X
মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

সিনহা হত্যার পর পুলিশের একটি ‘বন্দুকযুদ্ধ’

আপডেট : ০১ আগস্ট ২০২১, ১৫:০৩

মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যার পর কক্সবাজারের টেকনাফে কমেছে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা। গত ১২ মাসে পুলিশের সঙ্গে একটি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ একজন নিহত হয়েছেন। তবে র‌্যাব ও বিজিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ছয় জন নিহত হয়েছেন। সিনহা হত্যার আগে ওসি প্রদীপের সময় মাদকবিরোধী অভিযানের নামে ২২ মাসে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১২৩ জন নিহত হয়েছিলেন।

২০২০ সালের ৩১ জুলাই রাত ৯টার দিকে টেকনাফের বাহারছড়া শামলাপুর তদন্ত কেন্দ্রে গুলিতে নিহত হন সিনহা মো. রাশেদ খান। হত্যাকাণ্ড ধামাচাপা দিতে বরখাস্তকৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাশ একটি ‘সাজানো’ এজাহার দায়ের করেছিলেন।

ঘটনার পাঁচ দিনের মাথায় সিনহার বড় বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস বাদী হয়ে বাহারছড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের বরখাস্ত হওয়া সাবেক পরিদর্শক লিয়াকত আলী, টেকনাফ থানার বরখাস্ত হওয়া সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ নয় জনকে আসামি করে কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হত্যা মামলা করেন। মামলার পরদিন ৬ আগস্ট প্রধান আসামি লিয়াকত আলী ও প্রদীপ কুমার দাশসহ সাত পুলিশ সদস্য আদালতে আত্মসমর্পণ করেন।

২০২০ সালের ১৩ ডিসেম্বর প্রদীপ কুমার দাশ, লিয়াকত আলীসহ ১৫ জনকে অভিযুক্ত করে এবং ৮৩ জনকে সাক্ষী উল্লেখ করে মামলার অভিযোগপত্র দাখিল করেন র‌্যাব-১৫ এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ খায়রুল ইসলাম। এরপর বিচারকাজ শুরু করেন আদালত। সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য তিনটি তারিখ ধার্য থাকলেও করোনা পরিস্থিতির কারণে তা নেওয়া সম্ভব হয়নি।

মেজর (অব.) সিনহা টেকনাফের বাসিন্দারা বলছেন, সিনহা হত্যার পর ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ভয় কাটলেও এখনও মাদক কারবারিরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ায়। নতুন নতুন কৌশলে দেশে মাদক আনছে তারা। মাদকের সঙ্গে রোহিঙ্গাদের একটি অংশও জড়িত।

সিনহা হত্যার পর প্রদীপ কুমার দাশের নানা অপকর্ম এবং ‘বন্দুকযুদ্ধের’ সাজানো নাটক প্রকাশ পায়। বিচারবহির্ভূত হত্যার বিষয়টি আলোচনায় আসে। এরপর সরকার প্রজ্ঞাপন জারি করে কক্সবাজারের পুলিশ সুপার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও ওসিসহ দেড় হাজার পুলিশ সদস্যকে বদলি করেন। যেখানে কনস্টেবল থেকে শুরু করে বিভিন্ন পদমর্যাদার কর্মকর্তা ছিলেন। তখন টেকনাফ থানায় যোগ দেন ওসিসহ নতুন ১০৩ জন পুলিশ সদস্য।

এক বছরে পুলিশের সঙ্গে একটি ‘বন্দুকযুদ্ধ’

সিনহা হত্যার পাঁচ মাসে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটেনি টেকনাফে। চলতি বছরের ৬ জানুয়ারি টেকনাফের রাজারছড়া এলাকায় পুলিশের কাছ থেকে আসামি ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ খোরশেদ আলম নামে এক ব্যক্তি নিহত হন।

পুলিশের দাবি, রাজারছড়া এলাকায় মাদকসহ একাধিক মামলার আসামি শামসুল আলমকে আটক করে পুলিশ। তাকে নিয়ে থানায় ফেরার পথে একদল দুর্বৃত্ত অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সড়ক অবরোধ করে আসামিকে ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য পুলিশের ওপর হামলা চালায়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশ গুলি চালায়। দুই পক্ষের গোলাগুলিতে পুলিশের তিন সদস্য আহত ও গুলিবিদ্ধ হয়ে অর্থপাচার এবং মাদক মামলার আসামি খোরশেদ আলম নিহত হন। কিন্তু খোরশেদ আলম কার গুলিতে নিহত হয়েছেন, তা পুলিশ নিশ্চিত করেনি এখনও।

বদলে গেছে টেকনাফ থানা

বর্তমানে ওসিসহ ১০৩ জন পুলিশ সদস্য টেকনাফ মডেল থানায় দায়িত্ব পালন করছেন। এর মধ্যে পরিদর্শক তিন, উপপরিদর্শক ২০ ও সহকারী উপপরিদর্শক ২০ ও কনস্টেবল ৫৬ জন। থানার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি আগের চেয়ে উন্নত হয়েছে। আইনি সহায়তা পাচ্ছে সাধারণ মানুষ।

মাদক উদ্ধার

পুলিশ জানায়, ২০২০ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে চলতি বছরের ২৯ জুলাই পর্যন্ত মাদকবিরোধী অভিযানে পাঁচ লাখ ১৫ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এসব অভিযানে ৮৭৬ মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করা হয়। এছাড়া অস্ত্রধারীসহ বিভিন্ন অপরাধে ১৯৬ রোহিঙ্গাকে গ্রেফাতার করা হয়। তাদের কাছ থেকে আটটি পিস্তলসহ ৩০টি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। এসব ঘটনায় ৫৮৪টি মামলা হয়। এর মধ্য ২১টি খুন, অপহরণের সাতটি, বাকি ৫৫৬টি মাদক মামলা। এছাড়া সাজাপ্রাপ্ত আসামিসহ এক হাজার ৪৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

সিনহা হত্যার আগে ২০১৮ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে ২০২০ সালের ২৫ জুলাই পর্যন্ত ওসি প্রদীপের সময়ে মাদকবিরোধী অভিযানের নামে ২২ মাসে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১২৩ জন নিহত হয়েছিল। যাদের ডাকাত ও মাদক কারবারি হিসেবে দাবি করেছিল পুলিশ। সেসময় সাড়ে ২৭ লাখ ইয়াবাসহ এক হাজার ৯৬৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। এসব ঘটনায় ৯২৪টি মামলা হয়। একই সময়ে বিজিবি ও র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৭৪ জন নিহত হয়েছিল।

বর্তমানে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির বিষয়ে জানতে চাইলে টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাফিজুর রহমান বলেন, ‘আমি দায়িত্ব নেওয়ার পর নির্ভয়ে থানায় আসছে মানুষ। আস্থা অর্জনে জনবান্ধব হয়ে কাজ করছে পুলিশ। মাদক ঠেকানোর কার্যক্রম অব্যাহত আছে।’

আমার সময়ে থানা দালালমুক্ত হয়েছে জানিয়ে ওসি বলেন, ‘আগের কোনও ঘটনার জন্য পুলিশের কাজে ব্যাঘাত সৃষ্টি হচ্ছে না। মাদক উদ্ধারে সফলতা পাচ্ছি। এখন থানা সবার জন্য উন্মুক্ত।’

ওই এলাকার বাসিন্দা মৌলভী মোহাম্মদ ইমতিয়াজ বলেন, ‘সবসময় পরিস্থিতি একরকম থাকে না। এখন থানার মেইন গেট সবসময় খোলা থাকে। একসময় কান্নাকাটির পরও খোলা যেতো না। সময়টা ছিল ওসি প্রদীপের। তার সময়ে এত ভয়ানক পরিস্থিতি ছিল, সাধারণ মানুষের চলাফেরা কঠিন ছিল। প্রতিদিন ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটতো। বহু মানুষ নির্ঘুম রাত কাটিয়েছে। এখন সেই ভীতি নেই।’

ওসি প্রদীপ বদলে গেছে বাহারছড়া শামলাপুর তদন্ত কেন্দ্র

বাহারছড়া শামলাপুর তদন্ত কেন্দ্রে পুলিশের দায়দায়িত্ব ও কর্মকাণ্ডে পরিবর্তন এসেছে। গত ১৬ ডিসেম্বর তদন্ত কেন্দ্রে চারটি সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়। তল্লাশিচৌকিতে গ্লাস বসানো হয়। এখন আর গাড়ি থামিয়ে তল্লাশি করা হয় না।  

এ বিষয়ে বাহারছড়া শামলাপুর তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক নুর মোহাম্মদ বলেন, ‘মাদকসহ বিভিন্ন অপরাধ কর্মকাণ্ড ঠেকানোর পাশাপাশি পুলিশের কাজে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে সিসি ক্যামেরায় সবকিছু পর্যবেক্ষণ করা হয়। এখন আর পুলিশের বিরুদ্ধে মিথ্যা হয়রানির অভিযোগ দেওয়ার সুযোগ নেই। পুলিশও অকারণে কাউকে হয়রানির সুযোগ পাচ্ছে না।’  

শামলাপুর গ্রামের বাসিন্দা আবদুল হক বলেন, ‘একটি মোবাইলফোন চুরির অভিযোগে প্রদীপের নির্দেশে সাবেক পরিদর্শক লিয়াকত আলী আমার ছেলে রফিককে নির্যাতন করে হাত-পা ভেঙে দেয়। পরদিন তাকে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ নামে গুলি করে হত্যা করে। ছেলের হত্যাকারীদের শাস্তি চাই।’

 

/এএম/

সম্পর্কিত

‘নিবন্ধন-এসএমএসের ঝামেলা না থাকায় গণটিকায় খুশি’

‘নিবন্ধন-এসএমএসের ঝামেলা না থাকায় গণটিকায় খুশি’

২৮ কোটি টাকার চেক চুরি করা আইনজীবীর বিরুদ্ধে সমন

২৮ কোটি টাকার চেক চুরি করা আইনজীবীর বিরুদ্ধে সমন

রানীই সবচেয়ে ছোট গরু

রানীই সবচেয়ে ছোট গরু

এবার চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে কলেজছাত্রী নিখোঁজ

এবার চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে কলেজছাত্রী নিখোঁজ

‘নিবন্ধন-এসএমএসের ঝামেলা না থাকায় গণটিকায় খুশি’

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৪৪

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে দেশব্যাপী গণটিকা কার্যক্রম বাস্তবায়ন হচ্ছে। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) গণটিকার আওতায় ৭৫ লাখ মানুষকে টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া হবে। এদিকে ময়মনসিংহে গণটিকা দেওয়ার কার্যক্রমে সকাল থেকেই প্রতিটি কেন্দ্রে দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে। নারী ও পুরুষরা দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে টিকা নিচ্ছেন। 

নগরীর চরপাড়ার গৃহবধূ রত্না বেগম বলেন, টিকাদান কেন্দ্রে শুধু জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে গিয়েই টিকা দিতে পেরেছি। অন্য সময় টিকা দিতে হলে আগে থেকেই অনলাইনে নিবন্ধন করতে হতো। এসএমএস আসার পর টিকা দিতে হতো। কিন্তু গণটিকায় এমন ঝামেলা না থাকায় আমরা খুশি।   

mymensingh vaccination জেলা সিভিল সার্জন ডা. নজরুল ইসলাম বলেন, ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের ৩৩টি ওয়ার্ডে, ১০ পৌরসভার ৯০টি ওয়ার্ডে এবং ১৪৬টি ইউনিয়ন পরিষদের প্রতিটিতে একটি করে মোট ২৬৯টি কেন্দ্রে গণটিকা দেওয়া হচ্ছে। 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে চীনের সিনোফার্মের দুই লাখ ৩৮ হাজার টিকা দেওয়ার উদ্যোগের কথা জানিয়েছেন তিনি। টিকা দেওয়ার কার্যক্রম যথাযথভাবে হচ্ছে কিনা তা দেখভালের জন্য বেশ কিছু টিম মাঠে কাজ করছে বলেও জানান তিনি।

 

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

রানীই সবচেয়ে ছোট গরু

রানীই সবচেয়ে ছোট গরু

এবার চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে কলেজছাত্রী নিখোঁজ

এবার চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে কলেজছাত্রী নিখোঁজ

পানিতে ডুবে প্রথম শ্রেণির ২ ছাত্রীর মৃত্যু

পানিতে ডুবে প্রথম শ্রেণির ২ ছাত্রীর মৃত্যু

যে কারণে কাচকি মাছের চানাচুর উদ্ভাবন

যে কারণে কাচকি মাছের চানাচুর উদ্ভাবন

২৮ কোটি টাকার চেক চুরি করা আইনজীবীর বিরুদ্ধে সমন

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৩১

মামলার নথি থেকে ডিজঅনার হওয়া ২৮ কোটি টাকার একটি চেক চুরির ঘটনায় অভিযুক্ত আইনজীবী জোবায়ের মো. আরঙ্গজেবের বিরুদ্ধে সমন জারি করেছে আদালত। চেক চুরির ঘটনায় আইনজীবীর বিরুদ্ধে আদালতে মামলার পর সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. শফিউদ্দিন অভিযোগ আমলে নিয়ে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে সমন জারি করেন। 

বাদীর আইনজীবী সুলতান মো. অহিদ এ তথ্য জানিয়েছেন। বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, শিল্প প্রতিষ্ঠান এসএ গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান এসএ অয়েল রিফাইনারি লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার সৈয়দ ফরিদুল আলম মামলাটি করেন। 

সোমবার বাদীর জবানবন্দি গ্রহণের পর আদালত আসামি জোবায়েরের বিরুদ্ধে সমন জারি করেন। ১৫ নভেম্বরের মধ্যে তাকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

এর আগে, এসএ গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান এসএ অয়েল রিফাইনারি লিমিটেডের বিরুদ্ধে ২০১৩ সালে ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামি ব্যাংক লিমিটেড আগ্রাবাদ শাখা ২৭ কোটি ৯৭ লাখ ৮৮ হাজার ৭২০ টাকার চেক প্রত্যাখ্যাত (ডিজঅনার) হওয়ার অভিযোগে মামলা করে। মামলায় প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান মো. শাহাবুদ্দিন আলম ও তার স্ত্রী ইয়াসমিন আলমকে অভিযুক্ত করা হয়। মামলাটি চট্টগ্রাম মহানগর ৫ম যুগ্ম দায়রা জজ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। গত ৯ সেপ্টেম্বর বিকালে ওই আদালতে মামলার নথি দেখার সময় চেকটি কৌশলে নিয়ে যান জোবায়ের। পরে রাত ১০টায় তার কাছ থেকে এটি উদ্ধার করা হয়।

জোবায়েরের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার অভিযোগে বলা হয়, জোবায়ের আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্তির আগে এসএ রিফাইনারিতে চাকরি করতেন। নানা অনিয়মের কারণে তাকে চাকরিচ্যুত করা হয়। জোবায়ের চেক ডিজঅনার মামলায় কখনও প্রতিষ্ঠানটির আইনজীবী ছিল না। জোবায়েরকে কখনও ওকালতনামাও দেওয়া হয়নি। এরপরও তিনি মামলার নথি পর্যবেক্ষণ করেন। চেক চুরি করে ধরা পড়ার ঘটনায় প্রতিষ্ঠানটি অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে লেনদেন ও ব্যাংকিং লেনদেনে সমস্যার মুখে পড়েছে। চেক চুরির ঘটনার পর প্রতিষ্ঠানটি লেনদেনে বাধাপ্রাপ্ত হয়ে ১০ কোটি টাকা ক্ষতির সম্মুখীন হয়। এ ঘটনায় ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে বলে দাবি করেছে প্রতিষ্ঠানটি। 

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

এবার চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে কলেজছাত্রী নিখোঁজ

এবার চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে কলেজছাত্রী নিখোঁজ

জামায়াতের দুই শীর্ষ নেতাসহ ৯৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

জামায়াতের দুই শীর্ষ নেতাসহ ৯৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

কাটা পড়তে পারে চাঁদপুরের ‘মিনি কক্সবাজার’

কাটা পড়তে পারে চাঁদপুরের ‘মিনি কক্সবাজার’

হাসপাতালে গৃহবধূর লাশ ফেলে স্বামীর পরিবার উধাও

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:১৮

জেলা সদর হাসপাতালে রিমু আক্তার নামের এক গৃহবধূর লাশ রেখে পালিয়ে গেছে স্বামীর পরিবার। সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) এই ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেছে। তবে নিহতের বাবা আলম হোসেনের অভিযোগ, একটি হত্যা মামলা দায়ের করতে থানায় গেলে অভিযোগ গ্রহণ করেনি পুলিশ।

মৃত রিমু আক্তার শহরের দক্ষিণ সালন্দর শান্তি নগরে তার স্বামী তামিম হোসেনের পরিবারের সঙ্গে বাস করতেন। 

হাসপাতাল সূত্র জানায়, রবিবার (২৬) সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় এক মৃত মেয়েকে নিয়ে কিছু মানুষ হাসপাতালে আসে। তবে কিছু সময় পরেই হাসপাতালের জরুরি ওয়ার্ডে লাশটি ফেলে পালিয়ে যায় তারা। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পুলিশকে খবর দেয়।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে পেরেই অজ্ঞাত পরিচয়ের লাশ উদ্ধার করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি জিয়ারুল জিয়া। 

তিনি বলেন, লাশটি থানায় আনার পর আমরা গৃহবধূর পরিবারের সন্ধান করতে থাকি। পরে মৃতের পিতার পরিবারের সন্ধান পেয়ে তাদের অবগত করা হয়। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে ও তদন্ত চলছে।

এদিকে ঘটনা জানতে শান্তিনগরে রিমুর শ্বশুড়বাড়িতে গেলে দেখা যায় পরিবারের সবাই বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছেন। 

তবে পুলিশ কেন মৃতের পিতার অভিযোগ গ্রহণ করেনি, জানতে চাইলে ওসি জিয়ারুল বলেন, সুরতহাল রিপোর্টে দেখা যায়, লাশের শরীরে কোনও ক্ষতচিহ্ন ছিল না। একই ঘটনায় একই সময় একটা মামলা হলে তদন্ত না হওয়া পর্যন্ত আরেকটি মামলা হতে পারে না। এ ঘটনায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে, ময়না তদন্ত, ভিসেরা রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ বোঝা যাবে। তখন পরিবারের লোকের জবানবন্দি নিয়ে যদি হত্যাকাণ্ড হিসেবে এটা প্রতীয়মান হয়, তাহলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে নীলফামারীতে ২০২ জনকে সহায়তা

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে নীলফামারীতে ২০২ জনকে সহায়তা

সাবেক যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে ৩৫ কোটি টাকা লন্ডারিংয়ের মামলা

সাবেক যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে ৩৫ কোটি টাকা লন্ডারিংয়ের মামলা

ভারত থেকে আমদানি হচ্ছে চুল, কেজি ৫৩০০ টাকা

ভারত থেকে আমদানি হচ্ছে চুল, কেজি ৫৩০০ টাকা

কুড়িগ্রামে সাহিত্যিক সৈয়দ শামসুল হকের পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

কুড়িগ্রামে সাহিত্যিক সৈয়দ শামসুল হকের পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

রানীই সবচেয়ে ছোট গরু

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:০৫

আশুলিয়ার চারিগ্রাম এলাকার শিকড় অ্যাগ্রোর রানী সবচেয়ে ছোট গরুর স্বীকৃতি পেয়েছে। সোমবার রাতে (২৭ সেপ্টেম্বর) প্রতিষ্ঠানটির মালিক আবু সুফিয়ান বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এর আগে বিকালে ই-মেইলের মাধ্যমে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিশ্চিত করে।

জানা গেছে, প্রায় এক বছর আগে নওগাঁ জেলা থেকে গরুটি সংগ্রহ করেছিল ফার্ম কর্তৃপক্ষ। গিনেজ বুকে নাম লেখানোর জন্য গত ২ জুলাই গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করা হয়। এর পর গত ১৯ আগস্ট বক্সার ভুট্টি জাতের খর্বাকৃতির গরুটির পেটে গ্যাস জমে মারা যায় বলে নিশ্চিত করেন সাভার উপজেলার উপ-সহকারী প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা আব্দুল মোতালিব ।

গিনজ বুকের স্বীকৃতি শিকড় অ্যাগ্রোর মালিক আক্ষেপের সঙ্গে বলেন, রানী বেঁচে থাকলে আজকের দিনটি অনেক আনন্দময় হতো। তবে রানী মারা যাওয়ার পর তার পোস্টমর্টেম রিপোর্ট গিনেজ বুক কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়েছিল। তারা মূলত হরমোন জাতীয় ইনজেকশন পুশ করে গরুটিকে বামন করা হয়েছিল কিনা, সে বিষয়ে নিশ্চিত হতে চেয়েছিল। তবে এ ধরনের কোনও রিপোর্ট না পেয়ে তিন দিন আগেই রানীকে বিশ্বের সবচেয়ে ছোট গরুর স্বীকৃতি দেওয়া হয়। সোমবার এই সংক্রান্ত একটি সার্টিফিকেট মেইলের মাধ্যমে পাঠানো হয় বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, শিকড় অ্যাগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ ফার্মের বক্সার ভুট্টি জাতের দুই দাঁতের খর্বাকৃতির গরুটির ওজন ছিল ২৬ কেজি আর উচ্চতা ২০ ইঞ্চি। গরুটির বয়স হয়েছিল দুই বছর। গিনেজ বুকে এর আগের রেকর্ড অনুযায়ী বিশ্বের সবেচেয়ে ছোট গরুটি ছিল ভারতের কেরালা রাজ্যের। চার বছর বয়সী ওই গরুটি উচ্চতায় ২৪ ইঞ্চি, আর ওজন ২৬ কেজি। 

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

‘নিবন্ধন-এসএমএসের ঝামেলা না থাকায় গণটিকায় খুশি’

‘নিবন্ধন-এসএমএসের ঝামেলা না থাকায় গণটিকায় খুশি’

এবার চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে কলেজছাত্রী নিখোঁজ

এবার চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে কলেজছাত্রী নিখোঁজ

আ.লীগের দুই গ্রুপের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি, ১৪৪ ধারা জারি

আ.লীগের দুই গ্রুপের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি, ১৪৪ ধারা জারি

১৬ কেজির কাতল ২৪ হাজার টাকায় বিক্রি

১৬ কেজির কাতল ২৪ হাজার টাকায় বিক্রি

এবার চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে কলেজছাত্রী নিখোঁজ

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৪১

অসাবধানতাবশত ড্রেনে পড়ে ব্যবসায়ী ছালেহ উদ্দিন নিখোঁজের এক মাসের মাথায় এবার সাদিয়া নামে এক কলেজছাত্রী ড্রেনে পড়ে নিখোঁজ হয়েছেন। সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টার পর আগ্রাবাদ বাদামতলী এলাকায় নালার পাশ দিয়ে হেঁটে বাসায় যাওয়ার সময় ওই তরুণী নালায় পড়ে ময়লা আবর্জনার মধ্যে ডুবে যান।  

আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন ম্যানেজার মো. কফিল উদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম তাকে উদ্ধারে কাজ শুরু করে।  

নিখোঁজ সাদিয়া (২০) নগরীর সদরঘাট ইসলামীয়া ডিগ্রি কলেজের ছাত্রী বলে জানা গেছে। স্থানীয়রা জানান, সাদিয়া তার মামার সঙ্গে আগ্রাবাদ এলাকার একটি মার্কেট থেকে চশমা কিনে বাসায় ফিরছিলেন। এসময় ফুটপাত ধরে হাটার সময় তিনি পা পিছলে খোলা ড্রেনে পড়ে যান। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা মো. কফিল উদ্দিন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, সাদিয়া নামের ওই ছাত্রী রাত সোয়া ১০ টার দিকে আগ্রাবাদ মাজারগেট এলাকার ড্রেনে পড়ে যান। খবর পেয়ে আমাদের একটি ডুবুরি দল, একটি স্পেশাল দলসহ মোট চারটি টিম উদ্ধারে কাজ শুর করে। তবে এখন পর্যন্ত আমরা তার কোনও সন্ধান পায়নি। 

/টিটি/

সম্পর্কিত

‘নিবন্ধন-এসএমএসের ঝামেলা না থাকায় গণটিকায় খুশি’

‘নিবন্ধন-এসএমএসের ঝামেলা না থাকায় গণটিকায় খুশি’

২৮ কোটি টাকার চেক চুরি করা আইনজীবীর বিরুদ্ধে সমন

২৮ কোটি টাকার চেক চুরি করা আইনজীবীর বিরুদ্ধে সমন

রানীই সবচেয়ে ছোট গরু

রানীই সবচেয়ে ছোট গরু

জামায়াতের দুই শীর্ষ নেতাসহ ৯৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

জামায়াতের দুই শীর্ষ নেতাসহ ৯৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

‘নিবন্ধন-এসএমএসের ঝামেলা না থাকায় গণটিকায় খুশি’

‘নিবন্ধন-এসএমএসের ঝামেলা না থাকায় গণটিকায় খুশি’

২৮ কোটি টাকার চেক চুরি করা আইনজীবীর বিরুদ্ধে সমন

২৮ কোটি টাকার চেক চুরি করা আইনজীবীর বিরুদ্ধে সমন

রানীই সবচেয়ে ছোট গরু

রানীই সবচেয়ে ছোট গরু

এবার চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে কলেজছাত্রী নিখোঁজ

এবার চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে কলেজছাত্রী নিখোঁজ

জামায়াতের দুই শীর্ষ নেতাসহ ৯৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

কনস্টেবল তারেক হত্যাজামায়াতের দুই শীর্ষ নেতাসহ ৯৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

কাটা পড়তে পারে চাঁদপুরের ‘মিনি কক্সবাজার’

কাটা পড়তে পারে চাঁদপুরের ‘মিনি কক্সবাজার’

গভীর রাতে পালানো ৩৫ রোহিঙ্গাকে জঙ্গল থেকে আটক

গভীর রাতে পালানো ৩৫ রোহিঙ্গাকে জঙ্গল থেকে আটক

ভোগান্তি কমলো ঢাকা-চট্টগ্রামসহ ৪ রেলপথের যাত্রীদের

ভোগান্তি কমলো ঢাকা-চট্টগ্রামসহ ৪ রেলপথের যাত্রীদের

টেকনাফে অস্ত্র ও ইয়াবাসহ আটক ৩

টেকনাফে অস্ত্র ও ইয়াবাসহ আটক ৩

সর্বশেষ

‘নিবন্ধন-এসএমএসের ঝামেলা না থাকায় গণটিকায় খুশি’

‘নিবন্ধন-এসএমএসের ঝামেলা না থাকায় গণটিকায় খুশি’

সাংবাদিক হামিদুজ্জামান রবি মারা গেছেন

সাংবাদিক হামিদুজ্জামান রবি মারা গেছেন

২৮ কোটি টাকার চেক চুরি করা আইনজীবীর বিরুদ্ধে সমন

২৮ কোটি টাকার চেক চুরি করা আইনজীবীর বিরুদ্ধে সমন

হাসপাতালে গৃহবধূর লাশ ফেলে স্বামীর পরিবার উধাও

হাসপাতালে গৃহবধূর লাশ ফেলে স্বামীর পরিবার উধাও

প্রধানমন্ত্রীর ৭৫তম জন্মদিনে ৭৫ লাখ টিকা দেওয়ার কার্যক্রম শুরু 

প্রধানমন্ত্রীর ৭৫তম জন্মদিনে ৭৫ লাখ টিকা দেওয়ার কার্যক্রম শুরু 

© 2021 Bangla Tribune