X
বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ৮ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় নেহার জামিন নামঞ্জুর

আপডেট : ০৭ মার্চ ২০২১, ১৪:৪৩

রাজধানীর একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ ও হত্যার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় ভুক্তভোগী তরুণীর বান্ধবী নেহার জামিন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। রবিবার (৭ মার্চ) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাস চন্দ্র অধিকারীর আদালতে আসামি নেহার আইনজীবী জামিনের আবেদন করেন। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষ তার বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে আটক রাখার আদেশ দেন।

আদালতের সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন (জিআর) শাখার পুলিশের এএসআই ফারুক হোসেন এসব তথ্য জানান।

গত ৫ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সত্যব্রত সিকদার নেহার পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে বৃহস্পতিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) মধ্যরাত সাড়ে ১২টার দিকে আজিমপুর এলাকার একটি বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। নেহাকে ওই তরুণীর ধর্ষণের সহযোগী হিসেবে মামলায় এজাহারভুক্ত করা হয়েছে।

মোহাম্মদপুর থানা সূত্র জানায়, ২৮ জানুয়ারি মদ্যপানের পর থেকে নেহাও অসুস্থ ছিল। তবে গ্রেফতারের সময় সে মোটামুটি সুস্থ ও সবল ছিল। সেদিন তারা যে মদ পান করেন, তা নেহার ছেলেবন্ধু কিনে এনেছিলেন।

এর আগে ৩১ ডিসেম্বর একটি পার্টিতে মদ পানের পর রহস্যজনক মৃত্যু হয় ওই শিক্ষার্থীর। এ ঘটনায় একটি মামলা করেন নিহত তরুণীর বাবা। মামলার এজাহারে ওই তরুণীকে মদ্যপান করিয়ে ধর্ষণ ও হত্যার অভিযোগ করা হয়। এতে সহযোগী হিসেবে চার জনের নাম উল্লেখসহ মোট পাঁচজনকে অভিযুক্ত করা হয়।

মামলার আসামিরা হচ্ছেন—ওই তরুণীর বন্ধু মর্তুজা রায়হান চৌধুরী (২১); মামলায় যাকে ধর্ষক হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। অন্য চার সহযোগীর মধ্যে তিন জন হচ্ছেন—নুহাত আলম তাফসির (২১), আরাফাত (২৮) ও নেহা (২৫)। আরেক বন্ধুর নাম জানা যায়নি। মামলায় অজ্ঞাত হিসেবে তাকে রাখা হয়েছে। এই মামলার পাঁচ আসামির মধ্যে আরাফাত নামে একজন মারা গেছেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, গত ২৮ জানুয়ারি বিকাল ৪টায় মর্তুজা রায়হান ওই তরুণীকে নিয়ে মিরপুর থেকে আসামি আরাফাতের বাসায় যান। আরাফাতের বাসায় স্কুটার রেখে আরাফাত, ওই তরুণী ও রায়হান একসঙ্গে উবারে করে উত্তরা ৩ নম্বর সেক্টরের ব্যাম্বুসুট রেস্টুরেন্টে যান। সেখানে আগে থেকেই আরেক আসামি নেহা এবং একজন সহপাঠী (তরুণ) উপস্থিত ছিলেন। সেখানে আসামিরা ওই তরুণীকে জোর করে ‘অধিক মাত্রায়’ মদ পান করান।

এজাহারে আরও বলা হয়েছে, মদ্যপানের একপর্যায়ে ভুক্তভোগী তরুণী অসুস্থ বোধ করলে রায়হান তাকে মোহাম্মদপুরে তার এক বান্ধবীর বাসায় পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে নুহাতের বাসায় নিয়ে যান। সেখানে তরুণীকে একটি রুমে নিয়ে ধর্ষণ করেন রায়হান। এ সময় রায়হানের বন্ধুরাও রুমে ছিল। তাদের চোখের সামনেই ধর্ষণ করা হয়। ধর্ষণের পর রাতে ওই তরুণী অসুস্থ হয়ে বমি করলে রায়হান তার আরেক বন্ধু অসিম খান কোকোকে ফোন দেন। সেই বন্ধু পরদিন এসে ওই তরুণীকে প্রথমে ইবনে সিনা ও পরে আনোয়ার খান মডার্ন মেডিক্যাল কলেজে হাসপাতালে ভর্তি করেন। দুই দিন লাইফ সাপোর্টে থাকার পর ৩১ জানুয়ারি তরুণী মারা যান।

 

 

/এমএইচজে/আইএ/

সম্পর্কিত

স্ত্রীকে হত্যার পর বাসার আশেপাশেই ঘুরছিল টিটু

স্ত্রীকে হত্যার পর বাসার আশেপাশেই ঘুরছিল টিটু

উদ্ধার করা ফেনসিডিল বিক্রির অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে

উদ্ধার করা ফেনসিডিল বিক্রির অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে

হেফাজতের আরও দুই নেতা গ্রেফতার

হেফাজতের আরও দুই নেতা গ্রেফতার

হেফাজত নেতা মুফতি সাখাওয়াতসহ দুজন ২১ দিনের রিমান্ডে

হেফাজত নেতা মুফতি সাখাওয়াতসহ দুজন ২১ দিনের রিমান্ডে

৫৮ লাখ টাকার কোকেনসহ চার মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

৫৮ লাখ টাকার কোকেনসহ চার মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

মসজিদ নির্মাণ নিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত ১

মসজিদ নির্মাণ নিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত ১

ময়মনসিংহের মামলায় রফিকুল মাদানীর একদিনের রিমান্ড

ময়মনসিংহের মামলায় রফিকুল মাদানীর একদিনের রিমান্ড

হেফাজত নেতা মাওলানা কোরবান আলী রিমান্ডে

হেফাজত নেতা মাওলানা কোরবান আলী রিমান্ডে

রফিকুল ইসলাম মাদানীর ফের ৪ দিনের রিমান্ড

রফিকুল ইসলাম মাদানীর ফের ৪ দিনের রিমান্ড

ভারত থেকে মোবাইল পাচার করে ঢাকায় এনে বিক্রি করতো মিঠু

ভারত থেকে মোবাইল পাচার করে ঢাকায় এনে বিক্রি করতো মিঠু

করোনায় ‘বলপ্রয়োগে’ ধর্ষণ বেড়েছে

করোনায় ‘বলপ্রয়োগে’ ধর্ষণ বেড়েছে

ভার্চুয়াল আদালতে ১৫৭৬ হাজতির জামিন

ভার্চুয়াল আদালতে ১৫৭৬ হাজতির জামিন

সর্বশেষ

হ্যাকারদের কবলে মেসেঞ্জার ব্যবহারকারীরা, সতর্ক থাকুন আপনিও

হ্যাকারদের কবলে মেসেঞ্জার ব্যবহারকারীরা, সতর্ক থাকুন আপনিও

বিড়ম্বনা যখন তেলতেলে নাক

বিড়ম্বনা যখন তেলতেলে নাক

অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্যদ্রব্য তৈরি, চার প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্যদ্রব্য তৈরি, চার প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

নিউমার্কেটে গৃহকর্মী হত্যা, সেই শিক্ষিকা কারাগারে

নিউমার্কেটে গৃহকর্মী হত্যা, সেই শিক্ষিকা কারাগারে

স্যাটেলাইটের মাধ্যমে বেতার যোগাযোগ পুলিশের

স্যাটেলাইটের মাধ্যমে বেতার যোগাযোগ পুলিশের

সঙ্গীর মৃত্যুতে আত্মহত্যা করেছিল স্ত্রী তিমি!

সঙ্গীর মৃত্যুতে আত্মহত্যা করেছিল স্ত্রী তিমি!

হাসপাতাল থেকে বৃদ্ধাকে রেখে আসা হলো ভুল বাড়িতে অন্যের বিছানায়

হাসপাতাল থেকে বৃদ্ধাকে রেখে আসা হলো ভুল বাড়িতে অন্যের বিছানায়

২ লাখ মিটার অবৈধ জালে অগ্নিসংযোগ

২ লাখ মিটার অবৈধ জালে অগ্নিসংযোগ

করোনায় খালেদা জিয়ার সময় কাটছে যেভাবে

করোনায় খালেদা জিয়ার সময় কাটছে যেভাবে

মৌমাছির কামড়ে প্রাণ গেলো কৃষকের

মৌমাছির কামড়ে প্রাণ গেলো কৃষকের

হাত ছেড়ে দিলো মিলান-ইন্টার-আতলেতিকোও

হাত ছেড়ে দিলো মিলান-ইন্টার-আতলেতিকোও

‘তৈরি পোশাক খাতের সংকট নিরসনে ত্রিপক্ষীয় সংলাপ করা উচিত’

‘তৈরি পোশাক খাতের সংকট নিরসনে ত্রিপক্ষীয় সংলাপ করা উচিত’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

স্ত্রীকে হত্যার পর বাসার আশেপাশেই ঘুরছিল টিটু

স্ত্রীকে হত্যার পর বাসার আশেপাশেই ঘুরছিল টিটু

হেফাজতের আরও দুই নেতা গ্রেফতার

হেফাজতের আরও দুই নেতা গ্রেফতার

হেফাজত নেতা মুফতি সাখাওয়াতসহ দুজন ২১ দিনের রিমান্ডে

হেফাজত নেতা মুফতি সাখাওয়াতসহ দুজন ২১ দিনের রিমান্ডে

হেফাজত নেতা মাওলানা কোরবান আলী রিমান্ডে

হেফাজত নেতা মাওলানা কোরবান আলী রিমান্ডে

রফিকুল ইসলাম মাদানীর ফের ৪ দিনের রিমান্ড

রফিকুল ইসলাম মাদানীর ফের ৪ দিনের রিমান্ড

ভারত থেকে মোবাইল পাচার করে ঢাকায় এনে বিক্রি করতো মিঠু

ভারত থেকে মোবাইল পাচার করে ঢাকায় এনে বিক্রি করতো মিঠু

করোনায় ‘বলপ্রয়োগে’ ধর্ষণ বেড়েছে

করোনায় ‘বলপ্রয়োগে’ ধর্ষণ বেড়েছে

ভার্চুয়াল আদালতে ১৫৭৬ হাজতির জামিন

ভার্চুয়াল আদালতে ১৫৭৬ হাজতির জামিন

মধ্যরাতে হেফাজত নেতা মাওলানা আতাউল্লাহ আমীন গ্রেফতার

মধ্যরাতে হেফাজত নেতা মাওলানা আতাউল্লাহ আমীন গ্রেফতার

পরিবারের সদস্যদের এসিড মেরে যুবকের আত্মহত্যার চেষ্টা

পরিবারের সদস্যদের এসিড মেরে যুবকের আত্মহত্যার চেষ্টা

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune