সেকশনস

ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা বলবৎ রাখতে ইউরোপীয় দেশগুলোকে পম্পেও’র আহ্বান

আপডেট : ০১ জুলাই ২০২০, ২১:২৬

ইরানের বিরুদ্ধ অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা বলবৎ রাখতে পারমাণবিক চুক্তি স্বাক্ষরকারী তিন ইউরোপীয় দেশের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। মঙ্গলবার (৩০ জুন) জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের অধিবেশনে এ আহ্বান জানান তিনি।
২০১৫ সালে স্বাক্ষরিত পারমাণবিক চুক্তি অনুযায়ী আগামী অক্টোবরে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা। এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের এ প্রচেষ্টাকে আন্তর্জাতিক আইনের জন্য বড় ধরনের ধাক্কা বলে উল্লেখ করেছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ। চীন ও রাশিয়াও প্রস্তাবটির বিরোধিতা করেছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।
২০১৫ সালের জুনে ভিয়েনায় ইরানের সঙ্গে নিরাপত্তা পরিষদের ৫ সদস্য রাষ্ট্র- যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, রাশিয়া, চীন (পি-ফাইভ) ও জার্মানি (ওয়ান) পরমাণু চুক্তিতে স্বাক্ষর করে। চুক্তি অনুযায়ী, ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ কার্যক্রম চালিয়ে গেলেও পারমাণবিক অস্ত্র তৈরি না করার প্রতিশ্রুতি দেয় তেহরান। পূর্বসূরী ওবামা আমলে স্বাক্ষরিত এই চুক্তিকে ‘ক্ষয়িষ্ণু ও পচনশীল’ আখ্যা দিয়ে ২০১৮ সালের মে মাসে তা থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর নভেম্বরে তেহরানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করা হয়। অন্যদিকে ইউরোপীয় দেশগুলো এ সমঝোতা বাস্তবায়নের কথা মুখে বললেও কার্যত তারা কোনও পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিযোগ করে আসছে ইরান। যুক্তরাষ্ট্রের বেরিয়ে যাওয়া এবং নিজেদের প্রতিশ্রুতি পালনে ইউরোপীয় দেশগুলোর ব্যর্থতার বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানিয়ে দেশটি চুক্তি থেকে আংশিক সরে আসার ঘোষণা দেয়।
পরমাণু সমঝোতা থেকে একতরফাভাবে বেরিয়ে যাবার পরও যুক্তরাষ্ট্র ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞা বলবৎ রাখার জন্য জোর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তারই অংশ হিসেবে মার্কিন কর্মকর্তারা নিরাপত্তা পরিষদে একটি খসড়া প্রস্তাব পেশ করেছে যা গৃহীত হলে ইরানের ওপর অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা অনির্দিষ্ট কালের জন্য নবায়ন হবে। নিরাপত্তা পরিষদের ২২৩১ নম্বর প্রস্তাব অনুযায়ী ইরানের ওপর থেকে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা চলতি বছরের ১৮ অক্টোবর উঠে যাবার কথা ছিল।
মঙ্গলবার নিরাপত্তা পরিষদের অধিবেশনে হাজির করা এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গত বছর সৌদি আরবে ক্রুজ মিসাইল ও ড্রোন ব্যবহার করে যে হামলা হয়েছিল তার মধ্যে ইরানের তৈরি উপকরণও ছিল। এ ব্যাপারে পম্পেও বলেন, ‘মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই ইরান অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করেছে। চিন্তা করুন, নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের পর কী হবে।’
পম্পেও আশঙ্কা প্রকাশ করেন, ইরানের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হলে দেশটি সশস্ত্র সংগঠন হামাস ও হিজবুল্লাহকে অথ্যাধুনিক অস্ত্র সরবরাহ করবে।

/জেজে/

সম্পর্কিত

পশ্চিম তীরে মসজিদ গুড়িয়ে দিলো ইসরায়েল

পশ্চিম তীরে মসজিদ গুড়িয়ে দিলো ইসরায়েল

ভ্যাকসিন সরবরাহ সংকট উত্তরণের চেষ্টায় ইইউ-অ্যাস্ট্রাজেনেকা

ভ্যাকসিন সরবরাহ সংকট উত্তরণের চেষ্টায় ইইউ-অ্যাস্ট্রাজেনেকা

করোনার মধ্যেই নাইজেরিয়ায় কলেরার প্রাদুর্ভাব

করোনার মধ্যেই নাইজেরিয়ায় কলেরার প্রাদুর্ভাব

মহাকাশ প্রযুক্তি নিয়ে এরদোয়ানের সঙ্গে কথা বললেন এলন মাস্ক

মহাকাশ প্রযুক্তি নিয়ে এরদোয়ানের সঙ্গে কথা বললেন এলন মাস্ক

নতুন বৈশিষ্ট্যের করোনা ছড়িয়েছে ৭০টি দেশে: ডব্লিউএইচও

নতুন বৈশিষ্ট্যের করোনা ছড়িয়েছে ৭০টি দেশে: ডব্লিউএইচও

রাশিয়ার বিরোধীদলীয় নেতা নাভালনির বাড়ি-অফিসে তল্লাশি

রাশিয়ার বিরোধীদলীয় নেতা নাভালনির বাড়ি-অফিসে তল্লাশি

সৌদি-আমিরাতের কাছে সমরাস্ত্র বিক্রি স্থগিতের সিদ্ধান্ত যুক্তরাষ্ট্রের

সৌদি-আমিরাতের কাছে সমরাস্ত্র বিক্রি স্থগিতের সিদ্ধান্ত যুক্তরাষ্ট্রের

হাসপাতালে লাতিন আমেরিকার শীর্ষ ধনী কার্লোস স্লিম

হাসপাতালে লাতিন আমেরিকার শীর্ষ ধনী কার্লোস স্লিম

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১০ কোটি ১৪ লাখ ছাড়িয়েছে

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১০ কোটি ১৪ লাখ ছাড়িয়েছে

সর্বশেষ

অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশের সময় আটক ২২

অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশের সময় আটক ২২

কুমিল্লায় আবাহনীকে রুখে দিলো মোহামেডান

কুমিল্লায় আবাহনীকে রুখে দিলো মোহামেডান

‘নদী রক্ষায় সবাইকে দায়িত্বশীল হতে হবে’

‘নদী রক্ষায় সবাইকে দায়িত্বশীল হতে হবে’

দুর্নীতিতে বাংলাদেশের অবস্থান ২ ধাপ অবনতি: টিআইবি

দুর্নীতিতে বাংলাদেশের অবস্থান ২ ধাপ অবনতি: টিআইবি

শ্রীনগরে মাটিচাপায় ২ শ্রমিক নিহত

শ্রীনগরে মাটিচাপায় ২ শ্রমিক নিহত

সাতক্ষীরায় অস্ত্র ও বিস্ফোরক মামলায় সাহেদের বিচার শুরু

সাতক্ষীরায় অস্ত্র ও বিস্ফোরক মামলায় সাহেদের বিচার শুরু

বড়বোনকে বিয়ে করতে না পেরে ছোটবোনকে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা

বড়বোনকে বিয়ে করতে না পেরে ছোটবোনকে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা

নির্মাণ ও সংস্কারের জন্য প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তথ্য চেয়েছে সরকার

নির্মাণ ও সংস্কারের জন্য প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তথ্য চেয়েছে সরকার

ওরিয়েন্টাল ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টরসহ ৭ জনের কারাদণ্ড

ওরিয়েন্টাল ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টরসহ ৭ জনের কারাদণ্ড

শপথ নিলেন পিএসসি’র নতুন দুই সদস্য

শপথ নিলেন পিএসসি’র নতুন দুই সদস্য

পশ্চিম তীরে মসজিদ গুড়িয়ে দিলো ইসরায়েল

পশ্চিম তীরে মসজিদ গুড়িয়ে দিলো ইসরায়েল

বিমানের ১৭ সিবিএ নেতার বিষয়ে দুদকের পদক্ষেপ জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট

বিমানের ১৭ সিবিএ নেতার বিষয়ে দুদকের পদক্ষেপ জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

পশ্চিম তীরে মসজিদ গুড়িয়ে দিলো ইসরায়েল

পশ্চিম তীরে মসজিদ গুড়িয়ে দিলো ইসরায়েল

ভ্যাকসিন সরবরাহ সংকট উত্তরণের চেষ্টায় ইইউ-অ্যাস্ট্রাজেনেকা

ভ্যাকসিন সরবরাহ সংকট উত্তরণের চেষ্টায় ইইউ-অ্যাস্ট্রাজেনেকা

করোনার মধ্যেই নাইজেরিয়ায় কলেরার প্রাদুর্ভাব

করোনার মধ্যেই নাইজেরিয়ায় কলেরার প্রাদুর্ভাব

মহাকাশ প্রযুক্তি নিয়ে এরদোয়ানের সঙ্গে কথা বললেন এলন মাস্ক

মহাকাশ প্রযুক্তি নিয়ে এরদোয়ানের সঙ্গে কথা বললেন এলন মাস্ক

নতুন বৈশিষ্ট্যের করোনা ছড়িয়েছে ৭০টি দেশে: ডব্লিউএইচও

নতুন বৈশিষ্ট্যের করোনা ছড়িয়েছে ৭০টি দেশে: ডব্লিউএইচও

রাশিয়ার বিরোধীদলীয় নেতা নাভালনির বাড়ি-অফিসে তল্লাশি

রাশিয়ার বিরোধীদলীয় নেতা নাভালনির বাড়ি-অফিসে তল্লাশি

সৌদি-আমিরাতের কাছে সমরাস্ত্র বিক্রি স্থগিতের সিদ্ধান্ত যুক্তরাষ্ট্রের

সৌদি-আমিরাতের কাছে সমরাস্ত্র বিক্রি স্থগিতের সিদ্ধান্ত যুক্তরাষ্ট্রের


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.