X
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

প্রাণ ফিরছে জাবি ক্যাম্পাসে

আপডেট : ১২ অক্টোবর ২০২১, ১৪:১৬

করোনা সংক্রমণরোধে দেড় বছরেরও বেশি সময় বন্ধ থাকার পর সোমবার (১১ অক্টোবর) জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলো খুলে দেওয়া হয়েছে। এদিন সকালে নিজ নিজ হলে আসলে শিক্ষার্থীদের বরণ করা হয়। দীর্ঘদিন পর ক্যাম্পাসে ফিরে উচ্ছ্বসিত শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাধ্যক্ষ কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মুজিবুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, আমরা শিক্ষার্থীদের জন্য গোলাপ ফুল, বিস্কুট, কলা, মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা করেছি। প্রত্যেক হলেই এ ব্যবস্থা করা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা ফিরে আসায় ক্যাম্পাসে প্রাণ ফিরে পেয়েছে।

হলে ফিরতে পেরে উচ্ছ্বসিত বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হলের অর্থনীতি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আবেশ বলেন, দীর্ঘ ছুটির পর ক্যাম্পাসে ফিরলাম। এত পরিচিত মুখ দেখে খুব ভালো লাগছে। আমরা সবসময় এরকম উৎফুল্ল থাকতে চাই।

হলে আগত শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করা হয়

সরকার ও রাজনীতি বিভাগের স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থী সামিয়া লিতু বলেন, হলে ফেরার আনন্দ ঈদের আনন্দের মতো মনে হচ্ছে। বন্ধু-বান্ধব মিলে আড্ডা দিতে পারছি।

করোনার প্রাদুর্ভাবের পর গত বছরের ১৮ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোও বন্ধ করে দেওয়া হয়। গতকাল থেকে প্রথম বর্ষের ছাড়া সব নিয়মিত শিক্ষার্থী হলে উঠেছেন।

আগামী ২১ অক্টোবর ক্লাস শুরুর পর থেকে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের ধীরে ধীরে হলে ওঠানোর পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রাধ্যক্ষ কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মুজিবুর রহমান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হল ঘুরে দেখা যায়, স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে প্রত্যেক হলের প্রবেশপথে বসানো হয়েছে হাত ধোয়ার বেসিন। হলের দেয়ালে নতুন রঙ, বাগানে নতুন ফুলগাছ ও মাঠের ঘাস কেটে ছোট করা হয়েছে। দীর্ঘদিনের ধুলোয় মলিন ডাইনিং, ক্যান্টিন, ক্যাফেটেরিয়া, রিডিং রুম ধুয়ে মুছে পরিষ্কার করা হয়েছে। টয়লেট ও বাথরুমগুলো পরিষ্কার করার পাশাপাশি কোনও কোনও হল সংস্কারও করেছে কর্তৃপক্ষ।

প্রথম বর্ষের ছাড়া সব নিয়মিত শিক্ষার্থী হলে উঠেছেন

শহীদ রফিক-জব্বার হলের প্রাধ্যক্ষ সোহেল আহমেদ বলেন, শিক্ষার্থীদের খাবারের সুন্দর ও স্বাস্থ্যকর পরিবেশ নিশ্চিতে আমাদের হলের ক্যান্টিন ও ডাইনিং চালু করা হয়েছে। শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে হলে অবস্থান করতে হবে।

সোমবার সকাল ৮টা থেকে হলে উঠতে শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। প্রবেশকালে পরিচয়পত্রের সঙ্গে কোভিড-১৯ টিকার কার্ড এবং অন্তত এক ডোজ টিকা নেওয়ার শর্তে হলে ঢুকতে দেয় কর্তৃপক্ষ।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের প্রাধ্যক্ষ সহযোগী অধ্যাপক মাহবুবুল কবির হিমেল বলেন, স্বাস্থ্যবিধির অংশ হিসেবে মাস্ক পরিয়ে ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করিয়ে শিক্ষার্থীদের হলে ঢোকানো হয়। মহামারীকালে কীভাবে হলে থাকবে, সেজন্য নির্দেশনাবলীও শিক্ষার্থীদের দেওয়া হয়েছে। কোনও শিক্ষার্থীর জ্বর বা করোনায় আক্রান্ত হওয়ার লক্ষণ দেখা দিলে, তাকে কোয়ারেন্টাইনে এনে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হবে। করোনা রোগীকে কীভাবে চিকিৎসা দিতে চিকিৎসক এনে হল সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়াজেদ মিয়া বিজ্ঞান গবেষণা কেন্দ্রে করোনা টিকাকেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে

এখন পর্যন্ত যারা করোনার এক ডোজ টিকাও নিতে পারেননি, তাদের জন্য টিকার ব্যবস্থা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়াজেদ মিয়া বিজ্ঞান গবেষণা কেন্দ্রে করোনা টিকাকেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় এই কেন্দ্র উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, যাদের জাতীয় পরিচয়পত্র আছে প্রাথমিকভাবে তাদের টিকা দেওয়া হচ্ছে। যাদের পরিচয়পত্র নেই তাদের জন্ম নিবন্ধনের মাধ্যমে টিকার ব্যবস্থা করা হয়েছে। যাদের কোনোটাই নেই তারা যেন দ্রুত এসব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে টিকার আওতায় আসে।

ওয়াজেদ মিয়া বিজ্ঞান গবেষণা কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক অধ্যাপক এ এ মামুন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিকাল পর্যন্ত টিকাদান কার্যক্রম চলবে। এরপরও যদি কোনও শিক্ষার্থী টিকা না নিতে পারে, তাহলে পরবর্তীতে কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আবারও কার্যক্রম চালু করা হবে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

সিনিয়রের নাম ধরে ডাকায় কুবি ছাত্রলীগের দু’পক্ষে সংঘর্ষ

সিনিয়রের নাম ধরে ডাকায় কুবি ছাত্রলীগের দু’পক্ষে সংঘর্ষ

যবিপ্রবিতে ‘এ’ ইউনিটে আসন পড়েছে ৬ হাজার শিক্ষার্থীর

যবিপ্রবিতে ‘এ’ ইউনিটে আসন পড়েছে ৬ হাজার শিক্ষার্থীর

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় শাবির ৫৪ শিক্ষক

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় শাবির ৫৪ শিক্ষক

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় হাবিপ্রবির ১৩ শিক্ষক

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় হাবিপ্রবির ১৩ শিক্ষক

‘প্রত্যেকের নিজ ধর্ম স্বাধীনভাবে পালনের অধিকার রয়েছে’

আপডেট : ১৫ অক্টোবর ২০২১, ১৯:৪০

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেছেন, উৎসব কোনও নির্দিষ্ট সম্প্রদায়ের নয়। প্রত্যেক মানুষের স্বাধীনভাবে নিজ নিজ ধর্মীয় উৎসব পালনের অধিকার রয়েছে। যারা নির্দিষ্ট ধর্মভিত্তিক রাষ্ট্রব্যবস্থা গড়ে তুলতে চায়, তাদের না বলার সময় এসেছে।

শুক্রবার (১৫ অক্টোবর) বিকাল সাড়ে চারটায় দেশের বিভিন্ন স্থানে শারদীয় দুর্গোৎসবের পূজামণ্ডপে হামলা ও প্রতিমা ভাঙচুরের প্রতিবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সকল সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশ সংহতি জানিয়ে দেওয়া বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। 

ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, ‘শারদীয় দুর্গা উৎসবে যারা আক্রমণ করেছে, মানুষের ধর্মীয় অনুভূতিতে যারা আঘাত করেছে; সেই সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে ও সহিংসতার সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে আজকের এই প্রতিবাদ সমাবেশ। 

এদেশের সব ধর্মীয় অনুষ্ঠান সকল মানুষের উৎসব উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এখানে দুর্গা উৎসব, ঈদ, বড়দিন, সরস্বতী পূজা, পহেলা বৈশাখ, বিজু কিংবা সাংরাইয়ের উৎসব— এদেশের মানুষের হাজার বছরের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের পটভূমিতে লালিত। যারা এই দেশে সহিংসতা তৈরি করতে চায়, তাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার সময় আমাদের এসেছে। বাঁশের লাঠি তৈরি করে এদের প্রতিরোধ করার সময় এসেছে। যেখানেই মন্দির আক্রান্ত হবে সেখানেই বাঁশের লাঠি দিয়ে এদের প্রতিরোধ করতে হবে।

নাট্য সংসদের সাধারণ সম্পাদক দিগার মোহাম্মদ কৌশিকের সঞ্চালনায় এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন নাট্য সংসদের সভাপতি মনিরুজ্জামান মুন্না, নাট্য সংসদের সাবেক সভাপতি সামিউল হক সানি, ডিবেটিং সোসাইটির সাবেক সভাপতি রাকিব সিরাজী, শহীদুল্লাহ হল সংসদের সাবেক ভিপি হোসেইন মোহাম্মদ তুরান, জগন্নাথ হলের সাবেক জিএস কাজল দাস প্রমুখ। 

/এনএইচ/

সম্পর্কিত

সিনিয়রের নাম ধরে ডাকায় কুবি ছাত্রলীগের দু’পক্ষে সংঘর্ষ

সিনিয়রের নাম ধরে ডাকায় কুবি ছাত্রলীগের দু’পক্ষে সংঘর্ষ

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় কুবির ৪ শিক্ষক

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় কুবির ৪ শিক্ষক

উগ্র সাম্প্রদায়িক শক্তির নির্ভরযোগ্য ঠিকানা বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

উগ্র সাম্প্রদায়িক শক্তির নির্ভরযোগ্য ঠিকানা বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় বেরোবির ৭ শিক্ষক

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় বেরোবির ৭ শিক্ষক

সিনিয়রের নাম ধরে ডাকায় কুবি ছাত্রলীগের দু’পক্ষে সংঘর্ষ

আপডেট : ১৫ অক্টোবর ২০২১, ১৫:২৭

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত হলে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত পাঁচ জন আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) রাত ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বৃহস্পতিবার বিকালে ১৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ কর্মী রিয়াজুল ইসলাম বাঁধন ১২তম ব্যাচের সোহাগ নামের এক ছাত্রলীগ কর্মীকে ‘তুমি’ বলে সম্বোধন করেন। এতে ১২তম ব্যাচের সোহাগ, শাফী, ওয়াকিল ও আবিরসহ কয়েকজন বাঁধনকে হলের দ্বিতীয় তলার একটি কক্ষে নিয়ে হুমকি ও মারধর করে।

বাঁধন জানান, ‘সোহাগ ভাইয়ের নাম ধরে ডাকায় শাফী ভাই, সোহাগ ভাই, আবির ভাই ও ওয়াকিল ভাইসহ কয়েকজন আমাকে চেয়ারের সঙ্গে গামছা দিয়ে বাঁধেন। এরপর বেল্ট দিয়ে পেটাতে থাকেন। আমি অজ্ঞান হয়ে গিয়েছিলাম। পরে আমার বন্ধুরা এসে গাড়িতে তুলে দিলে আমি হল থেকে বাড়ি চলে আসি।’

মারধরের ঘটনা অস্বীকার করে ওয়াকিল বলেন, ‘তাকে (বাধন) রুমে নিয়ে মারধরের প্রশ্নই আসে না। সিনিয়রের নাম ধরে ডাকায় হলের বারান্দায় তাকে একটু শাসানো হয়েছিল।’ 

আবির ও সোহাগ জানান, ‘বাঁধন অনেক আগে থেকেই সিনিয়রদের সঙ্গে উগ্র আচরণ ও বেয়াদবি করছিলো। আমরা সিনিয়র হিসেবে তাকে শুধু বুঝিয়েছি। মারধরের প্রশ্নই আসে না। বরং তাকে বুঝিয়ে কোকও খাইয়েছি৷ তাকে মারধর করলে তো হলের সবাই জানার কথা।’

বাঁধনকে শাসানোর জেরে বৃহস্পতিবার রাতে ১১টার দিকে ১৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ১২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী শাফীকে ২০০৪ নম্বর কক্ষের দরজা আটকে মারধর করে বলে জানায় প্রত্যক্ষদর্শীরা। মারধরের খবর পেয়ে সহপাঠীরা কক্ষের দরজা ভেঙে শাফীকে উদ্ধার করেন।

শাফী বলেন, ‘তারা সিনিয়রদের গায়ে হাত তুলেছে। সাংগঠনিক একটা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছে। দত্ত হলের ইতিহাসে যা কোনও দিন হয়নি, তারা তা করেছে। আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি, তারা হলে থাকার যোগ্য না। আমি তাদের বোঝাতে গিয়েছিলাম। কিন্তু তারা আমাকে মারধর করেছে। ইলিয়াস ভাই, মাজেদ ভাই (শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক) সাংগঠনিকভাবে যে সিদ্ধান্ত নেবেন, আমরা তা মেনে নেবো।’

১৩তম ব্যাচের চার শিক্ষার্থী বলেন, ‘আমরা কাউকে মারধর করিনি। শুধু বন্ধুকে মারধরের কারণ জানতে ওই কক্ষে গিয়েছিলাম। কথা কাটাকাটি থেকে পরে উত্তেজনা ছড়িয়েছে।’

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছে, এ ঘটনায় দুই ব্যাচ মারমুখী হয়ে উঠলে শাখা ও দত্ত হল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এসে সংঘর্ষে লিপ্ত দুই ব্যাচের শিক্ষার্থীদের মারধর করে। এরপর বিচারের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল ইসলাম মাজেদের কক্ষে নিয়ে গিয়ে সেখানেও মারধর করা হয়। এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়।

এ বিষয়ে হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাফিউল আলম দীপ্ত বলেন, ‘আমি শুনেছি, দুই ব্যাচের শিক্ষার্থীদের মাঝে কথা কাটাকাটি হয়েছে। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে সাংগঠনিকভাবে মীমাংসা করে দিয়েছি।’

শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল ইসলাম মাজেদ বলেন, ‘১৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা ১২তম ব্যাচের শিক্ষার্থীদের সাথে বেয়াদবি করবে, সেটা অপ্রত্যাশিত।’

কক্ষে নিয়ে বিচারের নামে মারধরের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘সংগঠন অনেক বড়। আমরা একটি পরিবারের মতো। এখানে নিজেদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি হলে আমরা তা সমাধান করি। আজকেও আমরা সমাধান করেছি। অপরাধের মাত্রা বুঝে সামনে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত হলের প্রভোস্ট ড. মোহাম্মদ জুলহাস মিয়া বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে আমি অবগত নই। যদি হলে এমন কোনও ঘটনা ঘটে থাকে তাহলে তদন্ত কমিটি গঠন করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

যবিপ্রবিতে ‘এ’ ইউনিটে আসন পড়েছে ৬ হাজার শিক্ষার্থীর

যবিপ্রবিতে ‘এ’ ইউনিটে আসন পড়েছে ৬ হাজার শিক্ষার্থীর

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় শাবির ৫৪ শিক্ষক

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় শাবির ৫৪ শিক্ষক

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় হাবিপ্রবির ১৩ শিক্ষক

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় হাবিপ্রবির ১৩ শিক্ষক

প্রাণ ফিরছে জাবি ক্যাম্পাসে

প্রাণ ফিরছে জাবি ক্যাম্পাসে

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় কুবির ৪ শিক্ষক

আপডেট : ১৪ অক্টোবর ২০২১, ২১:২২

অ্যালপার ডগার (এডি) সায়েন্টিফিক ইনডেক্সের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত চলতি বছরের বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় স্থান পেয়েছেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) ট্রেজারারসহ চার শিক্ষক। ১০ অক্টোবর বিশ্বসেরা গবেষকদের ১২টি ক্যাটাগরিতে এ তালিকা প্রকাশ করা হয়।

তালিকায় স্থান পেয়েছেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক ড. মো. আসাদুজ্জামান। তিনি বাংলাদেশি গবেষকদের মধ্যে ১৭৯৩তম এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গবেষকদের মধ্যে ১৫৩তম স্থান অর্জন করেছেন। 

অধ্যাপক ড. মো. আসাদুজ্জামান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত রসায়ন ও কেমিকৌশল বিভাগের শিক্ষক। এ ছাড়া তালিকায় স্থান পেয়েছেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের চার শিক্ষক। তাদের মধ্যে প্রথমস্থানে রয়েছেন অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ বেলাল উদ্দিন, সহযোগী অধ্যাপক মো. তোফায়েল হোসেন মজুমদার, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. খলিলুর রহমান এবং ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কাজী ওমর সিদ্দিক।

বৃহস্পতিবার অধ্যাপক ড. মো. আসাদুজ্জামান বলেন, আমরা প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছি। আরও বেশি করে গবেষণায় মনোনিবেশ করার ইচ্ছে আছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের অধীনে বিভিন্ন প্রজেক্টে গবেষণায় বরাদ্দ রেখেছেন। তার কারণে গবেষকরা উঠে এসেছেন। আগামী আরও বেশি বরাদ্দ প্রত্যাশা করছি।

তালিকায় ১২টি ক্যাটাগরিতে বিশ্বের ২০৬টি দেশের গবেষকদের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। এতে ৭ লাখ ৮ হাজার ৫৬১ জন গবেষক স্থান পেয়েছেন। ১৭৯৪ জন বাংলাদেশি গবেষক এতে স্থান পেয়েছেন। সায়েন্টিফিক ইনডেক্স গবেষকদের গুগল স্কলারের রিসার্চ প্রোফাইলের গত ৫ বছরের গবেষণার এইচ ইনডেক্স, আইটেন ইনডেক্স এবং সাইটেশন স্কোরের ভিত্তিতে র‍্যাঙ্কিং প্রকাশ করেছে।

/এএম/

সম্পর্কিত

বিশ্বসেরা গবেষকের তালিকায় ইবির ১৭ শিক্ষক

বিশ্বসেরা গবেষকের তালিকায় ইবির ১৭ শিক্ষক

বিশ্ববিদ্যালয় খোলার দাবিতে আনু মুহাম্মদের প্রতীকী ক্লাস

বিশ্ববিদ্যালয় খোলার দাবিতে আনু মুহাম্মদের প্রতীকী ক্লাস

কুবির সেই ২ শিক্ষকের বিরুদ্ধে নেওয়া সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি

কুবির সেই ২ শিক্ষকের বিরুদ্ধে নেওয়া সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি

রাবিতে শিক্ষককে চাকরিপ্রত্যাশী যুবকের গুলি করার হুমকি

রাবিতে শিক্ষককে চাকরিপ্রত্যাশী যুবকের গুলি করার হুমকি

উগ্র সাম্প্রদায়িক শক্তির নির্ভরযোগ্য ঠিকানা বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

আপডেট : ১৪ অক্টোবর ২০২১, ২১:০৮

এদেশের সব উগ্র সাম্প্রদায়িক শক্তির নির্ভরযোগ্য ঠিকানা বিএনপি - বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) জগন্নাথ হলের পূজামণ্ডপ পরিদর্শন শেষে এসব কথা বলেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি এবং এদের দোসররা হিন্দু সম্প্রদায়ের শারদীয় দুর্গাপূজার সময় সাম্প্রদায়িক সহিংসতা সৃষ্টি করে দেশে শান্তি বিনষ্টের পাঁয়তারা চালাচ্ছে। এ মহলটি কারা, কারা এদের পৃষ্ঠপোষক, তাদেরকে আমরা চিনি। এদেশের সকল উগ্র সাম্প্রদায়িক শক্তির নির্ভরযোগ্য ঠিকানা হচ্ছে বিএনপি। তাদের পৃষ্ঠপোষকতায় আজকের এই সাম্প্রদায়িক শক্তি মাথা চাড়া দিয়ে ওঠেছে, তারা দুঃসাহস দেখাচ্ছে। গত ১২ বছর শেখ হাসিনার শাসনামলে দেশের কোথাও কোনও বিশৃঙ্খলা হয়নি। অথচ এইবার কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গা কতগুলো দুঃখজনক ঘটনা ঘটে গেছে। বিষয়টির তদন্ত চলছে। এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। তাদের বিরুদ্ধে সরকারের অবস্থান, আওয়ামী লীগের অবস্থান অত্যন্ত কঠোর। এখন থেকে এই বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে কোনও সহিংসতা, বিশৃঙ্খলা কাউকে করতে দেওয়া হবে না। আমরা কাউকে আক্রমণ করব না, কিন্তু আক্রান্ত হলে আমরা পাল্টা জবাব দেব। এসময় তিনি নেতাকর্মীদের ঠাণ্ডা মাথায় সকল পরিস্থিতি মোকাবিলা করার পরামর্শ দেন।

তিনি আরও বলেন, কাল দশমী, বিসর্জনের দিন। কালকেও তারা আক্রমণ চালাতে পারে, আমি সরকারের পাশাপাশি আমাদের নেতাকর্মীদের বলব, আপনাদের সতর্ক পাহারায় থাকতে হবে। কারণ এই অপশক্তি এবং তাদের যে পৃষ্ঠপোষক, বিএনপি ‑ তারা আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে, নির্বাচনে হেরে, ষড়যন্ত্রের চোরাগলি বেছে নিয়েছে ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য। তারা আজ বাংলাদেশের স্থিতি নষ্ট করতে চায়, শান্তি বিনষ্ট করতে চায়।

ওবায়দুল কাদের বলেন, অতিমারির কারণে যে স্থবিরতা ছিল তা এবার অনেকটা কেটে গেছে, করোনা অনেকটা নিয়ন্ত্রণে। তবে এটা সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে এসেছে দাবি করার কোনও কারণ নেই। কোনওভাবেই শৈথিল্য প্রদর্শন করা যাবে না। আমি ইচ্ছে করেই অফিসে যাই, বিশ্ববিদ্যালয়ে চক্কর দেই। অনেক দিন এখান দিয়ে যেতে পারেনি বলে মনটা বেদনায় ভরে উঠতো। খুবই স্মৃতিকাতর হয়ে পড়ি। ১৯৭৫ সালের পর সকল লড়াই সংগ্রামের সকল প্রস্তুতিমূলক সভাগুলো এই জগন্নাথ হলে করেছি।

জগন্নাথ হল নিয়ে নিজের স্মৃতির কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, এখানেই আমরা দুঃসময়ে আশ্রয় নিয়েছি, দুঃসময়ে বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রতিশোধ নিতে কর্মসূচি প্রস্তুত করেছি।

এসময় তিনি পূজার আয়োজক কমিটি ও উপস্থিত সকলকে শারদীয় শুভেচ্ছা জানান।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, এই উৎসবটির জন্য হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা তো বটেই, সমস্ত বাঙালিরা অপেক্ষায় থাকে।

/এমএস/

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় বেরোবির ৭ শিক্ষক

আপডেট : ১৪ অক্টোবর ২০২১, ১৮:০০

অ্যালপার ডগার (এডি) সায়েন্টিফিক ইনডেক্সের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) সাত জন শিক্ষকের নাম স্থান পেয়েছে।  

তারা হলেন—বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আবু রেজা মোহাম্মদ তৌফিকুল ইসলাম রিপন, পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. কামরুজ্জামান, পরিসংখ্যান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. শাহজামান, ইইই বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ফেরদৌস রহমান, ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. নুর আলম সিদ্দিক, অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আপেল মাহমুদ এবং পরিসংখ্যান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. সিদ্দিকুর রহমান।

সম্প্রতি এডি সায়েন্টিফিক ইনডেক্সের ওয়েবসাইটে দেখা যায়, ‌তালিকায় বিশ্বের ২০৬টি দেশের ১৩ হাজার বিশ্ববিদ্যালয়ের সাত লাখ আট হাজার ৪৮০ জন গবেষকের নাম এসেছে। এতে বাংলাদেশের এক হাজার ৭৯১ জন রয়েছেন।

তালিকায় স্থান পাওয়া বেরোবির অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিসটেমস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আপেল মাহমুদ বলেন, এই তালিকায় অর্ন্তভুক্ত হওয়া গর্বের বিষয়। এর মাধ্যমে আমরা রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়কে দেশে-বিদেশে পরিচিত করতে পেরেছি। গবেষণা যত সমৃদ্ধ হবে বিম্বব্যাপী এর সুনাম তত বেশি ছড়িয়ে পড়বে।

পরিসংখ্যান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, এই প্রাপ্তি আমাকে গবেষণায় আরও বেশি মনোযোগী হতে অনুপ্রেরণা ও উৎসাহ যোগাবে।

এডি সায়েন্টিফিক ইনডেক্সে ১২টি ক্যাটাগরিতে বিশ্বের ২০৬টি দেশের গবেষকদের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। গবেষকদের গুগল স্কলারের রিসার্চ প্রোফাইলের গত ৫ বছরের গবেষণার এইচ ইনডেক্স, আইটেন ইনডেক্স এবং সাইটেশন স্কোরের ভিত্তিতে র‌্যাংকিংটি প্রকাশ করেছে সায়েন্টিফিক ইনডেক্স।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

‘প্রত্যেকের নিজ ধর্ম স্বাধীনভাবে পালনের অধিকার রয়েছে’

‘প্রত্যেকের নিজ ধর্ম স্বাধীনভাবে পালনের অধিকার রয়েছে’

সিনিয়রের নাম ধরে ডাকায় কুবি ছাত্রলীগের দু’পক্ষে সংঘর্ষ

সিনিয়রের নাম ধরে ডাকায় কুবি ছাত্রলীগের দু’পক্ষে সংঘর্ষ

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় কুবির ৪ শিক্ষক

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় কুবির ৪ শিক্ষক

উগ্র সাম্প্রদায়িক শক্তির নির্ভরযোগ্য ঠিকানা বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

উগ্র সাম্প্রদায়িক শক্তির নির্ভরযোগ্য ঠিকানা বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সিনিয়রের নাম ধরে ডাকায় কুবি ছাত্রলীগের দু’পক্ষে সংঘর্ষ

সিনিয়রের নাম ধরে ডাকায় কুবি ছাত্রলীগের দু’পক্ষে সংঘর্ষ

যবিপ্রবিতে ‘এ’ ইউনিটে আসন পড়েছে ৬ হাজার শিক্ষার্থীর

যবিপ্রবিতে ‘এ’ ইউনিটে আসন পড়েছে ৬ হাজার শিক্ষার্থীর

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় শাবির ৫৪ শিক্ষক

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় শাবির ৫৪ শিক্ষক

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় হাবিপ্রবির ১৩ শিক্ষক

বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় হাবিপ্রবির ১৩ শিক্ষক

জাবি অধ্যাপক আফসার আহমেদ মারা গেছেন

জাবি অধ্যাপক আফসার আহমেদ মারা গেছেন

সাস্ট ক্লাবের নতুন কমিটি ঘোষণা

সাস্ট ক্লাবের নতুন কমিটি ঘোষণা

হাবিপ্রবিতে সশরীরে ক্লাশ শুরু ২১ অক্টোবর

হাবিপ্রবিতে সশরীরে ক্লাশ শুরু ২১ অক্টোবর

১৮ অক্টোবর চবির হল খোলা নিয়ে অনিশ্চয়তা

১৮ অক্টোবর চবির হল খোলা নিয়ে অনিশ্চয়তা

৯ অক্টোবর খুলছে ইবির হল

৯ অক্টোবর খুলছে ইবির হল

দেড় বছর পর হলে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

দেড় বছর পর হলে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

সর্বশেষ

আসিয়ানের সম্মেলন থেকে বাদ মিয়ানমারের জান্তা প্রধান

আসিয়ানের সম্মেলন থেকে বাদ মিয়ানমারের জান্তা প্রধান

‘ভবনে রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং থাকলে ১০ শতাংশ হোল্ডিং কর রেয়াত’

‘ভবনে রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং থাকলে ১০ শতাংশ হোল্ডিং কর রেয়াত’

ষড়যন্ত্রকারীরা মন্দিরে কোরআন শরীফ রেখেছিল: খন্দকার মোশারফ

ষড়যন্ত্রকারীরা মন্দিরে কোরআন শরীফ রেখেছিল: খন্দকার মোশারফ

সরকারের সঙ্গে আলেমদের কোনও বিরোধ নেই: মাওলানা হাসান

সরকারের সঙ্গে আলেমদের কোনও বিরোধ নেই: মাওলানা হাসান

ঢাকার ফুটপাতে খাবার থাকে না ঢাকা (ফটো স্টোরি)

বিশ্ব খাদ্য দিবস ঢাকার ফুটপাতে খাবার থাকে না ঢাকা (ফটো স্টোরি)

© 2021 Bangla Tribune