X
শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২৩
১৩ মাঘ ১৪২৯

মাটিরাঙ্গার ইউএনওর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি
২৫ জুলাই ২০২২, ১৭:৩৬আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২২, ১৭:৩৬

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তৃলা দেবের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বাররা। আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর নির্মাণে ঘুষ, টিআর, কাবিখা/কাবিটা প্রকল্প থেকে ১৫ শতাংশ হারে কমিশন, গুচ্ছগ্রামে কার্ডপ্রতি কমিশন ও কার্ডের নাম পরিবর্তনের জন্য ১২-১৫ হাজার টাকা আদায়ের অভিযোগ করেছেন তারা।

সোমবার (২৫ জুলাই) দুপুরে মাটিরাঙার তবলছড়ি ইউনিয়ন পরিষদে সংবাদ সম্মেলন করে এসব অভিযোগ তুলে ধরেন চেয়ারম্যান ও মেম্বাররা।

সংবাদ সম্মেলনে ইউপি চেয়ারম্যান মো. আবুল কাশেম ভূঁইয়া লিখিত বক্তব্যে বলেন, ‘ইউএনও তৃলা দেব মনোনীত ঠিকাদার দিয়ে তবলছড়ি ইউনিয়নে সরকারি আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর নির্মাণ করছেন। প্রতিটি ঘর নির্মাণ বাবদ ঠিকাদারকে দিয়ে ২০ হাজার টাকা করে ঘুষ আদায় করেছেন ইউএনও। এছাড়া এসব ঘর নির্মাণে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করা হয়েছে। যারা ঘর বরাদ্দ পেয়েছেন তাদের নির্মাণসামগ্রীর ব্যয় বহন করতে বাধ্য করা হয়েছে।’

চেয়ারম্যান আরও বলেন, ‘গ্রামীণ জনপদের উন্নয়নের জন্য সরকারের টিআর, কাবিখা/কাবিটা প্রকল্প থেকে ১৫ শতাংশ হারে কমিশন আদায় করা হচ্ছে। ওসব টাকা যায় ইউএনওর পকেটে। তবলছড়ি ইউনিয়নের চারটি গুচ্ছগ্রামে এক হাজার ৩৫২টি কার্ড দিয়ে ৩৮ টাকা করে ৫১ হাজার ৩৭৬ টাকা উৎকোচ নিয়েছেন ইউএনও। টাকা ছাড়া তিনি রেশন ছাড় দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় আমি দিতে বাধ্য হয়েছি। সরকারি নির্দেশনা ছাড়া ১৪ কার্ডধারীর ছয় মাসের রেশন বিতরণ না করে এক লাখ ৪৭ হাজার টাকা নিয়ে গেছেন তিনি।’ 

ইউএনওর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে মানববন্ধন

চেয়ারম্যান মো. আবুল কাশেম বলেন, ‘ইউএনও তার সিএ মুকুল কান্তি চাকমা, পিয়ন জাহেরুল ইসলামের মাধ্যমে গুচ্ছগ্রামের অর্থ সংগ্রহ করেন। এছাড়া ইউএনও তার স্বজন দিলীপ কুমার সাহা ও সাবেক ইউপি সদস্য আসাদুজ্জামান খান বকুলের মাধ্যমে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর নির্মাণ বাবদ অর্থ সংগ্রহ করেন। এসব কারণে ইউএনওর অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসকসহ সরকারের বিভিন্ন দফতরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছি আমরা।’ 

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ইউপি সদস্যরা ইউএনওর বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ করেন। তবলছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের ২ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য বেলাল হোসেন বলেন, ‘আমি টিআর প্রকল্পের আওতায় একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছি। আমার কাছ থেকে ১৫ শতাংশ কমিশন নিয়েছেন ইউএনও। এছাড়া আমার ওয়ার্ডে সরকারি ঘর দেওয়া বাবদ ইউএনও মনোনীত প্রতিনিধি আসাদুজ্জামান খান বকুল উপকারভোগীদের কাছ থেকে ২৫ হাজার টাকা নিয়েছেন। আরও পাঁচ হাজার টাকা করে দাবি করেছেন।’ 

তবলছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মো. শরিফুল ইসলাম, ১ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মো. আহম্মেদ উল্ল্যাহ কামাল জানান, টিআরের প্রতিটি প্রকল্প থেকে ইউএনওর প্রতিনিধি রুহুল আমিন তাদের কাছ থেকে ঘুষ আদায় করেছেন।

সরকারি ঘরের জন্য টাকা দেওয়া ভুক্তভোগী জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, ‘আমরা গরিব মানুষ। ঘর করার অর্থ নেই। একটা ঘরের জন্য আবেদন করেছিলাম। বকুল মেম্বার বলেছেন ঘর পাওয়ার ব্যবস্থা করে দেবেন। কিছুদিন পর বলেন, টাকা দিতে হবে। কিন্তুু টাকা দেওয়ার মতো অবস্থা আমাদের ছিল না। এরপর অনেক কষ্টে এক প্রতিবেশীর কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা সুদের ওপর নিয়ে বকুল মেম্বারকে দিয়েছি। পরে আরও ১০ হাজার টাকা দাবি করেন। তাও সুদের ওপর নিয়ে দিয়েছি। অথচ এখনও ঘর পাইনি।’ তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন সাবেক ইউপি সদস্য আসাদুজ্জামান খান বকুল।

ইউএনও তৃলা দেবের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ তুলে স্থানীয়দের মানববন্ধন

এসব অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তৃলা দেব বলেন, ‌‘এসব অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং বানোয়াট। গুচ্ছগ্রাম, টিআর কাবিখা/কাবিটা ও আশ্রয়ণ প্রকল্প সবগুলোই সরকারি কাজ। সরকারি বিধি অনুযায়ী কাজ চলছে। এসব বিষয়ে যারা অভিযোগ করেছেন তারা ভালো বলতে পারবেন, কোথায় অনিয়ম-দুর্নীতি হয়েছে। আমাদের কাছে কাজের সব তথ্য-প্রমাণ আছে। কোনও অনিয়ম-দুর্নীতি হয়নি।’

অফিস স্টাফ ও নিকট আত্মীয়দের দিয়ে উৎকোচ আদায়ের অভিযোগের বিষয়ে ইউএনও বলেন, ‘আত্মীয়-স্বজনদের নিজ জেলায় পোস্টিং হয় না। এখানে আমার সহকর্মীরা আছেন, আত্মীয়-স্বজন কেউ নেই। এসব অভিযোগের ভিত্তি নেই।’

/এএম/
সর্বশেষ খবর
বাবা হওয়ার পরদিন মাদ্রাসাশিক্ষকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
বাবা হওয়ার পরদিন মাদ্রাসাশিক্ষকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
চতুর্থ শিল্পবিপ্লব প্রস্তুতি: অবকাঠামোর উন্নয়ন
চতুর্থ শিল্পবিপ্লব প্রস্তুতি: অবকাঠামোর উন্নয়ন
১০৭ ধরে চলছে হাডুডু খেলার আয়োজন, গ্রামজুড়ে উৎসব
১০৭ ধরে চলছে হাডুডু খেলার আয়োজন, গ্রামজুড়ে উৎসব
বন বিভাগের জায়গা দখল করে প্রভাবশালীদের মার্কেট নির্মাণ
বন বিভাগের জায়গা দখল করে প্রভাবশালীদের মার্কেট নির্মাণ
সর্বাধিক পঠিত
বিয়ে করে বিপাকে অভিনেতা তৌসিফ!
বিয়ে করে বিপাকে অভিনেতা তৌসিফ!
উপহার পেয়েছিলেন মাত্র চারটি, এখন তাদের ছাগল-ভেড়া ৬৩টি
উপহার পেয়েছিলেন মাত্র চারটি, এখন তাদের ছাগল-ভেড়া ৬৩টি
রাজধানীতে বিক্রি হচ্ছে জমজমের পানি
রাজধানীতে বিক্রি হচ্ছে জমজমের পানি
কলকাতার দেয়ালে দেয়ালে তাসনিয়া: ফারিণের পাশে দাঁড়ালেন প্রসেনজিৎ
কলকাতার দেয়ালে দেয়ালে তাসনিয়া: ফারিণের পাশে দাঁড়ালেন প্রসেনজিৎ
প্রধানমন্ত্রী কুমিল্লা নামেই বিভাগ দিন: এমপি বাহার
প্রধানমন্ত্রী কুমিল্লা নামেই বিভাগ দিন: এমপি বাহার