X
শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১১ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

দেশেই হবে ভ্যাকসিন, এগিয়ে ইনসেপটা ও পপুলার

আপডেট : ০৭ মে ২০২১, ২১:১৬

গত বুধবার (৫ মে) করোনাভাইরাসের টিকা সংগ্রহ ও বিতরণ বিষয়ক আন্তমন্ত্রালয় সংক্রান্ত পরামর্শক কমিটির সভায় দেশে করোনার টিকা উৎপাদনের জন্য তিনটি ওষুধ কোম্পানির সক্ষমতা যাচাইয়ের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরদিনই (বৃহস্পতিবার) টিকা বিষয়ক কোর কমিটির বৈঠকে এ নিয়ে আলোচনা হয়। পরে তাদের প্রস্তাব স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়।

৩ মে পরামর্শক কমিটির সভায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিবকে সভাপতি করে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক, কেন্দ্রীয় ওষুধাগারের পরিচালক, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের মহাপরিচালক-২, অর্থ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব পর্যায়ের একজন কর্মকর্তা, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি এবং স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিবকে সদস্য করা হয়।

এই কমিটি কোভিড ১৯-এর ভ্যাকসিনের চাহিদা যাচাই, নিরাপদ ও কার্যকর টিকা নির্বাচন, টিকা সংগ্রহ, বিতরণ ও টিকার যৌক্তিক মূল্য নির্ধারণ করবে।

কোম্পানি তিনটি হচ্ছে, ইনসেপটা, পপুলার ও হেলথকেয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস। তবে টিকা বিষয়ক কোর কমিটির বৃহস্পতিবারের সিদ্ধান্তে হেলথকেয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস বাদ পড়ে যাবে বলে বাংলা ট্রিবিউনকে সূত্র জানায়।

দেশে করোনাভাইরাসের জাতীয় টিকাদান কার্যক্রমে কিছুটা অস্থিরতা তৈরি হয়েছে। যদিও স্বাস্থ্য অধিদফতর বলছে, তারা কিছুটা উদ্বিগ্ন হলেও আশঙ্কা করছেন না।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বাংলা ট্রিবিউনকে জানায়, এই কোম্পানিগুলো টিকা তৈরিতে আগ্রহ দেখিয়েছে। তাদের সক্ষমতা যাচাই করা হয়েছে কেবল। টিকা উৎপাদনের জন্য চূড়ান্ত করা হয়নি।

ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের টিকা বিষয়ক কমিটির এক সূত্র বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, দেশে কতগুলো কোম্পানির ভ্যাকসিন তৈরির অভিজ্ঞতা রয়েছে, সেটা আমাদের জানা আছে। ভ্যাকসিন তৈরির অবকাঠামো ও অভিজ্ঞতা যাদের রয়েছে তাদেরই এ তালিকায় রাখা হয়েছে।

টিকা বা ওষুধ তৈরির জন্য যখন কেউ অনুমতি চায়, তখন ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর থেকে ওই কোম্পানি পরিদর্শন করা হয়। এটাকে বলা হয় গুড ম্যানুফেকচারিং প্র্যাকটিস (জিএমপি)। এরপর সুনির্দিষ্ট করে ওই পণ্য তৈরির ক্ষমতা কেমন রয়েছে, সেটা যাচাই করে অনুমোদন দেওয়া হয়।

কোম্পানিগুলোকে কীসের ভিত্তিতে নির্ধারণ করা হলো জানতে চাইলে ওই সূত্র জানায়, ‘পাঁচটি ইনডিকেটর তথা সূচক রয়েছে, কোম্পানিগুলো কত দ্রুত উৎপাদনে যেতে পারবে, টিকা উৎপাদনের পরিমাণ কত হবে, টিকার মান কেমন হবে, কোম্পানির অভিজ্ঞতা এবং পরিশেষে তাদের জনবল বা অবকাঠামো কতটা আছে।’

তিনি বলেন, ‘এই বিবেচনায় হেলথ কেয়ারের অভিজ্ঞতা নেই। তারা আগে টিকা উৎপাদন করেনি। তাই হয়তো এটি বাদ যেতে পারে। বাকি থাকে ইনসেপটা ও পপুলার। এরপর স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ সিদ্ধান্ত নেবে।’

টিকা উৎপাদনের প্রস্তুতি আছে কিনা জানতে চাইলে ইনসেপটার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সূত্র জানায়, এটা নিয়ে এখনও কথা বলতে পারবো না। পরে আনুষ্ঠানিকভাবে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলা হবে।

এদিকে, গত ১৮ মার্চ স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক আশুলিয়ার জিরাবো এলাকায় ইনসেপটা ভ্যাকসিন লিমিটেডের ভ্যাকসিন প্ল্যান্ট পরিদর্শন করেন।

সেদিন তিনি বলেন, ‘আমরা জানতে পেরেছি ইনসেপটা ভ্যাকসিন প্ল্যান্ট ইতোমধ্যে ইনফ্রাস্ট্রাকচার অ্যান্ড গুড ম্যানুফ্যাকচারিং প্র্যাকটিস (জিএমপি) মান অনুযায়ী ভ্যাকসিন উৎপাদনে বিশ্বমানের সক্ষমতা অর্জন করেছে। সুতরাং আমি মনে করি, অন্য দেশগুলোও ভ্যাকসিন উৎপাদনের জন্য এই প্ল্যান্ট ব্যবহার করতে পারে। প্ল্যান্টটি প্রতি বছর ১৮ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন তৈরির ক্ষমতা রাখে।’

ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান জানান, ‘বাংলাদেশের ভ্যাকসিন উৎপাদনের সক্ষমতা রয়েছে। আমাদের তিনটি ফার্মাসিউটিক্যালস ইনসেপটা, পপুলার ও হেলথ কেয়ার ভ্যাকসিন তৈরি করতে পারে। ইনসেপটা ইতোমধ্যে এ নিয়ে কথা বলেছে রাশিয়ার সঙ্গে।’

আমাদের ভ্যাকসিন তৈরির সক্ষমতা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘ইনসেপটা ফার্মাসিউটিক্যাল বর্তমানে ১৪টি ভ্যাকসিন তৈরি করছে। সেগুলো রফতানিও হচ্ছে।’

/এফএ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

করোনার প্রভাব পড়েনি অর্থনীতির যে খাতে

করোনার প্রভাব পড়েনি অর্থনীতির যে খাতে

টানা ৪ দিন ধরে খুলনা বিভাগে মৃতের সংখ্যা বেশি

টানা ৪ দিন ধরে খুলনা বিভাগে মৃতের সংখ্যা বেশি

২০ কোটি টাকার জাল স্ট্যাম্পসহ গ্রেফতার ৪ জন রিমান্ডে

২০ কোটি টাকার জাল স্ট্যাম্পসহ গ্রেফতার ৪ জন রিমান্ডে

মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

টিকা নেওয়া মানুষেরা ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত হচ্ছেন: ইসরায়েল

টিকা নেওয়া মানুষেরা ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত হচ্ছেন: ইসরায়েল

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০৮ জনের

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০৮ জনের

এইচএসসির ফরম পূরণ ২৯ জুন থেকে শুরু

এইচএসসির ফরম পূরণ ২৯ জুন থেকে শুরু

স্থিতিশীল বঙ্গোপসাগর-ভারত মহাসাগর দেখতে চায় বাংলাদেশ

স্থিতিশীল বঙ্গোপসাগর-ভারত মহাসাগর দেখতে চায় বাংলাদেশ

গোষ্ঠীতান্ত্রিক শাসকগোষ্ঠী দেশ পরিচালনা করছে: আমীর খসরু

গোষ্ঠীতান্ত্রিক শাসকগোষ্ঠী দেশ পরিচালনা করছে: আমীর খসরু

ভূমধ্যসাগরে ভাসমান অবস্থায় ইউরোপগামী ২৬৪ বাংলাদেশি উদ্ধার

ভূমধ্যসাগরে ভাসমান অবস্থায় ইউরোপগামী ২৬৪ বাংলাদেশি উদ্ধার

২০০ বছরের পুরনো হাটে ক্রেতা নেই

২০০ বছরের পুরনো হাটে ক্রেতা নেই

সর্বশেষ

মাঠের সমালোচনা করে শাস্তি পেলেন ব্রাজিল কোচ  

মাঠের সমালোচনা করে শাস্তি পেলেন ব্রাজিল কোচ  

‘গ্রিন ফাঙ্গাস’ করোনা রোগীদের মৃত্যু ঝুঁকি বাড়ায় তিন গুণ: বিশেষজ্ঞদের সতর্কতা

‘গ্রিন ফাঙ্গাস’ করোনা রোগীদের মৃত্যু ঝুঁকি বাড়ায় তিন গুণ: বিশেষজ্ঞদের সতর্কতা

করোনার প্রভাব পড়েনি অর্থনীতির যে খাতে

করোনার প্রভাব পড়েনি অর্থনীতির যে খাতে

পল্লবীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে লিফট মিস্ত্রীর মৃত্যু

পল্লবীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে লিফট মিস্ত্রীর মৃত্যু

পুলিশের সহায়তায় এসএসসি পরীক্ষার্থী’র ফরম ফিলাপ

পুলিশের সহায়তায় এসএসসি পরীক্ষার্থী’র ফরম ফিলাপ

টানা ৪ দিন ধরে খুলনা বিভাগে মৃতের সংখ্যা বেশি

টানা ৪ দিন ধরে খুলনা বিভাগে মৃতের সংখ্যা বেশি

তিব্বতে প্রথম বুলেট ট্রেন চালু করলো চীন

তিব্বতে প্রথম বুলেট ট্রেন চালু করলো চীন

২০ কোটি টাকার জাল স্ট্যাম্পসহ গ্রেফতার ৪ জন রিমান্ডে

২০ কোটি টাকার জাল স্ট্যাম্পসহ গ্রেফতার ৪ জন রিমান্ডে

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নকেই পাচ্ছে না উইম্বলডন

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নকেই পাচ্ছে না উইম্বলডন

‌‘মা-বাবা বৃদ্ধাশ্রমে, রাস্তায় আপনার লাশ, এমন উন্নয়ন চাই না’

‌‘মা-বাবা বৃদ্ধাশ্রমে, রাস্তায় আপনার লাশ, এমন উন্নয়ন চাই না’

মানিকগঞ্জ থেকে ঢাকা: মোটরসাইকেলে ১০০০, কারে ৫০০ টাকা

মানিকগঞ্জ থেকে ঢাকা: মোটরসাইকেলে ১০০০, কারে ৫০০ টাকা

স্বচ্ছ যুব নেতৃত্ব তৈরিতে কাজ করছি: নিখিল

স্বচ্ছ যুব নেতৃত্ব তৈরিতে কাজ করছি: নিখিল

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

টানা ৪ দিন ধরে খুলনা বিভাগে মৃতের সংখ্যা বেশি

টানা ৪ দিন ধরে খুলনা বিভাগে মৃতের সংখ্যা বেশি

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০৮ জনের

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০৮ জনের

স্থিতিশীল বঙ্গোপসাগর-ভারত মহাসাগর দেখতে চায় বাংলাদেশ

স্থিতিশীল বঙ্গোপসাগর-ভারত মহাসাগর দেখতে চায় বাংলাদেশ

অর্থনৈতিক পরিবর্তনের ‘গিয়ার’ হলো বাজেট: পরিকল্পনামন্ত্রী

অর্থনৈতিক পরিবর্তনের ‘গিয়ার’ হলো বাজেট: পরিকল্পনামন্ত্রী

করোনা নিয়ন্ত্রণে গোঁজামিল

করোনা নিয়ন্ত্রণে গোঁজামিল

ঢাকায় চার দিনেই ১০৭ শতাংশ বেড়েছে করোনা শনাক্ত 

ঢাকায় চার দিনেই ১০৭ শতাংশ বেড়েছে করোনা শনাক্ত 

© 2021 Bangla Tribune