X
সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

আফগানিস্তান নিয়ে গৃহযুদ্ধের সতর্কবার্তা ইমরান খানের

আপডেট : ২১ জুন ২০২১, ১৭:১৫

কোন ধরনের রাজনৈতিক সমাধান বা শান্তি চুক্তি না হলে আফগানিস্তানে গৃহযুদ্ধের আশঙ্কা করছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তনের ভ্যবিষৎ নিয়ে উদ্বেগ জানিয়ে ইমরান বলেন, মার্কিন সেনারা কাবুল ছেড়ে যাওয়ার আগে যুক্তরাষ্ট্রকে রাজনৈতিক সমাধানের পথ বের করা উচিত।

আগামী ১১ সেপ্টেম্বর বেঁধে দেওয়া সময়ের মধ্যে আফগানিস্তান ছেড়ে যাচ্ছে মার্কিন সেনারা। কিন্তু দেশটিতে তালেবান গোষ্ঠী ও সরকারি দলের মধ্যে সংঘাত এখনও অব্যাহত। এমন পরিস্থিতির মধ্যেই পর্যাক্রমে আফগানিস্তান ছাড়ছে মার্কিন সৈন্যরা। কিন্তু কোন রাজনৈতিক সমাধান না করেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন নিজ দেশের সেনাদের তুলে নিচ্ছেন। এ নিয়ে আফগান সীমান্ত সংলগ্ন দেশ পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী উদ্বেগ জানিয়েছেন।

তার মতে, সংঘাত কবলিত আফগানিস্তানে শান্তি চুক্তি ছাড়া মার্কিন সেনা তুলে নেওয়ার সময় এখনও হয়নি। রবিবার (২০ জুন) মার্কিন সংবাদমাধ্যম এক্সিয়াসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী ইমরান বলেন, ‘আমেরিকার সৈন্যদের প্রত্যাহারের আগে কার্যকর সমাধানে পৌঁছানো উচিত। রাজনৈতিক সমাধান বলতে এক ধরনের জোট সরকার গঠন করতে হবে। সেখানে তালেবান এবং সরকারের পক্ষ থাকবে। এর বাইরে অন্য কোন উপায় নেই’।

২০২০ সালে যুক্তরাষ্ট্র এবং তালেবান গোষ্ঠীর মধ্যে শান্তি চুক্তি হয়। ঐ চুক্তির অংশ হিসেবেই সেনা প্রত্যাহার চলছে। চুক্তিতে বলা হয়েছিল, বিদেশি সেনা সরানোর বিনিময়ে আফগানিস্তানকে সন্ত্রাসী ঘাঁটি হিসেবে ব্যবহার বা দেশটিতে সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালাবে না তালেবান। কিন্তু এখনও আফগানিস্তানজুড়ে হামলা অব্যাহত।

রাজনৈতিক সমাধান না দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তান ছেড়ে গেলে গৃহযুদ্ধের প্রবল আশঙ্কা রয়েছে বলেও বিশ্বকে সতর্ক করেছে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। ‘তালেবানরা যদি সর্বাত্মক বিজয় অর্জন করতে পারে, তবে দেশটিতে রক্তপাত বয়ে যাবে। আর আফগানিস্তানের পর যে দেশটিতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হতে চলেছে তা হলো প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তান’।

তিনি বলেন, এখনও ইসলামাবাদ কয়েক লাখ আফগান শরণার্থীর ভরণ-পোষণ দিয়ে যাচ্ছে। এই যুদ্ধে আমরা যে কারো থেকে বেশি ত্যাগ শিকার করেছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এখন আমরা শুধু শান্তি চাই, কোনো সঙ্ঘাতে সম্পৃক্ত হতে চাই না। ‘মার্কিনীদের আফগানিস্তান ছেড়ে যাওয়ার আগে অবশ্যই দেশটিতে রাজনৈতিক সমাধান দিয়ে যেতে হবে’।

/এলকে/

সম্পর্কিত

আফগানিস্তান ইস্যুতে আলোচনায় পাকিস্তানসহ পাঁচ দেশকে আমন্ত্রণ ভারতের

আফগানিস্তান ইস্যুতে আলোচনায় পাকিস্তানসহ পাঁচ দেশকে আমন্ত্রণ ভারতের

হাসপাতাল ছাড়লেন বিল ক্লিন্টন

হাসপাতাল ছাড়লেন বিল ক্লিন্টন

‘তালেবান সরকার স্বীকৃতি না পেলে লাভবান হবে আইএস’

‘তালেবান সরকার স্বীকৃতি না পেলে লাভবান হবে আইএস’

আফগানিস্তান ইস্যুতে আলোচনায় পাকিস্তানসহ পাঁচ দেশকে আমন্ত্রণ ভারতের

আপডেট : ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫৩

আফগানিস্তানে ক্ষমতার পালাবদল নিয়ে ভারতের অস্বস্তি কাটছেই না। একদিকে তালেবানের ওপর পাকিস্তানের প্রভাব, অন্যদিকে আফগানিস্তানে দিল্লির বিপুল অঙ্কের বিনিয়োগ এখন হুমকির মুখে। অর্থাৎ, শুধু রাজনৈতিক নয়, বরং অর্থনৈতিকভাবেও উদ্বেগ বেড়েছে দিল্লির। এমন বাস্তবতায় আফগানিস্তান ইস্যুতে আলোচনার জন্য পাকিস্তানসহ পাঁচ দেশকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে ভারত। আগামী মাসে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। সোমবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস।

মূলত আফগানিস্তানের প্রতিবেশী দেশগুলোকে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা পর্যায়ের এই বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এর মধ্যে পাকিস্তান ছাড়া বাকি দেশগুলো হচ্ছে চীন, রাশিয়া, ইরান ও তাজিকিস্তান। আগামী ১০ থেকে ১১ নভেম্বর এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

তালেবান কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর থেকেই জাতিসংঘসহ নানা ফোরামে এ নিয়ে  কথা বলেছে ভারত। রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে ফোন করে ৪৫ মিনিট  ধরে কতা বলেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এ ইস্যুতে অন্য বিশ্বনেতাদের সঙ্গেও কথা বলেছেন তিনি। তবে তালেবান ক্ষমতায় আসার পর আফগান পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য ভারতের উদ্যোগে বৈঠক আহ্বানের ঘটনা এটিই প্রথম। এমনকি নতুন আফগান সরকারের ওপর যেই পাকিস্তানের প্রভাব নিয়ে উদ্বিগ্ন দিল্লি তাদেরও এতে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, এই বৈঠকে আফগানিস্তানের ক্ষমতাসীন তালেবান সরকারকে আমন্ত্রণ জানানোর কোনও পরিকল্পনা ভারতের নেই।

আফগানিস্তানের আগের সরকারের আমলে দেশটিতে অন্তত তিন বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করেছে ভারত। যে অর্থ দিয়ে তৈরি হয়েছে বাঁধ, রাস্তাঘাট থেকে শুরু করে আফগান পার্লামেন্ট ভবন পর্যন্ত। এর মধ্য দিয়ে পাকিস্তানকে পাশ কাটিয়ে কৌশলগত কারণে দেশটিতে নিজের প্রভাব বাড়িয়েছিল দিল্লি। তবে কাবুলের ক্ষমতার পালাবদলে চিন্তার ভাঁজ পড়ে মোদি সরকারের কপালে। সেই উদ্বেগ কাটাতেই পাকিস্তানসহ আফগানিস্তানের প্রতিবেশীদের সঙ্গে বসতে চাইছে দিল্লি।

/এমপি/

সম্পর্কিত

প্রাণঘাতী বন্যায় ভারতে বহু মানুষ নিখোঁজ

প্রাণঘাতী বন্যায় ভারতে বহু মানুষ নিখোঁজ

ভারতের প্রথম অ্যালকোহল জাদুঘরের যাত্রা শুরু

ভারতের প্রথম অ্যালকোহল জাদুঘরের যাত্রা শুরু

কাশ্মিরে বন্দুকযুদ্ধে পাকিস্তানি কমান্ডোদের হাত দেখছে ভারত: এনডিটিভি

কাশ্মিরে বন্দুকযুদ্ধে পাকিস্তানি কমান্ডোদের হাত দেখছে ভারত: এনডিটিভি

‘তালেবান সরকার স্বীকৃতি না পেলে লাভবান হবে আইএস’

‘তালেবান সরকার স্বীকৃতি না পেলে লাভবান হবে আইএস’

প্রথমবারের মতো আর্থশট পুরস্কার ঘোষণা

আপডেট : ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৪৬

প্রথমবারের মতো ঘোষণা করা আর্থশট পুরস্কার প্রাপ্তদের মধ্যে রয়েছেন কোরাল উৎপাদক দুই বন্ধু এবং দেশ কোস্টারিকা। পৃথিবী রক্ষার চেষ্টাকারীদের জন্য বার্ষিক এই পুরস্কার প্রবর্তন করেছেন যুক্তরাজ্যের ডিউক অব কেমব্রিজ প্রিন্স উইলিয়াম। রবিবার রাতে লন্ডনে পাঁচ বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হয়। প্রত্যেক বিজয়ী দশ লাখ পাউন্ড পুরস্কার পাবেন। বাংলাদেশি মুদ্রায় এর পরিমাণ ১১ কোটি ৭৬ লাখ টাকারও বেশি।

রবিবার আলেক্সান্দ্রা প্রাসাদে পুরস্কার ঘোষণার অনুষ্ঠানে প্রিন্স উইলিয়াম ছাড়াও যোগ দেন এমা ওয়াটসন, ডেম এমা থম্পসন এবং ডেভিড ওয়েলোয়োর মতো তারকারা। অনুষ্ঠানে যোগ দিতে কেউ লন্ডনে বিমানে পৌঁছাননি। মঞ্চ তৈরিতে ব্যবহৃত হয়নি কোনও প্লাস্টিক। অতিথিদের পোশাক নির্বাচনে পরিবেশকে বিবেচনায় নেওয়ার অনুরোধ করা হয়।

আর্থশট পুরস্কারের অনুপ্রেরণা ১৯৬০’র দশকে আমেরিকার ‘মুনশট’ আকাঙ্ক্ষা। ওই সময় মার্কিন প্রেসিডেন্ট জন এফ কেনেডি এক দশকের মধ্যে চাঁদে একজন মানুষ পাঠানোর প্রতিশ্রুতি দেন।

আর পরবর্তী এক দশক ধরে দেওয়া হবে আর্থশট পুরস্কার। পরিবেশগত সমস্যা সমাধানের চেষ্টায় নিয়োজিত পাঁচটি প্রকল্পকে প্রতিবছর এই পুরস্কার দেওয়া হবে। প্রতিটি প্রজেক্টই দশ লাখ পাউন্ড পুরস্কার পাবেন।

প্রথমবার পুরস্কার দেওয়া হয়েছে পাঁচটি ভিন্ন ক্যাটাগরিতে। ১৫টি প্রজেক্টের একটি শর্টলিস্ট থেকে পুরস্কারপ্রাপ্তদের নির্বাচন করেন বিচারকেরা। বিচারকদের মধ্যে ছিলেন উপস্থাপক স্যার ডেভিড অ্যাটেনবোরো, অভিনেত্রী কেট ব্লানচেট এবং গায়ক সারিকা।

বিজয়ী যারা

প্রটেক্ট অ্যান্ড রিস্টোর ন্যাচার বিভাগে বিজয়ী হয়েছে রিপাবলিক অব কোস্টারিক। দেশটির বেশিরভাগ বনভূমি এক সময়ে ধ্বংস হয়ে যায়। তবে সম্প্রতি দেশটিতে গাছের সংখ্যা দ্বিগুণ বেড়েছে। আর অন্যদের জন্য তাদের অনুকরণীয় মডেল বিবেচনা করা হয়। প্রাকৃতিক বাস্তুতন্ত্র ফেরাতে স্থানীয় বাসিন্দাদের মূল্য পরিশোধের মাধ্যমে কোস্টারিকায় রেইনফরেস্ট বেড়েছে। আর এই প্রকল্পই পেয়েছে আর্থশট পুরস্কার।

ক্লিন আওয়ার এয়ার বিভাগে পুরস্কার পেয়েছে ভারতের তাকাচার। বহনযোগ্য এই মেশিনটি কৃষি বর্জ্যকে সারে পরিণত করতে পারে। তাহলে কৃষকদের আর ক্ষেত পুড়িয়ে বাতাস দূষণ করতে হয় না।

রিভাইব আওয়ার ওসানস বিভাগে পুরস্কার পেয়েছে বাহমাসের দুই বন্ধুর পরিচালিত কোরাল উৎপাদনের একটি প্রজেক্ট। বিশ্বের মৃতপ্রায় কোরাল রিফ পুনরুদ্ধারে এই প্রজেক্টটির নকশা করা হয়েছে। বিশেষ ট্যাংক ব্যবহার করে তারা এমন এক পদ্ধতি তৈরি করেছেন যাতে প্রাকৃতিক পরিবেশের চেয়ে কোরাল ৫০ গুণ দ্রুত বাড়ে।

বর্জ্যমুক্ত পৃথিবী গড়ি বিভাগে আর্থশট পুরস্কার জিতেছে ইতালির মিলান শহরের খাদ্য বর্জ্য ব্যবস্থাপনা। অব্যবহৃত খাবার সংগ্রহ এবং সেগুলো যাদের প্রয়োজন তাদের সরবরাহের ব্যবস্থা করায় এই পুরস্কার পেয়েছে তারা। এই উদ্যোগে নাটকীয়ভাবে বর্জ্য কমে গেছে আর একই সঙ্গে ক্ষুধা নিরসনও সম্ভব হচ্ছে।

ফিক্স আওয়ার ক্লাইমেট বিভাগে আর্থশট পুরস্কার জিতেছে এইএম ইলেক্ট্রোলাইসার। নবায়নযোগ্য জ্বালানি ব্যবহার করে পানির অক্সিজেন ও হাইড্রোজেন ভেঙে হাইড্রোজেন উৎপাদনের চতুর নকশা এইএম ইলেক্ট্রোলাইসার। হাইড্রোজেন একটি পরিবেশ সম্মত গ্যাস। তবে এটি সাধারণত জীবাশ্ম জ্বালানি পুড়িয়ে তৈরি করা হয়।

/জেজে/

সম্পর্কিত

‘তুরস্কের কাছ থেকে ড্রোন কিনতে আগ্রহী যুক্তরাজ্য’

‘তুরস্কের কাছ থেকে ড্রোন কিনতে আগ্রহী যুক্তরাজ্য’

ব্রিটিশ এমপি হত্যা: অভিযুক্ত ব্যক্তি সন্ত্রাসবাদ আইনে কারাগারে

ব্রিটিশ এমপি হত্যা: অভিযুক্ত ব্যক্তি সন্ত্রাসবাদ আইনে কারাগারে

এম‌পি খুনে সন্দেহে জ‌ঙ্গিবাদ, মুসলিম কমিউনিটিতে উদ্বেগ

এম‌পি খুনে সন্দেহে জ‌ঙ্গিবাদ, মুসলিম কমিউনিটিতে উদ্বেগ

ব্রিটিশ এমপি হত্যাকাণ্ড ‘সন্ত্রাসী ঘটনা’ : পুলিশ

ব্রিটিশ এমপি হত্যাকাণ্ড ‘সন্ত্রাসী ঘটনা’ : পুলিশ

ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে বেলারুশ ত্যাগের নির্দেশ

আপডেট : ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৬:১৮

ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে বেলারুশ ত্যাগের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। রবিবার ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি মিনস্কের ফরাসি দূতবাস সূত্রের বরাতে জানিয়েছে রাষ্ট্রদূত ইতোমধ্যে বেলারুশ ছেড়েছেন।

তবে ফরাসি রাষ্ট্রদূত নিকোলাস ডি বুইলানে ডি লাকোস্তেকে কেন বহিষ্কার করা হয়েছে তা স্পষ্ট নয়। বেলারুশের সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, মিনস্ক ইতোমধ্যে প্যারিস থেকে রাষ্ট্রদূত ইগর ফেসেঙ্কোকে ডেকে পাঠিয়েছে।

মিনস্কের ফরাসি দূতাবাসের ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে, গত বুধবার রাষ্ট্রদূত ডি লাকোস্তে সম্প্রতি নিষিদ্ধ হওয়া একটি বেসরকারি সংস্থার প্রতিনিধিদের স্বাগত জানান। এদের মধ্যে ‘সত্য বলে দাও’ নামের ওই সংস্থাটির সহ প্রতিষ্ঠাতাও ছিলেন। তিনি গত বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রার্থী ছিলেন।

রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহারের বিষয়ে বেলারুশ এবং ফ্রান্সের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কিংবা ফরাসি দূতাবাস কোনও মন্তব্য করেনি।

গত বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ ওঠার পর ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য দেশগুলোর সঙ্গে বেলারুশের সম্পর্ক নাজুক হয়ে পড়ে। ওই নির্বাচনে সহজ জয় পান প্রেসিডেন্ট আলেক্সান্ডার লুকাশেঙ্কো।

/জেজে/

সম্পর্কিত

রাশিয়ায় টানা চতুর্থ দিনের মতো রেকর্ড করোনা সংক্রমণ

রাশিয়ায় টানা চতুর্থ দিনের মতো রেকর্ড করোনা সংক্রমণ

রাশিয়ায় ভেজাল মদ পানে ১৮ জনের মৃত্যু

রাশিয়ায় ভেজাল মদ পানে ১৮ জনের মৃত্যু

‘তুরস্কের কাছ থেকে ড্রোন কিনতে আগ্রহী যুক্তরাজ্য’

‘তুরস্কের কাছ থেকে ড্রোন কিনতে আগ্রহী যুক্তরাজ্য’

‘দায়িত্ব নেওয়ায়’ ম্যার্কেলের প্রশংসা করলেন এরদোয়ান

‘দায়িত্ব নেওয়ায়’ ম্যার্কেলের প্রশংসা করলেন এরদোয়ান

আমেরিকান মিশনারি অপহরণে হাইতির গ্যাং জড়িত: কর্মকর্তা

আপডেট : ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৪:৪৮

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, হাইতির রাজধানী পোর্ট-আ-প্রিন্সের বাইরে থেকে উত্তর আমেরিকার অন্তত ১৭ মিশনারিকে অপহরণের ঘটনায় দেশটির একটি কুখ্যাত গ্যাং জড়িত।

গত শনিবার অপহৃত হওয়ার সময় পাঁচ পুরুষ, সাত নারী এবং পাঁচ শিশুর দলটি একটি এতিমখানা পরিদর্শণ শেষে ফিরে আসছিলো। কর্মকর্তারা দাবি করেছেন, তাদের অপহরণ করেছে ৪০০ মায়োজো নামের একটি গ্যাং। গত এপ্রিলে এক ক্যাথোলিক যাজককে অপহরণেও অভিযুক্ত এই গ্যাংটি।

বিশ্বে অপহরণের হার সবচেয়ে বেশি হাইতিতে। এই বছর বিশেষ রকমের খারাপ। স্থানীয় একটি নাগরিক গ্রুপের হিসেব অনুযায়ী এই বছরের প্রথম তিন মাসেই ছয়শ’র বেশি অপহরণের ঘটনা নথিভুক্ত হয়েছে। যা গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ২৩১টি বেশি।

গত জুলাইতে হাইতির প্রেসিডেন্ট জোভেনেল মোইসি খুন হন। এরপর দেশের নিয়ন্ত্রণ নিতে প্রতিদ্বন্দ্বি গ্রুপগুলোর মধ্যে সংঘাত বেড়েছে। বেড়েছে অপরাধের পরিমাণও। অপহরণের হাত থেকে স্থানীয় ও বিদেশি কেউই বাদ পড়ছে না। এসব অপহরণের বড় অংশই করছে ৪০০ মায়োজো গ্যাং।

হাইতির পুলিশ ইন্সপেক্টর ফ্রান্টজ চ্যাম্পেজ বলেন, ধারণা করা হচ্ছে গত শনিবার ১৬ মার্কিন ও এক কানাডীয়কে অপহরণের সঙ্গেও গ্যাংটি জড়িত। ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, বেশ কয়েক জন স্থানীয়কেও অপহরণ করা হয়েছে।

ক্রয়েক্স-ডেস-বুকেটস শহর থেকে বের হওয়ার কিছুক্ষণ পরই উত্তর আমেরিকান মিশনারিদের গ্রুপটিকে তুলে নেওয়া হয়। ওই এলাকাটি নিয়ন্ত্রণ করে ৪০০ মায়োজো গ্যাং।

গ্যাংটি সাধারণত চাঁদার দাবি করে থাকে। এপ্রিলে ক্যাথোলিক যাজককে নিরাপদে ফিরিয়ে দেওয়ার বিনিময়ে তারা দশ লাখ ডলার দাবি করে। তবে মিশনারিদের জন্য কোনও চাঁদা চাওয়া হয়েছে কিনা তা স্পষ্ট নয়।

/জেজে/

সম্পর্কিত

কঙ্গোতে নতুন করে ইবোলা শনাক্ত

কঙ্গোতে নতুন করে ইবোলা শনাক্ত

আফ্রিকার শিশুদের দেওয়া হবে ম্যালেরিয়ার টিকা

আফ্রিকার শিশুদের দেওয়া হবে ম্যালেরিয়ার টিকা

ফ্রান্সের সামরিক বিমানের জন্য আকাশসীমা বন্ধ করলো আলজেরিয়া

ফ্রান্সের সামরিক বিমানের জন্য আকাশসীমা বন্ধ করলো আলজেরিয়া

পার্লামেন্টে আত্মহত্যা করলেন সাবেক ডেপুটি স্পিকার

পার্লামেন্টে আত্মহত্যা করলেন সাবেক ডেপুটি স্পিকার

প্রাণঘাতী বন্যায় ভারতে বহু মানুষ নিখোঁজ

আপডেট : ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৩:৪৫

ভারি বৃষ্টিপাত থেকে সৃষ্ট বন্যায় ভারতের দক্ষিণাঞ্চলে অন্তত ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। তীব্র বন্যায় বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে বিভিন্ন শহর ও গ্রাম। কেরালা রাজ্যের কোত্তিয়াম জেলায় স্রোতে ভেসে গেছে বহু বাড়ি, আটকে পড়েছে মানুষ।

ওই এলাকার একটি ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে বাসের মধ্যে পানি ঢুকে পড়ার পর যাত্রীদের উদ্ধার করা হচ্ছে। কেরালায় কয়েক দিনের ভারি বৃষ্টিপাতে ভূমি ধস দেখা দিয়েছে। উদ্ধার তৎপরতায় যোগ দিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী।

রবিবার কর্মকর্তারা জানান, ভূমি ধসে আটকে পড়াদের উদ্ধারে এবং প্রয়োজনীয় ত্রাণ বিতরণে হেলিকপ্টার ব্যবহার করা হচ্ছে। ভয়াবহ এক ঘটনায় কোত্তিয়ামের একটি বাড়ি স্রোতে ভেসে গেলে ৭৫ বছরের দাদি এবং তিন শিশুসহ এক পরিবারের ছয় সদস্যের মৃত্যু হয়েছে।

এছাড়া ইদুক্তি জেলায় ভূমি ধসের ধ্বংসাবশেষের নিচ থেকে তিন শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া সেখানে নিখোঁজ পাঁচ জনের সন্ধানে এখনও তল্লাশি চলছে।

কোল্লামসহ অন্য উপকূলীয় শহরের বেশ কিছু সড়ক ভেসে যাওয়ায় এবং গাছ উপড়ে পড়ায় আটকে পড়াদের উদ্ধারে ব্যবহার করা হচ্ছে মাছ ধরা নৌকা। এছাড়া বহু মানুষ নিখোঁজ থাকার কথা জানা যাচ্ছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে।

মাটি, পাথর এবং পড়ে যাওয়া গাছ সরিয়ে বেঁচে থাকাদের সন্ধানে উদ্ধার তৎপরতায় যোগ দিয়েছে স্থানীয় বাসিন্দারা। রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে খোলা হয়েছে আশ্রয় কেন্দ্র।

কেরালায় ভারি বৃষ্টিপাতে বন্যা, ভূমি ধস অস্বাভাবিক কিছু নয়। এক সময় রাজ্যটিতে বন্যার প্রাকৃতিক রক্ষাকবচের কাজ করেছে জলাভূমি ও লেক। তবে নগরায়নের কারণে এসব রক্ষাকবচ হারিয়ে যাওয়ায় দুর্যোগ বেড়েছে।

২০১৮ সালে ভয়াবহ বন্যায় কেরালায় প্রায় চারশ’ মানুষের মৃত্যু হয়। এছাড়া বাস্তুচ্যুত হয়ে পড়ে দশ লাখের বেশি মানুষ। ওই বন্যাকে শতাব্দির ভয়াবহ বন্যা বলে মনে করা হয়।

/জেজে/

সম্পর্কিত

ভারতের প্রথম অ্যালকোহল জাদুঘরের যাত্রা শুরু

ভারতের প্রথম অ্যালকোহল জাদুঘরের যাত্রা শুরু

কাশ্মিরে বন্দুকযুদ্ধে পাকিস্তানি কমান্ডোদের হাত দেখছে ভারত: এনডিটিভি

কাশ্মিরে বন্দুকযুদ্ধে পাকিস্তানি কমান্ডোদের হাত দেখছে ভারত: এনডিটিভি

ভারতের কাছে ৫০ কোটি ডলার ঋণ চাইলো শ্রীলঙ্কা

ভারতের কাছে ৫০ কোটি ডলার ঋণ চাইলো শ্রীলঙ্কা

অতিবৃষ্টি ও বন্যায় বিপর্যস্ত কেরালা, নিহত ১৮

অতিবৃষ্টি ও বন্যায় বিপর্যস্ত কেরালা, নিহত ১৮

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

আফগানিস্তান ইস্যুতে আলোচনায় পাকিস্তানসহ পাঁচ দেশকে আমন্ত্রণ ভারতের

আফগানিস্তান ইস্যুতে আলোচনায় পাকিস্তানসহ পাঁচ দেশকে আমন্ত্রণ ভারতের

হাসপাতাল ছাড়লেন বিল ক্লিন্টন

হাসপাতাল ছাড়লেন বিল ক্লিন্টন

‘তালেবান সরকার স্বীকৃতি না পেলে লাভবান হবে আইএস’

‘তালেবান সরকার স্বীকৃতি না পেলে লাভবান হবে আইএস’

তাইওয়ান প্রণালীতে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার যুদ্ধজাহাজ

তাইওয়ান প্রণালীতে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার যুদ্ধজাহাজ

শ্রমিকদের এমন ক্ষোভ কয়েক দশক দেখেনি যুক্তরাষ্ট্র

শ্রমিকদের এমন ক্ষোভ কয়েক দশক দেখেনি যুক্তরাষ্ট্র

শিয়া মসজিদগুলোতে হামলার হুমকি দিলো আইএস

শিয়া মসজিদগুলোতে হামলার হুমকি দিলো আইএস

চীনা হুমকি, দ্রুত মার্কিন এফ-১৬ যুদ্ধবিমান চায় তাইওয়ান

চীনা হুমকি, দ্রুত মার্কিন এফ-১৬ যুদ্ধবিমান চায় তাইওয়ান

তালেবান শিগগিরই মেয়েদের শিক্ষা পরিকল্পনা ঘোষণা করবে : জাতিসংঘ

তালেবান শিগগিরই মেয়েদের শিক্ষা পরিকল্পনা ঘোষণা করবে : জাতিসংঘ

মার্কিন ধর্ম প্রচারকসহ পরিবারের ১৭ জন অপহৃত

মার্কিন ধর্ম প্রচারকসহ পরিবারের ১৭ জন অপহৃত

সর্বশেষ

ভক্তদের ‘সারপ্রাইজ’ দিতে চান আইয়ুব বাচ্চুর স্ত্রী

ভক্তদের ‘সারপ্রাইজ’ দিতে চান আইয়ুব বাচ্চুর স্ত্রী

ছাত্রলীগ নেতা রকি হত্যায় প্রধান আসামিসহ গ্রেফতার ২

ছাত্রলীগ নেতা রকি হত্যায় প্রধান আসামিসহ গ্রেফতার ২

আফগানিস্তান ইস্যুতে আলোচনায় পাকিস্তানসহ পাঁচ দেশকে আমন্ত্রণ ভারতের

আফগানিস্তান ইস্যুতে আলোচনায় পাকিস্তানসহ পাঁচ দেশকে আমন্ত্রণ ভারতের

ফেনীতে বিশৃঙ্খলার ঘটনায় দুই মামলায় ৪০০ অজ্ঞাতনামা আসামি

ফেনীতে বিশৃঙ্খলার ঘটনায় দুই মামলায় ৪০০ অজ্ঞাতনামা আসামি

বিজয়ী হলেন সরোজ মোস্তফা, ইলিয়াস বাবর ও মাজেদা মুজিব

উজান বই আলোচনাবিজয়ী হলেন সরোজ মোস্তফা, ইলিয়াস বাবর ও মাজেদা মুজিব

© 2021 Bangla Tribune