X
সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪
১০ আষাঢ় ১৪৩১

ফিলিস্তিনের প্রতি সংহতি জানাতে গিয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম
০৬ মে ২০২৪, ২১:৪৫আপডেট : ০৬ মে ২০২৪, ২১:৪৫

স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা দাবির প্রতি সংহতি জানিয়ে চট্টগ্রাম মহসিন কলেজ ছাত্রলীগ আয়োজিত পদযাত্রা, পতাকা উত্তোলন ও সমাবেশ কর্মসূচি চলাকালে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ১০ থেকে ১২ জন আহত হয়েছেন। সোমবার (৬ মে) দুপুরে নগরীর চকবাজার থানাধীন মহসিন কলেজের সামনে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি শান্ত করে।

চকবাজার থানা ছাত্রলীগ কর্মীদের সঙ্গে মহসিন কলেজ ছাত্রলীগের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় মহসিন কলেজের বিএসএস ফাইনাল বর্ষের ছাত্র মফিজুর রহমান, বিবিএস তৃতীয় বর্ষের ছাত্র আরমান হোসাইন, চতুর্থ বর্ষের ছাত্র মোহাম্মদ তাকিব, ২য় বর্ষের আরবিন আরমান, বিএসএস তৃতীয় বর্ষের সাইদুল ইসলাম, বিবিএস ২য় বর্ষের রিমন, নাফিস ও অন্তর এবং এইচএসসি ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী শিহাব আহত হন। আহতদের কেউ কেউ প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

ফিলিস্তিনের প্রতি সংহতি জানাতে গিয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ

মহসিন কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আনোয়ার হোসেন পলাশ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, আজ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা দাবির প্রতি সংহতি জানিয়ে মহসিন কলেজ ছাত্রলীগের উদ্যোগে কলেজ প্রাঙ্গণে ফিলিস্তিনের পতাকা উত্তোলন ও পদযাত্রা করা হয়। তবে অনুষ্ঠান শেষে কলেজ ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতার সঙ্গে বহিরাগতদের বাগবিতণ্ডা হয়। এতে হাতাহাতি ও মারামারির ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি শান্ত করে। এতে কলেজের কমপক্ষে ১০-১২ ছাত্র আহত হন। আহতরা চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন ফার্মেসিতে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

চকবাজার থানাধীন চট্টগ্রাম কলেজ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. সরোয়ার বলেন, ফিলিস্তিন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার দাবির প্রতি সংহতি জানিয়ে মহসিন কলেজে অনুষ্ঠান ছিল। এরপর একই দাবিতে সিআরবিতে চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের আরেকটি অনুষ্ঠান ছিল। ওই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে মহসিন কলেজ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা প্রস্তুতি নিচ্ছিল। পরে গাড়ি ভাড়া করাকে কেন্দ্র করে তারা কলেজের বাইরে থাকা আরেকটি পক্ষের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে। এতে দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় কাউকে আটক করা হয়নি। 

/এফআর/
সম্পর্কিত
বেঁচে আছেন ইসরায়েলি সেনাদের জিপে বাঁধা ফিলিস্তিনি
হামাসের বিরুদ্ধে তীব্র লড়াই শেষের পথেনেতানিয়াহুর চোখ এখন লেবাননের দিকে
বাঘায় আ.লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষে আহত অর্ধশত
সর্বশেষ খবর
পদ্মায় গোসলে নেমে দুই ভাইসহ ৩ শিশুর মৃত্যু
পদ্মায় গোসলে নেমে দুই ভাইসহ ৩ শিশুর মৃত্যু
সুচিকিৎসা পাচ্ছেন বলেই খালেদা জিয়া এখনও সুস্থ আছেন: আইনমন্ত্রী
সুচিকিৎসা পাচ্ছেন বলেই খালেদা জিয়া এখনও সুস্থ আছেন: আইনমন্ত্রী
১০ মাসে বাংলাদেশ থেকে ভারতীয়রা নিয়ে গেছে ৫১ মিলিয়ন ডলার
সংসদে অর্থমন্ত্রী১০ মাসে বাংলাদেশ থেকে ভারতীয়রা নিয়ে গেছে ৫১ মিলিয়ন ডলার
ঘরোয়া উপায়ে খুশকি সামলাবেন যেভাবে
ঘরোয়া উপায়ে খুশকি সামলাবেন যেভাবে
সর্বাধিক পঠিত
ওসিকে ধাক্কা দিয়ে চাকরি হারালেন সেই এএসআই
ওসিকে ধাক্কা দিয়ে চাকরি হারালেন সেই এএসআই
আঠাবিহীন কাঁঠাল চাষে চমক, তিন মাসেই ফল, দেবে বারো মাস
আঠাবিহীন কাঁঠাল চাষে চমক, তিন মাসেই ফল, দেবে বারো মাস
‘কক্সবাজারে সেনানিবাস না থাকলে দখল করে নিতো আরাকান আর্মি’
‘কক্সবাজারে সেনানিবাস না থাকলে দখল করে নিতো আরাকান আর্মি’
৭৭ বছর পর ট্রেন যাবে কলকাতায়, রাজশাহীতে উচ্ছ্বাস
৭৭ বছর পর ট্রেন যাবে কলকাতায়, রাজশাহীতে উচ্ছ্বাস
‘জল্লাদ’ শাহজাহান মারা গেছেন
‘জল্লাদ’ শাহজাহান মারা গেছেন