X
সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ৯ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

বিটিসিএল’র নেটওয়ার্ক-টাওয়ার ব্যবহার করবে গ্রামীণফোন

আপডেট : ১৯ জুলাই ২০২১, ২১:৪১

দেশে ডিজিটাল সংযোগ আরও  গতিশীল ও সুদৃঢ় করতে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ কোম্পানি লিমিটেড- বিটিসিএল ও গ্রামীণফোনের মধ্যে চুক্তি সই হয়েছে।  টেলিযোগাযোগ সেবা সংক্রান্ত এই চুক্তির অধীনে দেশব্যাপী বিটিসিএল’র অপটিক্যাল ফাইবার সংযোগ ও  টাওয়ার গ্রামীণফোন শেয়ার করবে। 

সোমবার (১৯ জুলাই) ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এই  চুক্তি সই সম্পন্ন হয়। এ সময় ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার সংযুক্ত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের অগ্রযাত্রায় এটিকে একটি ঐতিহাসিক মাইলফলক হিসেবে উল্লেখ করেন।  তিনি বলেন, ‘সারাদেশে বিদ্যমান বিটিসিএল’র অপটিক্যাল ফাইবার নেটওয়ার্ক ও টাওয়ার সেবা গ্রহণের মাধ্যমে গ্রামীণফোন তাদের গ্রাহকদের উন্নত সেবা প্রদানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টি সম্পন্ন  ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচির অগ্রযাত্রাকে আরও বেগবান করবে।’

অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব মো. আফজাল হোসেন, বিটিআরসি’র চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার, বিটিসিএল’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মো. রফিকুল মতিন ও গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী ইয়াসির আজমান বক্তৃতা করেন।

বক্তারা বিটিসিএল ও গ্রামীণফোনের মধ্যকার এই চুক্তিকে ঐতিহাসিক আখ্যায়িত করে বলেন, সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ের দুটি বৃহৎ টেলিকম প্রতিষ্ঠানের মধ্যকার পারস্পরিক সহযোগিতায় গ্রাহকরা উপকৃত হবে।  এরই ধারাবাহিকতায় ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনে এটি গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে বলে তারা মন্তব্য করেন।

 

/এইচএএইচ/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

আবাসিকে গ্যাস সংযোগ দেওয়া নিয়ে হাইকোর্টের রুল

আবাসিকে গ্যাস সংযোগ দেওয়া নিয়ে হাইকোর্টের রুল

বিদ্যুৎ সম্পর্কিত সব মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির সুপারিশ

বিদ্যুৎ সম্পর্কিত সব মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির সুপারিশ

‘বঙ্গমাতা’র নামে সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নামকরণের প্রস্তাব অনুমোদন

‘বঙ্গমাতা’র নামে সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নামকরণের প্রস্তাব অনুমোদন

বোরো সংগ্রহে অনিয়মকারী চালকল মালিকের লাইসেন্স বাতিল

বোরো সংগ্রহে অনিয়মকারী চালকল মালিকের লাইসেন্স বাতিল

আবাসিকে গ্যাস সংযোগ দেওয়া নিয়ে হাইকোর্টের রুল

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৯:৩৮

আবাসিক এলাকায় গ্যাস সংযোগ না দিয়ে টাকা ফেরত দেওয়ার সিদ্ধান্ত কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে আবাসিকে গ্যাস সংযোগ দিতে সরকারের নিষ্ক্রিয়তাকে কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, রুলে তাও জানতে চেয়েছেন আদালত।

আরেকটি রুলে এ মামলার রিট আবেদনকারীদের গ্যাস সংযোগ দিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তাও জানাতে বলা হয়েছে। চার সপ্তাহের মধ্যে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের (জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগ) জ্যেষ্ঠ সচিব, পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান, গ্যাস সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান তিতাসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, কর্ণফুলীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বাখরাবাদের ব্যবস্থাপনা পরিচালককে এসব রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। 

এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে সোমবার (২৫ অক্টোবর) বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এসব রুল জারি করেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী মো. ওজি উল্লাহ। তাকে সহযোগিতা করেন আইনজীবী আজিম উদ্দিন পাটোয়ারী ও আফরোজা সুলতানা। অপরদিকে রাষ্ট্র পক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার।

এর আগে গত ২৭ এপ্রিল বিদ্যুৎ, জালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের জালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগের মাসিক সমন্বয় সভায় সিদ্ধান্ত হয় যে, ‘আবাসিকে গ্যাস সংযোগ আর  চালুর সুযোগ না থাকায় ডিমান্ড নোটের  পরিপ্রেক্ষিতে যারা টাকা জমা দিয়েছিল, তাদেরকে ক্রস চেকের মাধ্যমে টাকা ফেরত দেওয়ার কার্যক্রম গ্রহণ করতে হবে।’

পরে সরকারের ওই সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে গত ৪ অক্টোবর চট্টগ্রাম গ্যাস, বিদ্যুৎ ও পানির গ্রাহক ঐক্যজোটের সভাপতি আলমগীর নূর ও মহাসচিব একেএম অলিউল্লাহ হক ও সাধারণ গ্রাহক মো. নুরুল আলম  হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন।

রিট আবেদনে বলা হয়েছে, আইন অনুসারে ডিমান্ড নোটের (চাহিদাপত্র) পরিপ্রেক্ষিতে গ্যাস সংযোগের জন্য টাকা জমা নেওয়া হলে, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তাদের গ্যাস সংযোগ দিতে সরকার বাধ্য। কিন্তু টাকা জমা নেওয়ার পর নির্ধারিত সময় পার হয়ে গেলেও তাদের গ্যাস সংযোগ দেওয়া হয়নি। বরং তাদের টাকা ফেরত দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে, যা আইন সম্মত নয়।

 

/বিআই/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

বিদ্যুৎ সম্পর্কিত সব মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির সুপারিশ

বিদ্যুৎ সম্পর্কিত সব মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির সুপারিশ

ফরিদপুরের চর-ঝাউকান্দা ইউপি নির্বাচন স্থগিত

ফরিদপুরের চর-ঝাউকান্দা ইউপি নির্বাচন স্থগিত

‘বঙ্গমাতা’র নামে সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নামকরণের প্রস্তাব অনুমোদন

‘বঙ্গমাতা’র নামে সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নামকরণের প্রস্তাব অনুমোদন

বোরো সংগ্রহে অনিয়মকারী চালকল মালিকের লাইসেন্স বাতিল

বোরো সংগ্রহে অনিয়মকারী চালকল মালিকের লাইসেন্স বাতিল

রিমান্ড শেষে আরজে নীরব কারাগারে 

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৯:২৩

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান কিউকমের হেড অব সেলস (কমিউনিকেশন অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন) অফিসার হুমায়ুন কবির ওরফে আরজে নীরবকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

সোমবার (২৫ অক্টোবর) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ-উর-রহমানের আদালত এই আদেশ দেন। সংশ্লিষ্ট আদালতের সাধারণ নিবন্ধন জিআর শাখা থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা।

এদিন পুলিশের একদিনের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির সাইবার ইনভেস্টিগেশন অ‌্যান্ড অপারেশনসের উপ-পরিদর্শক শাখাওয়াত হোসেন আসামিকে আদালতে হাজির করেন। এরপর তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন। অন্যদিকে আসামিপক্ষের আইনজীবী জামিনের জন্য আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে আসামিকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে গত ১৮ অক্টোবর ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ-উর-রহমানের আদালত রিমান্ডের আদেশ দেন। আদালতের সংশ্লিষ্ট সাধারণ নিবন্ধন জিআর শাখা থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

প্রসঙ্গত, গত ৬ অক্টোবর লালবাগ থানায় মামলাটি দায়ের করেন রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ নামে এক চাকরিজীবী। লোভনীয় অফার দিয়ে তিনিসহ তার আরও তিন বন্ধু কিউকম থেকে ৬৫ লাখ ৭৩ হাজার ৫৩৩ টাকার পণ্য সরবরাহ করে। কিন্তু কিউকম তাদের পণ্যগুলো সরবরাহ করেনি। প্রতারণার অভিযোগে গত ৮ অক্টোবর আরজে নীরবকে রাজধানীর আদাবর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। 

/এমএইচজে/এমআর/

সম্পর্কিত

খালেদার দুই মামলায় অভিযোগ গঠন শুনানি পেছালো

খালেদার দুই মামলায় অভিযোগ গঠন শুনানি পেছালো

ডেন্টালে ভর্তির কথা বলে টাকা আত্মসাৎ,  জবি শিক্ষার্থী গ্রেফতার

ডেন্টালে ভর্তির কথা বলে টাকা আত্মসাৎ, জবি শিক্ষার্থী গ্রেফতার

বাউল শিল্পী রিতা দেওয়ানসহ তিন জনের বিচার শুরু

বাউল শিল্পী রিতা দেওয়ানসহ তিন জনের বিচার শুরু

বাবার জিম্মায় থাকা শিশুকে দেশের বাইরে নিতে নিষেধাজ্ঞা

বাবার জিম্মায় থাকা শিশুকে দেশের বাইরে নিতে নিষেধাজ্ঞা

খালেদার দুই মামলায় অভিযোগ গঠন শুনানি পেছালো

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৯:১৯

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ভুয়া জন্মদিন পালন ও মুক্তিযুদ্ধকে ‘কলঙ্কিত’ করার অভিযোগে মানহানির দুই মামলায় অভিযোগ গঠন শুনানি পেছালো। আদালত অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য আগামী ৩ নভেম্বর  দিন ধার্য করেছেন।

সোমবার (২৫ অক্টোবর ) ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আসাদুজ্জামান নুরের আদালতে অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু খালেদা জিয়া অসুস্থ থাকায় আদালতে উপস্থিত হতে না পারায় তার আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদার সময়ের জন্য আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য এইদিন ধার্য করেন।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৩০ আগস্ট ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গাজী জহিরুল ইসলাম ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ভুয়া জন্মদিন পালন মামলা দায়ের করেন। মামলার এজাহারে বলা হয়, খালেদা জিয়ার একাধিক জন্মদিন পালনের সংবাদ ১৯৯৭ সালের ১৯ ও ২২ আগস্ট দুটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত হয়। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, খালেদা জিয়ার এসএসসি পরীক্ষার মার্কশিট অনুযায়ী—জন্ম তারিখ ৫ সেপ্টেম্বর ১৯৪৬ সাল। ১৯৯১ সালে তিনি প্রধানমন্ত্রী থাকার সময় একটি দৈনিকে তার জীবনী নিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে জন্মদিন ১৯ আগস্ট ১৯৪৫ সাল উল্লেখ করা হয়েছে। তার বিয়ের কাবিনে জন্মদিন ৪ আগস্ট ১৯৪৪ সাল লেখা হয়েছে। সর্বশেষ ১৯৯৬ সাল থেকে ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শাহাদাৎ বার্ষিকীর জাতীয় শোক দিবসে জন্মদিন পালন করে আসছেন।

মুক্তিযুদ্ধকে ‘কলঙ্কিত’ করার অভিযোগে করা মামলায় বলা হয়, ২০০১ সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বাধীনতাবিরোধী যুদ্ধাপরাধী জামায়াতের সঙ্গে জোট করে নির্বাচিত হয়ে সরকারের দায়িত্ব গ্রহণ করেন বিএনপি চেয়ারপারসন। তিনি (খালেদা জিয়া) রাজাকার-আলবদর নেতাকর্মীদের মন্ত্রী-এমপি বানিয়ে তাদের বাড়ি-গাড়িতে স্বাধীন বাংলাদেশের মানচিত্র ও জাতীয় পতাকা তুলে দেন।

২০১৬ সালের ৩ নভেম্বর ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জিয়াউর রহমান ও খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মানহানির এই মামলা করেন জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী। আদালত ঘটনার তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য তেজগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) নির্দেশ দেন।

২০১৭ সালের২৫ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর তেজগাঁও থানার পুলিশ পরিদর্শক মশিউর রহমান (তদন্ত) অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে বলে প্রতিবেদন দাখিল করেন। মামলার অন্য আসামি বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান মৃত বলে তাকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

/এমএইচজে/এমআর/

সম্পর্কিত

রিমান্ড শেষে আরজে নীরব কারাগারে 

রিমান্ড শেষে আরজে নীরব কারাগারে 

ডেন্টালে ভর্তির কথা বলে টাকা আত্মসাৎ,  জবি শিক্ষার্থী গ্রেফতার

ডেন্টালে ভর্তির কথা বলে টাকা আত্মসাৎ, জবি শিক্ষার্থী গ্রেফতার

বাউল শিল্পী রিতা দেওয়ানসহ তিন জনের বিচার শুরু

বাউল শিল্পী রিতা দেওয়ানসহ তিন জনের বিচার শুরু

বাবার জিম্মায় থাকা শিশুকে দেশের বাইরে নিতে নিষেধাজ্ঞা

বাবার জিম্মায় থাকা শিশুকে দেশের বাইরে নিতে নিষেধাজ্ঞা

‘জনপ্রতিনিধিদের সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়া উচিত’

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৯:১৫

স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের নিজ নিজ এলাকায় সরকারি হাসপাতাল থেকেই কম খরচে মানসম্মত চিকিৎসা গ্রহণ করা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন-ডিএনসিসির মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। সোমবার (২৫ অক্টোবর) দুপুরে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের কনফারেন্স রুমে স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) কর্তৃক আয়োজিত ডেঙ্গু এবং কোভিড-১৯ চ্যালেঞ্জ বিষয়ক বিজ্ঞানভিত্তিক এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে নিজেও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে পরিবারের সদস্যসহ কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসা নিয়েছি। এজন্য আমি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।

স্বাচিপ-এর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল শাখার আহবায়ক ডা. মো. বাহাউদ্দিন মোল্লা বাদলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে স্বাচিপের কেন্দ্রীয় কমিটির মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এমএ আজিজ, স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মো. শামিউল ইসলাম, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. জামিল আহমেদ এবং ডিএনসিসির প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. জোবায়দুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

/এসএস/এমআর/

সম্পর্কিত

সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে পদযাত্রা

সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে পদযাত্রা

৭ তলা থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

৭ তলা থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

বংশালে নারীর লাশ উদ্ধার, শরীরে আঘাতের চিহ্ন

বংশালে নারীর লাশ উদ্ধার, শরীরে আঘাতের চিহ্ন

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ছুরিকাঘাতে আহত ৩

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ছুরিকাঘাতে আহত ৩

সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে পদযাত্রা

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৫৩

দেশের বিভিন্ন জেলায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ওপর হামলা, পূজামণ্ডপ ভাঙচুরের প্রতিবাদে সভা ও পদযাত্রা করেছে বেসরকারি গণগ্রন্থাগার পরিষদ এবং পাঠাগার আন্দোলন বাংলাদেশ।

সোমবার (২৫ অক্টাবর) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অসম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠনে ‘গ্রন্থপাঠ রুখবে সাম্প্রদায়িকতা’ র্শীষক এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। পরে প্রেসক্লাবের সামনে থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার পর্যন্ত কালো পতাকা নিয়ে পদযাত্রা করেন তারা।

পদযাত্রা শেষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংরক্ষিত নারী আসনের সাংসদ হাবিবা রহমান খান শেফালী বলেন, ‘স্বাধীন বাংলাদেশে এখনও স্বাধীনতাবিরোধীরা সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা ও নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে। এসব ন্যাক্কারজনক হামলার ষড়যন্ত্র বন্ধ করতে হবে। বঙ্গবন্ধুর বাংলায় কোনও সাম্প্রদায়িকতার স্থান নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, পাঠাগার আন্দোলনের মাধ্যমে তরুণ প্রজন্মের মাঝে অসাম্প্রদায়িক চেতনা জাগিয়ে তুলতে হবে।’

সভায় বাংলাদেশ বেসরকারি গণগন্থাগার পরিষদের চেয়ারম্যান ইমাম হোসেন বলেন, ‘ভবিষ্যতে এই ধরনের সহিংসতার যেন পুনরাবৃত্তি না হয়, এজন্য নৈতিক গুণসম্পন্ন পাঠক তৈরি করতে হবে। পাঠক সমাজের এ আন্দোলনের ধারা জারি রাখতে হবে।’

প্রতিবাদ সভা ও পদযাত্রায় বাংলাদেশ পুলিশের সাবেক এআইজি মালিক খসরু, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. মোশাররফ হোসাইন, অধ্যাপক ড. আলী হোসেন চৌধুরী, সিসিএন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মোহাম্মদ মাজহারুল হান্নান, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান, ফরিদপুর জেলা কৃষক লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের সদস্য পাঠাগারের উদ্যোক্তা শেখ সহিদুল ইসলাম, কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আব্দুস সাত্তার, ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আবুল হাসান প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

সভা ও পদযাত্রায় সারা দেশের গ্রামীণ গণগ্রন্থাগারকর্মী ও সংস্কৃতিকর্মীরাও অংশগ্রহণ করেন। বাংলাদেশ বেসরকারি গণগন্থাগার পরিষদের চেয়ারম্যান ইমাম হোসেনের সভাপতিত্ব অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বেসরকারি গণগ্রন্থাগার পরিষদের মহাসচিব নাসিম আহমেদ।

 

 

/এসএস/এফএ/

সম্পর্কিত

‘জনপ্রতিনিধিদের সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়া উচিত’

‘জনপ্রতিনিধিদের সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়া উচিত’

৭ তলা থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

৭ তলা থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

বংশালে নারীর লাশ উদ্ধার, শরীরে আঘাতের চিহ্ন

বংশালে নারীর লাশ উদ্ধার, শরীরে আঘাতের চিহ্ন

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ছুরিকাঘাতে আহত ৩

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ছুরিকাঘাতে আহত ৩

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

আবাসিকে গ্যাস সংযোগ দেওয়া নিয়ে হাইকোর্টের রুল

আবাসিকে গ্যাস সংযোগ দেওয়া নিয়ে হাইকোর্টের রুল

বিদ্যুৎ সম্পর্কিত সব মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির সুপারিশ

বিদ্যুৎ সম্পর্কিত সব মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির সুপারিশ

‘বঙ্গমাতা’র নামে সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নামকরণের প্রস্তাব অনুমোদন

‘বঙ্গমাতা’র নামে সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নামকরণের প্রস্তাব অনুমোদন

বোরো সংগ্রহে অনিয়মকারী চালকল মালিকের লাইসেন্স বাতিল

বোরো সংগ্রহে অনিয়মকারী চালকল মালিকের লাইসেন্স বাতিল

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে ‘তদন্ত কমিশন’ গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে ‘তদন্ত কমিশন’ গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

অর্থপাচার মামলায় সাহেদের জামিন প্রশ্নে হাইকোর্টের রুল

অর্থপাচার মামলায় সাহেদের জামিন প্রশ্নে হাইকোর্টের রুল

প্রকাশ্যে জামায়াতের বিচার দাবি তদন্ত সংস্থার

প্রকাশ্যে জামায়াতের বিচার দাবি তদন্ত সংস্থার

অনৈতিক সুবিধা দাবির ঘটনায় দুদকের তদন্ত কর্মকর্তাকে তলব

অনৈতিক সুবিধা দাবির ঘটনায় দুদকের তদন্ত কর্মকর্তাকে তলব

সাতক্ষীরার চার আসামির বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন চূড়ান্ত

একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলাসাতক্ষীরার চার আসামির বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন চূড়ান্ত

বাড়ছে বায়ুদূষণ, ডিসেম্বরে ঢাকায় ‘স্বাস্থ্যগত জরুরি অবস্থা’র শঙ্কা

বাড়ছে বায়ুদূষণ, ডিসেম্বরে ঢাকায় ‘স্বাস্থ্যগত জরুরি অবস্থা’র শঙ্কা

সর্বশেষ

ফেসবুক মেসেঞ্জারে নতুন ইফেক্টস

ফেসবুক মেসেঞ্জারে নতুন ইফেক্টস

অ্যাশেজ দিয়েই ফিরছেন বেন স্টোকস

অ্যাশেজ দিয়েই ফিরছেন বেন স্টোকস

‘জুড়ীতে সাফারি পার্ক হলে পাহাড়-জীববৈচিত্র্য রক্ষা পাবে’

‘জুড়ীতে সাফারি পার্ক হলে পাহাড়-জীববৈচিত্র্য রক্ষা পাবে’

টিকা নিলে কোয়ারেন্টিন লাগবে না থাইল্যান্ডে

টিকা নিলে কোয়ারেন্টিন লাগবে না থাইল্যান্ডে

স্বামীকে নির্যাতনের অভিযোগে ওসির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

স্বামীকে নির্যাতনের অভিযোগে ওসির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

© 2021 Bangla Tribune