X

সেকশনস

বাজেটের থোক বরাদ্দ মনিটরিংয়ের দাবি জিএম কাদেরের

আপডেট : ২৯ জুন ২০২০, ১৬:১৯

জি এম কাদের বাজেটে থোক বরাদ্দ দেওয়া খাতের কার্যক্রম পর্যবেক্ষণে সমন্বয় কমিটি গঠনের দাবি করেছেন বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসকদের থাকা-খাওয়ায় অস্বাভাবিক ব্যয়ের প্রসঙ্গ তুলে বিরোধীদলীয় উপনেতা বলেন, ‘বাজেটের অগ্রাধিকার খাতের বরাদ্দ পর্যাপ্ত হয়নি। হয়তো সেই বরাদ্দ পর্যাপ্ত করার জন্য থোক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। তবে থোক বরাদ্দের ব্যাপারে যথার্থতা এবং স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে এ সংক্রান্ত একটি মনিটরিং টিম বা সমন্বয় কমিটি গঠন করলে তারা বিষয়গুলো মনিটর করতে পারবে।’ সোমবার (২৯ জুন) সংসদে বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা ছাড়া থোক বরাদ্দ দিলে সাধারণত অ্যাডহক বেসিসে যখন যেখানে দরকার তখন সেখানে খরচ করার একটি প্রবণতা থাকে মন্তব্য করে জিএম কাদের বলেন, ‘কত দরকার, কী দরকার সেটা কে নির্ধারণ করবে? এগুলোর ব্যাপারে সঠিক নিয়ন্ত্রণ রাখা যায় না। ঢামেকে স্বাস্থ্যকর্মীদের খরচ ২০ কোটির মতো হয়েছে। খাবার খরচই হয়েছে প্রায় অর্ধেক। কতটুকু প্রয়োজন ছিল, কতটুকু অপচয় হয়েছে, কতটুকু দুর্নীতি হয়েছে– এখন পর্যন্ত জানি না।’

বাজেট প্রস্তাবে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ রাখার সমালোচনা করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, ‘কালো টাকা সাদা করার ঢালাও সুযোগ শুল্ক আয় বৃদ্ধির বড় ধরনের একটি পদক্ষেপ, আমরা মনে করছি ডেসপারেট মুভ। প্রায় সব মহল থেকে প্রতিবাদ আসছে। বেশির ভাগ মানুষ মনে করে, এটাতে শুধু সুনাগরিকদের আইন ও নীতির প্রতি আনুগত্যকে নিরুৎসাহিত করা হবে না, এই সুযোগ দুর্নীতিকে উৎসাহিত করবে। প্রধানমন্ত্রীর দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতির সঙ্গে যা সাংঘর্ষিক। এতে দুর্নীতি দমন কমিশন নামে সংস্থা রাখার যৌক্তিকতা থাকবে কিনা সে বিষয়ে সন্দেহ হয়। কারণ, দুর্নীতি দমনের প্রধান সূত্র হলো অবৈধ সম্পদ। ব্যাখ্যাহীন সম্পদ বৈধ হলে শাস্তিযোগ্য দুর্নীতি আর থাকবে না। দুর্নীতি দমন কমিশন কী কাজ করবে? অতীতে বিভিন্ন সময় নানা শর্তে এই সুযোগ চালু ছিল, এখনও আছে। তবে এত ঢালাওভাবে, শুধু কিছু অর্থের বিনিময়ে সব ধরনের অপকর্ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জিত অর্থ বৈধতা দেওয়ার সুযোগ কখনও ছিল কিনা সন্দেহ হয়। অতীতের অভিজ্ঞতা থেকে যেটা দেখা যায়, এতে খুব বেশি লাভ হয় না।’ 

প্রস্তাবিত বাজেটকে ‘বিশাল ঘাটতির’ উল্লেখ করে বিরোধীদলীয় উপনেতা বলেন, ‘এক লাখ ৯০ হাজার কোটি টাকার ঘাটতি। ঘাটতি কমাতে হলে ব্যয় কমাতে হবে। আয় বাড়াতে হবে। পরিচালন ব্যয় কমানো কঠিন কাজ। তবুও যতটা সম্ভব কৃচ্ছ্রতা সাধনের ব্যবস্থা করতে হবে। উন্নয়ন ব্যয়ে কিছুটা কাটছাঁট করে করোনা সঙ্কট মোকাবিলায় বাড়তি অর্থায়নের ব্যবস্থা করা প্রয়োজন। উন্নয়ন ব্যয়ের অগ্রাধিকার নির্ণয় করা খুবই কঠিন কাজ। মেগা প্রকল্প সবগুলো চালু রাখা হবে কিনা, কোনটি রাখা হবে, কোনটি স্থগিত রাখা হবে, কোনটি সীমিত রাখা হবে সেটি নির্ধারণ করা খুবই কঠিন। ইচ্ছা করলেই সব সময় পারবো না। করোনা পরিস্থিতির কারণে ব্যবসা-বাণিজ্য অচল। প্রাক্কলনের চেয়ে অনেক কম রাজস্ব আদায়ের আশঙ্কা রয়েছে। ট্যাক্স কোথা থেকে আসবে। বড় ধরনের ঘাটতি আরও বৃদ্ধি পেতে পারে।’

জিএম কাদের আরও বলেন, ‘অর্থমন্ত্রী বলেছেন, আগে ব্যয় করবো, পরে আয় করবো। এ কথায় আশ্বস্থ হওয়া খুবই কঠিন। আয় করতে ব্যর্থ হলে নতুন টাকা ছাপিয়ে খরচ মেটানো যায়। যার অর্থ বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে সরকার ঋণ নেবে। একটি নির্দিষ্ট সময়ে এরকম বাড়তি ঋণ যদি নেওয়া হয়, তাহলে সাধারণত বিশেষজ্ঞদের মতে মুদ্রাস্ফীতি ঘটবে। অর্থনীতিতে নানা ধরনের নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে।’

বিরোধীদলীয় উপনেতা কাদের বৈদেশিক ঋণ ও সহায়তা পাওয়ার চেষ্টা ত্বরান্বিত করার প্রস্তাব করেন। একই সঙ্গে সব স্বাস্থ্য কেন্দ্রে কোভিড-১৯ চিকিৎসার ব্যবস্থা করারও দাবি জানান তিনি।

 

/ইএইচএস/এমএএ/

সম্পর্কিত

ভারতীয় ভ্যাকসিন হস্তান্তর অনুষ্ঠান ‘পদ্মায়’

ভারতীয় ভ্যাকসিন হস্তান্তর অনুষ্ঠান ‘পদ্মায়’

ঢাবি’র শতবর্ষপূর্তি উপলক্ষে আন্তর্জাতিক সম্মেলন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

ঢাবি’র শতবর্ষপূর্তি উপলক্ষে আন্তর্জাতিক সম্মেলন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

বিচারককে ঘুষ দিতে গিয়ে এসআই ক্লোজ

বিচারককে ঘুষ দিতে গিয়ে এসআই ক্লোজ

প্রত্যেককে বিনামূল্যে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া হবে: নৌপ্রতিমন্ত্রী

প্রত্যেককে বিনামূল্যে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া হবে: নৌপ্রতিমন্ত্রী

ঢাবিতে ‘শহীদ আসাদ পাঠাগার’ উদ্বোধন

ঢাবিতে ‘শহীদ আসাদ পাঠাগার’ উদ্বোধন

ক্রিকেট দলকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

ক্রিকেট দলকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

বিমানবন্দর সড়কে দম্পতি নিহতের ঘটনায় বাসচালক রিমান্ডে

বিমানবন্দর সড়কে দম্পতি নিহতের ঘটনায় বাসচালক রিমান্ডে

বিয়ের রাত পোহাতেই মিললো নববধূর ঝুলন্ত লাশ

বিয়ের রাত পোহাতেই মিললো নববধূর ঝুলন্ত লাশ

প্রাইভেট হাসপাতালে এখনই করোনার টিকা নয়

প্রাইভেট হাসপাতালে এখনই করোনার টিকা নয়

‘আমার গ্রাম আমার শহর’ বাস্তবায়নে গুচ্ছভিত্তিক কমিটি করা হবে

‘আমার গ্রাম আমার শহর’ বাস্তবায়নে গুচ্ছভিত্তিক কমিটি করা হবে

দ্বিতীয় তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহণ ২৪ জানুয়ারি

দ্বিতীয় তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহণ ২৪ জানুয়ারি

সর্বশেষ

ভারতীয় ভ্যাকসিন হস্তান্তর অনুষ্ঠান ‘পদ্মায়’

ভারতীয় ভ্যাকসিন হস্তান্তর অনুষ্ঠান ‘পদ্মায়’

ঢাবি’র শতবর্ষপূর্তি উপলক্ষে আন্তর্জাতিক সম্মেলন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

ঢাবি’র শতবর্ষপূর্তি উপলক্ষে আন্তর্জাতিক সম্মেলন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

আমিরাত-ভারত যাত্রায় খরচ হবে মাত্র ৭ হাজার টাকা

আমিরাত-ভারত যাত্রায় খরচ হবে মাত্র ৭ হাজার টাকা

‘আমরা স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারি নাই যে ইটের ঘর পাবো’

‘আমরা স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারি নাই যে ইটের ঘর পাবো’

বোলাররা পাচ্ছেন ‘ফুল নম্বর’

বোলাররা পাচ্ছেন ‘ফুল নম্বর’

প্রাথমিকে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থী সংখ্যা জানতে চায় সরকার

প্রাথমিকে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থী সংখ্যা জানতে চায় সরকার

বিচারককে ঘুষ দিতে গিয়ে এসআই ক্লোজ

বিচারককে ঘুষ দিতে গিয়ে এসআই ক্লোজ

প্রত্যেককে বিনামূল্যে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া হবে: নৌপ্রতিমন্ত্রী

প্রত্যেককে বিনামূল্যে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া হবে: নৌপ্রতিমন্ত্রী

ঢাবিতে ‘শহীদ আসাদ পাঠাগার’ উদ্বোধন

ঢাবিতে ‘শহীদ আসাদ পাঠাগার’ উদ্বোধন

শুরুর দিনগুলোতে কোন ইস্যুকে অগ্রাধিকার দেবেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন?

শুরুর দিনগুলোতে কোন ইস্যুকে অগ্রাধিকার দেবেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন?

ক্রিকেট দলকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

ক্রিকেট দলকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

বিমানবন্দর সড়কে দম্পতি নিহতের ঘটনায় বাসচালক রিমান্ডে

বিমানবন্দর সড়কে দম্পতি নিহতের ঘটনায় বাসচালক রিমান্ডে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

শ্রমিকদের কল্যাণে কাজ করছে সরকার: ওবায়দুল কাদের

শ্রমিকদের কল্যাণে কাজ করছে সরকার: ওবায়দুল কাদের

নাগরিক ঐক্যে যোগ দিলেন জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য মনিরা বেগম

নাগরিক ঐক্যে যোগ দিলেন জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য মনিরা বেগম

জীবিকার খোঁজে খোলা আকাশের নিচে তিনবারের এমপি-প্রার্থী আছাদুল

জীবিকার খোঁজে খোলা আকাশের নিচে তিনবারের এমপি-প্রার্থী আছাদুল

নির্বাচনকে ‘চর দখলে’ পরিণত করেছে সরকার: সাইফুল হক

নির্বাচনকে ‘চর দখলে’ পরিণত করেছে সরকার: সাইফুল হক

‘ট্রেড ইউনিয়নের সঙ্গে যুক্ত ৪ শতাংশ শ্রমিক’

‘ট্রেড ইউনিয়নের সঙ্গে যুক্ত ৪ শতাংশ শ্রমিক’

মায়ের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন করলেন খালেদা জিয়া

মায়ের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন করলেন খালেদা জিয়া

জিয়াউর রহমানের ৮৫তম জন্মবার্ষিকীতে দুই দিনের কর্মসূচি বিএনপির

জিয়াউর রহমানের ৮৫তম জন্মবার্ষিকীতে দুই দিনের কর্মসূচি বিএনপির

খালেদা জিয়ার নেতৃত্বেই গণতন্ত্র ফিরবে: রিজভী

খালেদা জিয়ার নেতৃত্বেই গণতন্ত্র ফিরবে: রিজভী

বিনামূল্যে ভ্যাকসিনের দাবিতে বামজোটের বিক্ষোভ ২৫ জানুয়ারি

বিনামূল্যে ভ্যাকসিনের দাবিতে বামজোটের বিক্ষোভ ২৫ জানুয়ারি


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.