X
মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

সেকশনস

বেসরকারি খাতেও টিকা আমদানির অনুমতি দেওয়ার সুপারিশ টিআইবির

আপডেট : ০৮ জুন ২০২১, ১৮:৩৩

ক্রয়বিধি অনুসরণ করে সরকারি-বেসরকারি খাতের সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সরাসরি ভ্যাকসিন আমদানির অনুমতি দেওয়াসহ ১৯ দফা সুপারিশ করেছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)। সেই সঙ্গে উন্মুক্ত প্রতিযোগিতার মাধ্যমে সক্ষমতাসম্পন্ন কোম্পানিগুলোকে নিজ উদ্যোগে স্থানীয়ভাবে টিকা উৎপাদনের সুযোগ প্রদান করারও সুপারিশ করেছে সংস্থাটি।

মঙ্গলবার (৮ জুন) প্রকাশিত ‘করোনা ভাইরাস সংকট মোকাবিলা: কোভিড-১৯ টিকা ব্যবস্থাপনায় সুশাসনের চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক এক গবেষণা প্রতিবেদনে টিকা কার্যক্রম সম্পর্কিত এমন ১১টি সুপারিশ পেশ করা হয়। এ ছাড়াও অন্যান্য কার্যক্রম সম্পর্কিত ৮টি সুপারিশ জানানো হয়।

পরে এ উপলক্ষে আয়োজিত এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে প্রকাশিত গবেষণা প্রতিবেদন বিষয়ে কথা বলেন টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান। সংস্থাটির আউটরিচ অ্যান্ড কমিউনিকেশন বিভাগের পরিচালক মনজুর-ই-আলমের সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে আরো যুক্ত ছিলেন সংস্থাটির উপদেষ্টা-নির্বাহী ব্যবস্থাপনা অধ্যাপক ড. সুমাইয়া খায়ের, গবেষণা ও পলিসি বিভাগের পরিচালক মোহাম্মদ রফিকুল হাসান ও সিনিয়র রিসার্চ ফেলো শাহজাদা এম আকরাম। গবেষণা প্রতিবেদনটি উপস্থাপন করেন গবেষণা ও পলিসি বিভাগের রিসার্চ ফেলো মো. জুলকারনাইন।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, কোভিড-১৯ টিকা ব্যবস্থাপনা কার্যক্রমে সুশাসনের প্রতিটি নির্দেশে কৌশলগত ঘাটতি থাকায় এবং ব্যবসায়িক গোষ্ঠীর প্রভাব ও রাজনৈতিক বিবেচনায় টিকা ক্রয়ের ক্ষেত্রে একক উৎসের ওপর নির্ভর করায় চলমান টিকা কার্যক্রমে আকস্মিক স্থবিরতা নেমে এসেছে।

টিআইবির গবেষণা প্রতিবেদনে টিকা সম্পর্কিত যেসব সুপারিশ করা হয়েছে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্যগুলো হলো- দেশের ৮০ শতাংশ জনসংখ্যাকে কীভাবে, কত সময়ের মধ্যে টিকার আওতায় আনা হবে তার সুনির্দিষ্ট কর্মপরিকল্পনা করা; রাষ্ট্রীয় গোপন তথ্য ব্যতীত টিকা ক্রয় চুক্তি সম্পর্কিত সকল তথ্য সকলের জন্য উন্মুক্ত করা; টিকা কেন্দ্রে অভিযোগ নিরসন ব্যবস্থা প্রবর্তন করা এবং অভিযোগের ভিত্তিতে অনিয়ম-দুর্নীতির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা।

অন্যান্য কার্যক্রম সম্পর্কিত সুপারিশের মধ্যে বলা হয়েছে- কোভিড-১৯ মোকাবিলা কার্যক্রমে সংঘটিত অনিয়ম-দুর্নীতির ক্ষেত্রে দ্রুততার সাথে তদন্ত ও সম্পৃক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা; স্টোরে ফেলে রাখা আইসিইউ, ভেন্টিলেটরসহ অন্যান্য যন্ত্রপাতি অতি দ্রুততার সাথে ব্যবহারযোগ্য করা; সকল জেলায় আরটি-পিসিআর পরীক্ষাগার স্থাপন করা; কোভিড-১৯ চিকিৎসার খরচ সর্বসাধারণের আয়ত্তের মধ্যে রাখতে চিকিৎসা ফির সীমা নির্ধারণ করা; এবং স্বল্প আয়ের জনগোষ্ঠীর বিকল্প জীবন-জীবিকার সংস্থান করে সংক্রমণ পরিস্থিতি বিবেচনায় এলাকাভিত্তিক ‘লকডাউন’ দেওয়া এবং সুনির্দিষ্ট ব্যাখ্যাসহ নিষেধাজ্ঞার আওতা নির্ধারণ করা প্রভৃতি।

টিকা সংগ্রহ এবং ক্রয়ের ক্ষেত্রে পরিকল্পনা, সমন্বয়হীনতা ও ক্রয় চুক্তিতে স্বচ্ছতার ঘাটতি বিদ্যমান দাবি করে গবেষণার বরাত দিয়ে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের চাপে সুযোগ থাকা সত্ত্বেও একটি উৎস ছাড়া বিকল্প উৎস অনুসন্ধানে উদ্যোগের ঘাটতি ছিল। জাতীয় কমিটি এবং বিএমআরসি একটি চীনা প্রতিষ্ঠানের টিকা ট্রায়ালের অনুমোদন দিলেও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে যথাযথ সাড়া না দেওয়ায় ট্রায়াল প্রচেষ্টা বন্ধ হয়ে যায়। এছাড়া দেশীয় প্রতিষ্ঠানের উদ্ভাবিত টিকা ট্রায়ালের অনুমোদনেও দীর্ঘসূত্রিতা লক্ষ্য করা যায়।

বাংলাদেশ সরকার, বেক্সিমকো এবং সেরাম ইনস্টিটিউটের মধ্যেকার টিকা ক্রয় চুক্তি প্রক্রিয়ায় ‘স্বচ্ছতার ঘাটতি ছিল প্রকট’ দাবি করে টিআইবি বলছে, টিকা ক্রয়ের ক্ষেত্রে সরকারি ক্রয়বিধি অনুসরণ করা হয়নি। যৌক্তিক কারণ না দেখিয়ে টিকা আমদানিতে তৃতীয় পক্ষকে অন্তর্ভুক্ত করায় ইউরোপিয়ান ইউনিয়নভুক্ত দেশ (২ দশমিক ১৯ ডলার), ভারত (২ দশমিক ৮ ডলার), আফ্রিকান ইউনিয়ন (৩ ডলার) ও নেপালের (৪ ডলার) চেয়ে বেশি মূল্যে কোভিশিল্ড টিকা ক্রয় (৫ ডলার) করা হয়েছে। সরকার সরাসরি সেরাম ইনস্টিটিউটের কাছ থেকে টিকা আনলে প্রতি ডোজে যে টাকা বাঁচতো তা দিয়ে ৬৮ লাখ বেশি টিকা ক্রয়ের চুক্তি করা যেত। ক্রয় বিধি ২০০৮, এর ৩৮ (৪) (গ) অনুসরণ না করে ত্রিপক্ষীয় চুক্তিতে টিকা সরবরাহের ক্ষেত্রে কেউ ক্ষতিগ্রস্ত হলে সকল পক্ষকে দায়মুক্তি দেওয়া হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ‘করোনা সংক্রমণের শুরু থেকে গেল দেড় বছর স্বাস্থ্য খাতে যে ধরনের অনিয়ম-দুর্নীতি ছিলো, তা এখনো অব্যাহত রয়েছে। সরকারি ক্রয়বিধি লঙ্ঘন করা হয়েছে, জনবল নিয়োগে কোটি কোটি টাকার লেনদেনের তথ্য প্রকাশিত হয়েছে, উপযোগিতা নিশ্চিত না করে হাসপাতাল সাময়িকভাবে প্রস্তুত এবং তা বন্ধ করার ফলে সরকারের কোটি কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। অন্যদিকে তথ্য প্রকাশের ক্ষেত্রেও প্রতিবন্ধকতা অব্যাহত ছিলো। তথ্য নিয়ন্ত্রণের প্রবণতা আরও ঘনিভূত হয়েছে। সরকার দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণে যতখানি তৎপর তার চেয়ে দুর্নীতির তথ্য প্রকাশ নিয়ন্ত্রণে শতগুণে বেশি তৎপর ছিলো। যা আত্মঘাতী বিষয়, এ থেকে সরকারকে সরে আসতে হবে।

/জেইউ/ইউএস/

সম্পর্কিত

চীনের জবাবে অপেক্ষায় সরকার

চীনের জবাবে অপেক্ষায় সরকার

১৯ জুন থেকে আবার টিকাদান শুরু

১৯ জুন থেকে আবার টিকাদান শুরু

কোভিশিল্ডের টিকা মজুত আছে ১ লাখ ২৬ হাজার ডোজ

কোভিশিল্ডের টিকা মজুত আছে ১ লাখ ২৬ হাজার ডোজ

নোভাভ্যাক্সের টিকা ৯৩ শতাংশ কার্যকর

নোভাভ্যাক্সের টিকা ৯৩ শতাংশ কার্যকর

আগামী সপ্তাহ থেকে দেওয়া হবে ফাইজার-সিনোফার্মের টিকা

আগামী সপ্তাহ থেকে দেওয়া হবে ফাইজার-সিনোফার্মের টিকা

টিকা সংগ্রহে অক্লান্ত চেষ্টা বাংলাদেশের

টিকা সংগ্রহে অক্লান্ত চেষ্টা বাংলাদেশের

কোভিশিল্ডের ১ কোটি ৭০ হাজার টিকা শেষ

কোভিশিল্ডের ১ কোটি ৭০ হাজার টিকা শেষ

ঢাকায় পৌঁছেছে চীনের টিকা

ঢাকায় পৌঁছেছে চীনের টিকা

টিকার ঘাটতি দূর না হলে সামনে বিপদ: জাতিসংঘ মহাসচিব

টিকার ঘাটতি দূর না হলে সামনে বিপদ: জাতিসংঘ মহাসচিব

জনসন অ্যান্ড জনসনকে ৬ কোটি ভ্যাকসিন ফেলে দিতে বললো যুক্তরাষ্ট্র

জনসন অ্যান্ড জনসনকে ৬ কোটি ভ্যাকসিন ফেলে দিতে বললো যুক্তরাষ্ট্র

১ কোটি ৬৫ হাজার টিকা দেওয়া শেষ

১ কোটি ৬৫ হাজার টিকা দেওয়া শেষ

দীর্ঘায়িত হচ্ছে দ্বিতীয় ডোজের অপেক্ষা, বাড়ছে শঙ্কা ও প্রশ্ন

দীর্ঘায়িত হচ্ছে দ্বিতীয় ডোজের অপেক্ষা, বাড়ছে শঙ্কা ও প্রশ্ন

সর্বশেষ

সন্ত্রাসবাদে অভিযুক্ত কানাডার সেই হামলাকারী

সন্ত্রাসবাদে অভিযুক্ত কানাডার সেই হামলাকারী

গোল মিসের মহড়ায় পয়েন্ট হারালো স্পেন

গোল মিসের মহড়ায় পয়েন্ট হারালো স্পেন

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের ঝুঁকি,  যুক্তরাজ্যে লকডাউন প্রত্যাহার হবে দেরিতে

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের ঝুঁকি, যুক্তরাজ্যে লকডাউন প্রত্যাহার হবে দেরিতে

অবশেষে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ‘তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন’

পরীমণিকে ধর্ষণ-হত্যাচেষ্টাঅবশেষে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ‘তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন’

ইয়াবা-স্বর্ণ ও টাকাসহ তিন রোহিঙ্গা গ্রেফতার

ইয়াবা-স্বর্ণ ও টাকাসহ তিন রোহিঙ্গা গ্রেফতার

বায়ু শক্তিকে উদযাপনের দিন আজ

অপার সম্ভাবনায় গুরুত্ব কমবায়ু শক্তিকে উদযাপনের দিন আজ

স্পর্শকাতর সিদ্ধান্তের মুখে ইসরায়েলের নতুন সরকার

স্পর্শকাতর সিদ্ধান্তের মুখে ইসরায়েলের নতুন সরকার

৩২ লাখ টাকা সহায়তা পেলেন মোংলা বন্দরের শ্রমিক-কর্মচারীরা

৩২ লাখ টাকা সহায়তা পেলেন মোংলা বন্দরের শ্রমিক-কর্মচারীরা

ইউরোর ৬১ বছরের ইতিহাস পাল্টে দিলেন পোলিশ গোলকিপার

ইউরোর ৬১ বছরের ইতিহাস পাল্টে দিলেন পোলিশ গোলকিপার

মতিঝিলে ছিনতাই চক্রের দুই সদস্য গ্রেফতার

মতিঝিলে ছিনতাই চক্রের দুই সদস্য গ্রেফতার

সম্মুখ সারির যোদ্ধাদের কাজী এন্টারপ্রাইজ’র সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

করোনা মোকাবিলাসম্মুখ সারির যোদ্ধাদের কাজী এন্টারপ্রাইজ’র সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

একসঙ্গে চার মেয়ে সন্তানের জন্ম

একসঙ্গে চার মেয়ে সন্তানের জন্ম

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

‘সরকারের অগ্রাধিকার এখন টিকায়, মাস্কে নয়’

‘সরকারের অগ্রাধিকার এখন টিকায়, মাস্কে নয়’

দেশে টিকা তৈরির পরিকল্পনা নিয়ে কাজ হচ্ছে

দেশে টিকা তৈরির পরিকল্পনা নিয়ে কাজ হচ্ছে

‘টিকায় বরাদ্দ ১৪ হাজার কোটি টাকা, প্রয়োজনে আরও দেওয়া হবে’

‘টিকায় বরাদ্দ ১৪ হাজার কোটি টাকা, প্রয়োজনে আরও দেওয়া হবে’

চীনা টিকা নিলেন ২১৬২ জন

চীনা টিকা নিলেন ২১৬২ জন

ভ্যাকসিন আসা নিয়ে যা হলো

ভ্যাকসিন আসা নিয়ে যা হলো

তিনবার সিদ্ধান্ত বদল, আজ আসছে না ফাইজারের টিকা

তিনবার সিদ্ধান্ত বদল, আজ আসছে না ফাইজারের টিকা

বাংলাদেশে অবস্থানরত চীনা নাগরিকদের ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু

বাংলাদেশে অবস্থানরত চীনা নাগরিকদের ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু

দেশে আড়াই লাখ ডোজ ‘কোভিশিল্ড’ ভ্যাকসিন অবশিষ্ট আছে

দেশে আড়াই লাখ ডোজ ‘কোভিশিল্ড’ ভ্যাকসিন অবশিষ্ট আছে

বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক শিক্ষার্থীদের অগ্রাধিকারভিত্তিতে টিকা

বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক শিক্ষার্থীদের অগ্রাধিকারভিত্তিতে টিকা

প্রথম দিন চীনা টিকায় কারও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হয়নি  

প্রথম দিন চীনা টিকায় কারও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হয়নি  

© 2021 Bangla Tribune