিক দলের ৩৩ শতাংশ নারী নেতৃত্বের বাধ্য-বাধকতা নেই

১০ হাজার টাকা পাওয়ার খবরে শিক্ষার্থীদের আবেদনের হিড়িক

১০ হাজার টাকা পাওয়ার খবরে শিক্ষার্থীদের আবেদনের হিড়িক

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১১ কোটি ৭৪ লাখ ছাড়িয়েছে

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১১ কোটি ৭৪ লাখ ছাড়িয়েছে

দেশে করোনার থাবার আদ্যোপান্ত

দেশে করোনার থাবার আদ্যোপান্ত

ওবায়দুল কাদের আজ দিশেহারা: কাদের মির্জা

ওবায়দুল কাদের আজ দিশেহারা: কাদের মির্জা

‘এ বিজয় মুজিব ও আ.লীগের নয়, সাড়ে ৭ কোটি মানুষের’

‘এ বিজয় মুজিব ও আ.লীগের নয়, সাড়ে ৭ কোটি মানুষের’

টিভি পর্দায় আজ ট্রান্সজেন্ডার নারীর সংবাদ পাঠ ও অভিনয়

টিভি পর্দায় আজ ট্রান্সজেন্ডার নারীর সংবাদ পাঠ ও অভিনয়

নারী দিবসে ‘আঁধার ভাঙার শপথ’

নারী দিবসে ‘আঁধার ভাঙার শপথ’

নারী দিবস উপলক্ষে ৭ রূপে সেজেছেন নওশাবা

নারী দিবস উপলক্ষে ৭ রূপে সেজেছেন নওশাবা

৭ মার্চ উদযাপনে আহসান মঞ্জিলে আশতবাজির ঝলক

৭ মার্চ উদযাপনে আহসান মঞ্জিলে আশতবাজির ঝলক

স্বামী কাবিননামা না দেওয়ায় স্ত্রীর ‘আত্মহত্যা’

স্বামী কাবিননামা না দেওয়ায় স্ত্রীর ‘আত্মহত্যা’

বর্ণিল আতশবাজিতে ‘দাবায় রাখতে না পারার’ উদযাপন

বর্ণিল আতশবাজিতে ‘দাবায় রাখতে না পারার’ উদযাপন

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

স্বামী কাবিননামা না দেওয়ায় স্ত্রীর ‘আত্মহত্যা’

স্বামী কাবিননামা না দেওয়ায় স্ত্রীর ‘আত্মহত্যা’

কার্টুনিস্ট কিশোরের প্রয়োজন দুটো অপারেশন

কার্টুনিস্ট কিশোরের প্রয়োজন দুটো অপারেশন

‘শিক্ষিত মানুষের শোভা পায় না, এমন কিছু লিখবেন না’

‘শিক্ষিত মানুষের শোভা পায় না, এমন কিছু লিখবেন না’

কেন কমছে রাজনৈতিক কার্টুনের সংখ্যা?

কেন কমছে রাজনৈতিক কার্টুনের সংখ্যা?

চাঁদপুরের লঞ্চ থেকে ইয়াবাসহ চারজন আটক

চাঁদপুরের লঞ্চ থেকে ইয়াবাসহ চারজন আটক

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে চর্চা করতে হবে: আইজিপি

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে চর্চা করতে হবে: আইজিপি

সোহরাওয়ার্দীর সাবেক পরিচালক ডা. উত্তমের লাইসেন্স বাতিলে আইনি নোটিশ

সোহরাওয়ার্দীর সাবেক পরিচালক ডা. উত্তমের লাইসেন্স বাতিলে আইনি নোটিশ

আপন জুয়েলার্সের মালিকের বিরুদ্ধে করা রমনা থানার মামলাটি বিচারের জন্য প্রস্তুত

আপন জুয়েলার্সের মালিকের বিরুদ্ধে করা রমনা থানার মামলাটি বিচারের জন্য প্রস্তুত

আপন জুয়েলার্সের মালিকের বিরুদ্ধে করা রমনা থানার মামলাটি বিচারের জন্য প্রস্তুত

আপন জুয়েলার্সের মালিকের বিরুদ্ধে করা রমনা থানার মামলাটি বিচারের জন্য প্রস্তুত

স্বাস্থ্য অধিদফতর ও কারা অধিদফতরের ডিজিকে আদালত অবমাননার নোটিশ

স্বাস্থ্য অধিদফতর ও কারা অধিদফতরের ডিজিকে আদালত অবমাননার নোটিশ


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.