X
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

নৌ-চলাচলে বিঘ্ন, বছিলা সেতু ভেঙে ফেলার চিন্তা

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ১৬:৪১

পানির স্তর থেকে উচ্চতা কম হওয়ায় নৌচলাচলে বিঘ্ন ঘটে, একারণে  ভেঙে ফেলতে হচ্ছে রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ বছিলা সেতু। বুধবার (২৮ জুলাই) জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠক শেষে নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম  সরকারের এমন চিন্তার-ভাবনার কথা জানান।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে একনেকে প্রায় ২ হাজার ৫৭৫ কোটি ৪২ লাখ টাকা ব্যয় সংবলিত ১০টি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়। এর মধ্যে দুই হাজার ৩৩৪ কোটি টাকা ব্যয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগের ‘দেশের দক্ষিণাঞ্চলে আয়রন ব্রিজ পুনর্নির্মাণ/পুনর্বাসন’ সংশোধন প্রকল্পও রয়েছে। আগের এক হাজার ৮৩৫ কোটি ৭০ লাখ টাকার প্রকল্প বাড়িয়ে দুই হাজার ৩৩৪ কোটি টাকা করা হয়েছে। এই প্রকল্প নিয়ে আলোচনাকালে প্রধানমন্ত্রী ব্রিজ-কালভার্ট নির্মাণে উচ্চতা ঠিক রাখার নির্দেশনা দেন। পরে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান ও প্রতিমন্ত্রী শামসুল আলম  প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসনের প্রসঙ্গটি তুলে ধরেন।

এ বিষয় আলোচনাকালে প্রতিমন্ত্রী বছিলা ব্রিজের (শহীদ বুদ্ধিজীবী সেতু) প্রসঙ্গটিও টানেন। এ সস্পর্কে তিনি বলেন, ‘বছিলা ব্রিজটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু এখানে বর্ষাকালে কার্গোগুলো আসতে পারে না। ২০০৯ সালে এটা উদ্বোধন হয়েছে। কিন্তু এখন এটাকে উঁচু করার জন্য নতুন করে ভাঙার চিন্তা করা হচ্ছে। কিন্তু এটা তো জাতীয় অপচয়। প্রধানমন্ত্রী এই বিষয়ে খুবই সচেতন।’

বছিলা ব্রিজ কত টাকায় নির্মাণ করা হয়েছিল এবং এটা নিয়ে আপনাদের পরিকল্পন কী, এমন প্রশ্নের জবাবে পরিকল্পনা মন্ত্রী বলেন, ‘বছিলা ব্রিজ হচ্ছে একটি বিশেষ কেস। এটা নিয়ে এই মুহূর্তে কিছু বলতে চাই না। এটা জানতে হলে পরে যোগাযোগ করলে বিস্তারিত জানানো হবে।’

২০০৯ সালের ২৯ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেতুটি উদ্বোধন করেন। বছিলা এলাকাটি রাজধানীর সঙ্গে কেরাণীগঞ্জের সংযোগ স্থাপন করেছে। জানা গেছে, ৮৪ কোটি ৯ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত সেতুটির দৈর্ঘ ৭০৮ মিটার ও প্রস্থ ১০ মিটার।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বর্ষাকালে নদীর পানি বৃদ্ধি পেলে বছিলা ব্রিজের নিচ দিয়ে বড় নৌযানগুলো চলতে পারে না। পরিমাণ অনুযায়ী, পানি থেকে ব্রিজের উচ্চতা ১২ মিটারের বেশি থাকার কথা থাকলেও ওই সময় তা থাকে না। ফলে এ পথে চলাচলকারী নৌযানগুলো আটকে যায়। গত বছর তামজিদ-১ নামে একটি কার্গো ব্রিজটির নিচ দিয়ে যাওয়ার সময় ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

এদিকে দক্ষিণাঞ্চলের ব্রিজ প্রকল্প বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসনের কথা ‍তুলে ধরে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘বরিশালে ৮০৫টি লোহার ব্রিজ ভেঙে  নতুন ব্রিজ করা হবে।  প্রধানমন্ত্রী এ বিষয়ে আমাদের আগেও বলেছেন যে, আমরা ব্রিজ কালভার্ট করতে গিয়ে নৌপথগুলোকে অচল করে ফেলেছি। এজন্য উনি বলেছেন, সেতু-ব্রিজ নির্মাণ করার সময় এগুলো ভালো করে দেখতে হবে। পণ্য ও যাত্রীবাহী নৌযান যেন চলাচল করতে পারে। দরকার হলে অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষের অনুমোদন নিয়ে এগুলো করবেন।’

এ বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘৮০৫টি ব্রিজ সব যে ভাঙা হবে তা নয়। অনেকগুলো ইতোমধ্যে ভেঙে গেছে। অনেকগুলো খুবই নড়বড়ে, আঙুল দিলেই ভেঙে পড়বে। বাকিগুলো হয়তো এক/দুই বছর বাঁচবে। দেশের অর্থনৈতিক অবস্থার সাথে সাথে আমরা এগুলো পরিবর্তন করছি।’

 

 

/ইএইচএস/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

ছেলেরা কি সোনা-রুপার অলঙ্কার পরতে পারবে?

ছেলেরা কি সোনা-রুপার অলঙ্কার পরতে পারবে?

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের

কেরানীগঞ্জে হেরোইনসহ গ্রেফতার ২

কেরানীগঞ্জে হেরোইনসহ গ্রেফতার ২

প্রত্যেকটি খালের পাড়ে ওয়াকওয়ে হবে: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

প্রত্যেকটি খালের পাড়ে ওয়াকওয়ে হবে: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

থানার ওসি চাইলেই হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালা হতে পারেন‌: আইজিপি

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:২৬

পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, থানার ওসি চাইলেই হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালা হতে পারেন‌। মানুষের জন্য কাজ করে তাদের হৃদয় ও মন জয় করা যায়। এটা টাকা দিয়ে কেনা যায় না। 

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) ঢাকা রেঞ্জের আগস্ট মাসের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে আইজিপি এসব কথা বলেন।

আইজিপি বলেন, পুলিশ যত ভালো কাজ করুক না কেন একটি খারাপ কাজ সব অর্জনকে নষ্ট করে দেয়। সমাজ পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা ও অপরাধ পরিস্থিতিরও পরিবর্তন হয়। সর্বদা সমাজের পরিবর্তনশীল চাহিদার প্রতি লক্ষ্য রেখে পুলিশিং কার্যক্রম চালু রাখতে মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন তিনি। 

জুনিয়রদের যোগ্য করে গড়ে তোলা সিনিয়রদের দায়িত্ব উল্লেখ করে আইজিপি বলেন, জুনিয়রদের জন্য ভালো উদাহরণ তৈরি করতে হবে। ভালো কাজে তাদেরকে মোটিভেট করতে হবে। তাদেরকে সুপারভাইজ করতে হবে। চাকরিতে ‘প্যাশন’ আনতে হবে। প্রত্যেক পুলিশ সদস্যের সম্মান ও মর্যাদাবোধ থাকতে হবে। 

বিট পুলিশিং একটি কার্যকর পদ্ধতি জানিয়ে পুলিশ প্রধান বলেন, বঙ্গবন্ধু প্রতিটি ইউনিয়নে থানা করার যে স্বপ্ন দেখেছিলেন মূলত বিট পুলিশিং সে লক্ষে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্বাচনী ইশতেহারে ঘোষণা করেছিলেন; প্রতিটি গ্রামে শহরের সুবিধা পৌঁছে দেওয়া হবে। এক্ষেত্রে প্রতিটি ইউনিয়নে অপরাধ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় বিট পুলিশিং কার্যকর অবদান রাখতে পারে। 

আইজিপি আবারও দ্ব্যর্থহীন কণ্ঠে ঘোষণা করেন, কোনও পুলিশ সদস্য যদি অপরাধের সঙ্গে জড়িত থাকে তাহলে সেটা বন্ধ করতে হবে। পুলিশে কোনও অপরাধীর জায়গা নেই। আইজিপি ঢাকা রেঞ্জের বিভিন্ন ইনোভেশন কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করেন। তিনি অন্যান্য ইউনিটেও এ ধরনের ইনোভেশনের চর্চার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। 

ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান আগস্ট মাসের সার্বিক অপরাধ পরিস্থিতি, অপরাধ ব্যবস্থাপনা, বেস্ট প্র্যাকটিসেস এবং ইনোভেশন কার্যক্রম সভায় উপস্থাপন করেন। মাদারীপুর জেলা পুলিশ আয়োজিত এ সভায় ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজিগণসহ রেঞ্জাধীন সকল জেলার পুলিশ সুপারগণ এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা অংশগ্রহণ করেন।

/আরটি/এনএইচ/

সম্পর্কিত

ডেঙ্গু পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণে: মেয়র আতিক

ডেঙ্গু পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণে: মেয়র আতিক

কর্মবিরতির হুঁশিয়ারি ট্রাক কাভার্ডভ্যান মালিক শ্রমিকদের

কর্মবিরতির হুঁশিয়ারি ট্রাক কাভার্ডভ্যান মালিক শ্রমিকদের

একদিনে ২২১ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

একদিনে ২২১ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

‘কক্সবাজারে নতুন রেললাইন চালু হবে আগামী বছর’

‘কক্সবাজারে নতুন রেললাইন চালু হবে আগামী বছর’

ডেঙ্গু পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণে: মেয়র আতিক

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:০২

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেছেন, সকলের আন্তরিক প্রচেষ্টার ফলেই ডিএনসিসি এলাকার ডেঙ্গু পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর মালিবাগ এলাকায় এডিস মশা ও ডেঙ্গু মোকাবিলায় ফগিং ও লার্ভিসাইডিংসহ অন্যান্য কার্যক্রম পরিদর্শনকালে ডিএনসিসি মেয়র একথা বলেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, এডিস মশার বংশবিস্তার রোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য বিভিন্ন ধরণের প্রায় ১ হাজার ৭০০ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে পত্র দেওয়া হচ্ছে। সুপারভাইজার এবং মশকনিধন কর্মীদের জন্য একটি নির্দেশিকাও তৈরি করা হয়েছে।

আতিকুল ইসলাম বলেন, নিজেদের বাসাবাড়ি কিংবা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফুলের টব, অব্যবহৃত টায়ার, ডাবের খোসা, বিভিন্ন ধরনের খোলা প্যাকেট বা পাত্র, ছাদ কিংবা অন্য কিছুতে যাতে তিন দিনের বেশি পানি জমে না থাকে সে বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে।

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, সামনেই কিউলেক্স মশার চ্যালেঞ্জ আসছে, তাই সকলকে সতর্ক থাকতে হবে।

/এসএস/এমআর/

সম্পর্কিত

কর্মবিরতির হুঁশিয়ারি ট্রাক কাভার্ডভ্যান মালিক শ্রমিকদের

কর্মবিরতির হুঁশিয়ারি ট্রাক কাভার্ডভ্যান মালিক শ্রমিকদের

৮০ বছর বয়সেও বৃদ্ধ আমিনের জীবনচাকা রিকশার প্যাডেলে

৮০ বছর বয়সেও বৃদ্ধ আমিনের জীবনচাকা রিকশার প্যাডেলে

তিস্তাসহ সব নদীর ভাঙন রোধে ৬ দফা দাবি 

তিস্তাসহ সব নদীর ভাঙন রোধে ৬ দফা দাবি 

মাদকবিরোধী রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৯ জন

মাদকবিরোধী রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৯ জন

কর্মবিরতির হুঁশিয়ারি ট্রাক কাভার্ডভ্যান মালিক শ্রমিকদের

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:৩৫

উত্থাপিত ১০ দফা দাবি আদায় না হলে ৪৮ ঘণ্টা কর্মবিরতিতে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বাংলাদেশ ট্রাক কাভার্ডভ্যান, ট্যাংক-লরী, প্রাইম মুভার মালিক-শ্রমিক সমন্বয় পরিষদ।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত এক জনসমাবেশে এ হুঁশিয়ারি দেন পরিষদের আহ্বায়ক রুস্তম আলী খান।

পরিষদের দাবিগুলো হলো— ট্রাক চালক লিটন হত্যার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে; ড্রাইভিং লাইসেন্সের জটিলতা নিরসন করে লাইসেন্স প্রদান করতে হবে; পণ্য পরিবহনের সময় মালামাল চুরি, ডাকাতি ও ছিনতাই রোধে জরুরি কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে ও এর সঙ্গে যেই জড়িত থাকুক না কেন তাকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে; বর্ধিত আয়কর প্রত্যাহার করে করোনাকালে পূর্বের ন্যায় জরিমানা ব্যতীত গাড়ির কাগজপত্র হালনাগাদ করার সুযোগ দিতে হবে; সড়ক-মহাসড়কে কাগজপত্র চেকিং এর নামে পুলিশি হয়রানি, চাঁদাবাজি, মান্থলি বা মাসিক মাসোহারা বন্ধ করতে হবে এবং মালিক ও শ্রমিক সমন্বয় পরিষদের নির্দেশিকা অনুযায়ী পরিচালন ব্যয় আদায় করার সুযোগ দিতে হবে।

দাবিগুলোর মধ্যে আরও রয়েছে, বিতর্কিত ব্যক্তিদের নিয়ে কমিটি করার উদ্যোগ বাতিল করতে হবে; সড়ক-মহাসড়কের পাশে এবং প্রত্যেক জেলায় আধুনিক সুযোগ সম্বলিত ট্রাক টার্মিনাল নির্মাণ করতে হবে; টার্মিনাল ব্যতিরেকে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনসহ সারাদেশের সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভার সড়ক এবং মহাসড়কে অবৈধ চাঁদা বন্ধ করতে হবে ও দেশে সড়ক মহাসড়কগুলো শুধুমাত্র হাইওয়ে পুলিশের অধীনে তদারকির ব্যবস্থা করতে হবে। নির্দিষ্ট স্থানে কাগজপত্র চেকিংয়ের ব্যবস্থা করতে হবে।

তবে উপরোক্ত ১০ দফা দাবি আদায় না হলে আগামী ২৭ ও ২৮ সেপ্টেম্বর পণ্য পরিবহনে কর্মবিরতি পালন করা হবে বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন পরিষদের নেতৃবৃন্দরা।

এ সময় সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন পরিষদের সদস্য সচিব তাজুল ইসলাম, ঢাকা জেলা ট্রাক ট্যাংক-লরী কাভার্ডভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি হাজী জয়নাল আবদীন, সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল জাব্বার প্রমুখ। 

/বিআই/এনএইচ/

সম্পর্কিত

ডেঙ্গু পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণে: মেয়র আতিক

ডেঙ্গু পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণে: মেয়র আতিক

৮০ বছর বয়সেও বৃদ্ধ আমিনের জীবনচাকা রিকশার প্যাডেলে

৮০ বছর বয়সেও বৃদ্ধ আমিনের জীবনচাকা রিকশার প্যাডেলে

তিস্তাসহ সব নদীর ভাঙন রোধে ৬ দফা দাবি 

তিস্তাসহ সব নদীর ভাঙন রোধে ৬ দফা দাবি 

মাদকবিরোধী রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৯ জন

মাদকবিরোধী রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৯ জন

একদিনে ২২১ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:১৬

গত ২৪ ঘণ্টায় (২৪-২৫ সেপ্টেম্বর) ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ২২১ জন। তাদের নিয়ে চলতি মাসে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মোট ছয় হাজার ৭৫৯ জন হাসপাতালে ভর্তি হলেন।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম এ তথ্য জানিয়েছে।

কন্ট্রোল রুমের তথ্যানুযায়ী, একদিনে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ২২১ জনের মধ্যে ঢাকার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১৬৪ জন আর ঢাকার বাইরের হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৫৭ জন।

দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে বর্তমানে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে এক হাজার ৯৯ জন ভর্তি আছেন। তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৮৮০ জন আর অন্যান্য বিভাগের হাসপাতালে ভর্তি আছেন ২১৯ জন।

চলতি বছরে এখন পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মোট ১৭ হাজার ১১৫ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তাদের মধ্যে ১৫ হাজার ৯৫৭ জন চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন। আর চলতি বছরে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ৫৯ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে কন্ট্রোল রুম।

কন্ট্রোল রুম জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় ২২১ জনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি রোগী ভর্তি হয়েছেন ২১ থেকে ৩০ বছর বয়সীরা। এই বয়সের রোগী ভর্তি হয়েছেন ২৪ দশমিক আট শতাংশ। এরপর রয়েছে ১১ থেকে ২০ বছর বয়সীরা; ২৪ দশমিক এক শতাংশ, শূন্য থেকে ১০ বছর বয়সীরা রয়েছে ২২ দশমিক ছয় শতাংশ, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে রয়েছে ১২ দশমিক আট শতাংশ, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে রয়েছেন পাঁচ দশমিক তিন শতাংশ, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে রয়েছেন চার দশমিক পাঁচ শতাংশ, ষাটোর্ধ রয়েছেন তিন দশমিক আট শতাংশ আর শূন্য থেকে এক বছর বয়সীদের হাসপাতালে ভর্তির হার দুই দশমিক তিন শতাংশ।

/জেএ/এনএইচ/

সম্পর্কিত

চিকিৎসকসহ সাড়ে ৯ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

চিকিৎসকসহ সাড়ে ৯ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

‘স্বস্তির ঢিলেমি’ আবারও বিপর্যয় আনতে পারে

‘স্বস্তির ঢিলেমি’ আবারও বিপর্যয় আনতে পারে

টানা দুই দিন করোনায় মৃত্যুহীন বরিশাল 

টানা দুই দিন করোনায় মৃত্যুহীন বরিশাল 

মাস বাকি আরও ৭ দিন, ডেঙ্গু রোগী ছাড়ালো সাড়ে ছয় হাজার 

মাস বাকি আরও ৭ দিন, ডেঙ্গু রোগী ছাড়ালো সাড়ে ছয় হাজার 

‘কক্সবাজারে নতুন রেললাইন চালু হবে আগামী বছর’

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:১৯

আগামী বছরের ডিসেম্বরে কক্সবাজারে নতুন রেললাইন চালু হবে বলে জানিয়েছেন রেলপথমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন। শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) কুমিল্লা রেলওয়ে স্টেশনে লাকসাম- কুমিল্লা সেকশনে ২৪ কিলোমিটার ডুয়েলগেজ ডাবল লাইনে ট্রেন চলাচলের উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন মন্ত্রী। এদিন বিকালে রেল মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

নূরুল ইসলাম সুজন আরও জানিয়েছেন,  যমুনা নদীর ওপর রেল সেতু নির্মাণ করা হচ্ছে যেটি ২০২৪ সালে চালু হবে।  পদ্মা সেতু রেল সংযোগ ঢাকা থেকে যশোর পর্যন্ত করা হচ্ছে।  খুলনা থেকে মংলা পর্যন্ত নতুন রেললাইন নির্মাণ করা হচ্ছে। এভাবে অনেক প্রকল্প নেওয়া হয়েছে রেলের উন্নয়নে ।

মন্ত্রী জানান, আখাউড়া থেকে টঙ্গী পর্যন্ত পরবর্তীতে ব্রডগেজ  করা হবে।  ভবিষ্যতে ঢাকা-চট্টগ্রাম পুরাটাই ডুয়েলগেজ ডাবল লাইনে উন্নীত করা হবে।

এ সময় তিনি নিরাপদ যাত্রার ক্ষেত্রে ট্রেনে ঢিল ছোড়ার বিরুদ্ধে জনসচেতনতা গড়ার আহ্বান জানান।  

উল্লেখ্য আখাউড়া-লাকসাম সেকশনে নতুন ৭২ কিলোমিটার ডুয়েলগেজ দ্বিতীয় রেললাইন নির্মাণ এবং বিদ্যমান ৭২  কিলোমিটার মিটার গেজ রেললাইনকে ডুয়েলগেজে রূপান্তর করা হচ্ছে। আজ লাকসাম কুমিল্লা সেকশনে ২৪ কিলোমিটার ট্রেন চলাচলের উদ্বোধন করেন রেলপথমন্ত্রী ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা-৫ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট আবুল হাশেম খান,  সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক ধীরেন্দ্র নাথ মজুমদার। বাংলাদেশ রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক জাহাঙ্গীর হোসেনসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

/এসটিএস/এমআর/

সম্পর্কিত

ট্রেনে কাটা পড়ে, ধাক্কা খেয়ে দুজনের মৃত্যু

ট্রেনে কাটা পড়ে, ধাক্কা খেয়ে দুজনের মৃত্যু

টিকিট শেষ, তবুও অপেক্ষা (ফটোস্টোরি)

টিকিট শেষ, তবুও অপেক্ষা (ফটোস্টোরি)

অনলাইনে টিকিট যুদ্ধের পর ট্রেনে ঈদযাত্রা

অনলাইনে টিকিট যুদ্ধের পর ট্রেনে ঈদযাত্রা

লোকাল ট্রেনে স্বাস্থ্যবিধি মানানো কঠিন: রেলমন্ত্রী

লোকাল ট্রেনে স্বাস্থ্যবিধি মানানো কঠিন: রেলমন্ত্রী

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ছেলেরা কি সোনা-রুপার অলঙ্কার পরতে পারবে?

ছেলেরা কি সোনা-রুপার অলঙ্কার পরতে পারবে?

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের

কেরানীগঞ্জে হেরোইনসহ গ্রেফতার ২

কেরানীগঞ্জে হেরোইনসহ গ্রেফতার ২

প্রত্যেকটি খালের পাড়ে ওয়াকওয়ে হবে: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

প্রত্যেকটি খালের পাড়ে ওয়াকওয়ে হবে: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

একটি হাত ব্যাগ ও সৌদি আরব প্রবাসীর কান্না-হাসি

একটি হাত ব্যাগ ও সৌদি আরব প্রবাসীর কান্না-হাসি

শিল্পকলা একাডেমিতে ‘শরৎ উৎসব’ উদ্বোধন

শিল্পকলা একাডেমিতে ‘শরৎ উৎসব’ উদ্বোধন

মাদকবিরোধী অভিযানে রাজধানীতে গ্রেফতার ৫২

মাদকবিরোধী অভিযানে রাজধানীতে গ্রেফতার ৫২

দুর্গাপূজাকে ঘিরে ব্যস্ত প্রতিমাশিল্পী,  উদযাপনের কিছু শর্ত শিথিল হতে পারে

দুর্গাপূজাকে ঘিরে ব্যস্ত প্রতিমাশিল্পী,  উদযাপনের কিছু শর্ত শিথিল হতে পারে

নদীর দখল রোধে আবার পিলার

নদীর দখল রোধে আবার পিলার

বাউবি’র স্থগিত বিএ ও বিএসএস পরীক্ষা  শুক্রবার শুরু

বাউবি’র স্থগিত বিএ ও বিএসএস পরীক্ষা  শুক্রবার শুরু

সর্বশেষ

থানার ওসি চাইলেই হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালা হতে পারেন‌: আইজিপি

থানার ওসি চাইলেই হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালা হতে পারেন‌: আইজিপি

জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ভাষণে মুগ্ধ মার্কিন রাষ্ট্রদূত

জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ভাষণে মুগ্ধ মার্কিন রাষ্ট্রদূত

অগ্রসর হচ্ছে নিম্নচাপ ‘গুলাব’, সতর্ক অবস্থানে স্বেচ্ছাসেবকরা

অগ্রসর হচ্ছে নিম্নচাপ ‘গুলাব’, সতর্ক অবস্থানে স্বেচ্ছাসেবকরা

ইবি লেকের দুঃখগাথা

ইবি লেকের দুঃখগাথা

জাতিসংঘ অধিবেশনে ভাষণের সুযোগ পাচ্ছেন না তালেবান প্রতিনিধি

জাতিসংঘ অধিবেশনে ভাষণের সুযোগ পাচ্ছেন না তালেবান প্রতিনিধি

© 2021 Bangla Tribune