X
রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সেকশনস

চীনের হাইপারসোনিক পরীক্ষা কি নতুন অস্ত্র প্রতিযোগিতার ইঙ্গিত?

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১১:০৯

চীন সম্প্রতি পারমাণবিক অস্ত্র বহনে সক্ষম হাইপারসোনিক ক্ষেপণাস্ত্রের যে পরীক্ষা চালিয়েছে, সেই খবরকে অনেকে বর্ণনা করেছেন মোড় বদলানো একটা ঘটনা হিসাবে। এই পরীক্ষার খবর যুক্তরাষ্ট্রকে চমকে দিয়েছে। এটা আসলেই কতটা চমকে দেওয়ার মতো ঘটনা। সেটি ব্যাখ্যা করেছেন যুক্তরাজ্যের এক্সিটার ইউনিভার্সিটির স্ট্রাটেজি অ্যান্ড সিকিউরিটি ইনস্টিটিউটের জনাথান মার্কাস।

গ্রীষ্মকালে, চীনা সামরিক বাহিনী দুই বার মহাকাশে রকেট উৎক্ষেপণ করে, যে রকেট পৃথিবী পরিক্রমা করার পর তার লক্ষ্যবস্তুর দিকে দ্রুতগতিতে ছুটে যায়। প্রথমবার সেটি লক্ষ্যবস্তুর প্রায় ২৪ মাইল দূর দিয়ে চলে যায়, ফলে নিশানায় আঘাত করতে ব্যর্থ হয়। গোয়েন্দা তথ্য বিষয়ক এক ব্রিফিং থেকে যারা এ তথ্য জানতে পারেন, তাদের সঙ্গে কথা বলে প্রথম এই খবর প্রকাশ করে লন্ডন থেকে প্রকাশিত অর্থনীতি বিষয়ক প্রভাবশালী সংবাদপত্র ফিনান্সিয়াল টাইমস।

যুক্তরাষ্ট্রের কিছু রাজনীতিক এবং ভাষ্যকার চীনের কার্যত এই উন্নতিতে শঙ্কা প্রকাশ করেন। বেইজিং অবশ্য তড়িঘড়ি এই রিপোর্ট নাকচ করে দিয়ে বেশ জোরের সঙ্গে জানায়, তারা আসলে পুনর্ব্যবহারযোগ্য একটি মহাকাশ যান পরীক্ষা করছিল।

ক্যালিফোর্নিয়ার মন্টেরেতে মিডলবেরি ইন্সটিটিউট অব ইন্টারন্যাশানাল স্টাডিজে পূর্ব এশিয়ায় অস্ত্র বিস্তার রোধ বিষয়ক গবেষণার পরিচালক জেফ্রি লিউইস চীনের এই অস্বীকৃতিকে তাদের বিষয়টি ‘ঘোলাটে করার প্রয়াস’ হিসেবে দেখছেন। তিনি বলছেন, অন্যান্য সংবাদমাধ্যমে আমেরিকান কর্মকর্তারাও এই পরীক্ষার কথা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি আরও মনে করছেন, মহাকাশ কক্ষপথে এ ধরনের বিস্ফোরণ ঘটিয়ে চীন পরীক্ষা চালিয়েছে বলে যে দাবি করা হচ্ছে, সেটা কারিগরি সক্ষমতার দিক থেকে এবং কৌশলগত কারণে চীনের পক্ষে করা খুবই সম্ভব।

ফিলাডেলফিয়ায় ফরেন পলিসি ইন্সটিটিউটের গবেষণা পরিচালক অ্যারন স্টেইন-এর মতে, ফিনান্সিয়াল টাইমসের খবর এবং চীনের অস্বীকৃতি দুটোই সত্য হতে পারে। তার ভাষায়, ‘পুনর্ব্যবহারযোগ্য একটি মহাকাশযানও একটি হাইপারসোনিক গ্লাইডার। গ্লাইডার জাতীয় প্রযুক্তির মাধ্যমে ফবস ব্যবহার করলে সেটা একটা পুনর্ব্যবহারযোগ্য মহাকাশযানের মতোই কাজ করবে। কাজেই দুই বক্তব্যের মধ্যে যে পার্থক্য আছে তা খুবই নগণ্য।’

কয়েক মাস ধরে বেশ কয়েকজন ঊর্ধ্বতন মার্কিন কর্মকর্তাও এমন ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন যে, চীন এই প্রযুক্তিতে অনেক উন্নতি করেছে।

ফবস আসলে নতুন কোন প্রযুক্তি নয়। শীতল যুদ্ধের সময় সোভিয়েত ইউনিয়ন এই প্রযুক্তির ধারণা নিয়ে কাজ করেছিল। চীন এখন দৃশ্যত সেই প্রযুক্তি নিয়ে অগ্রসর হচ্ছে। এই পদ্ধতিতে ছোঁড়া অস্ত্র পৃথিবীর কক্ষপথে আংশিকভাবে ঢোকে, ফলে কোন দিক থেকে সেটা লক্ষ্যবস্তুকে আঘাত করবে সেটি আন্দাজ করা সম্ভব হয় না।

ধারণা করা হচ্ছে, চীন এখন যা করেছে সেটি হলো, ফবস প্রযুক্তিকে হাইপারসোনিক গ্লাইডারের সঙ্গে সংযুক্ত করে নতুন একটি প্রযুক্তি তৈরি করেছে। এই প্রযুক্তিতে ছোঁড়া ক্ষেপণাস্ত্র পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলের গা ঘেঁষে চলে, যে কারণে কোনও রাডারে তা ধরা পড়ে না কিংবা ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধ ব্যবস্থায় সেটিকে ধ্বংস করাও সম্ভব হয় না।

চীনের লক্ষ্য আসলে কী?

মিডলবেরি ইন্সটিটিউট অব ইন্টারন্যাশানাল স্টাডিজের জেফ্রি লিউইস বলেন, ‘বেইজিং-এর আশঙ্কা চীনের পরমাণু প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে ধ্বংস করতে যুক্তরাষ্ট্র তাদের আধুনিক পারমাণবিক অস্ত্র এবং ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধ ব্যবস্থা সমন্বিতভাবে ব্যবহার করবে।’ অ্যারন স্টেইন বলছেন, পরমাণু শক্তিধর বড় দেশগুলোর বেশিরভাগই এখন হাইপারসোনিক মিসাইল ব্যবস্থা গড়ে তুলছে, তবে এই প্রযুক্তির ব্যবহার নিয়ে তাদের দৃষ্টিভঙ্গিতে তফাৎ রয়েছে। তার যুক্তি, দৃষ্টিভঙ্গির এই তফাৎই এক দেশকে আরেক দেশের অভিপ্রায় নিয়ে অতিমাত্রায় সন্দিগ্ধ করে তুলছে এবং অস্ত্র প্রতিযোগিতায় মূল ইন্ধন যোগাচ্ছে।

অ্যারন স্টেইনের বিশ্বাস, চীন ও রাশিয়া মনে করে হাইপারসোনিক ক্ষেপণাস্ত্র, মিসাইল প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে পরাজিত করার নিশ্চিত একটা প্রযুক্তি। অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্র এই প্রযুক্তি ব্যবহার করতে চায়, তাদের বিবেচনায় সেইসব লক্ষ্যবস্তুকে ধ্বংস করতে, যেগুলো পারমাণবিক অস্ত্রের কমান্ড এবং নিয়ন্ত্রণে ব্যবহার করা হয়। সূত্র: বিবিসি বাংলা।

/এমপি/

সম্পর্কিত

ইসরায়েলের সঙ্গে পানি-বিদ্যুৎ চুক্তির বিরোধিতায় জর্ডানে বিক্ষোভ

ইসরায়েলের সঙ্গে পানি-বিদ্যুৎ চুক্তির বিরোধিতায় জর্ডানে বিক্ষোভ

ভারতে আসলেই পুরুষের চেয়ে নারীর সংখ্যা বেশি?

ভারতে আসলেই পুরুষের চেয়ে নারীর সংখ্যা বেশি?

মিয়ানমার জান্তার বিরুদ্ধে নতুন অভিযোগ

মিয়ানমার জান্তার বিরুদ্ধে নতুন অভিযোগ

নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার নিয়ে যা বললো ইরান

নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার নিয়ে যা বললো ইরান

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

ইসরায়েলের সঙ্গে পানি-বিদ্যুৎ চুক্তির বিরোধিতায় জর্ডানে বিক্ষোভ

ইসরায়েলের সঙ্গে পানি-বিদ্যুৎ চুক্তির বিরোধিতায় জর্ডানে বিক্ষোভ

ভারতে আসলেই পুরুষের চেয়ে নারীর সংখ্যা বেশি?

ভারতে আসলেই পুরুষের চেয়ে নারীর সংখ্যা বেশি?

মিয়ানমার জান্তার বিরুদ্ধে নতুন অভিযোগ

মিয়ানমার জান্তার বিরুদ্ধে নতুন অভিযোগ

নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার নিয়ে যা বললো ইরান

নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার নিয়ে যা বললো ইরান

নতুন ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে সতর্ক ইউরোপ-এশিয়া, সীমান্তে কড়াকড়ি

নতুন ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে সতর্ক ইউরোপ-এশিয়া, সীমান্তে কড়াকড়ি

মধ্যম আয়ের দেশ হচ্ছে নেপাল

মধ্যম আয়ের দেশ হচ্ছে নেপাল

ইস্তানবুলে নারীদের বিক্ষোভ, তুর্কি পুলিশের টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ

ইস্তানবুলে নারীদের বিক্ষোভ, তুর্কি পুলিশের টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ

হংকংয়ে মিলেছে নতুন ভ্যারিয়েন্টের ২ করোনা রোগী

হংকংয়ে মিলেছে নতুন ভ্যারিয়েন্টের ২ করোনা রোগী

‘তাইওয়ান নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের কোনও মোহ থাকা উচিত নয়’

‘তাইওয়ান নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের কোনও মোহ থাকা উচিত নয়’

সর্বশেষ

তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরু

তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরু

বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ পুনর্গঠনে অগ্রগতির প্রশংসা ব্রিটিশ সংসদীয় দলের

বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ পুনর্গঠনে অগ্রগতির প্রশংসা ব্রিটিশ সংসদীয় দলের

মেয়র হানিফের পঞ্চদশ মৃত্যুবার্ষিকী আজ

মেয়র হানিফের পঞ্চদশ মৃত্যুবার্ষিকী আজ

নারায়ণগঞ্জে আগুনের ঘটনায় আরও একজনের মৃত্যু

নারায়ণগঞ্জে আগুনের ঘটনায় আরও একজনের মৃত্যু

শেষ মুহূর্তের দুই গোলে ভিয়ারিয়ালকে হারালো বার্সেলোনা

শেষ মুহূর্তের দুই গোলে ভিয়ারিয়ালকে হারালো বার্সেলোনা

© 2021 Bangla Tribune