সেকশনস

প্রেমঘটিত বিষয়ে ঢাকার কলেজছাত্র জিসান হত্যা, ৫ আসামি গ্রেফতার

আপডেট : ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১৮:২৩

মানিকগঞ্জের শিবালয়ে প্রেমঘটিত বিষয়ের জের ধরে ঢাকার একটি বেসরকারি কলেজছাত্র মো. তানভীর আহাম্মদ জিসানকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। পাঁচ বন্ধু মিলে পাটুরিয়া ফেরিঘাটের অদূরে পদ্মা নদীর চরে নিয়ে রশি দিয়ে হাত বেঁধে চাকু দিয়ে আঘাত তাকে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে।

তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ৩২টি চাকুর আঘাত করে মৃত্যু নিশ্চিত করে নদীর পানিতে ভাসিয়ে দেওয়া হয়। এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছে শিবালয় থানা পুলিশ।

নিহত জিসান ঢাকার মোহাম্মদপুরের কাদেরাবাদ এলাকার শাহিন আলমের ছেলে এবং মোহাম্মদপুর হাজী মুকবুল হোসেন ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র। প্রাথমিকভাবে হত্যাকাণ্ডের কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে আটক ব্যক্তিরা। শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) আসামিদের ১০ দিন রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতাররা হলেন শিবালয় উপজেলার পাচুরিয়া এলাকার জুলহাসের ছেলে রাব্বি হোসেন ওরফে প্রান্তিক (১৮), ছোট শাকরাইল এলাকার ঝাড়ু মোল্লার ছেলে নাজমুল (১৮), সমেজ মোল্লার ছেলে শরিফ হোসেন (১৮), জামাল মোল্লার ছেলে আজিজুল (১৮), ঢাকাইজোড়া এলাকার শামীম হাসানের ছেলে হাসিবুন হাসান (১৮)।

পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, চলতি মাসের ১৫ তারিখে জিসান ঢাকা থেকে নানার বাড়ি যাওয়ার কথা বলে বাসা থেকে নিখোঁজ হন। জিসানের পরিবার অনেক খোঁজ করার পর মোহাম্মদপুর থানায় একটি জিডি করেন। এদিকে গত ১৮ তারিখে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ঘাটের কাছে পদ্মায় অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে জিসানের পরিবার ওই যুবকের জামাকাপড় দেখে নিশ্চিত হন ওই অজ্ঞাত যুবক তাদের জিসান। পরে বিষয়টি ঢাকার মোহাম্মদপুরের পুলিশের মাধ্যমে শিবালয় থানায় বিষয়টি অবগত করে। এ ঘটনায় শিবালয় থানা পুলিশ প্রযুক্তি ব্যবহার করে বৃহস্পতিবার সারা রাত অভিযান পরিচালনা করে আসামিদের আটক করতে সক্ষম হন।

শিবালয় থানার ওসি ফিরোজ কবির বলেন, আমরা জিসানের বিষয়টি ওই থানা থেকে অবগত হওয়ার পরই প্রযুক্তি ব্যবহার করে মোবাইল ট্র্যাক করছিলাম। তখন জিসানের কল লিস্টে প্রান্তি নামের একজনের ঠিকানা পাই। কিন্তু কোনোভাবে আসামির বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারছিলাম না। পরে তদন্ত করে জানতে পারি প্রান্তিক নামের ছেলেটির আরেক নাম রাব্বি। পরে তাকে আমরা অভিযান করে আটক করলে বিষয়টি সামনে আসতে থাকে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ওসি (তদন্ত) আশীষ কুমার সান্যাল জানান, এ ঘটনায় জিসানের বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। দশ দিনের রিমান্ড চেয়ে আসামিদের কোর্টে পাঠানো হয়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (শিবালয় সার্কেল) তানিয়া সুলতানা জানান, আসামিদের ভাষ্যমতে প্রধান আসামি রাব্বির সঙ্গে এক মেয়ের প্রেমের সর্ম্পক ছিল। ওই মেয়ের সঙ্গে দেখা করতে ঢাকায় গেলে জিসানের কয়েকবন্ধু ঢাকা থেকে রাব্বির মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয় এবং অপমান করে। এর পর থেকে রাব্বি প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য মরিয়া হয়ে উঠে। জিসানের পূর্ব পরিচিত থাকার সুবাদে রাব্বি সুযোগ খুঁজতে থাকে। জিসানের প্রেমিকার নানীবাড়ি শিবালয়ের ছোট শাকরাইল এলাকায় থাকায় তাকে দেখা করতে খবর দেয় রাব্বি। চলতি মাসের ১৫ তারিখে রাতে সিজান গাড়ি যোগে পাটুরিয়া ঘাটে এসে নামে। এসময় রাব্বিসহ পাঁচ বন্ধু মিলে তাকে পাটুরিয়া ট্রাক টার্মিনালের কাছে নদীর চরে নিয়ে রশি দিয়ে হাত বেঁধে চাকু দিয়ে আঘাত করে হত্যা করে জিসানকে। ৩২টি চাকুর আঘাত করে মৃত্যু নিশ্চিত করে নদীর পানিতে ভাসিয়ে দেয়।

মানিকগঞ্জের পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম জানান, মামলা দায়েরের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে শিবালয় সার্কেল ও শিবালয় থানার যৌথ প্রচেষ্টায় মামলার রহস্য উদঘাটনসহ আসামিদের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি আদায় ন্যায়বিচার নিশ্চিতকরণে নিঃসন্দেহে একটি মাইলফলক উদাহরণ।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

শীতলক্ষ্যায় পোশাক শ্রমিক নিখোঁজ

শীতলক্ষ্যায় পোশাক শ্রমিক নিখোঁজ

৭০ কোটি টাকা মূল্যের সাপের বিষসহ গ্রেফতার ২

৭০ কোটি টাকা মূল্যের সাপের বিষসহ গ্রেফতার ২

নৌযানের ধাক্কায় ট্রলার থেকে পড়ে ব্যবসায়ী নিখোঁজ

নৌযানের ধাক্কায় ট্রলার থেকে পড়ে ব্যবসায়ী নিখোঁজ

ঘন কুয়াশায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাস খাদে, আহত ২০

ঘন কুয়াশায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাস খাদে, আহত ২০

১০ ঘণ্টা পর পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় ফেরি চলাচল শুরু

১০ ঘণ্টা পর পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় ফেরি চলাচল শুরু

স্বতন্ত্র প্রার্থীর ওপর নৌকার প্রার্থীর সমর্থকের হামলার অভিযোগ

স্বতন্ত্র প্রার্থীর ওপর নৌকার প্রার্থীর সমর্থকের হামলার অভিযোগ

ঘন কুয়াশায় ফেরি চলাচল বন্ধ, মাঝ পদ্মায় আটকা ৬ ফেরি

ঘন কুয়াশায় ফেরি চলাচল বন্ধ, মাঝ পদ্মায় আটকা ৬ ফেরি

বাসস্ট্যান্ডে ৫ বাসে আগুন

বাসস্ট্যান্ডে ৫ বাসে আগুন

২০০ লিটার মদসহ গ্রেফতার হলেন তারা

২০০ লিটার মদসহ গ্রেফতার হলেন তারা

সর্বশেষ

নির্বাচনকে ‘চর দখলে’ পরিণত করেছে সরকার: সাইফুল হক

নির্বাচনকে ‘চর দখলে’ পরিণত করেছে সরকার: সাইফুল হক

ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে বৃদ্ধ নিহত

ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে বৃদ্ধ নিহত

ফেব্রুয়ারিতে খুলতে পারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

ফেব্রুয়ারিতে খুলতে পারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

সরকার শিগগিরই জনগণকে টিকা দিতে পারবে: রাষ্ট্রপতি

সরকার শিগগিরই জনগণকে টিকা দিতে পারবে: রাষ্ট্রপতি

ব্রাজিলিয়ানের গোলেও শেষ রক্ষা হয়নি

ব্রাজিলিয়ানের গোলেও শেষ রক্ষা হয়নি

আরও ৯১ হাজার টন চাল আমদানির অনুমতি

আরও ৯১ হাজার টন চাল আমদানির অনুমতি

হাতিয়ায় পল্লী চিকিৎসককে নির্যাতন ও ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় মামলা

হাতিয়ায় পল্লী চিকিৎসককে নির্যাতন ও ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় মামলা

জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় নানা পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার: পরিবেশ মন্ত্রী

জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় নানা পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার: পরিবেশ মন্ত্রী

মধ্যপ্রাচ্যে উড়লো মার্কিন বোমারু বিমান, হুমকির নিন্দা ইরানের

মধ্যপ্রাচ্যে উড়লো মার্কিন বোমারু বিমান, হুমকির নিন্দা ইরানের

শীতলক্ষ্যায় পোশাক শ্রমিক নিখোঁজ

শীতলক্ষ্যায় পোশাক শ্রমিক নিখোঁজ

‘ট্রেড ইউনিয়নের সঙ্গে যুক্ত ৪ শতাংশ শ্রমিক’

‘ট্রেড ইউনিয়নের সঙ্গে যুক্ত ৪ শতাংশ শ্রমিক’

মায়ের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন করলেন খালেদা জিয়া

মায়ের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন করলেন খালেদা জিয়া

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

শীতলক্ষ্যায় পোশাক শ্রমিক নিখোঁজ

শীতলক্ষ্যায় পোশাক শ্রমিক নিখোঁজ

৭০ কোটি টাকা মূল্যের সাপের বিষসহ গ্রেফতার ২

৭০ কোটি টাকা মূল্যের সাপের বিষসহ গ্রেফতার ২

নৌযানের ধাক্কায় ট্রলার থেকে পড়ে ব্যবসায়ী নিখোঁজ

নৌযানের ধাক্কায় ট্রলার থেকে পড়ে ব্যবসায়ী নিখোঁজ

ঘন কুয়াশায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাস খাদে, আহত ২০

ঘন কুয়াশায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাস খাদে, আহত ২০

১০ ঘণ্টা পর পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় ফেরি চলাচল শুরু

১০ ঘণ্টা পর পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় ফেরি চলাচল শুরু

স্বতন্ত্র প্রার্থীর ওপর নৌকার প্রার্থীর সমর্থকের হামলার অভিযোগ

স্বতন্ত্র প্রার্থীর ওপর নৌকার প্রার্থীর সমর্থকের হামলার অভিযোগ

ঘন কুয়াশায় ফেরি চলাচল বন্ধ, মাঝ পদ্মায় আটকা ৬ ফেরি

ঘন কুয়াশায় ফেরি চলাচল বন্ধ, মাঝ পদ্মায় আটকা ৬ ফেরি


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.