X
রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

নেশনস লিগ

স্পেনের বিপক্ষে প্রত্যাবর্তনের গল্প লিখে চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স

আপডেট : ১১ অক্টোবর ২০২১, ০৩:২৫

ঠিক যেন আগের ম্যাচের চিত্রনাট্য। পিছিয়ে পড়ে হারের শঙ্কায় জাগা এবং দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তনের গল্প লিখে জয়ের আনন্দে ভেসে যাওয়া। তবে এই জয়টা তো যেনতেন জয় নয়, চ্যাম্পিয়ন হওয়ার আনন্দে মেতে ওঠার উপলক্ষ। নেশনস লিগে আরেকটি ঘুরে দাঁড়ানোর দৃশ্যপট এঁকে সাফল্যের মুকুটে আরেকটি পালক যোগ করলো ফ্রান্স। রবিবার রাতের ফাইনালে স্পেনকে ২-১ গোলে হারিয়ে উয়েফা নেশনস লিগের চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন ফরাসিরা।

মিলানের সান সিরোর ম্যাচে শুরুতে পিছিয়ে পড়েছিল ফ্রান্স। লিড নিলেও অবশ্য বেশিক্ষণ এগিয়ে থাকতে পারেনি স্পেন। দুই মিনিটের মধ্যে ফরাসিরা খেলায় ফেরে করিম বেনজেমার গোলে। আর শেষ বাঁশি বাজার মিনিট দশেক আগে কিলিয়ান এমবাপ্পের গোলে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার আনন্দে মাতে ফ্রান্স।

এই নেশনস লিগের সেমিফাইনালে বেলজিয়ামের বিপক্ষে হারতে বসা ম্যাচে দুর্দান্তভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে জিতে নেয় ফ্রান্স। ওই ম্যাচে ফরাসিরা পিছিয়ে পড়েছিল ২-০ গোলে। সেখান থেকে সমতায় ফেরা এবং একেবারে শেষ মুহূর্তের লক্ষ্যভেদে ফাইনাল নিশ্চিত করা। ফাইনালেও তারা পিছিয়ে পড়ে এবং এবারও জয়ের সঙ্গে সোনার পদক গলায় তুললেন বেনজেমা-এমবাপ্পে-আতোঁয়া গ্রিজমানরা।

ইউরো চ্যাম্পিয়ন ইতালিকে বিদায় করে ফাইনালের টিকিট কেটেছিল স্পেন। যে ইতালি টানা ৩৭ ম্যাচ অপরাজিত ছিল, সেই তাদের হারিয়ে দেওয়া চাট্টিখানি কথা নয়! বোঝাই যাচ্ছিল ফাইনালে ফ্রান্সকে দিতে হবে কঠিন পরীক্ষা। সান সিরোর ম্যাচে লড়াই হয়েছে সমানে সমান। বল পজেশনে স্পেন অনেক এগিয়ে ছিল। তবে আক্রমণ বা সুযোগ তৈরিতে দুই দলের পরিসংখ্যান প্রায় একই রকম।

যদিও প্রথমার্ধে কেউই জাল খুঁজে পায়নি। বিরতি থেকে ঘুরে আসার পর সব উত্তেজনা বুঝি জমা ছিল। ৬৪ মিনিটে ফরাসিদের স্তব্ধ করে স্পেনকে এগিয়ে নেন মিকেল ওয়ারজাবাল। ক্ষীপ্রগতিতে ডান প্রান্ত দিয়ে ঢুকে গিয়ে বাঁ পায়ের আড়াআড়ি নিচু শটে এই ফরোয়ার্ড বল জড়িয়ে দেন জালে। গোলকিপার উগো লরি কিছুই করতে পারেননি। দুই মিনিট পরই বেনজেমার ম্যাজিক। রিয়াল মাদ্রিদের জার্সিতে বসন্ত চলা এই স্ট্রাইকার ডান প্রান্ত থেকে আড়াআড়ি শটে খুঁজে নেন জাল। গোলকিপার উনাই সিমনের হাতে লাগলেও শেষরক্ষা হয়নি।

১-১ সমতায় ম্যাচে ফেরে উত্তেজনা। আক্রমণ-পাল্ট আক্রমণ চলেছে। তবে ৮০ মিনিটে সফল হয় ফ্রান্স। বাঁ পায়ে এমবাপ্পের নেওয়া নিচু শট জালে জড়ালে আনন্দে মাতে ফরাসিরা। ওই গোলেই নেশনস লিগের শিরোপা জিতে নেয় ফ্রান্স।

/কেআর/

সম্পর্কিত

নেপালকে হারিয়ে সাফ চ্যাম্পিয়ন ভারত

নেপালকে হারিয়ে সাফ চ্যাম্পিয়ন ভারত

ভারত না নেপাল, সাফের শ্রেষ্ঠত্ব কার?

ভারত না নেপাল, সাফের শ্রেষ্ঠত্ব কার?

চাকরি হারালেন প্যারাগুয়ের আর্জেন্টাইন কোচ

চাকরি হারালেন প্যারাগুয়ের আর্জেন্টাইন কোচ

ব্রাজিলিয়ান রেফারির সমালোচনায় মেসি

ব্রাজিলিয়ান রেফারির সমালোচনায় মেসি

নেপালকে হারিয়ে সাফ চ্যাম্পিয়ন ভারত

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ২৩:১৫

২০১৮ সালে ঢাকায় সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা হারাতে হয়েছিল ভারতকে। তবে তা পুনরুদ্ধার করতে সময় লাগেনি ইগর স্টিমাকের দলের। শনিবার (১৬ অক্টোবর) মালে জাতীয় স্টেডিয়ামে ফাইনালে নেপালকে ৩-০ গোলে হারিয়ে সাফের অষ্টম ট্রফি জিতেছে ভারত। অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী, সুরেশ সিং ও সাহাল আব্দুল সামাদের লক্ষ্যভেদে এসেছে এই শিরোপা।

বৃষ্টিভেজা মাঠে শুরু থেকে বল দখলে এগিয়ে ভারত। পাশাপাশি আক্রমণও শানিয়েছে। কিন্তু প্রথমার্ধে তাদের আটকে রেখেছে নেপাল। কোনও গোল করতে দেয়নি।

বিশেষ করে গোলকিপার কিরন কুমার শুরুর দুটি আক্রমণ রুখে দিয়ে দলকে ম্যাচে রাখেন। ম্যাচ শুরুর ৪ মিনিটে অনিরুদ্ধ থাপার শট গোলকিপার ফিরিয়ে দেন। ২৭ মিনিটে সুনীল ছেত্রীর শট গোলকিপার এবার তালুবন্দি করেন।

৪৪ মিনিটে প্রীতম কোটালের ক্রসে ছেত্রী লক্ষ্যে শট রাখতে পারেননি। বল চলে যায় ক্রস বারের ওপর দিয়ে।

বিরতির পর অবশ্য ভারতের আক্রমণ আর রোখা যায়নি। দুই মিনিটের মধ্যে দুই গোল হজম করতে হয়েছে নেপালকে।

৪৯ মিনিটে অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী দলকে এগিয়ে নেন। ডান প্রান্ত থেকে প্রীতিম কোটালের ক্রসে ছেত্রী হেডে জাল কাঁপান। আন্তর্জাতিক ফুটবলে ৮০ তম গোল এই তারকার। এছাড়া সাফে পঞ্চম গোল করে শীর্ষেই রইলেন।

পরের মিনিটে ভারত দ্বিতীয় গোল উদযাপন করে। সতীর্থের কাটব্যাক থেকে সুরেশ সিংয়ের শট  এক ডিফেন্ডারের শরীরে লেগে জড়িয়ে যায় জালে।

৬৫ মিনিটে ছেত্রী একক  প্রচেষ্টায় বক্সে ঢুকে শট নিলেও গোলকিপার কিরন প্রতিহত করে ব্যবধান বাড়তে দেননি।

দুই গোলে পিছিয়ে থেকে নেপাল ৭৭ মিনিটে ভালো সুযোগ নষ্ট করে। রোহিদ চাদের জোরালো হেড ক্রস বারে লেগে বাইরে চলে গেলে হতাশই হতে হয় সমর্থকদের।

তবে তখনও ভারতের গোলক্ষুধা কমেনি। ৯০ মিনিটে বদলি নেমে সাহাল আব্দুল সামাদ তৃতীয় গোল করে নেপালকে পুরোপুরি ম্যাচ থেকে ছিটকে দেন। তাতেই বড় ব্যবধানে জিতে সাফে চ্যাম্পিয়ন হলো ভারত।

/টিএ/এমআর/

সম্পর্কিত

ভারত না নেপাল, সাফের শ্রেষ্ঠত্ব কার?

ভারত না নেপাল, সাফের শ্রেষ্ঠত্ব কার?

চাকরি হারালেন প্যারাগুয়ের আর্জেন্টাইন কোচ

চাকরি হারালেন প্যারাগুয়ের আর্জেন্টাইন কোচ

ব্রাজিলিয়ান রেফারির সমালোচনায় মেসি

ব্রাজিলিয়ান রেফারির সমালোচনায় মেসি

আর্জেন্টিনাকে জিতিয়ে যা বলে গেলেন লাউতারো

আর্জেন্টিনাকে জিতিয়ে যা বলে গেলেন লাউতারো

সাকিবের চূড়ান্ত লক্ষ্য বিশ্বকাপ জয়

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ২২:২১

আইপিএল খেলে দলের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন সাকিব আল হাসান। গত দুই সপ্তাহ বাংলাদেশ দল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ভেন্যুতে প্রস্তুতি নিলেও সাকিব ছিলেন আইপিএলে ব্যস্ত। আইপিএলের ব্যস্ততা শেষে সাকিবের সামনে এখন বিশ্বকাপ। কুড়ি ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স খুব একটা ভালো নয়। তারপরও এই ফরম্যটে ভালো করতে আশাবাদী সাকিব। এছাড়া আগামী দুই বছরের মধ্যে আইসিসির বেশ কিছু ইভেন্ট আছে। সাকিব জানিয়েছেন, তার চূড়ান্ত লক্ষ্য দেশের হয়ে বিশ্বকাপ জেতা।

ভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে আসন্ন বিশ্বকাপে নিজেদের সম্ভাবনা নিয়ে সাকিব বলেছেন, ‘আমরা নকআউট পর্বে উঠতে সক্ষম। আমাদের বিশ্বকাপ যাত্রা এখন পর্যন্ত অতটা দুর্দান্ত নয়। কিন্তু কীভাবে ম্যাচ জিততে হয়, সেই সূত্র এখন আমাদের জানা। সাম্প্রতিক সিরিজ জয় আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়েছে।’

এই ফরম্যাটে ম্যাচ খেলার সুযোগের অভাবেই বাংলাদেশ পিছিয়ে, এমনটাই মনে করেন সাকিব, ‘আমরা পর্যাপ্ত টি-টোয়েন্টি, বিশেষ করে ঘরোয়া টুর্নামেন্ট খেলিনি; যে কারণে এখনও আমরা সফল নই। আমাদের হাতেগোণা কয়েকজন খেলোয়াড় আইপিএল, সিপিএল (ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ) ও পিএসএল (পাকিস্তান সুপার লিগ) খেলে; কিন্তু পর্যাপ্ত প্রতিযোগিতামূলক টি-টোয়েন্টি খেলতে পারিনি আমরা। হ্যাঁ, আমাদের বিপিএল আছে। কিন্তু এটা কোভিড ও অন্যান্য সমস্যার কারণে ধারাবাহিকভাবে অনুষ্ঠিত হচ্ছে না।’

২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপে ৮ ম্যাচে ৮৬.৫৭ গড়ে ২ সেঞ্চুরি ও ৫ হাফসেঞ্চুরিতে ৬০৬ রান করেছিলেন সাকিব। এছাড়া বল হাতে নিয়েছিলেন ১১ উইকেট। ফরম্যাট ভিন্ন হলেও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এমন কিছু করার স্বপ্ন দেখেন অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটার, ‘আমি আমার ২০১৯ বিশ্বকাপের পারফরম্যান্সের পুনরাবৃত্তি করার যথাসাধ্য চেষ্টা করবো। ফরম্যাটটি ভিন্ন, চ্যালেঞ্জগুলোও তাই ভিন্ন হবে। কিন্তু আমার চূড়ান্ত লক্ষ্য, বাংলাদেশের হয়ে আইসিসির টুর্নামেন্ট জেতা।’

ব্যক্তিগত না থাকলেও দেশের হয়ে বিশ্বকাপ জেতার লক্ষ্য সাকিবের, ‘আমার কোনও ব্যক্তিগত লক্ষ্য নেই। আমি যেকোনও উপায়ে দলের সাফল্যে অবদান রাখতে চাই সবসময়। আমি যেটা বলেছি, শিরোপা জেতাই আমার চূড়ান্ত লক্ষ্য। তিন বছরে আইসিসির টানা তিনটি ইভেন্ট আছে, আমরা যেন অন্তত একটির শিরোপা জিততে পারি।’

/আরআই/কেআর/

সম্পর্কিত

শঙ্কা কেটে গেছে, মাহমুদউল্লাহকে নিয়েই শুরু বিশ্বকাপ

শঙ্কা কেটে গেছে, মাহমুদউল্লাহকে নিয়েই শুরু বিশ্বকাপ

এই স্কটল্যান্ডের কাছে কিন্তু হেরেছে বাংলাদেশ!

এই স্কটল্যান্ডের কাছে কিন্তু হেরেছে বাংলাদেশ!

শঙ্কা কেটে গেছে, মাহমুদউল্লাহকে নিয়েই শুরু বিশ্বকাপ

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ২১:৫২

মাহমুদউল্লাহর চোট বাংলাদেশ দলে অস্বস্তির খবর হয়ে এসেছিল। তবে টি-টোয়েন্টি অধিনায়ককে নিয়ে সব শঙ্কা কেটে গেছে। আগামীকাল (রবিবার) শুরু হবে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে তাকে নিয়েই মাঠে নামবে বাংলাদেশ। ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে মাহমুদউল্লাহ নিজেই নিশ্চিত করেছেন বিষয়টি।

সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেছেন, ‘আমি মোটামুটি সেরে উঠেছি। আগের ইনজুরি এখানে আসার পর দেখা দেয়। এখন ভালো রিকভারি করেছি, সামনের ম্যাচে (স্কটল্যান্ড) খেলতে পারবো।’

রবিবার শুরু হচ্ছে কুড়ি ওভারের বিশ্বকাপ। উদ্বোধনী দিনে চার দল মাঠে নামবে। ওমানের আল আমিরাত ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় বিকাল ৪টায় স্বাগতিক ওমান লড়বে পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে। একই মাঠে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে লড়বে বাংলাদেশ।

বেশ কিছুদিন ধরেই পুরনো পিঠের চোটে ভুগছেন মাহমুদউল্লাহ। এই চোটের কারণে বেশ কিছুদিন বোলিং বন্ধ রেখেছিলেন। কিন্তু টানা খেলার কারণে পিঠের ব্যথা আবার বেড়ে যায় তার। যে কারণে ওমান ‘এ’ দলের বিপক্ষে আনঅফিসিয়াল প্রস্তুতি ম্যাচের পর শ্রীলঙ্কা ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে বিশ্বকাপ ওয়ার্ম-আপ ম্যাচে নামতে পারেননি। তার অনুপস্থিতিতে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন লিটন দাস।

/আরআই/কেআর/

সম্পর্কিত

সাকিবের চূড়ান্ত লক্ষ্য বিশ্বকাপ জয়

সাকিবের চূড়ান্ত লক্ষ্য বিশ্বকাপ জয়

এই স্কটল্যান্ডের কাছে কিন্তু হেরেছে বাংলাদেশ!

এই স্কটল্যান্ডের কাছে কিন্তু হেরেছে বাংলাদেশ!

এই স্কটল্যান্ডের কাছে কিন্তু হেরেছে বাংলাদেশ!

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ২১:২৪

ইচ্ছার আকাশে কল্পনার রঙ ছিটিয়ে রঙিন স্বপ্ন বুনলেও বাস্তবটা বড্ড নির্মম! আশা আর প্রাপ্তিতে বিস্তর ফারাক। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এক যন্ত্রণার নাম বাংলাদেশের কাছে। ওয়ানডে ফরম্যাটে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি কিংবা বিশ্বকাপে পায়ের নিচের মাটি শক্ত করলেও সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে পারফরম্যান্স যেন ‘সংক্ষিপ্ত’ হয়ে আসে খেলোয়াড়দের। তবে ক্রীড়াঙ্গনে অতীত নিয়ে কে পড়ে থাকতে চায়! ওমানে উড়ে যাওয়ার আগে মাহমুদউল্লাহও বলে গেছেন কথাটা। অতীতের ভুল ‘শুধরে’ কতটা সাফল্য ধরা দেয়, আরেকটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অভিযান দিয়ে প্রমাণের পালা বাংলাদেশের।

সেই প্রমাণের শুরুটা হচ্ছে আগামীকালই (রবিবার)। র‌্যাঙ্কিংয়ের হিসাব-নিকাশে এবারও প্রাথমিক পর্বে নামতে হচ্ছে মাহমুদউল্লাহদের। শুরুতেই প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ড। বিশ্বকাপে যাওয়ার আগে ক্রিকেট বিশ্লেষক ও বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা একটা হিসাব কষে নিয়েছেন— প্রাথমিক পর্বে নিশ্চিতভাবেই পেরিয়ে যাবে! এরপর সুপার-১২ রাউন্ডে কতদূর যেতে পারবে, এ নিয়েই চলছে গবেষণা। যদিও প্রাথমিক পর্বে, বিশেষ করে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে কঠিন চ্যালেঞ্জই হয়তো অপেক্ষা করছে। মুখোমুখি লড়াইয়ের গ্রাফ দেখলে তো বাংলাদেশ পিছিয়েই আছে!

ক্রিকেট ঐতিহ্য-ইতিহাসে বাংলাদেশ অনেক এগিয়ে। কিন্তু শুধু টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের পরিসংখ্যানে এলে এগিয়ে স্কটিশরা। দুই দলের একবারই দেখা হয়েছিল। ২০১২ সালের একমাত্র টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি জিতেছিল স্কটল্যান্ড। সেবার আয়ারল্যান্ড-নেদারল্যান্ডস সফরে গিয়েছিল মুশফিকুর রহিমের নেতৃত্বে। আয়ারল্যান্ডে খেলে নেদারল্যান্ডস পৌঁছে স্বাগতিকদের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে স্কটল্যান্ডের সঙ্গে একটি টি-টোয়েন্টি খেলেছিল লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। হেগের ম্যাচটি ৩৪ রানে হেরেছিল বাংলাদেশ। স্কটল্যান্ডের ৭ উইকেটে করা ১৬২ রানের জবাবে ১৮ ওভারে ১২৮ রানে গুটিয়ে যায় মুশফিকরা।

হেগের ওই ম্যাচের তিন সদস্য আছেন এবারের বিশ্বকাপের দলে। কোনও অঘটন না ঘটলে ওই তিনজন- মাহমুদউল্লাহ, মুশফিক ও সাকিব আল হাসান খেলবেন আগামীকালের ম্যাচে। ৯ বছর আগের ওই ম্যাচে সাকিব খেলেছিলেন সর্বোচ্চ ৩১ রানের ইনিংস। ২৯ বলের ইনিংস সাজিয়েছিলেন ১ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায়। মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহ দুজনই করেছিলেন ৯ রান।

যদিও ক্রিকেটে একটা কথা আছে- পরিসংখ্যান সবসময় সত্যি কথা বলে না! হেগের ম্যাচটির পর কেটে গেছে অনেকটা সময়। সময়ের পালা বদলে টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ এখন নিজেদের অবস্থান শক্তিশালী করেছে। জিম্বাবুয়ের পর ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ জিতে গিয়েছে বিশ্বমঞ্চে। তাই আত্মবিশ্বাসে ভরপুর থাকার কথা মাহমুদউল্লাহদের।

আবার আশঙ্কাও আছে! আইসিসির বিশ্ব আসরের আগে প্রস্তুতির অংশ হিসেবে থাকে ওয়ার্ম-আপ ম্যাচ। ওমান ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিশ্বকাপের আগে বাংলাদেশ খেলেছে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ। হেরেছে দুটিতেই। হার-জিত যদিও বড় বিষয় নয়, নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়ার ব্যাপারটাই এখানে মুখ্য। মুশফিক-লিটনরা সেই কাজটাও করতে পারেননি। শ্রীলঙ্কা ও আয়ার‌ল্যান্ডের কাছে বাজেভাবে হেরে ব্যাটিং-বোলিংয়ের পাশে এঁকে দিয়েছে প্রশ্নবোধক চিহ্ন!

সে যা-ই হোক, মূল লড়াইয়ে অন্যরকম বাংলাদেশেকেই দেখার আশা। অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ঘরের মাঠে পাওয়া গিয়েছিল যেমন। তাহলেই আত্মবিশ্বাসের হাওয়ায় উজ্জীবিত দলের ছবি ফুটে উঠবে স্পষ্ট হয়ে!

/কেআর/

সম্পর্কিত

সাকিবের চূড়ান্ত লক্ষ্য বিশ্বকাপ জয়

সাকিবের চূড়ান্ত লক্ষ্য বিশ্বকাপ জয়

শঙ্কা কেটে গেছে, মাহমুদউল্লাহকে নিয়েই শুরু বিশ্বকাপ

শঙ্কা কেটে গেছে, মাহমুদউল্লাহকে নিয়েই শুরু বিশ্বকাপ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

ওমান-পাপুয়া নিউগিনি যা, বাংলাদেশও তাই!

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ২০:৩৯

বিশ্বকাপের আগে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচে হেরেছে বাংলাদেশ। যার একটি আবার আয়ারল্যান্ডের কাছে। অথচ এই আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে জয় তুলে নিয়েছে স্কটল্যান্ড। আইরিশদের উড়িয়ে দেওয়ার পর স্কটিশ কোচ বাংলাদেশকে পাত্তা না দেওয়া সাহস দেখাতেই পারেন। সেটিই করলেন স্কটিশ কোচ শেন বার্জার।

আগামীকাল (রবিবার) পর্দা উঠবে ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের। প্রথম দিনেই বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ড। তাদের গ্রুপে আরও আছে স্বাগতিক ওমান ও পাপুয়া নিউগিনি (পিএনজি)। প্রথম রাউন্ডে ‘বি’ গ্রুপে সন্দেহাতীতভাবে বাংলাদেশকে ফেভারিট মানা হচ্ছে। যদিও স্কটল্যান্ডের কোচ বার্জার তা মনে করেন না।

বাংলাদেশ ম্যাচের আগের দিন একরকম হুমকিই দিয়ে রাখলেন স্কটিশ এই কোচ। অবশ্য এমন আত্মবিশ্বাসী হওয়ার কারণও আছে। টি-টোয়েন্টিতে স্কটল্যান্ডের সঙ্গে একবারের মুখোমুখিতে হেরেছিল বাংলাদেশ। সেই জয় হয়তো স্কটিশ কোচকে আত্মবিশ্বাসী করে তুলছে, ‘আমরা জানি, নিজেদের সেরাটা খেলতে পারলে আমরা সব দলকেই বিপাকে ফেলতে পারবো, এটা সহজ হিসাব। সংক্ষিপ্ততম সংস্করণ সব দলকেই কাছাকাছি নিয়ে আসে। আমরা জানি, আমাদের সামর্থ্য আছে। যদি নিজেদের সেরাটা দিতে পারি, যেকোনও দলকে হারাতে পারি আমরা। হোক সেটা বাংলাদেশ, ওমান কিংবা পাপুয়া নিউগিনি।’

বাংলাদেশকে বাকি দুই প্রতিপক্ষের চেয়ে এগিয়ে রাখতে নারাজ বার্জার। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, ‘প্রথম রাউন্ডের ম্যাচগুলোয় বাংলাদেশকে আমরা পিএনজি বা ওমানের চেয়ে ওপরে কোথাও দেখি না। আমরা জানি, সব দলই আমাদের বিপক্ষে জিততে তেড়ে আসবে। তবে আমরা তাদের সবার জন্যই সবচেয়ে বড় ম্যাচ হবো, আমরা প্রস্তুত।’

গত এক মাসের প্রস্তুতিতেই স্কটিশ কোচ নিজেদের এগিয়ে রাখছেন, ‘বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের মতো মানসম্পন্ন দলের বিপক্ষে লড়াইয়ের আগে আমাদের দুর্দান্ত মোমেন্টাম দিয়েছে নেদারল্যান্ডস, নামিবিয়ার বিপক্ষে জয়গুলো। চাপটার সঙ্গে পরিচিত হয়েছি আমরা, জয়ের অভ্যাস গড়েছি। ভুলও করেছি, তবে গত এক মাসে সত্যিই ভালো ক্রিকেট খেলেছি আমরা।’

/আরআই/কেআর/

সম্পর্কিত

সাকিবের চূড়ান্ত লক্ষ্য বিশ্বকাপ জয়

সাকিবের চূড়ান্ত লক্ষ্য বিশ্বকাপ জয়

শঙ্কা কেটে গেছে, মাহমুদউল্লাহকে নিয়েই শুরু বিশ্বকাপ

শঙ্কা কেটে গেছে, মাহমুদউল্লাহকে নিয়েই শুরু বিশ্বকাপ

সর্বশেষসর্বাধিক
© 2021 Bangla Tribune