X
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২
১২ আশ্বিন ১৪২৯

মায়ের দিকে দুবার গুলি ছোড়ে মাইনুল, একটি দেয়ালে আরেকটি চোখে

নাসির উদ্দিন রকি, চট্টগ্রাম
১৬ আগস্ট ২০২২, ২১:৩৬আপডেট : ১৬ আগস্ট ২০২২, ২১:৪৩

চট্টগ্রামের পটিয়ায় ছেলে মাইনুল ইসলামের ছোড়া গুলিতে প্রাণ হারানো জেসমিন আক্তার (৫৫) থাকতেন অস্ট্রেলিয়ায়। রোজার মধ্যে দেশে এসেছিলেন। গত ১৩ জুলাই হারিয়েছেন স্বামী শামসুল আলম মাস্টারকে। তিনি বীর মুক্তিযোদ্ধা, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট ও পটিয়া পৌরসভার প্রথম মেয়র ছিলেন। স্বামীর মৃত্যুর কারণে অস্ট্রেলিয়া যেতে বিলম্ব হয় জেসমিনের। আগামী ২ সেপ্টেম্বর অস্ট্রেলিয়ার প্লেন ধরার কথা ছিল। তবে মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) ছেলে মাইনুল ইসলামের (৩৫) গুলিতে নিহত হন তিনি।

নিহতের বড় মেয়ে ও হত্যাকারীর বোন শায়লা শারমিন নিপা দাবি করেন, ‘মাইনুল মাদকাসক্ত ছিল। বাবার রেখে যাওয়া সম্পত্তি নিজ নামে লিখে নিতে মাকে বাধ্য করতে গিয়ে গুলি করে।’

ভাইয়ের ছোড়া গুলিতে মা হারানো নিপা চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে কান্নাজড়িত কণ্ঠে বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমার মা সকালে সোনালী ব্যাংক পটিয়া শাখায় যান। বাবার ব্যাংক অ্যাকাউন্টের নমিনি ছিলেন মা। বাবার মৃত্যুর পর মা ব্যাংকে গিয়ে টাকা-পয়সা কত আছে তা যাচাই করেন। তিনি ব্যাংক থেকে দুপুরে বাড়িতে আসার পর মায়ের সঙ্গে ঝগড়া শুরু করে মাইনুল। সে বলে, তাকে না বলে কেন মা ব্যাংকে গেছে। এই নিয়ে ঝগড়া শুরু করে। এর মধ্যে সম্পত্তি যা আছে সবটুকু তার নামে লিখে দিতে চাপ দেয়। এতে মা রাজি না হলে অস্ত্র বের করে। প্রথম গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে ঘরের দেয়ালে লাগে। এরপর আরেকটি গুলি করে। সেটি মায়ের চোখে লাগে। ব্যাপক রক্তক্ষরণ হয়। গুলি করে মাইনুল পালিয়ে যায়। মাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘গত ১৩ জুলাই অসুস্থতার কারণে বাবা মারা যান। আমার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা শামসুল আলম মাস্টার। বাবার মৃত্যুর পর অত্যন্ত বেপরোয়া হয়ে ওঠে মাইনুল। মা-বাবার দুই ছেলে এক মেয়ের মধ্যে মাইনুল মেজো। ছোট ভাই মাশফিকুর রহমান মাশফি অস্ট্রেলিয়ায় থাকে। সেখানে লেখাপড়া করে। মাও অস্ট্রেলিয়ায় থাকেন। দেশে বেড়াতে এসেছেন।’

মাইনুল ইসলাম

নিহতের স্বজন মীর মোহাম্মদ এমদাদুল হক বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘জেসমিন আক্তার অস্ট্রেলিয়ায় থাকেন। গত ২০ রমজান তিনি দেশে আসেন। আগামী ২ সেপ্টেম্বর পুনরায় অস্ট্রেলিয়ায় চলে যাওয়ার কথা ছিল। আরও আগে যাওয়ার কথা ছিল। এর মধ্যে স্বামী শামসুল আলম মাস্টার মারা যাওয়ায় ঠিক সময়ে যেতে পারেননি। স্বামীর মৃত্যুর চল্লিশ দিন পর তিনি অস্ট্রেলিয়ায় চলে যেতেন।’

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) দুপুর পৌনে ২টার দিকে পটিয়া পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের নিজ ঘরে ছেলের গুলিতে নিহত হন জেসমিন আক্তার। মাইনুল চট্টগ্রামের চকবাজার এলাকায় থাকেন। তিনি বিবাহিত। যুবলীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছেন বলে এলাকার লোকজন দাবি করেন।

এদিকে, বিকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হকসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

পটিয়া থানার ওসি রেজাউল করিম মজুমদার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘বড় ছেলে মাইনুলের গুলিতেই নিহত হয়েছেন। গুলিটি লেগেছে বাম চোখে। ঘর থেকে কয়েকটি ব্যবহৃত গুলির খোসা ও তাজা গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে পলাতক মাইনুল ইসলাম। আমরা তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা করছি।’

ওসি আরও বলেন, ‘সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জেরেই এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে স্বজনরা জানিয়েছেন।’ 

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আলাউদ্দিন তালুকদার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তাকে হাসপাতালে আনা হয়। পরে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে।’

পটিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রাশেদুল ইসলাম বলেন, ‘মাইনুল ইসলামের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।’

/এফআর/
সম্পর্কিত
পুলিশ হেফাজতে লেবু মিয়ার মৃত্যু, কনস্টেবল প্রত্যাহার
পুলিশ হেফাজতে লেবু মিয়ার মৃত্যু, কনস্টেবল প্রত্যাহার
পুলিশ হেফাজতে বাবার মৃত্যু, থানায় লাশ রেখে পরীক্ষা দিলেন ২ সন্তান
পুলিশ হেফাজতে বাবার মৃত্যু, থানায় লাশ রেখে পরীক্ষা দিলেন ২ সন্তান
বীরগঞ্জে স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ
বীরগঞ্জে স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ
এসএসসি পরীক্ষা শেষে ঘরে এসে দেখলো মায়ের রক্তাক্ত লাশ
এসএসসি পরীক্ষা শেষে ঘরে এসে দেখলো মায়ের রক্তাক্ত লাশ
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
ইউক্রেনীয় ভূখণ্ডে শেষ হলো রাশিয়ার বিতর্কিত গণভোট
ইউক্রেনীয় ভূখণ্ডে শেষ হলো রাশিয়ার বিতর্কিত গণভোট
আ.লীগ নেতাকে ‘হত্যাকারী’ কিশোর আত্মহত্যা করেছে, দাবি পুলিশের
আ.লীগ নেতাকে ‘হত্যাকারী’ কিশোর আত্মহত্যা করেছে, দাবি পুলিশের
একসঙ্গে এত লাশ কখনও দেখেনি মাড়েয়া গ্রামের মানুষ
একসঙ্গে এত লাশ কখনও দেখেনি মাড়েয়া গ্রামের মানুষ
সেনা সমাবেশ শুরুর পর কাজাখস্তানে ঢুকেছে ৯৮ হাজার রুশ নাগরিক
সেনা সমাবেশ শুরুর পর কাজাখস্তানে ঢুকেছে ৯৮ হাজার রুশ নাগরিক
এ বিভাগের সর্বশেষ
পুলিশ হেফাজতে লেবু মিয়ার মৃত্যু, কনস্টেবল প্রত্যাহার
পুলিশ হেফাজতে লেবু মিয়ার মৃত্যু, কনস্টেবল প্রত্যাহার
পুলিশ হেফাজতে বাবার মৃত্যু, থানায় লাশ রেখে পরীক্ষা দিলেন ২ সন্তান
পুলিশ হেফাজতে বাবার মৃত্যু, থানায় লাশ রেখে পরীক্ষা দিলেন ২ সন্তান
বীরগঞ্জে স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ
বীরগঞ্জে স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ
এসএসসি পরীক্ষা শেষে ঘরে এসে দেখলো মায়ের রক্তাক্ত লাশ
এসএসসি পরীক্ষা শেষে ঘরে এসে দেখলো মায়ের রক্তাক্ত লাশ
সীমান্ত এলাকা থেকে আধা কেজি সোনাসহ যুবককে আটক
সীমান্ত এলাকা থেকে আধা কেজি সোনাসহ যুবককে আটক