X
শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ৭ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

করোনায় ৪ বিভাগ মৃত্যুহীন

আপডেট : ১৩ অক্টোবর ২০২১, ১৭:১৯

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়েছে। তবে স্বাস্থ্য অধিদফতরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তি বলছে, ১২ অক্টোবর সকাল ৮টা থেকে ১৩ অক্টোবর সকাল ৮টা পর্যন্ত দেশের চার বিভাগে কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে কারও মৃত্যু হয়নি। 

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ১৭ জন মারা গেছেন। আগের দিন মৃতের সংখ্যা ছিল ১৪। সরকারি হিসাবে এখন পর্যন্ত করোনায় ২৭ হাজার ৭৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। 

মৃতের তালিকায় নতুন যুক্ত হওয়া ১৭ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ১৩ জন, চট্টগ্রামের ১ জন, খুলনার ২ জন এবং বরিশালের ১ জন। বাকি চার বিভাগ রাজশাহী, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহে করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু দেখা যায়নি।

অধিদফতরের তথ্যানুযায়ী, করোনায় নতুন শনাক্ত হয়েছেন ৫১৮ জন। দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ লাখ ৬৪ হাজার ১৯ জন।

চলতি বছরের মার্চ মাসের পর থেকে করোনায় দৈনিক মৃত্যু ক্রমে বাড়তে থাকে। করোনাভাইরাসের ডেল্টা ধরনের দাপটের মধ্যে জুলাইয়ে দিনে মৃতের সংখ্যা দুইশর ঘর ছাড়িয়ে যায়। গত আগস্টের দুই দিন এই জীবাণুতে সর্বোচ্চ ২৬৪ জনের মৃত্যু হয়। তবে গত কিছুদিন ধরে সংক্রমণের হার নেমে আসার সঙ্গে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যাও কমছে।

ডেল্টার তাণ্ডবের পর গত ২৩ সেপ্টেম্বর দেশে প্রথমবারের মতো তিন বিভাগে করোনায় আক্রান্ত হয়ে একদিনে কারও মৃত্যু হয়নি। সেদিন ২৪ জনের মৃত্যুর কথা উল্লেখ করে স্বাস্থ্য অধিদফতর জানিয়েছিল- দেশের আট বিভাগের মধ্যে রাজশাহী, বরিশাল ও ময়মনসিংহ বিভাগে কারও মৃত্যু হয়নি। এরপর থেকে প্রায় প্রতিদিনই কোনও না কোনও বিভাগ করোনায় মৃত্যু দেখেনি।

তিন বিভাগ থেকে মৃত্যুহীন বিভাগের তালিকা বেড়ে চার সংখ্যায় উন্নীত হয় গত ২৯ সেপ্টেম্বর। সেদিন ১৭ জনের মৃত্যুর কথা জানায় অধিদফতর। সেদিনই প্রথম চার মাস পর করোনাতে মৃত্যু ২০-এর নিচে নেমে আসে। সেই সঙ্গে বরিশাল, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে কারও মৃত্যু হয়নি। এভাবে এখন প্রতিদিনই এক বা একাধিক বিভাগে করোনায় মৃত্যুহীন দিন দেখা যাচ্ছে।

/জেএ/জেএইচ/

সম্পর্কিত

রাষ্ট্রীয় সফরে ভারত গেলেন নৌবাহিনী প্রধান

রাষ্ট্রীয় সফরে ভারত গেলেন নৌবাহিনী প্রধান

‘কুমিল্লার ঘটনা কীভাবে ঘটেছে ফখরুলকে জিজ্ঞাসা করলেই জানা যাবে’

‘কুমিল্লার ঘটনা কীভাবে ঘটেছে ফখরুলকে জিজ্ঞাসা করলেই জানা যাবে’

মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে

মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে

মুজিবপিডিয়া প্রকাশে এগিয়ে এলো সিটি ব্যাংক

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১৮:১৮

‘মুজিবপিডিয়া’ নামে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জ্ঞানকোষ প্রকাশের লক্ষ্যে সম্প্রতি সিটি ব্যাংক ও হিস্ট্রি অ্যান্ড কালচার সার্কেল বাংলাদেশ লিমিটেড (এইচসিসিবিএল)-এর মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হয়েছে। সিটি ব্যাংক সেন্টারে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সিটি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মাসরুর আরেফিন এবং এইচসিসিবিএল-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও ‘মুজিবপিডিয়া’র সম্পাদক ফরিদ কবির স্বাক্ষর করেন। এ সময় দুই প্রতিষ্ঠানের শীর্ষ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রায় সাত শ’ ভুক্তি সংবলিত ১/৮ ডিমাই আকারের এক হাজার পৃষ্ঠার গ্রন্থটি (এনসাইক্লোপিডিয়া) প্রকাশিত হতে যাচ্ছে এ বছরের ডিসেম্বরে, বিজয় দিবসের আগে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে পূর্ণাঙ্গ এই এনসাইক্লোপিডিয়া প্রকাশ করবে গবেষণা প্রতিষ্ঠান হিস্ট্রি অ্যান্ড কালচার সার্কেল বাংলাদেশ লিমিটেড। গ্রন্থটি প্রকাশে অর্থায়নসহ সার্বিক সহায়তা দেবে সিটি ব্যাংক। গ্রন্থটির প্রধান সম্পাদক হলেন কবি-গবেষক কামাল চৌধুরী, সম্পাদক কবি ও সাংবাদিক ফরিদ কবির এবং নির্বাহী সম্পাদক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ড. আবু মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন।

বঙ্গবন্ধুর জীবনকথা শুধু তার নিজের জীবনকথা নয়, বাঙালির দীর্ঘকালের শোষণ ও স্বাধিকার অর্জনের বর্ণিল কাহিনিও। বাঙালির মুক্তির এ মহানায়ককে নিয়ে হাজার গ্রন্থ লেখা হলেও, সম্পূর্ণ একটি জ্ঞানকোষর অভাব রয়ে গিয়েছিল।

সেই অভাব পূরণ করতেই সিটি ব্যাংকের সহায়তায় এইচসিসিবিএল-এর এ উদ্যোগ। ‘মুজিবপিডিয়া’য় এক মলাটে মিলবে বঙ্গবন্ধুর ব্যক্তিগত ও রাজনৈতিক জীবন, তাঁর কর্ম ও আদর্শ, সুদীর্ঘ সংগ্রামের বিবরণ। সঙ্গে থাকছে ঐতিহাসিক আলোকচিত্র ও তথ্য। পাশাপাশি ‘কিউআর কোড’ দিয়ে এতে যুক্ত করা হচ্ছে প্রায় একশ ভিডিওচিত্রের লিংক।

 

 

/জিএম/এফএ/

সম্পর্কিত

সংঘাত নয়, সহযোগিতা ও শান্তি চাই: বঙ্গবন্ধু

সংঘাত নয়, সহযোগিতা ও শান্তি চাই: বঙ্গবন্ধু

বঙ্গবন্ধুর উপস্থিতিতে জয়বাংলা ধ্বনিতে মুখর জাপান

বঙ্গবন্ধুর উপস্থিতিতে জয়বাংলা ধ্বনিতে মুখর জাপান

বঙ্গবন্ধুর সফরে জাপানের বাড়িয়ে দেওয়া হাত

বঙ্গবন্ধুর সফরে জাপানের বাড়িয়ে দেওয়া হাত

বাঙালিদের শুভেচ্ছা নিয়ে জাপানে রওয়ানা দেন বঙ্গবন্ধু

বাঙালিদের শুভেচ্ছা নিয়ে জাপানে রওয়ানা দেন বঙ্গবন্ধু

রাষ্ট্রীয় সফরে ভারত গেলেন নৌবাহিনী প্রধান

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১৮:০৩

রাষ্ট্রীয় সফরে ভারত গেলেন বাংলাদেশ নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল এম শাহীন ইকবাল। ভারতীয় নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল কারাম্বির সিংয়ের আমন্ত্রণে আজ (২৩ অক্টোবর) ঢাকা ছেড়েছেন তিনি। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাকে বিদায় জানান সহকারী নৌবাহিনী প্রধান (অপারেশনস) এবং নৌ-প্রশাসনিক কর্তৃপক্ষ ঢাকা। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের (আইএসপিআর) সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ রেজা-উল করিম শাম্মী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

জানা গেছে, সফরকালে ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, ভারতের চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াত এবং নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল কারাম্বির সিংয়ের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন অ্যাডমিরাল এম শাহীন ইকবাল।

এছাড়া ভারতের সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নরভানে ও বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল বিবেক রাম চৌধুরী, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত কুমার দোভাল, প্রতিরক্ষা সচিব অজয় কুমার, পররাষ্ট্র সচিবের হর্ষবর্ধন শ্রিংলা, ওয়েস্টার্ন নেভাল কমান্ডের ফ্ল্যাগ অফিসার কমান্ডিং ইন চিফ, কমান্ড্যান্ট ডিফেন্স সার্ভিস স্টাফ কলেজের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন। পাশাপাশি তিনি ভারত মহাসগর অঞ্চলের তথ্য একীকরণ কেন্দ্র পরিদর্শন করবেন।

নৌবাহিনী প্রধানের এই সফরের মধ্য দিয়ে প্রতিবেশী বন্ধুপ্রতিম দেশ ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের নৌবাহিনীর মধ্যকার পেশাগত সম্পর্ক উন্নয়নসহ প্রশিক্ষণ ও বিভিন্ন ক্ষেত্রে পারস্পরিক সহযোগিতা আরও বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করা হচ্ছে। 

রাষ্ট্রীয় সফর শেষে নৌবাহিনী প্রধান আগামী ২৯ অক্টোবর ঢাকায় ফিরবেন।

/আরটি/জেএইচ/

সম্পর্কিত

‘কুমিল্লার ঘটনা কীভাবে ঘটেছে ফখরুলকে জিজ্ঞাসা করলেই জানা যাবে’

‘কুমিল্লার ঘটনা কীভাবে ঘটেছে ফখরুলকে জিজ্ঞাসা করলেই জানা যাবে’

মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে

মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে

কৃষি উদ্যোক্তা তৈরিতে সেল গঠন করা হবে: কৃষিমন্ত্রী

কৃষি উদ্যোক্তা তৈরিতে সেল গঠন করা হবে: কৃষিমন্ত্রী

সাম্প্রদায়িক হামলা-মামলার বিচার হবে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে: আইনমন্ত্রী

সাম্প্রদায়িক হামলা-মামলার বিচার হবে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে: আইনমন্ত্রী

‘কুমিল্লার ঘটনা কীভাবে ঘটেছে ফখরুলকে জিজ্ঞাসা করলেই জানা যাবে’

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৪২

তথ্যমন্ত্রী ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, মির্জা ফখরুল সাহেবের কথা শুনে মনে হয়, কুমিল্লার ঘটনা কীভাবে ঘটানো হয়েছে, তা তাকে জিজ্ঞাসা করলেই ভালো জানা যাবে।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) ঢাকার মিন্টো রোডের সরকারি বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কুমিল্লার ঘটনায় সরকারকে দোষারোপ করে এবং কক্সবাজারে ইকবালের গ্রেফতার হওয়া নিয়ে বিএনপি মহাসচিবের মন্তব্যের জবাবে ড. হাছান বলেন, ‘‘প্রথম থেকেই মির্জা ফখরুল সাহেবের বক্তব্যের ধরন হচ্ছে, ‘ঠাকুর ঘরে কে রে, আমি কলা খাই না’ এবং মনে হচ্ছে, তিনিই ভালো বলতে পারবেন ইকবালকে কারা কক্সবাজারে পাঠিয়েছে। যারা এ ঘটনায় ইন্ধন দিয়েছে, তারাই ইকবালকে কক্সবাজার পাঠিয়েছে এবং রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ঘটনা ঘটিয়ে আবার বিভ্রান্তি ছড়ানোর অপচেষ্টা করছে।’’

এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সরকার কঠোর ও দ্রুততম ব্যবস্থা নিয়েছে এবং আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা হিন্দু সম্প্রদায়ের পাশে দাঁড়িয়েছে বলে জানান তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার রাজনৈতিক হীন উদ্দেশ্যে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে এবং সরকার দ্রুততম সময়ে এর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিয়েছে। একশ'র বেশি মামলা হয়েছে, কয়েকশ’  গ্রেফতার হয়েছে এবং পূজামণ্ডপে যে কোরআন শরিফ রেখে এসেছিল, তাকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। তদন্ত ও জিজ্ঞাসাবাদে বাকি তথ্য বেরিয়ে আসবে।’

একইসঙ্গে স্বল্পতম সময়ে পীরগঞ্জে পোড়া ঘরগুলো মেরামত, নতুন ঘর নির্মাণ এবং  সরকার ও আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের অর্থ এবং খাদ্য সহায়তা দেওয়ার কথা জানিয়ে ড. হাছান এসময় তার আইপ্যাড থেকে পীরগঞ্জে নতুন নির্মিত ঘর ও মানুষের রান্নাবান্নাসহ গৃহকর্মের  চিত্র সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘সরকার যখন দ্রুততম সময়ে এসব ব্যবস্থা নিয়েছে, তখন বিএনপি-জামায়াতসহ ধর্মান্ধগোষ্ঠী যারা ঘটনা ঘটিয়েছে, তারা ক্রমাগত মিথ্যাচার করে জনমনে বিভ্রান্তি ছড়ানোর অপচেষ্টা চালাচ্ছে। এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।’ 

দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া সত্ত্বেও কোথাও কোথাও রাস্তা অবরোধের খবর পাওয়া গেছে, এ বিষয়ে প্রশ্নের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘এই ঘটনা অত্যন্ত ন্যক্কারজনক ও আমাদের চেতনার বেদিমূলে আঘাত, আমরাও এর প্রতিবাদ জানাই ও প্রতিকারে সচেষ্ট। কিন্তু প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে জনগণ যেন ভোগান্তির শিকার না হয় এবং আবেগতাড়িত হলেও যেন  কারও বক্তব্য বাস্তবতাবিবর্জিত না হয়, সেদিকে  লক্ষ্য রাখতে হবে।’

/এসআই/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

রাষ্ট্রীয় সফরে ভারত গেলেন নৌবাহিনী প্রধান

রাষ্ট্রীয় সফরে ভারত গেলেন নৌবাহিনী প্রধান

মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে

মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে

কৃষি উদ্যোক্তা তৈরিতে সেল গঠন করা হবে: কৃষিমন্ত্রী

কৃষি উদ্যোক্তা তৈরিতে সেল গঠন করা হবে: কৃষিমন্ত্রী

সাম্প্রদায়িক হামলা-মামলার বিচার হবে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে: আইনমন্ত্রী

সাম্প্রদায়িক হামলা-মামলার বিচার হবে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে: আইনমন্ত্রী

দেশের মানুষ কখনোই সাম্প্রদায়িকতাকে প্রশ্রয় দেয়নি: প্রাণিসম্পদমন্ত্রী

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১৮:০৯

এ দেশের মানুষ কখনোই সাম্প্রদায়িকতাকে প্রশ্রয় দেয়নি। যারা বাংলাদেশকে সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্রে পরিণত করতে চায় তাদের অস্তিত্ব বিপন্ন হবে বলে মন্তব্য করেছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) ময়মনসিংহে বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে ইনস্টিটিউটের বার্ষিক গবেষণা পরিকল্পনা প্রণয়ন ২০২১-২২ শীর্ষক কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে এ মন্তব্য করেন তিনি।

বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. ইয়াহিয়া মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মন্ত্রণালয়ের সচিব রওনক মাহমুদ, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার ও এস এম ফেরদৌস আলমসহ অন্যান্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

কর্মশালায় উপস্থাপিত ৬৫টি গবেষণা প্রস্তাবের মধ্যে তিনজন সেরা গবেষণা প্রস্তাব উপস্থাপনকারী বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তাকে পুরস্কৃত করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রাণিসম্পদমন্ত্রী বলেন, এ দেশের মানুষ কখনোই সাম্প্রদায়িকতা প্রশ্রয় দেয়নি। রাষ্ট্র গবেষণায় অনেক সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে। মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিএফআরআই) সংশ্লিষ্টদের গবেষণার মাধ্যমে সর্বোচ্চ যোগ্যতার বিকাশ ঘটাতে হবে। গবেষণায় নতুন নতুন বিষয় ও তথ্য-উপাত্ত সংযোজন করতে হবে। আর শুধু গবেষণা করলেই হবে না, সে গবেষণার ক্ষেত্রকে সম্প্রসারণ করতে হবে। গবেষণালব্ধ সবকিছু ব্যবহারের ক্ষেত্র উন্মুক্ত করতে হবে।

/এসআই/এমএস/

সম্পর্কিত

'মেরিন ফিশারিজ একাডেমির ক্যাডেটদের দেশের অ্যাম্বাসেডর হতে হবে'

'মেরিন ফিশারিজ একাডেমির ক্যাডেটদের দেশের অ্যাম্বাসেডর হতে হবে'

প্রবাসীরাই এ উন্নয়নের সহযোদ্ধা:  মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী

প্রবাসীরাই এ উন্নয়নের সহযোদ্ধা: মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী

চিড়িয়াখানা আধুনিকায়নে হচ্ছে মাস্টারপ্ল্যান: মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

চিড়িয়াখানা আধুনিকায়নে হচ্ছে মাস্টারপ্ল্যান: মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

‘রাজনৈতিক ব্যর্থতায় নৃশংস হত্যাকান্ডের শিকার বঙ্গবন্ধু’

‘রাজনৈতিক ব্যর্থতায় নৃশংস হত্যাকান্ডের শিকার বঙ্গবন্ধু’

মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১৮:১০

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় শনাক্ত ও মৃত্যু বেড়েছে। স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় (২২ অক্টোবর সকাল ৮টা থেকে ২৩ অক্টোবর সকাল ৮টা পর্যন্ত)  করোনায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ২৭৮ জন, শুক্রবার (২২ অক্টোবর) ২৩২ জনের শনাক্ত হওয়ার কথা জানিয়েছিল অধিদফতর।  এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৯ জন। গতকাল মারা গেছেন চার জন।

শনাক্ত রোগী এবং মৃত্যুর সঙ্গে গত ২৪ ঘণ্টায় বেড়েছে করোনায় রোগী শনাক্তের হারও।  এ সময় রোগী শনাক্তের হার ১ দশমিক ৮৫ শতাংশ, শুক্রবার রোগী শনাক্তের হার ছিল ১ দশমিক ৩৬ শতাংশ।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত ২৭৮ জনকে নিয়ে দেশে এখনও পর্যন্ত সরকারি হিসাবে মোট করোনা শনাক্ত হয়েছেন ১৫ লাখ ৬৭ হাজার ৪১৭ জন, আর মারা যাওয়া ৯ জনকে নিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সরকারি হিসাবে এ পর্যন্ত মোট ২৭ হাজার ৮১৪ জন মারা গেছেন।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২৯৪ জন, এ পর্যন্ত মোট ১৫ লাখ ৩০ হাজার ৯৪১ জন সুস্থ হয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ১৫ হাজার ২টি, আর নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৫ হাজার ৪২টি।

দেশে এ পর্যন্ত করোনার মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১ কোটি ২ লাখ ৩ হাজার ৬৬৫টি। অধিদফতর জানায়, এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা হয়েছে ৭৪ লাখ ৪৭ হাজার ১৫৮টি, আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ২৭ লাখ ৫৬ হাজার ৫০৭টি।

দেশে এখনও পর্যন্ত করোনায় রোগী শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ৩৬ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৬৭ শতাংশ, আর শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুহার এক দশমিক ৭৭ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৯ জনের বয়স বিবেচনায় ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে রয়েছেন  একজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে একজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে একজন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে চার জন, আর ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে দুই জন।

তাদের মধ্যে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও খুলনা বিভাগের রয়েছেন দুই জন করে, আর সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগের রয়েছেন একজন করে। মারা যাওয়া ৯ মধ্যে সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন সাত জন, বেসরকারি হাসপাতাল আর বাড়িতে মারা গেছেন একজন করে।

 

/জেএ/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

রাষ্ট্রীয় সফরে ভারত গেলেন নৌবাহিনী প্রধান

রাষ্ট্রীয় সফরে ভারত গেলেন নৌবাহিনী প্রধান

‘কুমিল্লার ঘটনা কীভাবে ঘটেছে ফখরুলকে জিজ্ঞাসা করলেই জানা যাবে’

‘কুমিল্লার ঘটনা কীভাবে ঘটেছে ফখরুলকে জিজ্ঞাসা করলেই জানা যাবে’

কৃষি উদ্যোক্তা তৈরিতে সেল গঠন করা হবে: কৃষিমন্ত্রী

কৃষি উদ্যোক্তা তৈরিতে সেল গঠন করা হবে: কৃষিমন্ত্রী

সাম্প্রদায়িক হামলা-মামলার বিচার হবে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে: আইনমন্ত্রী

সাম্প্রদায়িক হামলা-মামলার বিচার হবে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে: আইনমন্ত্রী

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

রাষ্ট্রীয় সফরে ভারত গেলেন নৌবাহিনী প্রধান

রাষ্ট্রীয় সফরে ভারত গেলেন নৌবাহিনী প্রধান

‘কুমিল্লার ঘটনা কীভাবে ঘটেছে ফখরুলকে জিজ্ঞাসা করলেই জানা যাবে’

‘কুমিল্লার ঘটনা কীভাবে ঘটেছে ফখরুলকে জিজ্ঞাসা করলেই জানা যাবে’

মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে

মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে

কৃষি উদ্যোক্তা তৈরিতে সেল গঠন করা হবে: কৃষিমন্ত্রী

কৃষি উদ্যোক্তা তৈরিতে সেল গঠন করা হবে: কৃষিমন্ত্রী

সাম্প্রদায়িক হামলা-মামলার বিচার হবে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে: আইনমন্ত্রী

সাম্প্রদায়িক হামলা-মামলার বিচার হবে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে: আইনমন্ত্রী

নাসিক নির্বাচনই বর্তমান ইসির শেষ ভোট

নাসিক নির্বাচনই বর্তমান ইসির শেষ ভোট

সংঘাত নয়, সহযোগিতা ও শান্তি চাই: বঙ্গবন্ধু

সংঘাত নয়, সহযোগিতা ও শান্তি চাই: বঙ্গবন্ধু

খুলনা ও বরিশাল বিভাগে আওয়ামী লীগের ইউপি প্রার্থী যারা

খুলনা ও বরিশাল বিভাগে আওয়ামী লীগের ইউপি প্রার্থী যারা

সেরামকে নতুন অর্ডার দেবে না সরকার

সেরামকে নতুন অর্ডার দেবে না সরকার

সর্বশেষ

মুজিবপিডিয়া প্রকাশে এগিয়ে এলো সিটি ব্যাংক

মুজিবপিডিয়া প্রকাশে এগিয়ে এলো সিটি ব্যাংক

৩৫ জেলায় শনাক্ত নেই, ২৫ জেলায় এক অঙ্কের

৩৫ জেলায় শনাক্ত নেই, ২৫ জেলায় এক অঙ্কের

রাজধানীর সবুজবাগে স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার

রাজধানীর সবুজবাগে স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার

দেশজুড়ে সামরিক মহড়া জাপানের

দেশজুড়ে সামরিক মহড়া জাপানের

‘ইত্যাদি’ এবার প্রাচীন বাংলার রাজধানী সোনারগাঁওয়ে

‘ইত্যাদি’ এবার প্রাচীন বাংলার রাজধানী সোনারগাঁওয়ে

© 2021 Bangla Tribune