X
শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১১ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

আড়তদাররা ধান না কেনায় বিপাকে কৃষকরা

আপডেট : ১৫ মে ২০২১, ১৯:৫৯

শস্যভাণ্ডার খ্যাত দিনাজপুরের হিলিতে আড়তদাররা ধান না কেনায় চলতি বোরো মৌসুমের ধান নিয়ে বিপাকে পড়েছেন অত্র অঞ্চলের কৃষকরা। অনেক আড়তদারই বর্তমানে ধান কিনতে চাচ্ছেন না বা আবার অনেকে কিনতে চাইলেও ধানের দাম কম বলছেন। এতে করে ঈদের আগে যে ধান ৯৪০ থেকে ৯৫০ মন বিক্রি হয়েছিল এখন সেই ধান কমে সাড়ে ৮শ’ টাকা থেকে ৯শ’ টাকায় গিয়ে দাঁড়িয়েছে। ধানের এমন দাম কমায় উৎপাদন খরচ উঠা নিয়ে সংশয়ে পড়েছেন কৃষকরা, এটিকে আড়তদারদের কারসাজি বলে মনে করছেন তারা।

হিলির মালেপাড়া গ্রামের কৃষক জাহাঙ্গীর হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, আমরা কৃষকরা ধান নিয়ে আড়তদারদের নিকট জিম্মি হয়ে পড়েছি। একে তো বোরো মৌসুমের ধান বেশি রাখা যায় না, এর উপর আড়তদাররা ধান কিনছেন না। এতে করে ধান নিয়ে বিপাকের মধ্যে পড়েছি। ধান এখন গলার কাটা হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিভিন্ন আড়তগুলোতে ঘুরেও কেউ ধান নিতে চাইছে না দু’একজন ধান নিতে চাইলেও ধানের দাম মনপ্রতি ৭০/৮০ টাকা কম বলছে। এর উপর ধান কাঁচা শুকে নিয়ে আসেন আরও অনেক কিছু। ধানের ভালো ফলন পাওয়ায়, ভালো দাম পেলে কৃষকরা এবার লাভবান হওয়ার স্বপ্ন দেখছিল। প্রথমের দিকে ধানের দাম ভালোই ছিল কিন্তু এখন হঠাৎ করে ধানের দাম কমে গেছে। এতে করে লাভ দূরে থাক উৎপাদন খরচ উঠানো নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে।

হিলির জালালপুর গ্রামের কৃষক সুজন হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, এটা আড়তদারদের কারসাজি ছাড়া আর কিছুই নয়। এভাবে হঠাৎ করে ধানের দাম কমে যাবে? তারা সিন্ডিকেট করে ধান ক্রয় বন্ধ রেখে ধানের দাম কমাচ্ছেন। যদি তাই না হবে, মোকামে ধান ক্রয় বন্ধ থাকলে তাহলে সকলেই ধান ক্রয় বন্ধ রাখতো কিন্তু অনেকে ধান ক্রয় বন্ধ রাখলেও কেউ কেউ ধান ক্রয় করছেন; কিন্তু তারা আগের চেয়ে কৃষকদের কাছ থেকে কম দামে কিনছেন আর গুদামে মজুদ করছেন।

হিলির চারমাথা মোড়ের ধানের আড়তদার শাহ মোহাম্মদ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ঈদের কারণে ঈদের আগের দিন থেকে ধান ক্রয় বন্ধ রেখেছি। সবে মাত্র ঈদ গেল একটি দিন হলো, তবে আরও একদিন পর সোমবার থেকে ধান ক্রয় শুরু করবো। আমরা যেসব মোকামে বা মিলে ধান দিই সেসব মিলে ঈদের কারণে শ্রমিকদের ছুটি দেওয়ায় ওইসব মিলাররা আপাতত ধান ক্রয় বন্ধ রেখেছেন। অধিকাংশ মোকামে বা মিলে একই অবস্থা বা অনেক পার্টি এই অঞ্চলে এসেছিল ধান ক্রয় করতে তারাও ঈদের কারণে বাড়ি চলে গেছে। যার কারণে আমরাও বন্ধ রেখেছি। শুধু আমি নয়, আমার মতো অনেক আড়তদার ধান ক্রয় বন্ধ রেখেছেন। তবে দু’একজন ধান ক্রয় অব্যাহত রেখেছেন। সোমবার থেকে মিল চালু করবে সে মোতাবেক আমরাও ধান ক্রয় শুরু করবো। তবে এই ধান ক্রয় বন্ধ থাকায় ধানের দাম কিছুটা কমেছে। ঈদের আগে যে জিরা ধান ৯৪০/৯৫০ টাকা, কাটারি জাতের ধান সাড়ে ৮শ’ থেকে ৯শ’ টাকা। বর্তমানে জিরা ধান ৯শ’ আর কাটারি ধান সাড়ে ৮শ’ টাকা মন বিক্রি হচ্ছে।

হাকিমপুর উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মোস্তাফিজুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, কৃষকের উৎপাদিত ধানের মূল্য নিশ্চিতে সরকার এই উপজেলায় ধান সংগ্রহ অভিযানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে ১০১৫ টন। যা গত ২৮ এপ্রিল কৃষকের কাছ চলতি মৌসুমের ধান সংগ্রহ অভিযানের উদ্বোধন করা হয়েছে। এরপরেও কৃষকের যে অভিযোগ, আড়তদাররা সিন্ডিকেট করে ধানের দাম কমাচ্ছেন- এ বিষয়ে তদন্ত পূর্বক প্রশাসন দ্বারা ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

/এনএইচ/

সম্পর্কিত

মৃত্যু ও সংক্রমণ বাড়ায় লালমনিরহাট পৌরসভায় কঠোর বিধিনিষেধ

মৃত্যু ও সংক্রমণ বাড়ায় লালমনিরহাট পৌরসভায় কঠোর বিধিনিষেধ

থানায় সালিশ ডেকে আদালতে ক্ষমা চাইলেন ওসি

থানায় সালিশ ডেকে আদালতে ক্ষমা চাইলেন ওসি

ঋণের টাকা দিতে না পেরে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

ঋণের টাকা দিতে না পেরে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

হিলিতে ফের বাড়লো পেঁয়াজের দাম

হিলিতে ফের বাড়লো পেঁয়াজের দাম

ডিউটিভ্যানেই মারা গেলেন পুলিশ কনস্টেবল

ডিউটিভ্যানেই মারা গেলেন পুলিশ কনস্টেবল

বিপৎসীমার ওপরে তিস্তার পানি, গঙ্গাচড়ায় ২ হাজার পরিবার পানিবন্দি

বিপৎসীমার ওপরে তিস্তার পানি, গঙ্গাচড়ায় ২ হাজার পরিবার পানিবন্দি

ছেলের প্রেমে বাবার মৃত্যুর ১৮ দিন পর লাশ উত্তোলন

ছেলের প্রেমে বাবার মৃত্যুর ১৮ দিন পর লাশ উত্তোলন

হিলিতে আরও এক সপ্তাহের কঠোর বিধিনিষেধ

হিলিতে আরও এক সপ্তাহের কঠোর বিধিনিষেধ

হাসপাতালে নেননি স্বজনরা, করোনায় মারা গেলেন শিক্ষিকা

হাসপাতালে নেননি স্বজনরা, করোনায় মারা গেলেন শিক্ষিকা

পেঁয়াজের দাম কমেছে

পেঁয়াজের দাম কমেছে

সর্বশেষ

ময়মনসিংহে লকডাউনেও চলছে গণপরিবহন, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

ময়মনসিংহে লকডাউনেও চলছে গণপরিবহন, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

উপবৃত্তির কথা বলে ১৩ দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীর কাছ থেকে টাকা নিলেন প্রধান শিক্ষক

উপবৃত্তির কথা বলে ১৩ দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীর কাছ থেকে টাকা নিলেন প্রধান শিক্ষক

ব্রিটেনে বাড়ছে স্থূল মানুষ, জাঙ্ক ফুড বিজ্ঞাপনে বিধিনিষেধ

ব্রিটেনে বাড়ছে স্থূল মানুষ, জাঙ্ক ফুড বিজ্ঞাপনে বিধিনিষেধ

ডিএনএ টেস্টে প্রমাণ হয়নি কন্যাশিশুর বাবা কনস্টেবল শাওন

ডিএনএ টেস্টে প্রমাণ হয়নি কন্যাশিশুর বাবা কনস্টেবল শাওন

মৃত্যু ও সংক্রমণ বাড়ায় লালমনিরহাট পৌরসভায় কঠোর বিধিনিষেধ

মৃত্যু ও সংক্রমণ বাড়ায় লালমনিরহাট পৌরসভায় কঠোর বিধিনিষেধ

মডেল মসজিদের ইমাম-মুয়াজ্জিনের বেতন কত?

মডেল মসজিদের ইমাম-মুয়াজ্জিনের বেতন কত?

দেশে পাকিস্তানি সৈন্যের অস্তিত্ব নেই

দেশে পাকিস্তানি সৈন্যের অস্তিত্ব নেই

বার্ধক্য রুখবে কোলাজেন স্মুদি

বার্ধক্য রুখবে কোলাজেন স্মুদি

বিজেপিতেই আস্থা রাখছেন ভারতের ব্যবসায়ীরা

বিজেপিতেই আস্থা রাখছেন ভারতের ব্যবসায়ীরা

বোমাবর্ষণের হুঁশিয়ারি রাশিয়ার

বোমাবর্ষণের হুঁশিয়ারি রাশিয়ার

টিশার্টে নকশি কাঁথা

টিশার্টে নকশি কাঁথা

মোদিকে চিঠি মমতার

মোদিকে চিঠি মমতার

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মৃত্যু ও সংক্রমণ বাড়ায় লালমনিরহাট পৌরসভায় কঠোর বিধিনিষেধ

মৃত্যু ও সংক্রমণ বাড়ায় লালমনিরহাট পৌরসভায় কঠোর বিধিনিষেধ

থানায় সালিশ ডেকে আদালতে ক্ষমা চাইলেন ওসি

থানায় সালিশ ডেকে আদালতে ক্ষমা চাইলেন ওসি

ঋণের টাকা দিতে না পেরে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

ঋণের টাকা দিতে না পেরে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

হিলিতে ফের বাড়লো পেঁয়াজের দাম

হিলিতে ফের বাড়লো পেঁয়াজের দাম

ডিউটিভ্যানেই মারা গেলেন পুলিশ কনস্টেবল

ডিউটিভ্যানেই মারা গেলেন পুলিশ কনস্টেবল

বিপৎসীমার ওপরে তিস্তার পানি, গঙ্গাচড়ায় ২ হাজার পরিবার পানিবন্দি

বিপৎসীমার ওপরে তিস্তার পানি, গঙ্গাচড়ায় ২ হাজার পরিবার পানিবন্দি

ছেলের প্রেমে বাবার মৃত্যুর ১৮ দিন পর লাশ উত্তোলন

ছেলের প্রেমে বাবার মৃত্যুর ১৮ দিন পর লাশ উত্তোলন

হিলিতে আরও এক সপ্তাহের কঠোর বিধিনিষেধ

হিলিতে আরও এক সপ্তাহের কঠোর বিধিনিষেধ

© 2021 Bangla Tribune