X
সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ৯ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

স্কুল ফিডিংয়ের বিস্কুট পাচ্ছে না শিশু শিক্ষার্থীরা

আপডেট : ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:২৮

স্কুল ফিডিং কর্মসূচির উচ্চ পুষ্টিমান সম্পন্ন বিস্কুট পাচ্ছে না নীলফামারী জেলার এক লাখ ৯৫ হাজার ৪৬১ কোমলমতি শিক্ষার্থী। জানা যায়, দেশের দারিদ্র পীড়িত এলাকার ১০৪ উপজেলার প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তির হার, শতভাগ উপস্থিতি, ঝরে পড়া রোধ, পুষ্টির অভাব পূরণ, শিক্ষার্থীদের সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য সরকারের নিজস্ব অর্থায়ন ও কিছু বৈদেশিক সহায়তায় ২০১১ সালে স্কুল ফিডিং প্রকল্পটি চালু করে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

প্রকল্পের আওতায় প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মাধ্যমে শিশু শিক্ষার্থীদের পুষ্টিমান সম্পন্ন বিস্কুট দেওয়া হচ্ছিলো। হঠাৎ চলতি বছরের জুন (২০২১) মাসে প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হয়। বর্তমানে তিন মাস ধরে স্কুল ফিডিং কর্মসূচির উচ্চ পুষ্টিমান সম্পন্ন  বিস্কুট পাচ্ছে না নীলফামারীর পাঁচ উপজেলার এক হাজার ১৪ টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক লাখ ৯৫ হাজার ৪৬১ শিশু শিক্ষার্থী। এতে করোনাকালে শিক্ষার্থীদের অপুষ্টিতে ভোগা ও বিদ্যালয় থেকে তাদের ঝরে পড়ার আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

প্রকল্প পরিচালকের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, প্রকল্পটির মেয়াদ ২০২০ সালের ডিসেম্বর মাসে শেষ হয়। পরে পরিকল্পনা কমিশন কোনও ব্যয় বৃদ্ধি ছাড়াই ৩০ জুন ২০২১ পর্যন্ত মেয়াদ বৃদ্ধি করে। গত ১ জুন একনেক সভায় জাতীয় স্কুলমিল প্রকল্পটির অনুমোদন না দিয়ে পর্যালোচনা করে বাস্তব সম্মত প্রকল্প প্রস্তাবের নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী। সে অনুযায়ী প্রকল্প প্রস্তুত করতে এক বছর সময় লেগে যেতে পারে। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দরিদ্র শিক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে ৭ জুলাই প্রকল্পটির মেয়াদ ব্যয় বৃদ্ধি ব্যতিরেকে ডিসেম্বর ২০২১ পর্যন্ত বর্ধিত করে অনুমোদন দেন। বর্ধিত সময়ের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী নতুন প্রকল্প প্রস্তাবনা প্রস্তুত করে পরিকল্পনা কমিশনের আইএমইডিকে অবহিত করতে বলা হয়।

 গত ১৭ আগস্ট (২০২১) পরিকল্পনা কমিশনের আর্থ সামাজিক বিভাগের শিক্ষা উইং প্রকল্পটি মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়নের জন্য অনুমোদন প্রদান করে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনও এক অদৃশ্য কারণে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে প্রকল্প বাস্তবায়নের নির্দেশনা দেওয়া হয়নি। এতে দেশের ১০৪ উপজেলার প্রায় ৩০ লাখ শিক্ষার্থী পুষ্টিমান সম্পন্ন বিস্কুট না পেয়ে অপুষ্টির শিকার হচ্ছে।

এদিকে, আগামী ১২ সেপ্টেম্বর থেকে বিদ্যালয় খুলে দেওয়ার প্রজ্ঞাপন জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তাই এই মুহূর্তে শিশুদের খাবারের প্রয়োজন হবে। করোনাকালে বিদ্যালয় বন্ধ থাকার পরও দরিদ্র শিক্ষার্থীদের পুষ্টির কথা বিবেচনা করে প্রকল্প পরিচালকের নির্দেশনা মোতাবেক শিক্ষক ও এনজিও কর্মীদের মাধ্যমে কয়েক ধাপে শিক্ষার্থীদের বাড়ি বাড়ি বিস্কুট বিতরণ করা হয়।

সূত্র জানায়, প্রকল্পটি মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়নের জন্য দেশে ২২টি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ২০১১ সাল থেকে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের স্কুল ফিডিং প্রকল্পের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়ে দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছে।

এ বিষয়ে নীলফামারী জেলার বাস্তবায়নকারী সংস্থা আরডিআরএস বাংলাদেশ স্কুল ফিডিং প্রকল্পের সমন্বয়কারী আনন্দ কুমার পাল জানান, ২০১১ সাল হতে আরডিআরএস কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা ও নীলফামারী জেলার মোট ১৯ টি উপজেলায় প্রকল্পটি বাস্তবায়নে সহযোগিতা করে আসছে। প্রকল্পের দ্বি-পাক্ষিক চুক্তিপত্র অনুযায়ী মেয়াদ শেষ হলে সকল প্রকার মালামাল (ফুড ও ননফুড আইটেম) প্রকল্প পরিচালকের নির্দেশনা মোতাবেক জমা দিতে হবে। জানা যায়, গত ২৬ জুন ২০২১, মহাপরিচালক, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরে চিঠি পাঠানো হলে কোনও নির্দেশনা না আসায় এনজিওর ভাড়া করা মালামাল ওয়্যারহাউজে রয়ে গেছে। ওয়্যারহাউজের ভাড়া, বিদ্যুৎ বিল, পরিচ্ছন্নতা কর্মী, সিকিউরিটি গার্ডদের বেতন বাবদ মোটা অঙ্কের টাকা ব্যয় করতে হচ্ছে এনজিওগুলোকে।

এছাড়াও এনজিওদের সঙ্গে প্রকল্পের বর্ধিত মেয়াদের চুক্তিপত্র সম্পাদন না হলেও মাঠ পর্যায়ে সব কর্মকর্তা বিভিন্ন তথ্য সরবরাহসহ অন্যান্য কাজে কর্মস্থলে আছেন। তারা গত জুলাই মাস থেকে বেতন ভাতা না পেয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, প্রকল্পটির উদ্বৃত্ত (অব্যয়িত) প্রায় ৪৭৩ কোটি ৯ লাখ টাকা রয়েছে। শিক্ষার্থীরা যাতে অপুষ্টির শিকার না হয় ও ঝরে না পড়ে তা বিবেচনায় দ্রুত মাঠ পর্যায়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের দাবি জানিয়েছেন অভিভাবকসহ প্রাথমিক শিক্ষা সংশ্লিষ্টরা। 

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা

নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১০:৪০

ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ড ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র জানায়, চলতি বন্যায় তিস্তা ব্যারাজের ফ্লাড ফিউজসহ (বাইপাস) কমান্ড এলাকার দশটি স্থানে ৯৮০ মিটার বাঁধ ধসে গেছে। এতে ক্ষতি হয়েছে ১৫ কোটি টাকা।

উজানের পাহাড়ি ঢল ও টানা বৃষ্টিপাতে গত বুধবার (২০ অক্টোবর) সকালে ডালিয়ায় তিস্তা ব্যারাজ পয়েন্টে নদীর পানি বিপৎসীমার ৭০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। পানির চাপে কেটে যায় ব্যারাজের ফ্লাডবাইপাস। এতে করে ফ্লাড বাইপাসের ৩০০ মিটারসহ ব্যারাজের উজান ও ভাটির বিভিন্ন স্থানের বাঁধ বিধ্বস্ত হয় ৯৮০ মিটার।

এর মধ্যে ব্যারাজের উজানে কালিগঞ্জ গ্রোয়েন বাঁধের ১০০ মিটার, ছোটখাতা টি-গ্রোয়েন বাঁধের ১০০ মিটার, তিস্তা বাজার স্পার বাঁধের ৫০ মিটার, ভাটিতে ভেন্ডাবাড়ী স্পার বাঁধের ৫০ মিটার, ভাবনচুন স্পার বাঁধের ৫০ মিটার, তিস্তা ডানতীর বাঁধ ৮০ মিটার, ডাউয়াবাড়ী তিস্তার ডানতীর বাঁধ ১০০ মিটার, শৌলমারী বাঁধের ৫০ মিটার, বালাপাড়া কৈমারী বাঁধ ১০০ মিটার রয়েছে। সবমিলিয়ে আর্থিক ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা।

এবারের বন্যায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের ১৫ কোটিসহ মোট ৫০ কোটি টাকার ক্ষতি

উত্তরাঞ্চল রংপুরের প্রধান প্রকৌশলী জ্যোতি প্রসাদ ঘোষ জানান, এবারের বন্যায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের ১৫ কোটিসহ সর্বমোট ৫০ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। গত বুধবারের আকস্মিক ওই বন্যা অতীতের সকল রেকর্ড ভেঙেছে।

এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন, বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের অতিরিক্ত মহাপরিচালক এ কে এম সামছুল আলম, নকশা ও গবেষণা বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী মো. এনায়েত উল্লাহ, ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আসফাউদৌলা প্রিন্স প্রমুখ।

এদিকে রবিবার (২৪ অক্টোবর) সকাল থেকে নীলফামারীর ডিমলা ডালিয়া পয়েন্টে তিস্তার বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক ফজলুর রশিদ। পরিদর্শনের পর ডালিয়ায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের সম্মেলন কক্ষে স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

মহাপরিচালক বলেন, ‘পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রকৌশলী, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বন্যার ক্ষতি অনেকটাই পুষিয়ে নিয়েছেন। ঢাকা থেকে সার্বক্ষণিক খোঁজ-খবর নেওয়া হচ্ছে ও দিক নির্দেশনা দিয়েছি। ক্ষতির পরিমাণ বের করে ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ শিগগিরই মেরামত করা হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘তিস্তার জন্য আট হাজার ২১০ কোটি টাকার মহাপরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। ওই টাকার মধ্যে সরকারি একটা অংশ আছে। বাকিটা দাতাসংস্থাদের কাছ থেকে পাওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।’

ফজলুর রশিদ বলেন, ‘ইতোমধ্যে এ অঞ্চলের ছোট নদীগুলো খনন করে পানির ধারণক্ষমতার পাশাপাশি ড্রেনেজ ক্ষমতাও বাড়ানো হয়েছে।’

/এফএ/ /এসএইচ/

সম্পর্কিত

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

পুঁজি হারানোর আশঙ্কা পান চাষিদের

পুঁজি হারানোর আশঙ্কা পান চাষিদের

পেঁয়াজ মজুত করে মাথায় হাত পাইকারদের

পেঁয়াজ মজুত করে মাথায় হাত পাইকারদের

প্রতিষ্ঠান প্রধানের স্বাক্ষর জাল করে কেন্দ্র পরিবর্তনের অভিযোগ

প্রতিষ্ঠান প্রধানের স্বাক্ষর জাল করে কেন্দ্র পরিবর্তনের অভিযোগ

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৯:০৯

রূপসা উপজেলার শিয়ালীতে মন্দিরে হামলা ও ভাঙচুরের মামলায় এখন পর্যন্ত ২৩ জন জেল হাজতে রয়েছেন। অন্যদিকে জামিনে রয়েছেন আরও ১০ জন। এদিকে হামলার ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত মন্দিরগুলো সংস্কার শেষে পূজার জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে। এলাকায় বিশৃঙ্খলা রোধে স্থানীয় টহল ফাঁড়িতে বাড়ানো হয়েছে জনবল। 

এদিকে ২০১৮ সালের অক্টোবরে খুলনা ক্রিসেন্ট জুট মিল মন্দিরে প্রতিমা ভাঙচুর মামলায় কোনও আসামি আটক না হওয়ায় শান্তি বজায় রাখার স্বার্থে বাদী এক বছরের মাথায় মামলা প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। 

রূপসা উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কৃষ্ণ গোপাল সেন বলেন, গত ৭ আগস্টের ওই ঘটনার পর বর্তমানে এলাকার পরিবেশ স্বাভাবিক রয়েছে। পুলিশের নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। মন্দিরে পূজা অর্চনা ও মসজিদে নামাজ আদায়সহ অন্যান্য ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠানও চলছে স্বাভাবিক নিয়মে। ক্ষতিগ্রস্ত মন্দির মেরামত ও ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণও দেওয়া হয়েছে। এখনও কিছু ক্ষতিপূরণের অর্থ পাওয়া যায়নি বলে জানান তিনি। 

এদিকে রূপসা থানার পরিদর্শক ও এই মামলা তদন্ত কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম বলেন, মামলায় এ পর্যন্ত ২৩ জনকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ১০ জন জামিনে রয়েছেন। অন্যান্যদের গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর রয়েছে বলে জানান তিনি। 

রূপসা থানার ওসি সরদার মোশাররফ হোসেন বলেন, ওই হামলার ঘটনায় ২৫ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাতনামা ১৫০ থেকে ২০০ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়। এ মামলাটি তদন্তাধীন রয়েছে। তবে, এলাকায় পুলিশের কঠোর নজরদারি রয়েছে। ফলে শিয়ালী এলাকায় এখন স্বাভাবিক পরিবেশ বিরাজ করছে।

উল্লেখ্য, ৭ আগস্ট সন্ধ্যার আগে শিয়ালী মহাশ্মশান মন্দিরে হামলার ঘটনা ঘটে। দুর্বৃত্তরা সেখানকার  প্রতিমা এবং শ্মশানের যাবতীয় উপকরণ ভাঙচুর করে। এরপর তারা শিয়ালী পূর্বপাড়া এলাকায় হামলার ঘটনা ঘটে। এ সময় শিয়ালী পূর্বপাড়ার হরি মন্দির, শিয়ালী পূর্বপাড়া দূর্গা মন্দির এবং শিবপদ ধরের গোবিন্দ মন্দিরে প্রতিমা ভাঙচুর করা হয়। এ সময় কয়েকজনের বাড়ি ও দোকানে হামলা এবং ভাঙচুর চালানো হয়।  এর আগে গত ৬ আগস্ট রাতে শিয়ালী গ্রামের কয়েকজন পুরুষ ও মহিলা নামকীর্ত্তণ করতে করতে শিয়ালী শ্মশান মন্দিরের দিকে যাচ্ছিলেন। শিয়ালী জামে মসজিদে এশার নামাজ চলাকালে তারা ওই এলাকায় পৌঁছান। এ অবস্থায় ইমাম বের হয়ে তাদের বাদ্যযন্ত্র বন্ধ করতে বলেন। এ ঘটনাকে ঘিরে মসজিদের মুসল্লি ও সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে বাগবিতণ্ডার ঘটনা ঘটে। এর জের ধরে হামলার ঘটনা ঘটে। 

এদিকে ক্রিসেন্ট জুট মিল মন্দির কমিটির তৎকালীন সভাপতি বসন্ত কুমার গঙ্গা বলেন, এক বছরেও মন্দিরে হামলার ঘটনায় কোনও আসামি গ্রেফতার না হওয়ায় মামলাটি প্রত্যাহার করে নিয়েছি। এ মামলার কারণে আমরা প্রতিনিয়ত পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়তাম। তাই সবার স্বস্তি ও শান্তি বজায় রাখার জন্য এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, মহানগরীর খালিশপুরে ক্রিসেন্ট জুট মিলের মন্দিরের ২০১৮ সালের ৫ অক্টোরর রাতে প্রতিমা ভাঙচুর হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ একজনকে আটক করে। পরে তকে ছেড়ে দেওয়া হয়। মন্দির কমিটির তৎকালীন সভাপতি বসন্ত কুমার গঙ্গা বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের নামে একটি মামলা দায়ের করেন। কিন্তু এক বছরেও এ মামলায় কোনও আসামি গ্রেফতার হয়নি। 

/টিটি/

সম্পর্কিত

 র‌্যাব পরিচয়ে ব্যবসায়ীর ৮ লাখ টাকা ছিনতাই করে ধরা

 র‌্যাব পরিচয়ে ব্যবসায়ীর ৮ লাখ টাকা ছিনতাই করে ধরা

বাঁশ কাটায় প্রতিবেশীকে কুপিয়ে হত্যা

বাঁশ কাটায় প্রতিবেশীকে কুপিয়ে হত্যা

ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো দুই স্কুলছাত্রের

ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো দুই স্কুলছাত্রের

ভাইয়ের মৃত্যুর দোয়া অনুষ্ঠান শেষে ফেরা হলো না বোনের

ভাইয়ের মৃত্যুর দোয়া অনুষ্ঠান শেষে ফেরা হলো না বোনের

স্বামীর মৃত্যুর ১৫ মিনিট পর মারা গেলেন স্ত্রী 

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৪৭

কুমিল্লার লাকসামে স্বামী মৃত্যুর ১৫ মিনিটের মধ্যে স্ত্রীও মারা গেছেন। মর্মান্তিক এ ঘটনা রবিবার (২৪ অক্টোবর) সন্ধ্যায় লাকসাম পৌরসভার শ্রীপুর গ্রামে ঘটে।

লাকসাম পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ উল্লাহ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, শ্রীপুর গ্রামের মরহুম নোয়াব আলীর বড় ছেলে মো. শাহজাহান (৬৫) হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। এ সময় কান্নাকাটির একপর্যায়ে ৬টা ৪৫ মিনিটে তার স্ত্রী কোহিনুর বেগমও (৪৫) মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে বলে জানান তিনি।

কাউন্সিলর মোহাম্মদ উল্লাহ আরও বলেন, সোমবার সকাল ১১টায় দুই জনের জানাজা নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে লাশ দাফন করা হবে। তার দুই ছেলে দেশের বাইরে থাকেন।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

পুকুরে নয়, ঝোপের ভেতর হনুমানের গদা দেখিয়ে দিলেন ইকবাল

পুকুরে নয়, ঝোপের ভেতর হনুমানের গদা দেখিয়ে দিলেন ইকবাল

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপে হামলার ঘটনায় আরও ৪ জন গ্রেফতার

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপে হামলার ঘটনায় আরও ৪ জন গ্রেফতার

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার ঘটনায় করা মামলা সিআইডিতে

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার ঘটনায় করা মামলা সিআইডিতে

 র‌্যাব পরিচয়ে ব্যবসায়ীর ৮ লাখ টাকা ছিনতাই করে ধরা

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০১:৫৫

যশোরে র‌্যাব পরিচয়ে এক ব্যবসায়ীর আট লাখ টাকা ছিনতাই করে পালানোর সময় ধরা পড়েছেন আমিনুল ইসলাম (৩৮) নামের এক যুবক। পরে তাকে পুলিশে সোপর্দ করে স্থানীয় জনতা। রবিবার রাত ৮টার দিকে যশোর শহরতলীর ধর্মতলা মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

আমিনুল ইসলাম সদরের ফতেপুর ইউনিয়নের ভায়না গ্রামের শেখ সবুরের ছেলে। যশোর শহরের কারবালা এলাকার বাসিন্দা মো. আব্দুল হক জানান, তিনি জাপানি টোব্যাকোর ডিলারশিপ নিয়ে ব্যবসা করেন। রাতে বেনাপোল থেকে সোহাগ পরিবহনে যশোরে নামেন। তার কাছে একটি ব্যাগে ৮ লাখ ৬ হাজার টাকা ছিল।

তিনি বলেন, বাস থেকে ধর্মতলায় নামার পর র‌্যাব পরিচয়ে এক যুবক আমার হাতের টাকার ব্যাগটি ছিনিয়ে নেয়। আমারর চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে আসে এবং আমিনুলকে ধরে ফেলে। খবর পেয়ে পুলিশ এসে তাকে থানায় নিয়ে যায়।

যশোর কোতোয়ালি থানার ওসি মো. তাজুল ইসলাম বলেন, আমিনুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে আমিনুল ইসলাম জানিয়েছেন, তিনি র‌্যাবের সোর্স।

/এএম/

সম্পর্কিত

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

বাঁশ কাটায় প্রতিবেশীকে কুপিয়ে হত্যা

বাঁশ কাটায় প্রতিবেশীকে কুপিয়ে হত্যা

ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো দুই স্কুলছাত্রের

ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো দুই স্কুলছাত্রের

ভাইয়ের মৃত্যুর দোয়া অনুষ্ঠান শেষে ফেরা হলো না বোনের

ভাইয়ের মৃত্যুর দোয়া অনুষ্ঠান শেষে ফেরা হলো না বোনের

হামলাকারীদের বিরুদ্ধে সরকারের কঠোর ব্যবস্থা সন্তোষজনক: ব্রিটিশ হাইকমিশনার

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০২:০১

যুক্তরাজ্য সরকার সবসময় ধর্মীয় স্বাধীনতার পক্ষে উল্লেখ করে ঢাকায় নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারটন ডিকসন বলেছেন, আমরা বিশ্বাস করি বাংলাদেশে সব ধর্মের মানুষ শান্তিতে বসবাস করছেন এবং ভবিষ্যতেও তা বজায় থাকবে। হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বাড়ি ঘরে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে সরকারের কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়টি সন্তোষজনক।

রবিবার দুপুরে গাজীপুরের কাশিমপুরের সরাবো এলাকায় অবস্থিত বেক্সিমকো ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক এবং বেক্সিমকো পিপিই পার্ক পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।
 
ব্রিটিশ হাইকমিশনার বলেন, বাংলাদেশের ১৯৭২ সালের সংবিধানে মানুষের স্বাধীনতার কথা, মানুষের অধিকারের কথা এবং সব ধর্মের সমান অধিকারের কথা স্পষ্ট করা আছে। এ সময় তিনি বাংলাদেশের শ্রমিকদের দক্ষ ও পরিশ্রমী উল্লেখ করে বলেন, প্রয়োজনীয় সুযোগ-সুবিধা দিলে তাদের কাজের মান আরও ভালো হবে।

ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটার্টন ডিকসনের নেতৃত্বে চার সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল বেক্সিমকো ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক এবং বেক্সিমকো পিপিই পার্ক পরিদর্শন করেন। এ সময় তার সঙ্গে স্ত্রী তেরেসা আলবর ছিলেন। প্রতিনিধিদল বেক্সিমকো পিপিই পার্কের ভেতরে আধুনিক পিপিই উৎপাদন সুবিধা ও একই প্রাঙ্গণে অবস্থিত সেন্টার অব এক্সিলেন্স ইন্টারটেক ল্যাব পরিদর্শন করে।

/এএম/

সম্পর্কিত

প্রাইভেটকার চালক হত্যায় ৬ জনের যাবজ্জীবন

প্রাইভেটকার চালক হত্যায় ৬ জনের যাবজ্জীবন

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ১

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ১

ফরিদপুরে নির্বাচনি সহিংসতায় যুবক নিহত, ৫০ বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

ফরিদপুরে নির্বাচনি সহিংসতায় যুবক নিহত, ৫০ বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

হেফাজতের সহিংসতার মামলায় বিএনপি নেতা রিমান্ডে

হেফাজতের সহিংসতার মামলায় বিএনপি নেতা রিমান্ডে

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা

নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

পুঁজি হারানোর আশঙ্কা পান চাষিদের

পুঁজি হারানোর আশঙ্কা পান চাষিদের

পেঁয়াজ মজুত করে মাথায় হাত পাইকারদের

পেঁয়াজ মজুত করে মাথায় হাত পাইকারদের

প্রতিষ্ঠান প্রধানের স্বাক্ষর জাল করে কেন্দ্র পরিবর্তনের অভিযোগ

প্রতিষ্ঠান প্রধানের স্বাক্ষর জাল করে কেন্দ্র পরিবর্তনের অভিযোগ

কারমাইকেল কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত

কারমাইকেল কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত

পীরগঞ্জে হামলায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার সৈকত ও রবিউলের

পীরগঞ্জে হামলায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার সৈকত ও রবিউলের

পীরগঞ্জের ঘটনায় রিমান্ড শেষে কারাগারে ৩৭ আসামি

পীরগঞ্জের ঘটনায় রিমান্ড শেষে কারাগারে ৩৭ আসামি

সর্বশেষ

নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা

নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা

সুদানের প্রধানমন্ত্রী গৃহবন্দি, আটক চার মন্ত্রী

সুদানের প্রধানমন্ত্রী গৃহবন্দি, আটক চার মন্ত্রী

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

সোহেলেই আটকে আছে ই-অরেঞ্জের তদন্ত

সোহেলেই আটকে আছে ই-অরেঞ্জের তদন্ত

নির্মাণে নতুন দিন আনছে কংক্রিট ব্লক

নির্মাণে নতুন দিন আনছে কংক্রিট ব্লক

© 2021 Bangla Tribune