X
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

শতবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

আপডেট : ০১ জুলাই ২০২১, ০৩:৪৭

আজ পহেলা জুলাই, শততম বর্ষ পূর্ণ করলো ‘প্রাচ্যের অক্সফোর্ড’ খ্যাত বাংলাদেশের প্রথম ও সবচেয়ে প্রাচীন বিশ্ববিদ্যালয়-ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। পা রাখলো ১০১তম বর্ষে।

শতবর্ষ উদযাপনে বেশ কিছু পরিকল্পনা থাকলেও মহামারি করোনার কারণে আপাতত সীমিত পরিসরে ভার্চুয়ালি উদযাপন করা হবে দিবসটি। বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) অনলাইনে ভার্চুয়াল আলোচনা সভা করা হবে। 

শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে আগামী ১ নভেম্বর শতবর্ষের মূল উদযাপনের পরিকল্পনা রয়েছে। ওই অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য ও রাষ্ট্রপতি অ্যাডভোকেট আবদুল হামিদের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

১৯২১ সালের ১ জুলাই আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। তিনটি অনুষদ, ১২টি বিভাগ এবং ৮৪৭ জন শিক্ষার্থী নিয়ে যাত্রা শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয়টি। প্রতিষ্ঠার এই দিনটি প্রতিবছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস হিসেবে পালিত হয়। তবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ইতিহাস বাঙালির অন্যসব অর্জনের মতো প্রতিকূলতার ইতিহাস।

১৮৪৭ সালের সিপাহী বিপ্লবের পর পুরো ভারতবর্ষেই একপ্রকার নবজাগরণ তৈরি হতে থাকে। আর এই নবজাগরণ তৈরি করে শিক্ষিত সমাজ। তৎকালীন পূর্ব বাংলায়ও তৈরি হয় এমন শিক্ষিত সমাজ। আর এই শিক্ষিত সমাজ অনুভব করে একটি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার।

১৯১২ সালের ২ ফেব্রুয়ারি তৎকালীন ব্রিটিশ ভারতের ভাইসরয় লর্ড হার্ডিঞ্জ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দেন। ওই বছরের ২৭ মে গঠিত হয় ১৩ সদস্যবিশিষ্ট ‘নাথান কমিশন’। বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার সম্ভাবনা যাচাইয়ের জন্য এই কমিশন গঠিত হয়। ১৯১৩ সালে এই কমিশন বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে ইতিবাচক প্রতিবেদন দিলেও প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার যাত্রা কিছুটা থমকে যায়। অবশেষে ১৯২০ সালের ১৩ মার্চ ভারতীয় আইনসভায় ‘দ্য ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যাক্ট-১৯২০’ পাস হয় এবং ২৩ মার্চ গভর্নর জেনারেল এই বিলে সম্মতি প্রদান করেন। অবশেষে ১৯২১ সালের ১ জুলাই যাত্রা শুরু হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের।

প্রতিষ্ঠার পর থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এই অঞ্চলের মানুষের মধ্যে নিজস্ব স্বাধীন প্রতিবাদী চিন্তা ধারা তৈরি করে। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা মুসলিম লীগের ডাকে পাকিস্তান আন্দোলনে সাড়া দেয়। পাকিস্তান আদায়ের জন্য আন্দোলন সংগ্রাম করে। পাকিস্তান আদায়ের পর ১৯৪৮ সালে যখন মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ কার্জন হল প্রাঙ্গণে উর্দুকে রাষ্ট্রভাষা করার ঘোষণা দেন, তখনই ছাত্ররা এর বিরোধিতা করেন। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের বলিষ্ঠ ভূমিকার কারণে ভাষা আন্দোলন সংগঠিত হয়। আর এই ভাষা আন্দোলনের মধ্য দিয়েই আমরা ভাষার দাবি সুপ্রতিষ্ঠিত করতে পারি।

ভাষা আন্দোলন শুধু নয়, বাঙালির অধিকার আদায়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সব সময় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। ৫২ এর ভাষা আন্দোলন, ৬২ এর শিক্ষা আন্দোলন, ৬৬ এর ছয় দফা, ৬৯ এর গণঅভ্যুত্থান, ৭০ এর নির্বাচন এবং মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বাংলাদেশ গঠনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

১৯৭১ সালের ২ মার্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েই সর্বপ্রথম বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করা হয়। মুক্তিযুদ্ধের সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ সবাই প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করে। স্বাধীনতার আগে যেমন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আন্দোলন-সংগ্রামে নেতৃত্ব দিয়েছিল, স্বাধীনতার পরেও দেশের গুরুত্বপূর্ণ আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছে এই বিশ্ববিদ্যালয়। ১৯৯০ এর স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনও এর অংশ।

 

/আইএ/

সম্পর্কিত

জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণে পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি

জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণে পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি

আগের শর্তেই পরীমণিসহ তিন জনের জামিন

আগের শর্তেই পরীমণিসহ তিন জনের জামিন

আদালতে পরীমণি

আদালতে পরীমণি

পরীমণির বিরুদ্ধে মাদক মামলায় চার্জশিট গ্রহণ আজ

পরীমণির বিরুদ্ধে মাদক মামলায় চার্জশিট গ্রহণ আজ

জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণে পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১২:৩৮

জলবায়ু পরিবর্তনে উপকূলের ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ক্ষতিপূরণ আদায়ে বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলনে (কপ-২৬) কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন পরিবেশ আন্দোলন ও নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা। মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ‘সুন্দরবন ও উপকূল সুরক্ষা আন্দোলন’ এবং বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা -‘পিভার্স ও ফেইস ইন অ্যাকশন’ আয়োজিত মানববন্ধনে তারা এ দাবি করেন।

মানববন্ধনে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলকে দুর্যোগ ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা ঘোষণা করে উপকূলের জীবন-জীবিকা রক্ষায় দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানান তারা।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, আগামী নভেম্বরে গ্লাসগোতে অনুষ্ঠিতব্য জাতিসংঘ জলবায়ু সম্মেলনে বার্ষিক তহবিল বাড়ানোর দিকে দৃষ্টি দিতে হবে। প্রতিবছর বন্যা ও ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ নির্মাণ এবং উপকূলের মানুষকে সুরক্ষা দেওয়ার জন্য আগামীতে পদক্ষেপ নিতে হবে। আগামীতে সরকারের প্রকল্প গ্রহণের ক্ষেত্রে দুর্যোগের ঝুঁকিতে থাকা মানুষের স্বার্থকে প্রাধান্য দিতে হবে। সরকারের উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে সমন্বয়, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার আহ্বান জানান তারা।

এছাড়া সমাবেশে উপকূলীয় অঞ্চলের মানুষের জীবনমান উন্নয়নে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের পাশাপাশি উপকূলজুড়ে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের দাবি জানিয়ে বক্তারা বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাব মোকাবিলায় দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। অভিযোজন প্রক্রিয়া বাড়াতে হবে। সুপেয় পানির স্থায়ী সমাধান করতে হবে। এ জন্য বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলনে জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোকে ক্ষতিপূরণ বুঝিয়ে দিতে হবে। এই ক্ষতিপূরণ আদায়ে সম্মেলনে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলকে যথাযথ ভূমিকা রাখার প্রতি গুরুত্বারোপ করেন তারা।

সমাবেশে উত্থাপিত দাবিনামায় বলা হয়, জলবায়ু পরিবর্তন ও দুর্যোগকে মাথায় রেখে স্থায়ী ও মজবুত বেড়িবাঁধ পুনর্নির্মাণ করতে হবে। পর্যাপ্ত সাইক্লোন সেন্টারসহ প্রতিরোধক ব্যবস্থা গড়ে তুলতে হবে। বাঁধ রক্ষণাবেক্ষণে জরুরি তহবিল গঠন ও বাঁধ ব্যবস্থাপনায় স্থানীয় সরকারকে সম্পৃক্ত করাসহ উপকূলীয় সব মানুষের খাবার পানির টেকসই ও স্থায়ী সমাধান করতে হবে।

তারা আরও দাবি জানান, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় বিশ্ব জলবায়ু তহবিল থেকে প্রাপ্ত অর্থ যথাযথভাবে কাজে লাগাতে হবে। গণসচেতনতা বৃদ্ধিতে বছরব্যাপী বিভিন্ন প্রচারণামূলক কার্যক্রম শুরু করতে হবে। ঝড়-ঝঞ্ঝা ও ভূমিক্ষয় রোধে উপকূলে ব্যাপক হারে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি গ্রহণ এবং সবুজবেষ্টনি গড়ে তুলতে হবে। একইসঙ্গে বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবন রক্ষায় কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সুন্দরবন ও উপকূল সুরক্ষা আন্দোলনের সমন্বয়ক নিখিল চন্দ্র ভদ্র, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের (বাপা) মিহির বিশ্বাস, উন্নয়ন ধারা ট্রাস্টের আমিনুর রসুল বাবুল, নৌ সড়ক ও রেলপথ রক্ষা জাতীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক আশীষ কুমার দে, স্ক্যান সাধারণ সম্পাদক মনিরজ্জামান মুকুল, ফেইথ ইন অ্যাকশনের নির্বাহী পরিচালক নৃপেন বৈদ্য, সমাজ কল্যাণ উন্নয়ন সংস্থা (স্কাস) চেয়ারম্যান জেসমিন প্রেমা, সচেতন সংস্থার সাকিলা পারভীন, লিডার্সের পরিতোষ কুমার বৈদ্য, উন্নয়নকর্মী সানজিদুল ইসলাম প্রমুখ।

 

 

/জেডএ/আইএ/

সম্পর্কিত

৭ তলা থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

৭ তলা থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

‘২০২২ সালে কোনও সাম্প্রদায়িক হামলা দেখতে চাই না’

‘২০২২ সালে কোনও সাম্প্রদায়িক হামলা দেখতে চাই না’

বাড়ছে বায়ুদূষণ, ডিসেম্বরে ঢাকায় ‘স্বাস্থ্যগত জরুরি অবস্থা’র শঙ্কা

বাড়ছে বায়ুদূষণ, ডিসেম্বরে ঢাকায় ‘স্বাস্থ্যগত জরুরি অবস্থা’র শঙ্কা

চট্টগ্রাম ছাড়া অন্য এলাকার আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে

চট্টগ্রাম ছাড়া অন্য এলাকার আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে

রাজারবাগ পীর সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে দুদক, সিআইডি ও সিটিটিসির তদন্ত চলবে

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১২:২৩

রাজারবাগ পীর ও দরবারের বিরুদ্ধে দুদক, সিআইডি ও সিটিটিসিকে তদন্ত করতে বলা হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল খারিজ করে দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। এর ফলে হাইকোর্টের আদেশ বহাল থাকায় তাদের বিরুদ্ধে তিনটি সংস্থার তদন্তে আর কোনও বাধা রইলো না।

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) জ্যেষ্ঠ বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলীর নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন।

আদালতে পীরদের আবেদনের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী মুরাদ রেজা। রিটকারীদের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী জেড আই খান পান্না। তার সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী মোহাম্মদ শিশির মনির।

এর আগে ১৯ সেপ্টেম্বর রাজারবাগ দরবার শরিফের সব সম্পদের তথ্য খুঁজতে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক), তাদের জঙ্গি সম্পৃক্ততা আছে কিনা তা তদন্ত করতে কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) এবং উচ্চ আদালতে রিটকারী ৮ জনের বিরুদ্ধে করা হয়রানিমূলক মামলার বিষয়ে তদন্ত করতে সিআইডিকে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এসব আদেশ দেন।

পরে ওই আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগের চেম্বার আদালতে আবেদন জানানো হয়েছিল। গত ১১ অক্টোবর চেম্বার আদালত হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত না করে আবেদনটি আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়ে দেন।

প্রসঙ্গত, গত ১৬ সেপ্টেম্বর রাজারবাগ দরবার শরিফের পীর দিল্লুরসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে ভুক্তভোগী ৮ জন ব্যক্তির পক্ষে অ্যাডভোকেট শিশির মনির হাইকোর্টে এ রিট দায়ের করেন।

রিটকারীদের মধ্যে শিশু, মহিলা, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, মাদ্রাসার শিক্ষক ও ব্যবসায়ী রয়েছেন। তাদের প্রত্যেকে রাজারবাগ দরবার শরিফের পীর ও তাদের মুরিদদের হয়রানিমূলক মামলার শিকার।

রিট আবেদনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব ও আইজিপিসহ মোট ২০ জনকে বিবাদী করা হয়।

 

 

/বিআই/আইএ/

সম্পর্কিত

আগের শর্তেই পরীমণিসহ তিন জনের জামিন

আগের শর্তেই পরীমণিসহ তিন জনের জামিন

আত্মসমর্পণ করে পরীমণির আবারও জামিনের আবেদন

আত্মসমর্পণ করে পরীমণির আবারও জামিনের আবেদন

আদালতে পরীমণি

আদালতে পরীমণি

পরীমণির বিরুদ্ধে মাদক মামলায় চার্জশিট গ্রহণ আজ

পরীমণির বিরুদ্ধে মাদক মামলায় চার্জশিট গ্রহণ আজ

আগের শর্তেই পরীমণিসহ তিন জনের জামিন

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১১:৩২

বনানী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় আগের শর্তেই জামিন পেয়েছেন চিত্রনায়িকা পরীমণিসহ তিন জন। আদালত পরিবর্তন হওয়ায় নতুন করে আবারও জামিন নিতে হলো তাদের। মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক মো. রবিউল আলম তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।

পরীমণির আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত সুরভী বলেন, বর্তমানে তিনি স্থায়ীভাবে জামিনে আছেন। কিন্তু আদালত পরিবর্তন হওয়ায় একটা নিয়ম আছে। সেটা হচ্ছে- এই আদালতে এসেও তাকে জামিন নিতে হবে। তাই আবার নতুন করে জামিন নিতে হচ্ছে।

জামিন আবেদনে তিনি বলেন, আমরা আগে জামিন পেয়ে কোনও শর্ত ভঙ্গ করিনি। আসামিরা জামিন পাওয়ার পর থেকে নিয়মিত আদালতের দেওয়া শর্তগুলো মেনে চলছেন। নিয়ম অনুযায়ী, আবারও আত্মসমর্পণ করে আপনার কাছে জামিনের আবেদন করছি।

এরপর বিচারক আদশে বলেন, পূর্বশর্ত অনুযায়ী আসামিদের জামিন দেওয়া হল। কিন্তু আমাদের স্যার যেহেতু ছুটিতে আছে তাই চার্জশিট গ্রহণের জন্য আগামী ১৫ নভেম্বর দিন ধার্য রয়েছে।

মামলাটিতে অপর দুই আসামি হলেন- আশরাফুল ইসলাম দিপু ও কবির হোসেন।

গত ৪ অক্টোবর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক কাজী মোস্তফা কামাল নায়িকা পরীমণিসহ তিন জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। পরে গত ১০ অক্টোবর ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সত্যব্রত শিকদারের আদালত মামলার চার্জশিট গ্রহণ করেন। এরপর আদালত মামলাটির পরবর্তী বিচার কাজের জন্য ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতে বদলির আদেশ দেন।

/এমএইচজে/ইউএস/
টাইমলাইন: পরীমণি
২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫৮
আগের শর্তেই পরীমণিসহ তিন জনের জামিন
২৬ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৫৭
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:১০
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০৮
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:১০
০৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:১৩
০১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:২৬
০১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:১৭
০১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৩২
০১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৪৮
৩১ আগস্ট ২০২১, ১৯:২৯
৩১ আগস্ট ২০২১, ০৮:০০

সম্পর্কিত

রাজারবাগ পীর সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে দুদক, সিআইডি ও সিটিটিসির তদন্ত চলবে

রাজারবাগ পীর সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে দুদক, সিআইডি ও সিটিটিসির তদন্ত চলবে

আত্মসমর্পণ করে পরীমণির আবারও জামিনের আবেদন

আত্মসমর্পণ করে পরীমণির আবারও জামিনের আবেদন

আদালতে পরীমণি

আদালতে পরীমণি

আত্মসমর্পণ করে পরীমণির আবারও জামিনের আবেদন

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০:৩৩

বনানী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় আত্মসমর্পণ করে আবারও জামিনের জন্য আবেদন করেছেন চিত্রনায়িকা পরীমণিসহ তিন জন। মামলাটিতে অপর দুই আসামি হলেন- আশরাফুল ইসলাম দিপু ও কবির হোসেন।

আজ মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালতে পরীমণিসহ তিন জন উপস্থিত হয়ে আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত সুরভীর মাধ্যমে আত্মসমর্পণ করে আবারো জামিনের জন্য আবেদন করেন। জামিন শুনানি এবং চার্জশিট গ্রহণের বিষয়ে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

তার আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত সুরভী বলেন, বর্তমানে তিনি স্থায়ীভাবে জামিনে আছেন। কিন্তু আদালত পরিবর্তন হওয়ার কারণে একটা নিয়ম আছে। সেটা হচ্ছে এই আদালতে এসেও তাকে জামিন নিতে হবে। তাই আমরা এই আদালতে জামিন আবেদন করেছি। এ বিষয়ে শুনানি কিছুক্ষণের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে।

গত ৪ অক্টোবর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক কাজী মোস্তফা কামাল নায়িকা পরীমণিসহ তিন জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। পরে গত ১০ অক্টোবর ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সত্যব্রত শিকদারের আদালত মামলার চার্জশিট গ্রহণ করেন। এরপর আদালত মামলাটির পরবর্তী বিচার কাজের জন্য ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতে বদলির আদেশ দেন।

ওই দিন পরীমনির আইনজীবী তার স্থায়ী জামিনের আবেদন জন্য আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক পরীমণিসহ অপর দুই আসামির জামিন মঞ্জুর করেন।

গত ১৪ জুন দুপুরে সাভার থানায় নির্যাতন ও ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে ছয় জনের নামে মামলা দায়ের করেন নায়িকা পরীমণি। মামলায় ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদকে প্রধান আসামি করা হয়। এরপর বেশ কিছু সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ পেলে বিতর্কিত হয়ে ওঠেন পরী। ওই মামলার আসামিরা বর্তমানে জামিনে আছেন। 

ব্যাপক আলোচনার মধ্যেই গেল ৪ আগস্ট রাতে প্রায় ৪ ঘণ্টার অভিযান চালিয়ে বনানীর বাসা থেকে পরীমণি ও তার সহযোগীকে আটক করে র‍্যাব। এসময় তার বাসা থেকে বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য জব্দ করা হয় বলে জানানো হয়। আটকের পর তাদের নেওয়া হয় র‍্যাব সদর দফতরে। পরে র‍্যাব-১ বাদী হয়ে মাদক আইনে পরীমণির বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করে।

মামলাটিতে পরীমণিকে তিন দফায় মোট সাত দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে; একাধিকবার এই রিমান্ড নিয়েও আছে সমালোচনা। অবশ্য ৩১ আগস্ট ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কেএম ইমরুল কায়েশের আদালত ৫০ হাজার টাকার মুচলেকায় পরীমণির জামিন মঞ্জুর করেন।

/এমএইচজে/ইউএস/

সম্পর্কিত

রাজারবাগ পীর সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে দুদক, সিআইডি ও সিটিটিসির তদন্ত চলবে

রাজারবাগ পীর সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে দুদক, সিআইডি ও সিটিটিসির তদন্ত চলবে

আগের শর্তেই পরীমণিসহ তিন জনের জামিন

আগের শর্তেই পরীমণিসহ তিন জনের জামিন

আদালতে পরীমণি

আদালতে পরীমণি

আদালতে পরীমণি

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৫৭

একদিন আগেই জমকালো আয়োজনে জন্মদিনের উৎসব করেছেন চিত্রনায়িকা পরীমণি। আজ মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ৯টায় আদালতে হাজির হন তিনি। বনানীর মাদক মামলায় তিনিসহ অন্য দুই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে চার্জশিট গ্রহণের দিন ধার্য রয়েছে আজ।

মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালতে পরীমণির উপস্থিতিতে এ বিষয়ে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন এই চিত্রনায়িকার আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত সুরভী।

আদালতে আসার পথে গাড়িতে বসে সেলফিও তুলেছেন তিনি। মামলাটিতে অপর দুই আসামি হলেন- আশরাফুল ইসলাম দিপু ও কবির হোসেন।

গত ৪ অক্টোবর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক কাজী মোস্তফা কামাল নায়িকা পরীমণিসহ তিন জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। পরে গত ১০ অক্টোবর ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সত্যব্রত শিকদারের আদালত মামলার চার্জশিট গ্রহণ করেন। এরপর আদালত মামলাটির পরবর্তী বিচার কাজের জন্য ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতে বদলির আদেশ দেন।

ওই দিন পরীমনির আইনজীবী তার স্থায়ী জামিনের আবেদন জন্য আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক আবারও অস্থায়ীভাবে তার জামিন মঞ্জুর করেন। তার সাথে অপর দুই আসামিরও জামিন মঞ্জুর করেন।

গত ১৪ জুন দুপুরে সাভার থানায় নির্যাতন ও ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে ছয় জনের নামে মামলা দায়ের করেন নায়িকা পরীমণি। মামলায় ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদকে প্রধান আসামি করা হয়। এরপর বেশ কিছু সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ পেলে বিতর্কিত হয়ে ওঠেন পরী। ওই মামলার আসামিরা বর্তমানে জামিনে আছেন। 

ব্যাপক আলোচনার মধ্যেই গেল ৪ আগস্ট রাতে প্রায় ৪ ঘণ্টার অভিযান চালিয়ে বনানীর বাসা থেকে পরীমণি ও তার সহযোগীকে আটক করে র‍্যাব। এসময় তার বাসা থেকে বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য জব্দ করা হয় বলে জানানো হয়। আটকের পর তাদের নেওয়া হয় র‍্যাব সদর দফতরে। পরে র‍্যাব-১ বাদী হয়ে মাদক আইনে পরীমণির বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করে।

মামলাটিতে পরীমণিকে তিন দফায় মোট সাত দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে; একাধিকবার এই রিমান্ড নিয়েও আছে সমালোচনা। অবশ্য ৩১ আগস্ট ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কেএম ইমরুল কায়েশের আদালত ৫০ হাজার টাকার মুচলেকায় পরীমণির জামিন মঞ্জুর করেন।

/এমএইচজে/ইউএস/
টাইমলাইন: পরীমণি
২৬ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৫৭
আদালতে পরীমণি
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:১০
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০৮
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:১০
০৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:১৩
০১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:২৬
০১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:১৭
০১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৩২
০১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৪৮
৩১ আগস্ট ২০২১, ১৯:২৯
৩১ আগস্ট ২০২১, ০৮:০০

সম্পর্কিত

রাজারবাগ পীর সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে দুদক, সিআইডি ও সিটিটিসির তদন্ত চলবে

রাজারবাগ পীর সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে দুদক, সিআইডি ও সিটিটিসির তদন্ত চলবে

আগের শর্তেই পরীমণিসহ তিন জনের জামিন

আগের শর্তেই পরীমণিসহ তিন জনের জামিন

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণে পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি

জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণে পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি

আগের শর্তেই পরীমণিসহ তিন জনের জামিন

আগের শর্তেই পরীমণিসহ তিন জনের জামিন

আদালতে পরীমণি

আদালতে পরীমণি

পরীমণির বিরুদ্ধে মাদক মামলায় চার্জশিট গ্রহণ আজ

পরীমণির বিরুদ্ধে মাদক মামলায় চার্জশিট গ্রহণ আজ

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তীর অনুষ্ঠান সংক্রান্ত সমন্বয় সভা

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তীর অনুষ্ঠান সংক্রান্ত সমন্বয় সভা

তথ্য অধিদফতরের সেবার প্রতিশ্রুতি বিষয়ে পরিবীক্ষণ কমিটি

তথ্য অধিদফতরের সেবার প্রতিশ্রুতি বিষয়ে পরিবীক্ষণ কমিটি

জাদুঘরসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ‘মুজিব চিরন্তন’ শ্রদ্ধা স্মারক হস্তান্তর

জাদুঘরসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ‘মুজিব চিরন্তন’ শ্রদ্ধা স্মারক হস্তান্তর

ফ্লাইটে যাচ্ছেন না পাইলটরা, বিমানের শিডিউল বিপর্যয়ের শঙ্কা

ফ্লাইটে যাচ্ছেন না পাইলটরা, বিমানের শিডিউল বিপর্যয়ের শঙ্কা

জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ডের আবেদনের সময় বাড়লো

জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ডের আবেদনের সময় বাড়লো

উন্নীত স্কেলে বেতন নিশ্চিত করতে তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

উন্নীত স্কেলে বেতন নিশ্চিত করতে তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

সর্বশেষ

‘যেকোনও ইস্যুকে রাজনৈতিক রূপ দিয়ে বিতর্কিত করাই বিএনপির কাজ’

‘যেকোনও ইস্যুকে রাজনৈতিক রূপ দিয়ে বিতর্কিত করাই বিএনপির কাজ’

ভালোবাসার মানুষের জন্য রাজপ্রাসাদ ছাড়লেন জাপানের রাজকন্যা

ভালোবাসার মানুষের জন্য রাজপ্রাসাদ ছাড়লেন জাপানের রাজকন্যা

দুবলার চরে যাচ্ছেন জেলেরা 

দুবলার চরে যাচ্ছেন জেলেরা 

মুহিবুল্লাহ হত্যা: তিন আসামি ২ দিনের রিমান্ডে

মুহিবুল্লাহ হত্যা: তিন আসামি ২ দিনের রিমান্ডে

ম্যারাডোনা কাপে খেলবে বার্সা-বোকা

ম্যারাডোনা কাপে খেলবে বার্সা-বোকা

© 2021 Bangla Tribune