X
শুক্রবার, ২৬ জুলাই ২০২৪
১০ শ্রাবণ ১৪৩১

খাগড়াছড়িতে বিজিবির ওপর হামলার ঘটনায় মামলা

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৯:১৮আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৯:১৮

খাগড়াছড়ির পানছড়িতে বিজিবির ওপর হামলা চালিয়ে টাকাসহ হুন্ডি ব্যবসায়ীকে ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে ও ৫০০/৬০০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে মামলা করা হয়েছে। সোমবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বিজিবির এক সদস্য বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

জানা গেছে, সাড়ে ১২ লাখ টাকাসহ দুই হুন্ডি ব্যবসায়ীকে আটকের জেরে রবিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) বিকালে খাগড়াছড়ির পানছড়িতে সন্ত্রাসীরা বিজিবির ওপর হামলা চালিয়ে ওই দুই হুন্ডি ব্যবসায়ীকে ছিনিয়ে নেয়। হামলায় ৯ বিজিবি সদস্য আহত হন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বিজিবি ১৩ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে। আটক করা হয়েছে এক সন্ত্রাসীকে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পানছড়ি থানার ওসি হারুনুর রশিদ।

বিজিবি ও স্থানীয় সূত্রগুলো জানিয়েছে, রবিবার সকাল ১০টার দিকে পানছড়ি ব্যাটালিয়ন (৩ বিজিবি) অধীনে লোগাং বিজিবি ক্যাম্পের সদস্যরা একটি বস্তা ও দুই যাত্রীসহ রেজিস্ট্রেশনবিহীন একটি মোটরসাইকেল আটক করে। পরে বস্তা তল্লাশি করে সাড়ে ১২ লাখ পাওয়া যায়। কিন্তু মোটরসাইকেল আরোহী রিংটু চাকমা ও ধনরঞ্জন চাকমা টাকার উৎস ও মালিকানা সম্পর্কে সঠিক তথ্য  দিতে ব্যর্থ হলে লোগাং বিজিবি ক্যাম্পের সুবেদার মোফাজ্জল হোসেন স্থানীয় তিন জনপ্রতিনিধির উপস্থিতিতে টাকাগুলো জব্দ করে এবং ওই দুই জনকে থানায় সোপর্দ করার জন্য নিয়ে আসে।

পথে পুজগাং বাজার এলাকায় ৫/৬ শতাধিক লোক লাঠিসোঁটা নিয়ে বিজিবির দুটি গাড়ির গতিরোধ করে। এক পর্যায়ে তারা হামলায় চালিয়ে টাকা ও আসামিদের ছিনিয়ে নেয় এবং গাড়িতে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে।

পানছড়ি ব্যাটালিয়নের (৩ বিজিবি) অধিনায়ক লে. কর্নেল এ কে এম আরিফুল ইসলাম জানান, রাষ্ট্রীয় ও জানমাল রক্ষার্থে বিজিবির সদস্যরা অন্তত ১৩ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং ঘটনাস্থল থেকে সুমন চাকমা নামে এক হামলাকারীকে আটক করে।

স্থানীয় সূত্রগুলো জানায়, রিংটু ও ধনরঞ্জন চাকমা পানছড়ি সীমান্ত এলাকায় সংঘবদ্ধ হুন্ডি ব্যবসায়ী চক্রের সদস্য।

/এফআর/
সম্পর্কিত
কোটা আন্দোলন ঘিরে নাশকতা: মুন্সীগঞ্জে ৯২ জনের বিরুদ্ধে মামলা
কোটা আন্দোলনে সহিংসতার অভিযোগে নীলফামারীতে চার মামলায় গ্রেফতার ৬২
পাঁচ বাস পোড়াতে ৪ লাখে চুক্তি, শ্রমিক লীগ নেতাসহ দুজন গ্রেফতার
সর্বশেষ খবর
অলিম্পিকে ৪০ বছরে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স যেমন ছিল
অলিম্পিকে ৪০ বছরে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স যেমন ছিল
জুমার নামাজ ঘিরে বাড়তি সতর্কতা
জুমার নামাজ ঘিরে বাড়তি সতর্কতা
এক দফা আন্দোলন সফলের আহ্বান ছাত্রদলের
এক দফা আন্দোলন সফলের আহ্বান ছাত্রদলের
শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে জাবি শিক্ষকের পদত্যাগ
শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে জাবি শিক্ষকের পদত্যাগ
সর্বাধিক পঠিত
নাটকীয় হারে আর্জেন্টিনার অলিম্পিক যাত্রা শুরু
নাটকীয় হারে আর্জেন্টিনার অলিম্পিক যাত্রা শুরু
মারা গেলেন ব্যান্ড তারকা শাফিন আহমেদ
মারা গেলেন ব্যান্ড তারকা শাফিন আহমেদ
যা ঘটেছিল নরসিংদী কারাগারে, যেভাবে পালালেন ৮২৬ বন্দি
যা ঘটেছিল নরসিংদী কারাগারে, যেভাবে পালালেন ৮২৬ বন্দি
বাংলাদেশে সাম্প্রতিক অস্থিরতা প্রসঙ্গে যা বলছে ভারত
বাংলাদেশে সাম্প্রতিক অস্থিরতা প্রসঙ্গে যা বলছে ভারত
এখনও আঁতকে ওঠেন যাত্রাবাড়ী, কাজলা ও শনির আখড়ার বাসিন্দারা
এখনও আঁতকে ওঠেন যাত্রাবাড়ী, কাজলা ও শনির আখড়ার বাসিন্দারা