X
সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ৫ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

খেলার জন্য কম ত্যাগ স্বীকার করতে হচ্ছে না সোনামের

আপডেট : ০৮ মার্চ ২০২১, ১১:৫২

স্বামী মোহাম্মদ আলী ও দুই পুত্রকে ঘিরে সোনাম সুলতান সোমার সাজানো সংসার। অবশ্য এর বাইরে আরও একটি ‘সংসার’ তার আগে থেকেই ছিল! টেবিল টেনিসের সঙ্গে যে প্রেম ছোটবেলা থেকেই।

প্রায় দুই যুগের ক্যারিয়ারে সেই যে টেবিল টেনিসকে আঁকড়ে ধরে আছেন। সংসার জীবন শুরুর পরও তা ছাড়তে পারেননি। বিয়ের আগে ও পড়ে নিয়ম করেই টেবিল টেনিসের বোর্ডে পিংপং বলের ঝড় তুলে গেছেন। তবে একসঙ্গে সংসার ও টেবিল টেনিস সমানতালে চালাতে গিয়ে ৫ বারের জাতীয় চ্যাম্পিয়ন সোমাকে কম ঝামেলা পোহাতে হচ্ছে না। অনেক ত্যাগও স্বীকার করতে হচ্ছে।

নড়াইলে ছোটবেলা থেকে পরিবারের অন্যদের দেখে টেবিল টেনিসের প্রেমে পড়ে যান সোনাম সুলতানা সোমা। অথচ এই খেলাটির জন্য বাবার কাছে কম বকা শুনতে হয়নি। শুরুতে তো খেলতেই দেননি। নারী দিবস উপলক্ষে সোমা বাংলা ট্রিবিউনকে বলছিলেন সেসব কথাই, ‘ছোট বেলা থেকে ছেলেদের জার্সি গায়ে খেলবো।। বাবা সেটা চাইতেন না, বকা দিতেন। বারণও করতেন। কিন্তু আমার তীব্র ইচ্ছার কারণে খেলা চালিয়ে গিয়েছি। একপর্যায়ে সাফল্য পেতে শুরু করি। তখন আর বাবা কিছু বলেননি। সবকিছু মেনে নিয়েছেন।’

বিয়ের পর তো টেবিল টেনিসকে আরও বেশি করে আঁকড়ে ধরে রেখেছেন। কারণ স্বামী মোহাম্মদ আলী যে জাতীয় দলের কোচ। তাই তাদের বাসায় টেবিল টেনিসটা খেলা হয় পারিবারিকভাবেই। যেখানে বোর্ডও রয়েছে। তবে এই পথচলা তার মোটেও সহজ ছিল না। স্বামী-সংসার ও একপর্যায়ে সন্তানদের সামলাতে বেশ গলদঘর্ম হতে হয়েছে। সোমার কথায়, ‘বাচ্চাদের ঠিকমতো লালন পালন করা। তাদের দেখভাল করা, সংসার দেখা। আবার টেবিল টেনিসে সময় দেওয়া। সবকিছুই আমার কাছে বড় চ্যালেঞ্জিং হয়ে পড়েছিল। তবে সবার সহযোগিতায় ঠিকই সেসব উতরে যাচ্ছি।’

অবশ্য এই কঠিনসময়গুলোতে নিজের মাকেও খুব কাছে পেয়েছেন সোনাম। মেয়ের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন সবসময়। পাশাপাশি স্বামীর সাহায্য তো ছিলই। সোনামও স্বীকার করছেন সেসব, ‘তবে এর জন্য আমার মাকে ধন্যবাদ দিতে হয়। তিনি না থাকলে আমার খেলাটা কঠিন হয়ে যেত। আমি যখন খেলার মধ্যে থাকি, তখন তিনি বাসায় বাচ্চাদের সামলে নেন। এছাড়া আমার স্বামীও নানানভাবে সাহায্য করেন।’

খেলাসূত্রে শুধু দেশে নয়, বিদেশে গেলেও সোনামের মা-ই সব কিছু করেন। সেসব কথা তুলে সোনাম বলেছেন , ‘ইন্দোনেশিয়া, হাঙ্গেরি ও ফ্রান্সসহ অনেক দেশে খেলতে গিয়েছি। তখন বাচ্চাদের তার নানীই দেখে রাখতো। সংসার করতে গিয়ে অনেক সময় খেলাতে বাড়তি ঘাম ঝরাতে হয়। মনোযোগ দিতে হয়। তখন অনেক কষ্ট করতে হয়। কিন্তু খেলার জন্য সবকিছু হাসিমুখে মেনে নিয়েছি। টেবিল টেনিস ভালোবাসি বলে এখনও খেলে যাচ্ছি। আসলে যতদিন ফিটনেস আছে, ততদিন খেলে যাবো।’

সামনে টেবিল টেনিসের খেলোয়াড়দের ক্যাম্প চীনে করার কথা আছে। কিন্তু সংসাদের দিকে তাকিয়ে সেখানে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এসএ গেমসে ব্রোঞ্জ জয়ী সোনাম। তার কথা, ‘আমাদের চীনে ক্যাম্পের ব্যবস্থা করা হচ্ছে দুই বছরের জন্য। দুই তিন মাস পর যেতে হতে পারে। আমার পক্ষে সংসার ফেলে দিয়ে এতো দিন তো বাইরে থাকা সম্ভব নয়।’

সোনামের সাফল্য এসেছে বলতে গেলে বিয়ের পরই। প্রথম সন্তান জন্মের কয়েক বছর পরই প্রথম জাতীয় চ্যাম্পিয়ন হন। এছাড়া ঘরোয়ার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক সাফল্যও এসেছে এরপরই। তাই স্ত্রীর সাফল্যে নিজেও গর্বিত স্বামী মোহাম্মদ আলী, ‘ওকে খেলোয়াড় জেনেই বিয়ে করেছি। তাই তো বিয়ের পর খেলার জন্য যতদূর সম্ভব সহযোগিতা করে থাকি। এটা এই কারণে না যে, ও এই খেলার কারণে অনেক টাকা পারিশ্রমিক পায়। আসলে ও খেলাটাকে অনেক ভালোবাসে, আমি নিজেও তাই। যে কারণে সোনাম এখনও খেলার সঙ্গেই জড়িত আছে। সংসার ও খেলা দুটো এক সঙ্গে করতে গিয়ে সমস্যা কম হয় না। তবে আমরা মানিয়ে নিয়েছি।’

একজন মমতাময়ী মা হিসেবে সোনাম যেমন সংসার সামলাচ্ছেন। তেমনি ইনডোরে টেবিল টেনিসও খেলে যাচ্ছেন সমান দক্ষতায়। অনেক পরিশ্রম আর ত্যাগ স্বীকারের ফলেই তার এই পর্যায়ে উঠে আসা। তবে খেলার কারণে যে সংসারে অনেক সময় মনোযোগ কম দেওয়া হয়। সেসবও মেনে নিয়েছেন স্বামী মোহাম্মদ আলী। একই সঙ্গে ক্ষতি পুষিয়ে নিতে ভূমিকা রাখছেন দুজনেই। মোহাম্মদ আলীর ভাষায়, ‘দেখা গেছে আমার বড় ছেলে একবার পরীক্ষাতে কিছুটা খারাপ ফল করেছে। তখন হয়তো খেলার কারণে দুজনেই বাইরে ছিলাম। সময় সেভাবে দিতে পারিনি। পরে অবশ্য আমরা তা কাভার করে নিয়েছি।’

/এফআইআর/

সর্বশেষ

রিয়ালকে শিরোপার পথে আটকে দিলো গেটাফে

রিয়ালকে শিরোপার পথে আটকে দিলো গেটাফে

লাইভে ক্ষমা চাইলেন নুর

লাইভে ক্ষমা চাইলেন নুর

‘আগামী ৪৮ ঘন্টা জ্বর না আসলে খালেদা জিয়া শঙ্কামুক্ত হবেন’

‘আগামী ৪৮ ঘন্টা জ্বর না আসলে খালেদা জিয়া শঙ্কামুক্ত হবেন’

টর্নেডো ইনিংসে দিল্লির নায়ক ধাওয়ান

টর্নেডো ইনিংসে দিল্লির নায়ক ধাওয়ান

সোয়া কোটি মানুষের জন্য মোটে ২৬টি আইসিইউ বেড!

সোয়া কোটি মানুষের জন্য মোটে ২৬টি আইসিইউ বেড!

ভিপি নুরের বিরুদ্ধে তথ্য-প্রযুক্তি আইনে মামলা

ভিপি নুরের বিরুদ্ধে তথ্য-প্রযুক্তি আইনে মামলা

লন্ডনে তালা ভেঙে অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামালের জামাতার লাশ উদ্ধার

লন্ডনে তালা ভেঙে অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামালের জামাতার লাশ উদ্ধার

ডিবি কার্যালয়ে মামুনুল হক

ডিবি কার্যালয়ে মামুনুল হক

করোনায় বিপর্যস্ত ভারত, মোদিকে মনমোহনের ৫ পরামর্শ

করোনায় বিপর্যস্ত ভারত, মোদিকে মনমোহনের ৫ পরামর্শ

ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ভিক্ষুক নিহত

ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ভিক্ষুক নিহত

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর টার্গেটে আরও দুই ডজন হেফাজত নেতা

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর টার্গেটে আরও দুই ডজন হেফাজত নেতা

ভার্চুয়াল কোর্টে জামিন পেয়ে কারামুক্ত ৯ হাজার আসামি

ভার্চুয়াল কোর্টে জামিন পেয়ে কারামুক্ত ৯ হাজার আসামি

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

রিয়ালকে শিরোপার পথে আটকে দিলো গেটাফে

টর্নেডো ইনিংসে দিল্লির নায়ক ধাওয়ান

সাকিবের খরুচে বোলিংয়ের দিনে কলকাতার আরেকটি হার

দ্বিতীয়বার ব্যাটিংয়ে নেমে মুমিনুল করলেন ৪৭

মুমিনুলদের বিপক্ষে ফিরলেন ম্যাথুজ, নতুন মুখ প্রবীণ

জীবনের পায়ে অস্ত্রোপচার

আনন্দে আত্মহারা মেসি

করোনায় আক্রান্ত ৫ নারী ফুটবলার

হাসপাতালে কেমন আছেন আকরাম খান?

গত বছর করোনা ছড়িয়ে আবারও টুর্নামেন্ট করছেন জোকোভিচ!

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune