X
শনিবার, ১৮ মে ২০২৪
৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ওসি ও উপজেলা চেয়ারম্যানের নামে চাঁদাবাজির মামলা

যশোর প্রতিনিধি
১৬ মে ২০২৪, ১৪:১০আপডেট : ১৬ মে ২০২৪, ১৪:১০

চাঁদাবাজির অভিযোগে যশোরের কেশবপুর থানার ওসি এবং উপজেলা চেয়ারম্যানসহ তিন জনের নামে আদালতে মামলা হয়েছে। ওসির কক্ষে আটকে রেখে ক্রসফায়ারের হুমকি দিয়ে চাঁদা দাবি করা হয় বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।

জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সালমান আহমেদ শুভ অভিযোগটি আমলে নিয়ে পুলিশ পরিদর্শক পদমর্যাদার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার মাধ্যমে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।

বুধবার (১৫ মে) কেশবপুর উপজেলার মধ্যকুল গ্রামের নুর মোহাম্মদ সরদারের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম এ মামলা দায়ের করেন।

অভিযুক্তরা হলেন- কেশবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহির উদ্দিন, কেশবপুর উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মফিজুর রহমান মফিজ ও আলতাপোল গ্রামের সেলিমুজ্জামান আসাদ।

বাদীপক্ষের আইনজীবী ফিরোজ হক জানান, তার মক্কেল জাহাঙ্গীর আলম একজন ঘের ব্যবসায়ী। তিনি ২০২৪ সালের ২১ জানুয়ারি মধ্যকুল মৌজায় ২১৪ জন মালিকের কাছ থেকে ৪৫০ বিঘা জমি এক কোটি আশি লাখ টাকা চুক্তিতে পাঁচ বছরের জন্য লিজ নেন। সেখানে মাছ চাষ করে আসছেন। ওই জমির গা ঘেঁষে মফিজুর রহমান মফিজ একশ কৃষকের কাছ থেকে তাদের জমি লিজ নিয়ে ঘের করার জন্য চুক্তি করেন। গত ফেব্রুয়ারি মাস থেকে মফিজুর রহমান ও সেলিমুজ্জামান আসাদ বাদী জাহাঙ্গীর আলমকে লিজ নেওয়া জমি হস্তান্তরের জন্য হুমকি-ধামকি দিয়ে আসছেন।

তিনি আরও জানান, এ বিষয়ে কেশবপুর থানায় জিডি করতে গেলে থানা তা গ্রহণ করেনি। সর্বশেষ গত ১ মে পুলিশ কর্মকর্তা তারিকুল ইসলাম ও আবুল হোসেন জোর করে জাহাঙ্গীরকে বাড়ি থেকে ধরে ওসির রুমে নিয়ে যান। সেখানে গিয়ে দেখেন তিন অভিযুক্ত উপস্থিত রয়েছেন। এ সময় ওসি জহির উদ্দিন বাদীকে তার জমি মফিজ ও আসাদকে হস্তান্তর করতে বলেন। ১৫ দিনের মধ্যে মফিজ ও আসাদকে জমি হস্তান্তর করতে হবে, তা না হলে ৩০ লাখ টাকা চাঁদা দিতে হবে। টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় বিলের মধ্যে নিয়ে ক্রসফায়ার করা হবে হুমকি দেওয়া হয়। এরপর তাকে ধাক্কা মেরে থানা থেকে বের করে দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে কেশবপুর থানার ওসি জহির উদ্দিন বলেন, ‘মামলার অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা। বিষয়টি আমার জানা নেই।’

কেশবপুর উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মফিজুর রহমান মফিজ সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘মামলার অভিযোগ ভিত্তিহীন। ওই ঘটনার সময় আমি নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম। ওসির রুমে চাঁদা দাবি করার কোনও প্রশ্নই ওঠে না। যেহেতু আমি নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান, তাই রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় আমাকে ফাঁসাচ্ছে।’

/এমএএ/
সম্পর্কিত
ইউপি চেয়ারম্যানকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে মহাসড়ক অবরোধ
৩০০ ফুট সড়কে বিশৃঙ্খলা ঠেকাতে ‘ওভার স্পিড’ মামলা
রংপুরে পরিবহনে চাঁদাবাজির অভিযোগে সাত জন গ্রেফতার
সর্বশেষ খবর
চাকরি ছাড়ার আগে এই ৫ বিষয় বিবেচনা করবে ভুলবেন না
চাকরি ছাড়ার আগে এই ৫ বিষয় বিবেচনা করবে ভুলবেন না
ডক্টরেট ডিগ্রি পেলো বিড়াল!
ডক্টরেট ডিগ্রি পেলো বিড়াল!
ভাতাভোগীরা যেন নিজেদের অসহায় মনে না করেন: সমাজকল্যাণমন্ত্রী
ভাতাভোগীরা যেন নিজেদের অসহায় মনে না করেন: সমাজকল্যাণমন্ত্রী
হারপিক ও সাজেদা ফাউন্ডেশনের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি
হারপিক ও সাজেদা ফাউন্ডেশনের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি
সর্বাধিক পঠিত
যাত্রীর জামাকাপড় পুড়িয়ে পাওয়া গেলো সাড়ে চার কোটি টাকার স্বর্ণ
যাত্রীর জামাকাপড় পুড়িয়ে পাওয়া গেলো সাড়ে চার কোটি টাকার স্বর্ণ
৩০ শতাংশ বেতন বৃদ্ধির দাবি তৃতীয় শ্রেণির সরকারি কর্মচারীদের
৩০ শতাংশ বেতন বৃদ্ধির দাবি তৃতীয় শ্রেণির সরকারি কর্মচারীদের
সুপ্রিম কোর্ট রিসার্চ ইনস্টিটিউটের স্থান পরিদর্শন প্রধান বিচারপতির
সুপ্রিম কোর্ট রিসার্চ ইনস্টিটিউটের স্থান পরিদর্শন প্রধান বিচারপতির
আমেরিকা যাচ্ছেন ৩০ ব্যাংকের এমডি
আমেরিকা যাচ্ছেন ৩০ ব্যাংকের এমডি
কোথায় কীভাবে কেএনএফ সদস্যদের প্রশিক্ষণ দেয়, জানালেন নারী শাখার প্রধান
কোথায় কীভাবে কেএনএফ সদস্যদের প্রশিক্ষণ দেয়, জানালেন নারী শাখার প্রধান