সেকশনস

স্বামী, ভাশুর ও দেবরের ফাঁসি চান তুহিনের মা

আপডেট : ২০ অক্টোবর ২০১৯, ১৮:১৯

তুহিন ‘আমার সন্তানকে যারা হত্যা করেছে তাদের প্রত্যেকের ফাঁসি চাই। স্বামী, ভাশুর, দেবর যেই হোক, আমি তাদের ফাঁসি চাই। যে স্বামী নিজের সন্তানকে খুন করতে পারে, সে আমাকেও খুন করতে পারে। আমার কোনও সন্তান তাদের কাছে নিরাপদ না। আমি তাদের বিশ্বাস করি না। আমি আর কিছু চাই না, শুধু ফাঁসি চাই।’ কথাগুলো বলছিলেন স্বজনদের হাতে নির্মমভাবে খুন হওয়া পাঁচ বছর বয়সী তুহিনের মা মনিরা বেগম।
রবিবার (২০ অক্টোবর) ফোনে বাংলা ট্রিবিউনের সঙ্গে কথা বলার সময় তিনি তার ছেলের খুনের সঙ্গে জড়িত সবার ফাঁসি দাবি করেন।
তুহিনের মা বলেন, ‘ঘটনার সময় আমি আমার সদ্যোজাত সন্তানকে নিয়ে ঘুমিয়ে যাই। ঘরের সবার চিৎকারে জেগে উঠে দেখি তুহিন বিছানায় নেই। পরে যখন জানতে পারি আমার ছেলেকে নির্মমভাবে খুন করে গাছে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে, তারপর থেকে আমি অজ্ঞান হয়ে যাই। এরপর আর কিছু বলতে পারি না।’
সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার কেজাউড়া গ্রামে পাঁচ বছর বয়সী শিশু তুহিনকে নৃশংসভাবে খুন করা হয় গ্রামের আধিপত্য বিস্তারের জেরে। প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে তুহিনের স্বজনরাই তাকে হত্যা করে গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে রেখেছিল। পাশবিক কায়দায় সংঘটিত এই হত্যাকাণ্ডের দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করেছেন এলাকাবাসী।
কেজাউরা গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল আজিজ জানান, কেজাউড়া গ্রামে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুটি গোষ্ঠী অন্তর্দ্বন্দ্বে লিপ্ত। একপক্ষের নেতৃত্বে আছেন সাবেক ইউপি সদস্য আনোয়ার, আর অপরপক্ষে তুহিনের চাচা মাওলানা আব্দুল মুছাব্বির। এই অন্তর্দ্বন্দ্বে নির্মম শিকারে পরিণত হয় তুহিন। মুছাব্বির শিশু তুহিনের চাচা।
এর আগে ২০০১ সালে মুজিবুর নামে এক কৃষক ও ২০১৫ সালে খুন হন নিলুফা নামে এক গৃহবধূ। দুটি খুনের ঘটনায়ই বিবদমান দুটি পক্ষের বিরুদ্ধে পরস্পরকে ফাঁসানোর অভিযোগ রয়েছে। মুজিব খুনের ঘটনায় আসামি করা হয়েছিল তুহিনের বাবা আব্দুল বাছিরকে। অপরদিকে গৃহবধূ নিলুফা হত্যা মামলায় আসামি করা হয় আনোয়ার মেম্বার পক্ষের ১৬ জনকে।
কেজাউড়া গ্রামের বাসিন্দারা মনে করেন, এই আধিপত্য বিস্তার নিয়ে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতেই রবিবার (১৩ অক্টোবর) রাতে শিশু তুহিনকে নৃশংস কায়দায় খুন করে তার স্বজনরা। এই হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু তদন্ত ও জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন তারা।
এদিকে তুহিনকে হত্যার ঘটনায় তার মা বাদী হয়ে ১০ জনকে আসামি করে দিরাই থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় তুহিনের চাচা মাওলানা আব্দুল মুছাব্বির, নাসির উদ্দিন, জুলহাস, জমসেদ আলী, বাবা আব্দুল বাছির ও চাচাতো ভাই শাহরিয়ারকে আসামি করা হয়। তাদের মধ্যে জুলহাস, শাহরিয়ার ও বাবা আব্দুল বাছির আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। মামলার তদন্তক কর্মকর্তা এসআই আবু তাহের মোল্লা তুহিনের বাবা-চাচাসহ তিন জনের পাঁচ দিনের রিমান্ড চাইলে আদালত তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাদের কারাগারে পাঠান।
দিরাই থানার ভাপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কেএম নজরুল ইসলাম বলেন, ‘মামলার তদন্ত নিখুঁতভাবে করা হচ্ছে, যাতে আদালত সর্বোচ্চ শাস্তি দিতে পারেন।’

/এআর/এমএমজে/

সম্পর্কিত

ভ্যাকসিন নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী

ভ্যাকসিন নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী

ভ্যাকসিন নিয়ে কোনও কেলেঙ্কারি মেনে নেওয়া হবে না: বাবলু

ভ্যাকসিন নিয়ে কোনও কেলেঙ্কারি মেনে নেওয়া হবে না: বাবলু

দূরপাল্লা রুটে নৌযান ধর্মঘট শুরু

দূরপাল্লা রুটে নৌযান ধর্মঘট শুরু

চালক-মাস্টারের জামিন বাতিলের প্রতিবাদে নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি

চালক-মাস্টারের জামিন বাতিলের প্রতিবাদে নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি

আবরার ফাহাদ হত্যা মামলা: দ্বিতীয় তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহণ ৩১ জানুয়ারি

আবরার ফাহাদ হত্যা মামলা: দ্বিতীয় তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহণ ৩১ জানুয়ারি

কোটালীপাড়ায় প্রধানমন্ত্রীকে হত্যাচেষ্টা: রাষ্ট্রপক্ষের শেষ শুনানি ১ ফেব্রুয়ারি

কোটালীপাড়ায় প্রধানমন্ত্রীকে হত্যাচেষ্টা: রাষ্ট্রপক্ষের শেষ শুনানি ১ ফেব্রুয়ারি

চট্টগ্রামে ভোটের কোনও দায়ই ইসি এড়াতে পারে না: মাহবুব তালুকদার

চট্টগ্রামে ভোটের কোনও দায়ই ইসি এড়াতে পারে না: মাহবুব তালুকদার

আরও ১৮ মৃত্যু, শনাক্ত ৬০২

আরও ১৮ মৃত্যু, শনাক্ত ৬০২

পিপলস লিজিংয়ের ২৮০ ঋণখেলাপিকে ২ ভাগে হাইকোর্টে তলবের নির্দেশ

পিপলস লিজিংয়ের ২৮০ ঋণখেলাপিকে ২ ভাগে হাইকোর্টে তলবের নির্দেশ

ডিআইজি প্রিজন্স পার্থ গোপালের বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা চলবে

ডিআইজি প্রিজন্স পার্থ গোপালের বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা চলবে

৩০ জানুয়ারি রাতে কমতে পারে ইন্টারনেটের গতি

৩০ জানুয়ারি রাতে কমতে পারে ইন্টারনেটের গতি

সিলেটের ‘জাহাজি’ মেছোবাঘ ধরা পড়লো কুমিল্লায়!

সিলেটের ‘জাহাজি’ মেছোবাঘ ধরা পড়লো কুমিল্লায়!

সর্বশেষ

দেহ ব্যবসা অভিযোগে মানবপাচারের মামলা কেন জানতে এসআইকে তলব

দেহ ব্যবসা অভিযোগে মানবপাচারের মামলা কেন জানতে এসআইকে তলব

মাদ্রাসায় কন্যাশিশুকে ধর্ষণ, শিক্ষক গ্রেফতার

মাদ্রাসায় কন্যাশিশুকে ধর্ষণ, শিক্ষক গ্রেফতার

ভ্যাকসিন নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী

ভ্যাকসিন নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী

নিউ জিল্যান্ডে শনাক্ত হওয়া ব্যক্তি দক্ষিণ আফ্রিকার স্ট্রেইনে আক্রান্ত

নিউ জিল্যান্ডে শনাক্ত হওয়া ব্যক্তি দক্ষিণ আফ্রিকার স্ট্রেইনে আক্রান্ত

সাকিবের ইনজুরির পর মিরাজের শিকার হ্যামিল্টন

সাকিবের ইনজুরির পর মিরাজের শিকার হ্যামিল্টন

নাইক্ষ্যংছড়িতে অস্ত্রসহ আটক ৩

নাইক্ষ্যংছড়িতে অস্ত্রসহ আটক ৩

সোমবার সিনেটে যাবে ট্রাম্পের ইম্পিচমেন্ট আর্টিকেল

সোমবার সিনেটে যাবে ট্রাম্পের ইম্পিচমেন্ট আর্টিকেল

ভ্যাকসিন নিয়ে কোনও কেলেঙ্কারি মেনে নেওয়া হবে না: বাবলু

ভ্যাকসিন নিয়ে কোনও কেলেঙ্কারি মেনে নেওয়া হবে না: বাবলু

ভিক্ষুক সেজে নারীদের যৌন হয়রানি করতেন বৃদ্ধ

ভিক্ষুক সেজে নারীদের যৌন হয়রানি করতেন বৃদ্ধ

পুলিশের এসআইয়ের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

পুলিশের এসআইয়ের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থীর ওপর হামলার অভিযোগ

সরিষাবাড়ী পৌর নির্বাচনস্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থীর ওপর হামলার অভিযোগ

ইউল্যাবে সিএসই ফেস্ট অনুষ্ঠিত

ইউল্যাবে সিএসই ফেস্ট অনুষ্ঠিত

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

দূরপাল্লা রুটে নৌযান ধর্মঘট শুরু

দূরপাল্লা রুটে নৌযান ধর্মঘট শুরু

সিলেটের ‘জাহাজি’ মেছোবাঘ ধরা পড়লো কুমিল্লায়!

সিলেটের ‘জাহাজি’ মেছোবাঘ ধরা পড়লো কুমিল্লায়!

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে ধর্ষণ মামলায় আজ সাক্ষ্যগ্রহণ হয়নি

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে ধর্ষণ মামলায় আজ সাক্ষ্যগ্রহণ হয়নি

ভোট থেকে জীবন অনেক মূল্যবান: সিইসি

ভোট থেকে জীবন অনেক মূল্যবান: সিইসি

লতিফ সিদ্দিকীর দখলে থাকা ৫০ কোটি টাকা মূল্যের সরকারি জমি উদ্ধার

লতিফ সিদ্দিকীর দখলে থাকা ৫০ কোটি টাকা মূল্যের সরকারি জমি উদ্ধার

উপহারের ঘর পেয়ে জেলায় জেলায় গৃহহীনদের হাসিমুখ

উপহারের ঘর পেয়ে জেলায় জেলায় গৃহহীনদের হাসিমুখ

বিনামূল্যে বসতঘর উপহার বিশ্বে নতুন সূচনা: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বিনামূল্যে বসতঘর উপহার বিশ্বে নতুন সূচনা: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

কোম্পানীগঞ্জে রবিবার অর্ধদিবস হরতাল

ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে কটূক্তিকোম্পানীগঞ্জে রবিবার অর্ধদিবস হরতাল

হেলিকপ্টারে চড়ে গার্মেন্টকর্মীর বিয়ে!

হেলিকপ্টারে চড়ে গার্মেন্টকর্মীর বিয়ে!

অবস্থান ধর্মঘটে কাদের মির্জা  

অবস্থান ধর্মঘটে কাদের মির্জা  


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.