X
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ৬ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

সাক্ষী নিজেকে সিএনজি চালক প্রমাণ করতে পারেননি: আসামিপক্ষের আইনজীবী

আপডেট : ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:০২

সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলার ৪নং সাক্ষী হিসেবে মো. কামাল হোসেনের সাক্ষ্যগ্রহণ ও জেরা সম্পন্ন হয়েছে। সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টা থেকে বিকাল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইলের আদালতে এ সাক্ষ্য নেওয়া হয়। তবে এদিন ৪নং সাক্ষী নিজেকে সিএনজি চালক প্রমাণ করতে পারেনি বলে জানিয়েছেন আসামি পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট রানা দাশ গুপ্ত।

বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর বলেন, ‘মামলার অন্যতম সাক্ষী মো. কামাল হোসেন ঘটনার একজন প্রত্যক্ষদর্শী। তিনি পেশায় সিএনজি অটোরিকশা চালক। টেকনাফ শামলাপুর পুলিশের চেকপোস্টে মেজর সিনহা হত্যার সংঘটিত ঘটনা স্বচক্ষে দেখেছেন। তিনি সবকিছু আদালতে বর্ণনা দিয়েছেন। আদালতের নিষেধ থাকায় তার বক্তব্য মিডিয়ায় প্রকাশ করা সম্ভব হচ্ছে না।’

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ও কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট ফরিদুল আলম বলেন, ‘সোমবার দ্বিতীয় দফা সাক্ষ্য গ্রহণের দ্বিতীয় দিনে চতুর্থ সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। তবে বিচারাধীন কোনও মামলার আদালতের অভ্যন্তরীণ বিষয় প্রকাশ করা আইনের পরিপন্থী। তাই, মিডিয়ায় দেওয়ার মতো কোনও তথ্য নেই।’

আসামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট রানা দাশ গুপ্ত বলেন, ‘দীর্ঘ সময় ধরে সাক্ষী কামাল হোসেন আদালতে যে তথ্য-উপাত্ত উপস্থাপন করেছেন তা আমরা মনোযোগ সহকারে শুনেছি। সাক্ষী কামাল হোসেন নিজেকে সিএনজি চালক পরিচয় দিলেও তা প্রমাণে তদন্তকারী কর্মকর্তার কাছে তেমন কোনও কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। একইভাবে আজ  আদালতে সাক্ষী দিতে এসেও কোনও প্রমাণপত্র দেখাতে পারেননি। সুতরাং ঘটনার সময় সে কিছু দেখেছে বলে মনে হয়নি।’

এর আগে গত রবিবার মোহাম্মদ আলী নামে ৩নং সাক্ষীর আদালতে সাক্ষ্য গ্রহণ শেষ হয়। এ ছাড়া গত ২৩ থেকে ২৫ আগস্ট টানা তিন দিন মামলার ১নং সাক্ষী ও বাদী শারমিন সাহরিয়া ফেরদৌস এবং ২নং সাক্ষী সাহেদুল ইসলাম সিফাতের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষ করেন আদালত।

গত বছর ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান।

এ ঘটনায় সে সময় সিনহার বোন শারমিন শাহরিয়ার ফেরদৌস বাদী হয়ে টেকনাফ থানার তৎকালীন ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের সাবেক ইনচার্জ পরিদর্শক লিয়াকত আলীসহ নয় পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা করেন। মামলায় প্রধান আসামি করা হয় লিয়াকত আলীকে। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে র‌্যাবকে তদন্তের দায়িত্ব দেয়। এদিকে, এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে টেকনাফ থানায় একটি এবং রামু থানায় আরেকটি মামলা করে। এরপর মেজর সিনহা নিহতের ছয় দিন পর লিয়াকত আলী ও ওসি প্রদীপসহ সাত পুলিশ সদস্য আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। পরে ঘটনায় সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে টেকনাফ থানায় পুলিশের দায়ের করা মামলার তিন সাক্ষী এবং শামলাপুর চেকপোস্টে ঘটনার সময় দায়িত্ব পালনকারী আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) তিন সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর টেকনাফ থানার সাবেক কনস্টেবল রুবেল শর্মাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। গত ২৪ জুন মামলার অন্য পলাতক আসামি টেকনাফ থানার সাবেক এএসআই  সাগর দেব আদালতে আত্মসমর্পণ করেন।

আসামিদের মধ্যে ওসি প্রদীপ ও কনস্টেবল রুবেল শর্মা ছাড়া অন্য ১২ জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। তদন্ত শেষে গত বছর ১৩ ডিসেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তৎকালীন র‌্যাব ১৫-এর সহকারী পুলিশ সুপার মো. খাইরুল ইসলাম ১৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন।

/এমএএ/

সম্পর্কিত

কুমিল্লার সহিংসতার ঘটনায় আহত বৃদ্ধের মৃত্যু

কুমিল্লার সহিংসতার ঘটনায় আহত বৃদ্ধের মৃত্যু

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার কথা ‘স্বীকার করেছেন’ ইকবাল

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার কথা ‘স্বীকার করেছেন’ ইকবাল

যেভাবে ধরা পড়লো ইকবাল

যেভাবে ধরা পড়লো ইকবাল

মণ্ডপে হামলা: নুরের যুব সংগঠনের চার নেতাসহ গ্রেফতার ৯

মণ্ডপে হামলা: নুরের যুব সংগঠনের চার নেতাসহ গ্রেফতার ৯

পিকআপে করে গরু চুরির সময় ৪ চোর গ্রেফতার

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ১৮:০৭

গরু চুরির পর পিকআপে করে নিয়ে যাওয়ার সময় আন্তঃজেলা চোর চক্রের চার সদস্যকে গ্রেফতার করেছে বরিশালের গৌরনদী মডেল থানা পুলিশ। এ ঘটনায় শুক্রবার (২২ অক্টোবর) সকালে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। দুপুরে আদালতের মাধ্যমে চোরদের কারাগারে পাঠানো হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- বরগুনা জেলার তালতলী উপজেলার বেতীপাড়া গ্রামের কাদের প্যাদার ছেলে তৈয়ব আলী প্যাদা (৫০), একই গ্রামের সৈয়দ ফকিরের ছেলে আমিনুল ফকির (২৩), ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলার সরাইল উপজেলার শাহাবাজপুর গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে শুভ মিয়া (৩২) ও গৌরনদী পৌরসভার দিয়াশুর গ্রামের সেলিম সরদারের ছেলে রবিউল হাসান (৩২)।

এর মধ্যে তৈয়ব আলী প্যাদার বিরুদ্ধে ঝালকাঠী, বরগুনা, পটুয়াখালী, মাদারীপুর, নলছিটি থানায় একাধিক ডাকাতি ও চুরির মামলা রয়েছে।

গৌরনদী থানার ওসি আফজাল হোসেন জানান, বৃহস্পতিবার গভীর রাতে গোপন সংবাদে জানা যায়, উপজেলার কাণ্ডপাশা গ্রামের শহিদুল হাওলাদারের গরু চুরি করে পিকআপভ্যানে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এ সময় বিভিন্ন সড়কে পুলিশের চেকপোস্ট বসানো হয়। পরে পৌর এলাকার কাসেমাবাদ হাই মার্কেটের কাছ থেকে পিকআপে থাকা একটি গরুসহ ওই চোরদের আটক করা হয়। এ ঘটনায় গরুর মালিক শহিদুল হাওলাদার বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। গ্রেফতার আসামিদের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

/এফআর/

সম্পর্কিত

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার কথা ‘স্বীকার করেছেন’ ইকবাল

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার কথা ‘স্বীকার করেছেন’ ইকবাল

জমি নিয়ে বিরোধে ইউপি সদস্যকে মারধর, কাটা হলো বাড়ির সড়ক 

জমি নিয়ে বিরোধে ইউপি সদস্যকে মারধর, কাটা হলো বাড়ির সড়ক 

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা সেই ইকবাল আটক

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা সেই ইকবাল আটক

গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ২

গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ২

কুমিল্লার সহিংসতার ঘটনায় আহত বৃদ্ধের মৃত্যু

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৩৬

কুমিল্লার নানুয়াদিঘির পাড়ের পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন শরিফ রাখার ঘটনায় হওয়া সহিংসতায় আহত দর্শনার্থী দিলীপ দাস (৬২) চিকিৎসাধীন অবস্থান মারা গেছেন। তিনি অভিনয় শিল্পী অধরা প্রিয়ার পিতা।

বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) রাতে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে থাকা অবস্থায় মারা যান তিনি। গত ১৩ অক্টোবর রাজরাজেশ্বরী কালি বাড়ির পূজামণ্ডপের সামনে মাথায় ইটের আঘাত লেগে গুরুতর আহত হন। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় নেওয়া হয় তাকে।

কুমিল্লা মহানগর পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক অচিন্ত দাস টিটু বলেন, ‘ঘটনাটি দুঃখজনক। তার মৃত্যুর জন্য দায়ী ব্যক্তিদের বিচার দাবি করছি।’

কুমিল্লা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) এম তানভীর হোসেন বলেন, ‘বিষয়টি শুনেছি। খোঁজখবর নিয়ে বিস্তারিত বলা হবে।’

/এফআর/

সম্পর্কিত

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার কথা ‘স্বীকার করেছেন’ ইকবাল

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার কথা ‘স্বীকার করেছেন’ ইকবাল

যেভাবে ধরা পড়লো ইকবাল

যেভাবে ধরা পড়লো ইকবাল

মণ্ডপে হামলা: নুরের যুব সংগঠনের চার নেতাসহ গ্রেফতার ৯

মণ্ডপে হামলা: নুরের যুব সংগঠনের চার নেতাসহ গ্রেফতার ৯

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার কথা ‘স্বীকার করেছেন’ ইকবাল

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ১৭:২৬

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে কুমিল্লার নানুয়াদিঘির পাড়ের পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন শরিফ রাখার কথা স্বীকার করেছেন ইকবাল হোসেন। শুক্রবার (২২ অক্টোবর) বিকালে কুমিল্লা পুলিশ লাইন্সে জিজ্ঞাসাবাদের সময় এ কথা স্বীকার করেন বলে জানিয়েছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এক কর্মকর্তা।

তিনি বলেন, ‘মণ্ডপে কোরআন শরিফ রাখার পর হনুমানের মূর্তি থেকে গদা সরিয়ে নেওয়ার কথাও পুলিশকে জানিয়েছেন ইকবাল। তবে কার নির্দেশে এই কাজ করেছেন, তা এখনও জানাননি।’

পুলিশের ওই কর্মকর্তা আরও জানান, গ্রেফতারের পর থেকেই ইকবাল অসংলগ্ন আচরণ করছেন।

জানা গেছে, কক্সবাজার থেকে গ্রেফতার করে কুমিল্লা পুলিশ লাইন্সে নেওয়ার পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একাধিক ইউনিট।

এর আগে, শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে ইকবালকে বহন করা পুলিশের গাড়ি কুমিল্লা পুলিশ লাইন্সে পৌঁছায়। ভোর সাড়ে ৬টার দিকে কক্সবাজারের পুলিশ সুপার কার্যালয় থেকে তাকে নিয়ে আসা হয় কুমিল্লায়। এরপর সাড়ে ১২টা তাকে পুলিশ লাইন্সে হেলমেট ও বুলেট প্রুফ জ্যাকেট পরা অবস্থায় সাংবাদিকদের সামনে উপস্থিত করা হয়। বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) রাতে কক্সবাজার সমুদ্রসৈকত এলাকায় ঘোরাফেরা করার সময় ইকবাল হোসেনকে কক্সবাজার জেলা পুলিশের একটি দল আটক করে।

কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) এম তানভীর হোসেন বলেন, ‘কালো গ্লাসের একটি গাড়িতে করে কঠোর নিরাপত্তায় ইকবালকে কুমিল্লায় আনা হয়। ঘটনার রহস্য উদঘাটনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে তাকে।’

/এফআর/এমওএফ/

সম্পর্কিত

কুমিল্লার সহিংসতার ঘটনায় আহত বৃদ্ধের মৃত্যু

কুমিল্লার সহিংসতার ঘটনায় আহত বৃদ্ধের মৃত্যু

যেভাবে ধরা পড়লো ইকবাল

যেভাবে ধরা পড়লো ইকবাল

মণ্ডপে হামলা: নুরের যুব সংগঠনের চার নেতাসহ গ্রেফতার ৯

মণ্ডপে হামলা: নুরের যুব সংগঠনের চার নেতাসহ গ্রেফতার ৯

দেশের দুর্যোগে প্রধানমন্ত্রী ঘুমান না: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ১৭:০৬

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ড. এনামুর রহমান বলেছেন, ‘দেশের দুর্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘুমান না, যতক্ষণ না দেশের মানুষ শান্তিতে ঘুমায়। তিনি (প্রধানমন্ত্রী) প্রতিটি মুহূর্তে দেশের মানুষের জন্য কাজ করে চলেছেন। চলমান বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের বিষয়ে আমার দফতরের সংশ্লিষ্ট সবার কাছে সার্বক্ষণিক খোঁজখবর রাখছেন এবং যখন যা প্রয়োজন তা বাস্তবায়নের নির্দেশ দিয়েছেন।’

শুক্রবার (২২ অক্টোবর) সকালে কুড়িগ্রামের রাজারহাটে তিস্তার ভাঙন ও আকস্মিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে তিনি এ কথা বলেন।

রাজারহাটে তিস্তার ভাঙনে বসতভিটাসহ আবাদি জমি হারিয়েছে কয়েকশ’ পরিবার। এরই মাঝে গত দুই দিন পানিবন্দি জীবন যাপনে নাকাল হয়েছে চরাঞ্চলের বাসিন্দারা। শুক্রবার সকালে উপজেলার ঘড়িয়ালডাঙ্গা ইউনিয়নের গতিয়াশাম এলাকায় ভুক্তভোগীদের মাঝে ত্রাণ সহায়তা দেন প্রতিমন্ত্রী ড. এনামুর রহমান।

ত্রাণ সহায়তা প্রদানকালে প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে আরও উপস্থিত ছিলেন- কুড়িগ্রাম-২ আসনের সংসদ সদস্য পনির উদ্দিন আহমেদ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ সচিব মো. মোহসীন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. জাফর আলী, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রেজাউল করিম, পুলিশ সুপার সৈয়দা জান্নাত আরা, রাজারহাট উপজেলা চেয়ারম্যান ইকবাল সোহরাওর্দী বাপ্পী, কুড়িগ্রাম পৌর মেয়র কাজিউল ইসলামসহ স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

কুড়িগ্রাম-২ আসনের সংসদ সদস্য পনির উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘তিস্তা পাড়ের মানুষ ত্রাণ চায় না। তারা প্রত্যেকে কঠোর পরিশ্রমী। তিস্তা পাড়ের উর্বর মাটিতে এ সমস্ত মানুষ ধান, গম, আলু, বাদাম ও পেঁয়াজ চাষাবাদের মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন। এখানকার মানুষ তিস্তার আগ্রাসী ভাঙন থেকে বাঁচতে চায়। তিস্তা নদী শাসনে মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন জরুরি। যতক্ষণ তা বাস্তবায়ন হয়নি ততক্ষণ পর্যন্ত নদী ভাঙা মানুষের ঘরবাড়ি রক্ষায় কার্যকরী ব্যবস্থা চাই।’

সংসদ সদস্যের এমন দাবির প্রেক্ষিতে ভাঙন কবলিত তিস্তা পাড়ের বাসিন্দাদের আশ্বস্ত করে প্রতিমন্ত্রী ড. এনামুর রহমান বলেন, ‘খুশির খবর হচ্ছে, জাইকা কুড়িগ্রামের নদী ভাঙনের শিকার মানুষকে নিয়ে খুব দ্রুত কাজ শুরু করবে। তিস্তা নিয়ে ডেল্টা প্ল্যান বাস্তবায়ন হলে তিস্তাপাড়ের মানুষের দুঃখ আর থাকবে না।’

/এফআর/

সম্পর্কিত

মেয়েসহ নিখোঁজ স্ত্রীকে ফিরে পেতে চান স্বামী 

মেয়েসহ নিখোঁজ স্ত্রীকে ফিরে পেতে চান স্বামী 

‘স্বাধীনতাবিরোধীরাই সাম্প্রদায়িক অপতৎপরতা চালাচ্ছে’

‘স্বাধীনতাবিরোধীরাই সাম্প্রদায়িক অপতৎপরতা চালাচ্ছে’

ভারতে পাচারকালে স্বর্ণের বারসহ আটক এক

ভারতে পাচারকালে স্বর্ণের বারসহ আটক এক

‘ফেসবুক পোস্ট নিয়ে বাড়িঘরে আগুন মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন’

‘ফেসবুক পোস্ট নিয়ে বাড়িঘরে আগুন মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন’

‘রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মাদক-অস্ত্র ব্যবসা বন্ধে গুলি ছুড়তে হবে’

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৩৬

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি উন্নত করার পাশাপাশি আরও কঠোর হওয়ার তাগিদ দিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি উন্নত করতে পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন। বিভিন্ন ক্যাম্পে মাদক ও অস্ত্র বাণিজ্য বন্ধে প্রয়োজনে গুলি ছুড়তে হবে। শুক্রবার দুপুরে (২২ অক্টোবর) সিলেটে একটি অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ড. মোমেন বলেন, ‘রোহিঙ্গা ক্যাম্প ও ক্যাম্পের বাইরে আইনশৃঙ্খলা আরও কীভাবে উন্নত করা যায়, সে নিয়ে একটা বড় সভা গতকাল করেছি। এটা তো খুবই আতংকের বিষয়। অনেক লোক (মিয়ানমারে) ফেরত যেতে চায় না, তাদের স্বার্থে আঘাত লাগে। তারা হয়তো এসব অঘটন ঘটাচ্ছে। আমি ঠিক জানি না, জানতে হবে।’ 

মন্ত্রী আরও জানান রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি উন্নত করতে বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সভাপতিত্বে একটি বড় সভা হয়েছে।

মুহিবুল্লাহ হত্যা এবং আজকের ঘটনার পেছনে যোগসাজশ আছে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বিভিন্ন জন বলছে, ওখানে ড্রাগের ব্যবসা হয়...আবার কেউ কেউ তথ্য দিয়েছেন কিছু উইপেন, কিছু বন্দুক-টন্দুকও আনা হয়। আমরা এসব নিয়ে কাল আলোচনা করেছি। আমার প্রস্তাব হলো, এই ড্রাগ ও অস্ত্র পুরোপুরি বন্ধ করার জন্য প্রয়োজনে গুলি ছুড়তে হবে।’

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

মাদারীপুর অঞ্চলে ৯ মাসে সড়কে ঝরেছে ২১৩ প্রাণ

মাদারীপুর অঞ্চলে ৯ মাসে সড়কে ঝরেছে ২১৩ প্রাণ

যেভাবে ধরা পড়লো ইকবাল

যেভাবে ধরা পড়লো ইকবাল

মণ্ডপে হামলা: নুরের যুব সংগঠনের চার নেতাসহ গ্রেফতার ৯

মণ্ডপে হামলা: নুরের যুব সংগঠনের চার নেতাসহ গ্রেফতার ৯

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছে পিকআপভ্যানের ধাক্কা, নিহত ৩

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছে পিকআপভ্যানের ধাক্কা, নিহত ৩

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

কুমিল্লার সহিংসতার ঘটনায় আহত বৃদ্ধের মৃত্যু

কুমিল্লার সহিংসতার ঘটনায় আহত বৃদ্ধের মৃত্যু

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার কথা ‘স্বীকার করেছেন’ ইকবাল

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার কথা ‘স্বীকার করেছেন’ ইকবাল

যেভাবে ধরা পড়লো ইকবাল

যেভাবে ধরা পড়লো ইকবাল

মণ্ডপে হামলা: নুরের যুব সংগঠনের চার নেতাসহ গ্রেফতার ৯

মণ্ডপে হামলা: নুরের যুব সংগঠনের চার নেতাসহ গ্রেফতার ৯

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছে পিকআপভ্যানের ধাক্কা, নিহত ৩

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছে পিকআপভ্যানের ধাক্কা, নিহত ৩

কুমিল্লা পুলিশ লাইন্সে অভিযুক্ত ইকবাল  

কুমিল্লা পুলিশ লাইন্সে অভিযুক্ত ইকবাল  

রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মাদ্রাসায় হয়েছিল হামলা, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৬

রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মাদ্রাসায় হয়েছিল হামলা, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৬

১০ ইউনিয়নে ভোট ছাড়াই চেয়ারম্যান হচ্ছেন আ.লীগের প্রার্থী   

১০ ইউনিয়নে ভোট ছাড়াই চেয়ারম্যান হচ্ছেন আ.লীগের প্রার্থী   

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৬

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৬

সর্বশেষ

পিকআপে করে গরু চুরির সময় ৪ চোর গ্রেফতার

পিকআপে করে গরু চুরির সময় ৪ চোর গ্রেফতার

মেয়েদের বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে সিরিজে থাকছে দর্শক

মেয়েদের বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে সিরিজে থাকছে দর্শক

রন্ধনশৈলী একটি সৃজনশীল শিল্পকর্ম: শিক্ষামন্ত্রী

রন্ধনশৈলী একটি সৃজনশীল শিল্পকর্ম: শিক্ষামন্ত্রী

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী ও চকবাজার থেকে আট ছিনতাইকারী গ্রেফতার

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী ও চকবাজার থেকে আট ছিনতাইকারী গ্রেফতার

যৌনকর্মী ভাড়া করায় চীনের ‘পিয়ানো প্রিন্স’ আটক

যৌনকর্মী ভাড়া করায় চীনের ‘পিয়ানো প্রিন্স’ আটক

© 2021 Bangla Tribune