X
শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৯ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ

শিশুর মুখের স্বাস্থ্যে বুকের দুধ

আপডেট : ০৩ আগস্ট ২০২১, ০৭:০০

‘মাতৃদুগ্ধ দানের সুরক্ষা: আমাদের সমন্বিত দায়িত্ব’ এই প্রতিপাদ্যে ১ থেকে ৭ আগস্ট বিশ্বের প্রায় ১২০টি দেশের সঙ্গে আমাদের দেশেও পালিত হচ্ছে বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ। ১৯৯২ সাল থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে সপ্তাহটি উদযাপন শুরু হয়।

 

শিশু ভূমিষ্ঠের প্রথম ঘণ্টার মধ্যে মায়ের দুধ দিলে গর্ভফুল পড়তে সহজ হয়, রক্তক্ষরণ বন্ধ হয়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, মাতৃদুগ্ধ পানে শিশু যেমন সুস্থ-সবল হয়ে বেড়ে ওঠে, তেমনি তার সর্বোচ্চ শারীরিক বৃদ্ধি ও মানসিক বিকাশ নিশ্চিত হয়। উপকৃত হন প্রসূতি নিজেও। মাতৃদুগ্ধ পান করালে বছরে আট লাখের বেশি শিশুর জীবন রক্ষা পাবে বলে গবেষণায় উঠে এসেছে।

মাতৃদুগ্ধ পান করালে মায়েদের স্তন ক্যানসার, ডিম্বাশয়ের ক্যানসার, টাইপ–২ ডায়াবেটিস ও হৃদরোগের ঝুঁকি হ্রাস পায়। শিশুর রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়ে। ডায়রিয়া হওয়ার প্রবণতা ও এর তীব্রতার ঝুঁকি কমাতে পারে বুকের দুধ। শ্বাসযন্ত্রের সংক্রমণ এবং কানের প্রদাহ কমায় এটি। দাঁত ও মাড়ির গঠনে সহায়তা করাসহ অনেক উপকারিতা আছে মাতৃদুগ্ধের।

 

পর্যাপ্ত পুষ্টি সরবরাহ

জন্মের পর প্রথম ছয়মাস শিশুর রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা, দাঁত ও হাড় গঠন ও মজবুত হয় বুকের দুধের কারণে। হজম প্রক্রিয়া স্বাভাবিক রাখাসহ প্রায় সব ভিটামিন ও খনিজের যোগান দেয় বুকের দুধ। ফিডারের দুধ বা ফর্মুলা খাবার কখনই এগুলো পূরণ করতে পারে না।

 

মুখের স্বাস্থ্য

বোতলজাত দুধে অভ্যস্ত শিশুদের দাঁতে ক্যারিজ বা গর্তসহ ছত্রাক সংক্রমণের ঝুঁকি অনেক বেশি থাকে। নার্সিং বোতল ক্যারিজ নামের একটি সমস্যাও দেখা দেয়। যার কারণে বাচ্চাদের সামনের দাঁত ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এতে অরুচি, অপুষ্টি, মনোযোগের ঘাটতি, প্রাণচাঞ্চল্য ও স্মৃতিশক্তি কমে যাওয়াসহ নানা জটিলতা দেখা দিতে পারে। মাতৃদুগ্ধ পানে শিশুর মুখের স্বাস্থ্য তুলনামূলক ভালো থাকে।

 

আঁকাবাঁকা দাঁত প্রতিরোধ

ব্যক্তিত্ব প্রকাশ ও আত্মবিশ্বাস বাড়াতে সুন্দর সুজজ্জিত দাঁতও গুরুত্বপূর্ণ। গবেষণায় দেখা গেছে যে শিশুরা তাদের জীবনের প্রথম ছয় মাস বুকের দুধ পান করেছে তাদের এলোমেলো দাঁত হওয়ার আশঙ্কা ৭২ শতাংশ কমে যায়। স্তন্যপায়ী শিশুদের চোয়ালের গঠন ও মাংশপেশীর টান স্বাভাবিক থাকে।

 

ল্যাকটেটিং মায়েরা খেয়াল রাখবেন

বুকের দুধ পান করাচ্ছেন, এমন মায়েদের যেকোনও চিকিৎসার ক্ষেত্রে দুগ্ধপানের বিষয়টি চিকিৎসককে জানাতে হবে। কারণ অনেক ওষুধ বুকের দুধে মিশে শিশুর শরীরে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করতে পারে। তবে কোনও কুসংস্কার বা অবৈজ্ঞানিক ধারণার ওপর ভিত্তি করে শিশুর বুকের দুধ বন্ধ করা উচিত নয়।

/এফএ/

সম্পর্কিত

নিজেই বানান নারিকেল তেল

নিজেই বানান নারিকেল তেল

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

তেল-চর্বি বেশি খেয়ে ফেললে কী করবেন?

তেল-চর্বি বেশি খেয়ে ফেললে কী করবেন?

খাবার দীর্ঘদিন ভালো রাখার ৫ উপায়

খাবার দীর্ঘদিন ভালো রাখার ৫ উপায়

নিজেই বানান নারিকেল তেল

আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:০১

উপমহাদেশের কিছু রেসিপিতে নারিকেল তেল না হলে চলেই না। আমাদের দেশেও অনেক অঞ্চলে নারিকেলের মালাইকারির কদর অনেক। যদি নিজেই নারিকেল থেকে তেলটা বের করে নিতে পারেন, তবে তো কথাই নেই। আর রান্নায় যেহেতু চুলে মাখার তেল ব্যবহার করা যাচ্ছে না, তাই নিরাপত্তার খাতিরে নিজেই বানিয়ে ফেলুন।

 

যেভাবে বানাবেন নারিকেল তেল

  • নারিকেল কোরানো ঝামেলার কাজ মনে হলে আছে বিকল্প। দুভাগ করা নারিকেলটাকে ওভেনে মিনিট পাঁচেক মাইক্রোওয়েভ করুন। এতে খোল থেকে নারিকেল আলাদা করাটা সহজ হয়ে যাবে।
  • নারিকেলগুলোকে ছোট টুকরো করে কাটুন। তারপর সামান্য পানি মিশিয়ে কয়েক ব্যাচে ব্লেন্ড করুন। প্রতিবারে অন্তত ২ মিনিট করে ব্লেন্ড করুন। এতে নারিকেল দুধ তৈরি হবে।
  • পাল্পটা ছেঁকে তরল অংশটুকু একটি পাত্রে নিন। অল্প আঁচে জ্বাল দিতে থাকুন।
  • কিছুক্ষণ পর তরলের মধ্যে নারিকেলগুলো দলা পাকানো শুরু করবে। এটা স্বাভাবিক। ধীরে ধীরে আরও দলা পাকিয়ে আসবে। অল্প আঁচে জ্বলতে থাকুক চুলা।
  • এক পর্যায়ে দেখবেন নারিকেল থেকে তেল আলাদা হতে শুরু করেছে। প্রায় এক ঘণ্টা পর সম্পূর্ণ তেলটাই আলাদা হবে। এরপর চুলা বন্ধ করে ঠান্ডা হতে দিন। ঠান্ডা হওয়ার পর সহজেই তেলটা ছেঁকে নিতে পারবেন।

 

নারিকেল তেলের স্বাস্থ্য উপকার

পরিমিত মাত্রায় নারিকেল তেল খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। শরীরে ভালো কোলেস্টেরলও বাড়ায় এটি। নারিকেল তেল হজমেও সহায়ক। আবার মুখগহ্বরের যত্নে নারিকেল মাউথওয়াশের কাজও করে।

 

 

/এফএ/

সম্পর্কিত

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

তেল-চর্বি বেশি খেয়ে ফেললে কী করবেন?

তেল-চর্বি বেশি খেয়ে ফেললে কী করবেন?

খাবার দীর্ঘদিন ভালো রাখার ৫ উপায়

খাবার দীর্ঘদিন ভালো রাখার ৫ উপায়

ঢাকা রিজেন্সিতে পর্যটন উৎসবে যত অফার

ঢাকা রিজেন্সিতে পর্যটন উৎসবে যত অফার

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:১৭

আসছে মটরশুঁটির মৌসুম। শীতের শস্য হিসেবে এর তুলনাই হয় না। আছে ভিটামিন এ, বি, সি, ই ও জিংক। ডায়াবেটিসসহ আরও অনেক রোগের জন্যই এটি উপকারী। এসব কারণে মৌসুম এলে মটরশুঁটি চলেও বেশ। আর সেটার সুযোগ নেয় অসাধুরা। তাই কারও কাছ থেকে বেশি পরিমাণে কেনার আগে কিংবা কেনার পর খাওয়ার আগে পরীক্ষা করে দেখে নিন, চকচকে সবুজ রঙটা প্রাকৃতিক নাকি রাসায়নিক?

 

যেভাবে পরীক্ষা করবেন

একটি স্বচ্ছ গ্লাসে পরিষ্কার পানি নিন। তাতে কিছু মটরশুঁটি রাখুন। অনেক নকল রঙ সঙ্গে সঙ্গে ঘষলেই কিন্তু বের হবে না। তাই অপেক্ষা করুন অন্তত আধা ঘণ্টা। রঙ নকল হলে দেখবেন পানি সবুজাভ হয়ে গেছে। আসল মটরশুঁটি হলে এমনটা কখনই হবে না।মটর

/এফএ/

সম্পর্কিত

নিজেই বানান নারিকেল তেল

নিজেই বানান নারিকেল তেল

তেল-চর্বি বেশি খেয়ে ফেললে কী করবেন?

তেল-চর্বি বেশি খেয়ে ফেললে কী করবেন?

খাবার দীর্ঘদিন ভালো রাখার ৫ উপায়

খাবার দীর্ঘদিন ভালো রাখার ৫ উপায়

ঢাকা রিজেন্সিতে পর্যটন উৎসবে যত অফার

ঢাকা রিজেন্সিতে পর্যটন উৎসবে যত অফার

তেল-চর্বি বেশি খেয়ে ফেললে কী করবেন?

আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৩৫

‘একবেলা খেলে কিছু হবে না’ এমন ফাঁদে পড়ে যারা প্রেসক্রিপশনের বাইরে একটু বেশিই কোলেস্টেরলযুক্ত খাবার খেয়ে ফেলেন তাদের জন্যও আছে সমাধান। চলুন দেখা যাক বিশেষজ্ঞরা কী টিপস দিচ্ছেন এ নিয়ে—

 

কুসুম গরম পানি

যখনই মনে হবে তেল-চর্বি জাতীয় খাবার একটু বেশিই গিলে ফেলেছেন, খাওয়ার ৩০-৩৫ মিনিট পর থেকে কুসুম গরম পানি পান করতে শুরু করুন। বিশেষজ্ঞদের মতে, কুসুম গরম পানি খাবার দ্রুত হজম করতে সাহায্য করে। এতে অপকারী উপাদানগুলোও ভেঙে শরীর থেকে বের করে দেয়। এমনিতে সবসময়ই হালকা গরম পানি পানের পরামর্শ দিয়ে থাকেন গবেষকরা।

 

লেবু পানি

তেল-চর্বি বেশি খাওয়ার পর যদি হাঁসফাস লাগে তবে লেবু পানি হতে পারে আদর্শ। খাবারের তেলজাতীয় উপাদানগুলোকে শরীর থেকে বের করে দিতেও এর জুড়ি নেই।

 

হাঁটুন

কোলেস্টেরল কমাতে হাঁটার বিকল্প নেই। তাই যখনই মনে হবে ‘আজ একটু বেশিই হয়ে গেছে’ চটজলদি হেঁটে আসুন মিনিট বিশেকের জন্য। পাকস্থলীর কার্যকারিতাও বাড়বে এতে।

 

প্রোবায়োটিক

শরীরের ওপর চাপ পড়ে এমন খাবার একগাদা খেয়ে ফেললে প্রোবায়োটিক জাতীয় খাবার যেমন টকদই খেতে দোষ নেই। উল্টো এটি আমাদের পাকস্থলী ও হজম ব্যবস্থাকে বাগে নিয়ে আসবে। এক্ষেত্রে ভারী খাবার খাওয়ার ২০ মিনিট পর দই খেলে উপকার মিলবে বেশি।

 

ফল

খাওয়ার পর ফল খাওয়াও ভালো। তবে তা যেন হয় কমপক্ষে এক ঘণ্টা পর। এতে হজমপ্রক্রিয়ার উপকারের পাশাপাশি দূর হবে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা।

 

পরের মিলটা মেপে মেপে

এক বেলা তো চাপে পড়ে খেয়েই ফেললেন, তো পরের মিলটা হবে একদম মেপে। এক্ষেত্রে স্যুপ বা সহজপাচ্য খাবারই রাখুন পাতে।

 

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

 

 

/এফএ/

সম্পর্কিত

নিজেই বানান নারিকেল তেল

নিজেই বানান নারিকেল তেল

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

খাবার দীর্ঘদিন ভালো রাখার ৫ উপায়

খাবার দীর্ঘদিন ভালো রাখার ৫ উপায়

ঢাকা রিজেন্সিতে পর্যটন উৎসবে যত অফার

ঢাকা রিজেন্সিতে পর্যটন উৎসবে যত অফার

খাবার দীর্ঘদিন ভালো রাখার ৫ উপায়

আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:৪৪

সহজ কিছু উপায়ে খাবার সংরক্ষণ করা যায় অনেকদিন। আজ জেনে নিই এমন পাঁচটি উপায়।

  • বিস্কুট, চানাচুর, মুড়ি, চিড়া ইত্যাদি অনেকদিন সংরক্ষণ করতে হয়। কিন্তু সমস্যা হলো এসব শুকনো খাবার দ্রুত নরম হয়ে যায় আর মচমচে ভাবটা থাকে না। তাই যে পাত্রে বা বয়ামে এসব শুকনো খাবার সংরক্ষণ করবেন তাতে সামান্য চিনি অথবা কিছু কাগজের টুকরো ছড়িয়ে দিন। কাগজের টুকরোগুলো মোটা এবং শুকনো হতে হবে। এতে বিস্কুট ও এ জাতীয় খাবার মচমচে থাকবে। 
  • লবণ গলে যাওয়া খুব বিরক্তিকর সমস্যা। এ সমস্যা এড়াতে লবণের পাত্রে চালের পুঁটলি রাখতে পারেন। পুঁটলিটা হবে বেশ ছোট। যেকোনো পাতলা সুতির কাপড়ে অল্প কিছু চাল নিয়ে মুখটি বন্ধ করে লবণের পাত্রে রেখে দিলেই হবে। এতে দীর্ঘদিন লবণ ঝরঝরে থাকবে, কারণ চাল আর্দ্রতা শোষণ করে দ্রুত।
  • রসুন বেশিদিন রেখে দিলে পচে যেতে থাকে। তবে একটা প্যাকেটে কিছু ছিদ্র করে তাতে রসুন ভরে প্যাকেটের মুখ আটকে রাখলে দীর্ঘদিন ভালো থাকবে রসুন।
  • হলুদ-মরিচের গুঁড়ো দীর্ঘদিন রাখলে দানা বেঁধে যায়। এ সমস্যা থেকে বাঁচতে হলুদ, মরিচ রাখার পাত্রে খানিকটা লবণ মিশিয়ে নিন। এতে গুঁড়ো দীর্ঘদিন ঝরঝরে থাকবে। আবার, ডালে দানা বাঁধা দূর করতে ডালে সামান্য সরিষার তেল মিশিয়ে রাখুন। 
  • ফ্রিজে লেবু রেখে দিলে কিছুদিন পর দেখা যায় লেবু শুকিয়ে গেছে, চিপলেও রস বের হয় না। তাই লেবু কাগজে মুড়ে একটা পলিব্যাগে ফ্রিজে সংরক্ষণ করুন।

 

 

/এফএ/

সম্পর্কিত

নিজেই বানান নারিকেল তেল

নিজেই বানান নারিকেল তেল

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

তেল-চর্বি বেশি খেয়ে ফেললে কী করবেন?

তেল-চর্বি বেশি খেয়ে ফেললে কী করবেন?

ঢাকা রিজেন্সিতে পর্যটন উৎসবে যত অফার

ঢাকা রিজেন্সিতে পর্যটন উৎসবে যত অফার

ঢাকা রিজেন্সিতে পর্যটন উৎসবে যত অফার

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:০০

বিশ্ব পর্যটন দিবস উপলক্ষে ঢাকা রিজেন্সি হোটেল এন্ড রিসোর্ট দ্বিতীয়বারের মতো আয়োজন করতে যাচ্ছে ‘ঢাকা রিজেন্সি ট্যুরিজম ফেস্ট-২০২১’। ১০ দিন ব্যাপী চলবে এ উৎসব।

হোটেলের গ্রান্ডিওস রেস্তোরাঁয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে উৎসবটি শুরু হতে যাচ্ছে ২৩ সেপ্টেম্বর। চলবে ২ অক্টোবর পর্যন্ত। উৎসবের অন্যতম আকর্ষণ হিসেবে থাকছে বাংলাদেশের আঞ্চলিক খাবার এবং ৪৪৪৪ টাকায় একটি বুফের মূল্যে তিনটি বুফে ডিনার উপভোগের সুযোগ। একইসঙ্গে থাকছে ৩৪৯৯ টাকায় একটি বুফের মূল্যে দুইটি বুফে ডিনার। এ ছাড়াও রয়েছে ১১,১১১ টাকায় পরিবারসহ ব্রেকফাস্ট, লাঞ্চ এবং বুফে ডিনার উপভোগ করতে ‘ফ্যামিলি স্টে’ অফার। ‘হ্যাপি স্টে’ অফারে শুধু রুম পাওয়া যাবে ৬৬৬৬ টাকায়।

টুরিজম ফেস্ট উপলক্ষে আকর্ষণীয় রুফটপ গার্ডেন রেস্তোরাঁ ‘গ্রিল অন দা স্কাইলাইন’-এ অতিথিদের জন্য থাকছে ১৫ শতাংশ ডিসকাউন্ট এবং রুফটপ-এর সুইমিং পুলে সিঙ্গেল ও কাপলদের জন্য রয়েছে ফ্রেশ জুস ও বিশেষ মূল্যে সেট- লাঞ্চ।

হোটেলটির লয়ালটি প্রোগ্রাম 'ঢাকা রিজেন্সি প্রিমিয়ার ক্লাব' মেম্বাররা পাচ্ছেন সবগুলো আউটলেটে মেম্বারশিপ সুবিধাসহ সকল অফারে অগ্রাধিকার।

বিস্তারিত জানতে: 01713332661

/এফএ/

সম্পর্কিত

নিজেই বানান নারিকেল তেল

নিজেই বানান নারিকেল তেল

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

তেল-চর্বি বেশি খেয়ে ফেললে কী করবেন?

তেল-চর্বি বেশি খেয়ে ফেললে কী করবেন?

খাবার দীর্ঘদিন ভালো রাখার ৫ উপায়

খাবার দীর্ঘদিন ভালো রাখার ৫ উপায়

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

নিজেই বানান নারিকেল তেল

নিজেই বানান নারিকেল তেল

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

তেল-চর্বি বেশি খেয়ে ফেললে কী করবেন?

তেল-চর্বি বেশি খেয়ে ফেললে কী করবেন?

খাবার দীর্ঘদিন ভালো রাখার ৫ উপায়

খাবার দীর্ঘদিন ভালো রাখার ৫ উপায়

ঢাকা রিজেন্সিতে পর্যটন উৎসবে যত অফার

ঢাকা রিজেন্সিতে পর্যটন উৎসবে যত অফার

দুশ্চিন্তা কতভাবে শরীরের ক্ষতি করে?

দুশ্চিন্তা কতভাবে শরীরের ক্ষতি করে?

ভাতে আছে বিপদ, বিষমুক্ত করবেন যেভাবে

ভাতে আছে বিপদ, বিষমুক্ত করবেন যেভাবে

পিজ্জাবার্গ ও ডনমেক-এ একদিন

পিজ্জাবার্গ ও ডনমেক-এ একদিন

ইয়োগায় যা করা যাবে না

ইয়োগায় যা করা যাবে না

আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমাতে এড়িয়ে চলুন খাবারগুলো

আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমাতে এড়িয়ে চলুন খাবারগুলো

সর্বশেষ

ঠাকুরগাঁওয়ে ৫ স্কুলছাত্রীর করোনা শনাক্ত, ক্লাস বন্ধ

ঠাকুরগাঁওয়ে ৫ স্কুলছাত্রীর করোনা শনাক্ত, ক্লাস বন্ধ

দুর্গাপূজাকে ঘিরে ব্যস্ত প্রতিমাশিল্পী,  উদযাপনের কিছু শর্ত শিথিল হতে পারে

দুর্গাপূজাকে ঘিরে ব্যস্ত প্রতিমাশিল্পী,  উদযাপনের কিছু শর্ত শিথিল হতে পারে

মাদক মামলার ভয় দেখিয়ে টাকা আদায়, আরএমপির ৬ সদস্য বরখাস্ত

মাদক মামলার ভয় দেখিয়ে টাকা আদায়, আরএমপির ৬ সদস্য বরখাস্ত

১৯৭৩ সালে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় আবারও নতুন পদক্ষেপ নিতে হয়

১৯৭৩ সালে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় আবারও নতুন পদক্ষেপ নিতে হয়

সৌদি আরবের সঙ্গে আলোচনায় ব্যাপক অগ্রগতি হয়েছে: ইরান

সৌদি আরবের সঙ্গে আলোচনায় ব্যাপক অগ্রগতি হয়েছে: ইরান

© 2021 Bangla Tribune